নারায়ণগঞ্জ ০৬:৪৭ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৭ নভেম্বর ২০২২, ১৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

ফতুল্লায় জঙ্গি আস্তানা অভিযান : ৩ জেএমবি সদস্য আটক বিস্ফোরক সরঞ্জাম উদ্ধার

  • প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ১১:১০:৩৩ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯
  • ৫৭ বার পড়া হয়েছে

নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি : নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লায় জঙ্গি আস্তানায় অভিযান চালিয়ে নব্য জেএমবির তিন সদস্যকে আটক ও ডেটোনেটরসহ বিপুল পরিমাণ বিস্ফোরক সরঞ্জাম উদ্ধার করেছেন আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। অভিযান চলার সময় পর পর চারটি শক্তিশালী বোমা সিস্ফোরণের বিকট শব্ধে কেঁপে উঠে এলাকা।
সোমবার ফতুল্লার শিহারচর তক্কার মাঠ এলাকায় বাংলাদেশ ব্যাংকের অবসরপ্রাপ্ত ডিজিএম জয়নাল আবেদীনের বাড়িতে চলে এ অভিযান।
আটকরা হলো-বাড়ির মালিক জয়নাল আবেদীনের ছেলে ফরিদউদ্দিন রুমি (২৭),জামালউদ্দিন রফিক (২৩) ও ফরিদউদ্দিনের স্ত্রী জান্নাতুল ফুয়ারা অনু (২৭)।
এদের মধ্যে ফরিদউদ্দিন রুমি,ঢাকার আহসানউল্লাহ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের মেকানিক্যাল এবং প্রোডাকশন ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের শিক, তার স্ত্রী জান্নাতুল ফুয়ারা অনু অগ্রণী ব্যাংকের কর্মী আর ছোট ভাই জামাল উদ্দিন রফিক খুলনা প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিার্থী।
দুপুরে ঘটস্থল পরিদর্শন করেন, পুলিশের ঢাকা রেঞ্জের ডিআইজি হাবিবুর রহমান ও অতিরিক্ত ডিআইজি আসাদুজ্জামান, ডিএমপির সহকারী কমিশনার ও পুলিশের কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিট প্রধান মনিরুল ইসলামসহ ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাগণ।
নারায়ণগঞ্জ থেকেই পুলিশের উপর জঙ্গি হামলার পরিকল্পনা করা হচ্ছিল বলে জানান পুলিশের কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিট প্রধান মনিরুল ইসলাম। অভিযান শেষে বিকেলে সাংবাদিকদের ব্রিফিং করে তিনি এ তথ্য জানান। তিনি জানান, প্রথমে ঢাকা থেকে ফরিদউদ্দিন রুমিকে আটক করা হয়। তার দেয়া তথ্য মতে এই বাড়িতে অভিযান চালিয়ে তার স্ত্রী ও ভাইকে আটক করা হয়। তারা নব্য জেএমবির সদস্য বলে প্রাথমিকভাবে নিশ্চিত হওয়া গেছে। জিজ্ঞাসাবাদে তারা জানিয়েছে,একই এলাকায় তাদের আরেকটি পরিত্যক্ত টিনশেড বাড়িতে গোপনে জঙ্গি কার্যক্রম পরিচালিত হয়ে থাকে। পাশাপাশি বাড়িটিতে বোমা তৈরির ল্যাব আছে এবং ওইখানে বিপুল পরিমাণ বিস্ফোরক দ্রব্য ও বোমা তৈরির সরঞ্জাম মজুদ আছে। তাদের স্বীকারোক্তিতে ওই বাড়িতে বোমা বিশেষজ্ঞ দল ও রোবট পাঠিয়ে পর্যবেণ করে এর সত্যতা পাওয়া গেছে। তিনি জানান,যে বাড়িতে বোমা তৈরি করা হয় সেখানে আগে ৬টি টিনসেড কক্ষে ৬ টি পরিবার থাকতো। প্রায় ৭ মাস আগে বাড়িতে বহুতল ভবন করার কথা বলে বাড়ির মালিকের ছেলে সব ভাড়াটিয়াদের সরিয়ে দেয়। কিন্তু কোনো ভবন করা হয়নি। এ বাড়িতে প্রতিনিয়ত জঙ্গি সদস্যদের আনাগোনা ছিল। এখানে বসে বোমা তৈরি করে দেশের বিভিন্ন এলাকার জঙ্গিদের দেয়া হতো। তিনি আরো জানান,আগে রাজধানীতে পাঁচটি বাড়িতে অভিযান চালিয়ে যেসব বিস্ফোরক দ্রব্য পাওয়া গেছে এই অভিযানে একই আলামত মিলেছে। সম্প্রতি ঢাকায় ৫ টি জঙ্গি হামলা ও হামলার চেষ্টার সঙ্গে তাদের যোগসূত্র রয়েছে।
ফতুল্লাহ থানার ওসি আসলাম হোসেন জানান, জঙ্গি আস্তানা সন্দেহে সোমবার গভির রাত থেকেই ওই বাড়ি ঘিরে রাখে পুলিশের কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিট ও সোয়াত সদস্যরা।
নারায়ণগঞ্জ জেলা অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপরাধ) আবদুল্লাহ আল মামুন জানান, বাংলাদেশ ব্যাংকের অবসরপ্রাপ্ত উপ মহাব্যবস্থাপক (ডিজিএম) জয়নাল আবেদিনের দুইটি বাড়ি ঘেরাও করে কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিটের সদস্যরা। তাদেরকে জেলা পুলিশ সদস্যরাও সহযোগিতা করেছে।

এদিকে সকাল ১১ টা থেকে কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিট বিস্ফোরকের খুঁজে বাড়িতে তল্লাশী শুরু করে। একটি যন্ত্র ও রিমোট কন্ট্রোল চালিত একটি রোবট দিয়ে তল্লাশী করা হয়। পরে ভেতরে প্রবেশ করে বোম্ব ডিসপোজাল ইউনিট। বেলা ১২ টা ৫৫ মিনিটে হঠাৎ একটি বিস্ফোরণের বিকট শব্দ শোনা যায়। এর পর ১ টা ১০ মিনিট, ১ টা ২৪ মিনিট ২ টা ১১ মিনিটে আরো তিনটি মোবা বিস্ফোরণ ঘটে। এসময় পুরো এলাকা কেঁপে উঠে। ######

ফতুল্লায় বৃদ্ধার গলিত লাশ উদ্ধার

নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি :
নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লায় পানি বেষ্টিত একটি বাড়ি থেকে ৭০ বছরের বৃদ্ধার অর্ধগলিত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। গত রোববার রাত সাড়ে ৯ টার দিকে মুন্সিবাগ এলাকার একটি পরিত্যক্ত বাড়ি থেকে লাশটি উদ্ধার করা হয়।

নিহতের নাম নুরুন্নেছা বেগম। তিনি লক্ষিপুর জেলার জহিরপুর গ্রামের মৃত মোহাম্মদ হোসেনের স্ত্রী। সেন্ট মিয়ার ওই বাড়িতে বৃদ্ধা আধাপাকা ঘরে একাই থাকতেন।

ফতুল্লা থানার ওসি আসলাম হোসেন জানান, ওই বৃদ্ধা যে ঘরে থাকতেন তার চার পাশে হাটু পানি। ধারনা করা হচ্ছে রোগাক্রান্ত হয়ে তিনি ৪/৫ দিন আগে মারা গেছেন। বৃদ্ধার সন্তানরা তার কোন খোঁজ খবর নিতনা। দুর্গন্ধ পেয়ে স্থানীয়রা থানায় খবর দিলে পুলিশ গিয়ে লাশ উদ্ধার করে মর্গে পাঠিয়েছে। ময়না তদন্তের রিপোর্ট পেলে মৃত্যুর কারণ জানা যাবে।

ট্যাগস :

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

জনপ্রিয় সংবাদ

ফতুল্লায় জঙ্গি আস্তানা অভিযান : ৩ জেএমবি সদস্য আটক বিস্ফোরক সরঞ্জাম উদ্ধার

আপডেট সময় : ১১:১০:৩৩ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯

নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি : নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লায় জঙ্গি আস্তানায় অভিযান চালিয়ে নব্য জেএমবির তিন সদস্যকে আটক ও ডেটোনেটরসহ বিপুল পরিমাণ বিস্ফোরক সরঞ্জাম উদ্ধার করেছেন আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। অভিযান চলার সময় পর পর চারটি শক্তিশালী বোমা সিস্ফোরণের বিকট শব্ধে কেঁপে উঠে এলাকা।
সোমবার ফতুল্লার শিহারচর তক্কার মাঠ এলাকায় বাংলাদেশ ব্যাংকের অবসরপ্রাপ্ত ডিজিএম জয়নাল আবেদীনের বাড়িতে চলে এ অভিযান।
আটকরা হলো-বাড়ির মালিক জয়নাল আবেদীনের ছেলে ফরিদউদ্দিন রুমি (২৭),জামালউদ্দিন রফিক (২৩) ও ফরিদউদ্দিনের স্ত্রী জান্নাতুল ফুয়ারা অনু (২৭)।
এদের মধ্যে ফরিদউদ্দিন রুমি,ঢাকার আহসানউল্লাহ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের মেকানিক্যাল এবং প্রোডাকশন ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের শিক, তার স্ত্রী জান্নাতুল ফুয়ারা অনু অগ্রণী ব্যাংকের কর্মী আর ছোট ভাই জামাল উদ্দিন রফিক খুলনা প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিার্থী।
দুপুরে ঘটস্থল পরিদর্শন করেন, পুলিশের ঢাকা রেঞ্জের ডিআইজি হাবিবুর রহমান ও অতিরিক্ত ডিআইজি আসাদুজ্জামান, ডিএমপির সহকারী কমিশনার ও পুলিশের কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিট প্রধান মনিরুল ইসলামসহ ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাগণ।
নারায়ণগঞ্জ থেকেই পুলিশের উপর জঙ্গি হামলার পরিকল্পনা করা হচ্ছিল বলে জানান পুলিশের কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিট প্রধান মনিরুল ইসলাম। অভিযান শেষে বিকেলে সাংবাদিকদের ব্রিফিং করে তিনি এ তথ্য জানান। তিনি জানান, প্রথমে ঢাকা থেকে ফরিদউদ্দিন রুমিকে আটক করা হয়। তার দেয়া তথ্য মতে এই বাড়িতে অভিযান চালিয়ে তার স্ত্রী ও ভাইকে আটক করা হয়। তারা নব্য জেএমবির সদস্য বলে প্রাথমিকভাবে নিশ্চিত হওয়া গেছে। জিজ্ঞাসাবাদে তারা জানিয়েছে,একই এলাকায় তাদের আরেকটি পরিত্যক্ত টিনশেড বাড়িতে গোপনে জঙ্গি কার্যক্রম পরিচালিত হয়ে থাকে। পাশাপাশি বাড়িটিতে বোমা তৈরির ল্যাব আছে এবং ওইখানে বিপুল পরিমাণ বিস্ফোরক দ্রব্য ও বোমা তৈরির সরঞ্জাম মজুদ আছে। তাদের স্বীকারোক্তিতে ওই বাড়িতে বোমা বিশেষজ্ঞ দল ও রোবট পাঠিয়ে পর্যবেণ করে এর সত্যতা পাওয়া গেছে। তিনি জানান,যে বাড়িতে বোমা তৈরি করা হয় সেখানে আগে ৬টি টিনসেড কক্ষে ৬ টি পরিবার থাকতো। প্রায় ৭ মাস আগে বাড়িতে বহুতল ভবন করার কথা বলে বাড়ির মালিকের ছেলে সব ভাড়াটিয়াদের সরিয়ে দেয়। কিন্তু কোনো ভবন করা হয়নি। এ বাড়িতে প্রতিনিয়ত জঙ্গি সদস্যদের আনাগোনা ছিল। এখানে বসে বোমা তৈরি করে দেশের বিভিন্ন এলাকার জঙ্গিদের দেয়া হতো। তিনি আরো জানান,আগে রাজধানীতে পাঁচটি বাড়িতে অভিযান চালিয়ে যেসব বিস্ফোরক দ্রব্য পাওয়া গেছে এই অভিযানে একই আলামত মিলেছে। সম্প্রতি ঢাকায় ৫ টি জঙ্গি হামলা ও হামলার চেষ্টার সঙ্গে তাদের যোগসূত্র রয়েছে।
ফতুল্লাহ থানার ওসি আসলাম হোসেন জানান, জঙ্গি আস্তানা সন্দেহে সোমবার গভির রাত থেকেই ওই বাড়ি ঘিরে রাখে পুলিশের কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিট ও সোয়াত সদস্যরা।
নারায়ণগঞ্জ জেলা অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপরাধ) আবদুল্লাহ আল মামুন জানান, বাংলাদেশ ব্যাংকের অবসরপ্রাপ্ত উপ মহাব্যবস্থাপক (ডিজিএম) জয়নাল আবেদিনের দুইটি বাড়ি ঘেরাও করে কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিটের সদস্যরা। তাদেরকে জেলা পুলিশ সদস্যরাও সহযোগিতা করেছে।

এদিকে সকাল ১১ টা থেকে কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিট বিস্ফোরকের খুঁজে বাড়িতে তল্লাশী শুরু করে। একটি যন্ত্র ও রিমোট কন্ট্রোল চালিত একটি রোবট দিয়ে তল্লাশী করা হয়। পরে ভেতরে প্রবেশ করে বোম্ব ডিসপোজাল ইউনিট। বেলা ১২ টা ৫৫ মিনিটে হঠাৎ একটি বিস্ফোরণের বিকট শব্দ শোনা যায়। এর পর ১ টা ১০ মিনিট, ১ টা ২৪ মিনিট ২ টা ১১ মিনিটে আরো তিনটি মোবা বিস্ফোরণ ঘটে। এসময় পুরো এলাকা কেঁপে উঠে। ######

ফতুল্লায় বৃদ্ধার গলিত লাশ উদ্ধার

নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি :
নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লায় পানি বেষ্টিত একটি বাড়ি থেকে ৭০ বছরের বৃদ্ধার অর্ধগলিত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। গত রোববার রাত সাড়ে ৯ টার দিকে মুন্সিবাগ এলাকার একটি পরিত্যক্ত বাড়ি থেকে লাশটি উদ্ধার করা হয়।

নিহতের নাম নুরুন্নেছা বেগম। তিনি লক্ষিপুর জেলার জহিরপুর গ্রামের মৃত মোহাম্মদ হোসেনের স্ত্রী। সেন্ট মিয়ার ওই বাড়িতে বৃদ্ধা আধাপাকা ঘরে একাই থাকতেন।

ফতুল্লা থানার ওসি আসলাম হোসেন জানান, ওই বৃদ্ধা যে ঘরে থাকতেন তার চার পাশে হাটু পানি। ধারনা করা হচ্ছে রোগাক্রান্ত হয়ে তিনি ৪/৫ দিন আগে মারা গেছেন। বৃদ্ধার সন্তানরা তার কোন খোঁজ খবর নিতনা। দুর্গন্ধ পেয়ে স্থানীয়রা থানায় খবর দিলে পুলিশ গিয়ে লাশ উদ্ধার করে মর্গে পাঠিয়েছে। ময়না তদন্তের রিপোর্ট পেলে মৃত্যুর কারণ জানা যাবে।