নারায়ণগঞ্জ ০৯:৩৮ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ০২ ডিসেম্বর ২০২২, ১৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
সিদ্ধিরগঞ্জে নূর হাবিবের চাঁদাবাজিতে অতিষ্ট ব্যবসায়ীরা পোশাক রপ্তানিতে ভিয়েতনামকে ছাড়াল বাংলাদেশ ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ ট্রেন চলাচল বন্ধ ৪ ডিসেম্বর থেকে হিন্দি সিনেমায় জয়া আহসান, নায়ক পঙ্কজ ত্রিপাঠি গ্রুপ সেরা আর্জেন্টিনা, শেষ ষোলয় প্রতিপক্ষ অস্ট্রেলিয়া সিদ্ধিরগঞ্জে জয়নাল বাহিনীর ৪ জনের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ দায়ের সিদ্ধিরগঞ্জের সানারপাড় স্কুলে অনৈতিক আর্থিক সুবিধায় ক্ষমতার চেয়ারে শিক্ষিকা দিলরুবা রূপগঞ্জে ভুল চিকিৎসায় ৭ বছরের মাদ্রাসা পরুয়া শিশুর মৃত্যু ফতুল্লা ওসি’র কন্যা রাইসা জিপিএ ফাইভ পেয়েছেন সোনারগাঁয়ে টেক্সটাইল মিলে ও মিষ্টি কারখানায় ভয়াবহ অগ্নিকান্ড

মেয়র আইভীর বিরুদ্ধে জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রীর কাছে স্মারকলিপি

  • প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ১০:৫৮:০৬ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৯ মার্চ ২০১৯
  • ৬১ বার পড়া হয়েছে

স্টাফ রিপোর্টার : দেশব্যাপী আলোচিত সাগর-রুনি ও তনু হত্যাকান্ড নিয়ে নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের মেয়র ডাঃ সেলিনা হায়াত আইভীর সাম্প্রতিক বক্তব্যের পরিপ্রেক্ষিতে, তাকে জিজ্ঞাসাবাদের দাবী জানিয়ে জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রীর কাছে স্মারকলিপি প্রদান করেছেন নারায়ণগঞ্জ সচেতন নাগরিক সমাজ।

মঙ্গলবার দুপুরে জেলা প্রশাসক রাব্বী মিয়ার কাছে এ স্মারকলিপি প্রদান করেন সচেতন নাগরিক সমাজের পক্ষে নারায়ণগঞ্জ চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডস্ট্রির সভাপতি খালেদ হায়দার খান কাজল এবং জেলা আইনজীবি সমিতির সভাপতি এডভোকেট হাসান ফেরদৌস জুয়েল। নারায়ণগঞ্জের ২১টি নাগরিক সংগঠনের পক্ষ থেকে এ স্মারকলিপি প্রদান করা হয়। স্মারকলিপির সাথে এসব সংগঠনের কর্মকর্তা ও সদস্যদের স্বাক্ষরের অনুলিপিও প্রদান করা হয়। পাশাপাশি মেয়র আইভীর বিরুদ্ধে অভিযোগের বিষয়ে বিভিন্ন অডিও ভিডিও ফুটেজ তথ্য প্রমাণাদি হিসেবে সংযুক্ত করা হয়।

জেলা আইনজাীবি সমিতির সভাপতি এডভোকেট হাসান ফেরদৌস জুয়েল সাংবাদিকদের জানান, গত ৬ মার্চ নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের মেয়র ডা: সেলিনা হায়াৎ আইভী একটি সমাবেশে বক্তব্য রাখার সময় বলেন, সাগর-রুনি ও তনু হত্যার বিচার কেন হচ্ছে না তা তিনি জানেন। তাই তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করলে আইন শৃংখলা বাহিনী এই চাঞ্চল্যকর তিনটি হত্যাকান্ডের তথ্য সংগ্রহ করতে পারবে। এছাড়া বিভিন্ন সময় নারায়ণগঞ্জের বিশিষ্ট রাজনৈতিক পরিবার ওসমান পরিবারের বিরুদ্ধে মেয়র আইভী অপ্রাসংঙ্গিক বিষয় নিয়ে সমালোচনা করে নারায়ণগঞ্জের শান্তিপূর্ণ পরিবেশকে অশান্ত করে তুলছেন। এটা বন্ধ হওয়া দরকার। দেশের যুদ্ধাপরাধী সংগঠন জামাত-শিবিরের সাথে মেয়র আঈভীর সম্পৃক্ততা থাকারও অভিযোগ করা হয় স্মারকলিপিতে।

এসময় উপস্থিত ছিলেন, জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আবু হাসনাত মো: শহীদ বাদল, মহানগর আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট খোকন সাহা, জেলা মহিলা আওয়ামীলীগের সভাপতি অধ্যক্ষ শিরিন বেগম সহ ফতুল্লা, সিদ্ধিরগঞ্জ, সোনারগাও আওয়ামীলীগের নেতৃবৃন্দসহ সিটি করপোরেশনের কাউন্সিলর ও বিভিন্ন ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান এবং ব্যবসায়ী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

জেলা প্রশাসক রাব্বী মিয়া সচেতন নাগরিক সমাজের পক্ষ থেকে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর বরাবর স্মারকলিপি প্রদানের বিষয়টি স্বীকরা করে জানান, সেটি তিনি যথাযথ নিয়ম অনুযায়ী প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে প্রেরণ করবেন।

ট্যাগস :

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

সিদ্ধিরগঞ্জে নূর হাবিবের চাঁদাবাজিতে অতিষ্ট ব্যবসায়ীরা

মেয়র আইভীর বিরুদ্ধে জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রীর কাছে স্মারকলিপি

আপডেট সময় : ১০:৫৮:০৬ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৯ মার্চ ২০১৯

স্টাফ রিপোর্টার : দেশব্যাপী আলোচিত সাগর-রুনি ও তনু হত্যাকান্ড নিয়ে নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের মেয়র ডাঃ সেলিনা হায়াত আইভীর সাম্প্রতিক বক্তব্যের পরিপ্রেক্ষিতে, তাকে জিজ্ঞাসাবাদের দাবী জানিয়ে জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রীর কাছে স্মারকলিপি প্রদান করেছেন নারায়ণগঞ্জ সচেতন নাগরিক সমাজ।

মঙ্গলবার দুপুরে জেলা প্রশাসক রাব্বী মিয়ার কাছে এ স্মারকলিপি প্রদান করেন সচেতন নাগরিক সমাজের পক্ষে নারায়ণগঞ্জ চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডস্ট্রির সভাপতি খালেদ হায়দার খান কাজল এবং জেলা আইনজীবি সমিতির সভাপতি এডভোকেট হাসান ফেরদৌস জুয়েল। নারায়ণগঞ্জের ২১টি নাগরিক সংগঠনের পক্ষ থেকে এ স্মারকলিপি প্রদান করা হয়। স্মারকলিপির সাথে এসব সংগঠনের কর্মকর্তা ও সদস্যদের স্বাক্ষরের অনুলিপিও প্রদান করা হয়। পাশাপাশি মেয়র আইভীর বিরুদ্ধে অভিযোগের বিষয়ে বিভিন্ন অডিও ভিডিও ফুটেজ তথ্য প্রমাণাদি হিসেবে সংযুক্ত করা হয়।

জেলা আইনজাীবি সমিতির সভাপতি এডভোকেট হাসান ফেরদৌস জুয়েল সাংবাদিকদের জানান, গত ৬ মার্চ নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের মেয়র ডা: সেলিনা হায়াৎ আইভী একটি সমাবেশে বক্তব্য রাখার সময় বলেন, সাগর-রুনি ও তনু হত্যার বিচার কেন হচ্ছে না তা তিনি জানেন। তাই তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করলে আইন শৃংখলা বাহিনী এই চাঞ্চল্যকর তিনটি হত্যাকান্ডের তথ্য সংগ্রহ করতে পারবে। এছাড়া বিভিন্ন সময় নারায়ণগঞ্জের বিশিষ্ট রাজনৈতিক পরিবার ওসমান পরিবারের বিরুদ্ধে মেয়র আইভী অপ্রাসংঙ্গিক বিষয় নিয়ে সমালোচনা করে নারায়ণগঞ্জের শান্তিপূর্ণ পরিবেশকে অশান্ত করে তুলছেন। এটা বন্ধ হওয়া দরকার। দেশের যুদ্ধাপরাধী সংগঠন জামাত-শিবিরের সাথে মেয়র আঈভীর সম্পৃক্ততা থাকারও অভিযোগ করা হয় স্মারকলিপিতে।

এসময় উপস্থিত ছিলেন, জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আবু হাসনাত মো: শহীদ বাদল, মহানগর আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট খোকন সাহা, জেলা মহিলা আওয়ামীলীগের সভাপতি অধ্যক্ষ শিরিন বেগম সহ ফতুল্লা, সিদ্ধিরগঞ্জ, সোনারগাও আওয়ামীলীগের নেতৃবৃন্দসহ সিটি করপোরেশনের কাউন্সিলর ও বিভিন্ন ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান এবং ব্যবসায়ী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

জেলা প্রশাসক রাব্বী মিয়া সচেতন নাগরিক সমাজের পক্ষ থেকে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর বরাবর স্মারকলিপি প্রদানের বিষয়টি স্বীকরা করে জানান, সেটি তিনি যথাযথ নিয়ম অনুযায়ী প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে প্রেরণ করবেন।