নারায়ণগঞ্জ ০৬:১০ অপরাহ্ন, শনিবার, ০৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ২২ মাঘ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
মাইক্রোসফট ইনোভেটিভ এডুকেটর এক্সপার্ট বাংলাদেশ কমিউনিটি মিটআপ ২০২৩ অনুষ্ঠিত আদমজী ইপিজেডকে অশান্ত করছে জনপ্রতিনিধিরা রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের আশঙ্কা সিদ্ধিরগঞ্জ রিপোর্টার্স ক্লাবের কর্মকর্তাদের সাথে মহিলা লীগ নেত্রীর শুভেচ্ছা বিনিময় না’গঞ্জ কারাগারে হাজতীর মৃত্যু ফতুল্লায় চোরাইকৃত ট্যাংকলড়ী উদ্ধার আড়াইহাজারের মিথিলা টেক্সটাইল ঘুরে গেলেন ৮ দেশের রাষ্ট্রদূতসহ ১৮ দেশের প্রতিনিধি সিদ্ধিরগঞ্জ রিপোর্টার্স ক্লাবের কর্মকর্তাদের সাথে কাউন্সিলর ইকবাল হোসেনের মতবিনিময় ফতুল্লা ব্লাড ডোনার্সের উদ্যোগে শীতার্তদের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ শিক্ষা সিলেবাস বাতিলের দাবিতে খেলাফত মজলিসের বিক্ষোভ মিছিল সমাজতান্ত্রিক মহিলা ফোরামের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে শহরে নারী সমাবেশ ও মিছিল

বিনা ভোটে বিজয়ী হওয়ার স্বপ্নভঙ্গ বাদলের

  • প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ১১:৫০:১১ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ১৫ অক্টোবর ২০২১
  • ৫৮ বার পড়া হয়েছে

নূরুজ্জামান কাউসার : নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন নির্বাচন যতই ঘনিয়ে আসছে ৩ নং ওয়ার্ডে ততই রূপ পাল্টাচ্ছে। বিনা প্রতিদ্বন্ধীতায় বিজয়ী প্রত্যাশী বর্তমান কাউন্সিলর শাহজালাল বাদলকে হঠাতে দিন দিন বাড়ছে প্রার্থীর সংখ্যা। এপর্যন্ত ওই ওয়ার্ডে ৫ জন নির্বাচন করার ঘোষণা দিয়ে প্রচার প্রচারনা শুরু করেছেন। তবে প্রার্থীর সংখ্যা আরো বাড়তে পারে বলে বিভিন্ন সূত্রে জানা গেছে। ফলে বাদলের বিনা ভোটে বিজয়ী হওয়ার স্বপ্ন পুরন হচ্ছেনা।
আওয়ামীলীগ দলীয় সূত্রে জানা গেছে, বিএনপি জামায়াতের সাথে গোপন আতাঁত করে ৩ নং ওয়ার্ডে দুইবার কাউন্সিলর নির্বাচিত হয় সাত খুন মামলার প্রধান আসামি ফাঁসির দন্ডপ্রাপ্ত নূর হোসেনের ভাতিজা মূর্তমান আতঙ্ক ছাত্রলীগ নেতা শাহজালাল বাদল। চোর, ছিনতাইকারী, চাঁদাবাজ, মাদক ব্যবসা, কিশোর গ্যাংসহ বিশাল সন্ত্রাসী বাহিনী যার কব্জায়। রাস্তার উন্নয়নের নামে নিরীহ মানুষের বাড়ি ঘর ভেঙে কোটি কোটি টাকা হাতিয়ে নিয়ে বহু লোকের চোখে জল ঝড়িয়েছে কাউন্সিলর বাদল। সড়কের এক পাশের বাড়ির মালিকদের কাছ থেকে টাকা নিয়ে আরেক পাশের বাড়ি ভেঙেছে বাদল বাহিনী। তার এই অভিচারের কারণে চরম ক্ষোদ্ধ ভোটাররা। তাই ওয়ার্ডবাসী চায় পরিবর্তন। ভোটারদের মধ্যে পরিবর্তনের সুর উঠায় যোগ্যতাসম্পন্ন একাধিক প্রার্থী নির্বাচন করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে।
জানা গেছে, বর্তমান কাউন্সিলর শাহজালাল বাদলকে হঠাতে ইতোমধ্যে ৫ জন প্রার্থী নির্বাচন করার ঘোষণা দিয়ে প্রচার প্রচারণা শুরু করেছেন। তারা হলেন, মুক্তিনগর এলাকার ফররুক আহমেদ খসরু, আলমগীর হোসেন, প্রবীণ সাংবাদিক নূরুল আজিজ চৌধুরী, সানারপাড় এলাকার যুবলীগ নেতা তোফায়েল হোসেন, ও মহানগর শ্রমিকলীগের যুগ্নসাধারণ সম্পাদক মহিউদ্দিন মোল্লা। এছাড়াও আরো কয়েকজনের নাম শোনা যাচ্ছে। তবে তারা এখনো আনুষ্ঠানিক ঘোষণা দেননি। তফসিল ঘোষণার পর তারা মাঠে নামবেন বলে নির্ভরযোগ্য সূত্রে জানা গেছে। মাঠে নামা ৫ প্রার্থীর মধ্যে তোফায়েল, মহিউদ্দিন ও আলমগীর আগেও নির্বাচন করেছেন। খসরু ও নূরুল আজিজ চৌধরী নতুন মুখ। তারা দুজন নতুন হলেও যোগ্যতা সম্পন্ন। ফলে কাউন্সিলর বাদলের একক ভোটের আধিপত্য আর থাকছেনা। খসরু তার সুনাম ও যোগ্যকার কারণে বিবেকবান ভোটারের পছন্দের প্রার্থী। নূরুল আজিজ চৌধুরীর রয়েছে ব্যাপক পরিচিতি। তোফায়েল একজন হেভিয়েট প্রার্থী। মহিউদ্দিন সামাজিক কাজে নিয়োজিত থাকায় তার নিজস্ব ভোট ব্যাংক রয়েছে। আলমগীর গত নির্বাচনে ৫ শতাধিক ভোট পেরেও বাদলের নির্যাতনের কারণে এবার আরো এগিয়ে যাবে। সন্ত্রাসী কার্যকলাপের কারণে বাদলের প্রতি ওয়ার্ডবাসী ত্যক্ত বিরক্ত। তফসিল ঘোষনার আগেই বাদল বাহিনী প্রতিপক্ষকে এলাকায় নির্বাচনী পোষ্টার লাগেতে দিচ্ছেনা। প্রার্থীদের দিচ্ছে নানা হুমকি ধমকি। যা ভোটারদের মর্মাহত করছে। ফলে ভোটের ঘুর্ণিঝড়ে এবার তছনছ হতে যাচ্ছে বাদলের সাম্্রাজ্য।

ট্যাগস :

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

জনপ্রিয় সংবাদ

মাইক্রোসফট ইনোভেটিভ এডুকেটর এক্সপার্ট বাংলাদেশ কমিউনিটি মিটআপ ২০২৩ অনুষ্ঠিত

বিনা ভোটে বিজয়ী হওয়ার স্বপ্নভঙ্গ বাদলের

আপডেট সময় : ১১:৫০:১১ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ১৫ অক্টোবর ২০২১

নূরুজ্জামান কাউসার : নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন নির্বাচন যতই ঘনিয়ে আসছে ৩ নং ওয়ার্ডে ততই রূপ পাল্টাচ্ছে। বিনা প্রতিদ্বন্ধীতায় বিজয়ী প্রত্যাশী বর্তমান কাউন্সিলর শাহজালাল বাদলকে হঠাতে দিন দিন বাড়ছে প্রার্থীর সংখ্যা। এপর্যন্ত ওই ওয়ার্ডে ৫ জন নির্বাচন করার ঘোষণা দিয়ে প্রচার প্রচারনা শুরু করেছেন। তবে প্রার্থীর সংখ্যা আরো বাড়তে পারে বলে বিভিন্ন সূত্রে জানা গেছে। ফলে বাদলের বিনা ভোটে বিজয়ী হওয়ার স্বপ্ন পুরন হচ্ছেনা।
আওয়ামীলীগ দলীয় সূত্রে জানা গেছে, বিএনপি জামায়াতের সাথে গোপন আতাঁত করে ৩ নং ওয়ার্ডে দুইবার কাউন্সিলর নির্বাচিত হয় সাত খুন মামলার প্রধান আসামি ফাঁসির দন্ডপ্রাপ্ত নূর হোসেনের ভাতিজা মূর্তমান আতঙ্ক ছাত্রলীগ নেতা শাহজালাল বাদল। চোর, ছিনতাইকারী, চাঁদাবাজ, মাদক ব্যবসা, কিশোর গ্যাংসহ বিশাল সন্ত্রাসী বাহিনী যার কব্জায়। রাস্তার উন্নয়নের নামে নিরীহ মানুষের বাড়ি ঘর ভেঙে কোটি কোটি টাকা হাতিয়ে নিয়ে বহু লোকের চোখে জল ঝড়িয়েছে কাউন্সিলর বাদল। সড়কের এক পাশের বাড়ির মালিকদের কাছ থেকে টাকা নিয়ে আরেক পাশের বাড়ি ভেঙেছে বাদল বাহিনী। তার এই অভিচারের কারণে চরম ক্ষোদ্ধ ভোটাররা। তাই ওয়ার্ডবাসী চায় পরিবর্তন। ভোটারদের মধ্যে পরিবর্তনের সুর উঠায় যোগ্যতাসম্পন্ন একাধিক প্রার্থী নির্বাচন করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে।
জানা গেছে, বর্তমান কাউন্সিলর শাহজালাল বাদলকে হঠাতে ইতোমধ্যে ৫ জন প্রার্থী নির্বাচন করার ঘোষণা দিয়ে প্রচার প্রচারণা শুরু করেছেন। তারা হলেন, মুক্তিনগর এলাকার ফররুক আহমেদ খসরু, আলমগীর হোসেন, প্রবীণ সাংবাদিক নূরুল আজিজ চৌধুরী, সানারপাড় এলাকার যুবলীগ নেতা তোফায়েল হোসেন, ও মহানগর শ্রমিকলীগের যুগ্নসাধারণ সম্পাদক মহিউদ্দিন মোল্লা। এছাড়াও আরো কয়েকজনের নাম শোনা যাচ্ছে। তবে তারা এখনো আনুষ্ঠানিক ঘোষণা দেননি। তফসিল ঘোষণার পর তারা মাঠে নামবেন বলে নির্ভরযোগ্য সূত্রে জানা গেছে। মাঠে নামা ৫ প্রার্থীর মধ্যে তোফায়েল, মহিউদ্দিন ও আলমগীর আগেও নির্বাচন করেছেন। খসরু ও নূরুল আজিজ চৌধরী নতুন মুখ। তারা দুজন নতুন হলেও যোগ্যতা সম্পন্ন। ফলে কাউন্সিলর বাদলের একক ভোটের আধিপত্য আর থাকছেনা। খসরু তার সুনাম ও যোগ্যকার কারণে বিবেকবান ভোটারের পছন্দের প্রার্থী। নূরুল আজিজ চৌধুরীর রয়েছে ব্যাপক পরিচিতি। তোফায়েল একজন হেভিয়েট প্রার্থী। মহিউদ্দিন সামাজিক কাজে নিয়োজিত থাকায় তার নিজস্ব ভোট ব্যাংক রয়েছে। আলমগীর গত নির্বাচনে ৫ শতাধিক ভোট পেরেও বাদলের নির্যাতনের কারণে এবার আরো এগিয়ে যাবে। সন্ত্রাসী কার্যকলাপের কারণে বাদলের প্রতি ওয়ার্ডবাসী ত্যক্ত বিরক্ত। তফসিল ঘোষনার আগেই বাদল বাহিনী প্রতিপক্ষকে এলাকায় নির্বাচনী পোষ্টার লাগেতে দিচ্ছেনা। প্রার্থীদের দিচ্ছে নানা হুমকি ধমকি। যা ভোটারদের মর্মাহত করছে। ফলে ভোটের ঘুর্ণিঝড়ে এবার তছনছ হতে যাচ্ছে বাদলের সাম্্রাজ্য।