নারায়ণগঞ্জ ০৫:৪০ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ০৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ২৫ মাঘ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
অপরাধি যেই হোক ছাড় পাবেনা : ওসি গোলাম মোস্তফা মাইক্রোসফট ইনোভেটিভ এডুকেটর এক্সপার্ট বাংলাদেশ কমিউনিটি মিটআপ ২০২৩ অনুষ্ঠিত আদমজী ইপিজেডকে অশান্ত করছে জনপ্রতিনিধিরা রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের আশঙ্কা সিদ্ধিরগঞ্জ রিপোর্টার্স ক্লাবের কর্মকর্তাদের সাথে মহিলা লীগ নেত্রীর শুভেচ্ছা বিনিময় না’গঞ্জ কারাগারে হাজতীর মৃত্যু ফতুল্লায় চোরাইকৃত ট্যাংকলড়ী উদ্ধার আড়াইহাজারের মিথিলা টেক্সটাইল ঘুরে গেলেন ৮ দেশের রাষ্ট্রদূতসহ ১৮ দেশের প্রতিনিধি সিদ্ধিরগঞ্জ রিপোর্টার্স ক্লাবের কর্মকর্তাদের সাথে কাউন্সিলর ইকবাল হোসেনের মতবিনিময় ফতুল্লা ব্লাড ডোনার্সের উদ্যোগে শীতার্তদের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ শিক্ষা সিলেবাস বাতিলের দাবিতে খেলাফত মজলিসের বিক্ষোভ মিছিল

বিএনপিতে ফিরছে মতিন প্রধান এটা গুজব

  • প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০১:৩৪:১৯ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৮ অগাস্ট ২০২১
  • ২০৭ বার পড়া হয়েছে

সিদ্ধিরগঞ্জ প্রতিনিধি : সিদ্ধিরগঞ্জের আওয়ামীলীগ নেতা আলহাজ্ব আব্দুল মতিন প্রধানকে নিয়ে গুজব ছড়াচ্ছে একটি মহল। তিনি আওয়ামীলীগ ছেড়ে বিএনপিতে ফিরে যাচ্ছেন এমন কাল্পনিক প্রচারণাও চালানো হচ্ছে। রাজধানীর বিজয় নগরে মতিন প্রধানের মালিকানাধীন হোটেন-৭১ নারায়ণগঞ্জ জেলা বিএনপির আহবায়ক তৈমুর আলম খন্দকার ও সদস্য সচিব অধ্যাপক মামুন মহামুদসহ কিছু বিএনপির নেতাদের সাথে তার গোপন বৈঠক হওয়ার গুজব ছাড়াচ্ছে ওই মহলটি।
কাল্পনিক এসব গুজব ও প্রচার প্রচারনা কর্ণপাত না করার অনুরোধ জানিয়ে আব্দুল মতিন প্রধান বলেন, আওয়ামীলীগে আছি এবং আজীবন থাকব। তিনি বলেন, আমি হোটেল-৭১ এর মালিক। হোটেলে কে গেল না গেল এসব খোঁজ খবর আমি রাখিনা। নিয়ম অনুযায়ী হোটেলে কোন মিটিং করতে হলে আগাম কক্ষ বুকিং দিতে হয়। হোটেল ম্যানেজারের সাথে কথা বলে জানতে পারি ওই তারিখে মিটিং করার জন্য তৈমুর আলম খন্দকার বা অন্য কেহ কোন কক্ষ বুকিং করেনি। হোটেল-৭১ আমার বাস ভবন নয় যে এখানে গোপন বৈঠক হবে। হোটেলের কিছু নিয়ম কানন আছে তা কারো আজানা নয়। আমার সাথে বিএনপি নেতাদের গোপন বৈঠকের বিষয়টি অপপ্রচার।
আব্দুল মতিন প্রধান আরো বলেন, যেহেতু এটি একটি হোটেল তাই যে কেউ যেতে পারে। তবে বিএনপি নেতারা যখন গিয়েছিল তখন আমি হোটেলে ছিলাম না। তাদের সাথে আমার দেখাই হয়নি। যদি তারা হোটেলে খেতে গিয়ে থাকে তাতে আমার কিছু যায় আসেনা।
বিএনপির দলীয় সূত্রে জানা গেছে, হেফাজতে ইসলামের হরতালে নাশকতার ঘটনায় দায়ের করা মামলায় জেলা বিএনপির সদস্য সচিব অধ্যাপক মামুন মাহমুদকে আসামি করা হয়েছে। মামলা হওয়ার পর থেকে তিনি পলাতক রয়েছেন। তাই তিনি প্রকাশে আওমীলীগ নেতার হোটেলে গিয়ে গোপন বৈঠক করবেন বিষয়টি সন্দেহজনক।

ট্যাগস :

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

অপরাধি যেই হোক ছাড় পাবেনা : ওসি গোলাম মোস্তফা

বিএনপিতে ফিরছে মতিন প্রধান এটা গুজব

আপডেট সময় : ০১:৩৪:১৯ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৮ অগাস্ট ২০২১

সিদ্ধিরগঞ্জ প্রতিনিধি : সিদ্ধিরগঞ্জের আওয়ামীলীগ নেতা আলহাজ্ব আব্দুল মতিন প্রধানকে নিয়ে গুজব ছড়াচ্ছে একটি মহল। তিনি আওয়ামীলীগ ছেড়ে বিএনপিতে ফিরে যাচ্ছেন এমন কাল্পনিক প্রচারণাও চালানো হচ্ছে। রাজধানীর বিজয় নগরে মতিন প্রধানের মালিকানাধীন হোটেন-৭১ নারায়ণগঞ্জ জেলা বিএনপির আহবায়ক তৈমুর আলম খন্দকার ও সদস্য সচিব অধ্যাপক মামুন মহামুদসহ কিছু বিএনপির নেতাদের সাথে তার গোপন বৈঠক হওয়ার গুজব ছাড়াচ্ছে ওই মহলটি।
কাল্পনিক এসব গুজব ও প্রচার প্রচারনা কর্ণপাত না করার অনুরোধ জানিয়ে আব্দুল মতিন প্রধান বলেন, আওয়ামীলীগে আছি এবং আজীবন থাকব। তিনি বলেন, আমি হোটেল-৭১ এর মালিক। হোটেলে কে গেল না গেল এসব খোঁজ খবর আমি রাখিনা। নিয়ম অনুযায়ী হোটেলে কোন মিটিং করতে হলে আগাম কক্ষ বুকিং দিতে হয়। হোটেল ম্যানেজারের সাথে কথা বলে জানতে পারি ওই তারিখে মিটিং করার জন্য তৈমুর আলম খন্দকার বা অন্য কেহ কোন কক্ষ বুকিং করেনি। হোটেল-৭১ আমার বাস ভবন নয় যে এখানে গোপন বৈঠক হবে। হোটেলের কিছু নিয়ম কানন আছে তা কারো আজানা নয়। আমার সাথে বিএনপি নেতাদের গোপন বৈঠকের বিষয়টি অপপ্রচার।
আব্দুল মতিন প্রধান আরো বলেন, যেহেতু এটি একটি হোটেল তাই যে কেউ যেতে পারে। তবে বিএনপি নেতারা যখন গিয়েছিল তখন আমি হোটেলে ছিলাম না। তাদের সাথে আমার দেখাই হয়নি। যদি তারা হোটেলে খেতে গিয়ে থাকে তাতে আমার কিছু যায় আসেনা।
বিএনপির দলীয় সূত্রে জানা গেছে, হেফাজতে ইসলামের হরতালে নাশকতার ঘটনায় দায়ের করা মামলায় জেলা বিএনপির সদস্য সচিব অধ্যাপক মামুন মাহমুদকে আসামি করা হয়েছে। মামলা হওয়ার পর থেকে তিনি পলাতক রয়েছেন। তাই তিনি প্রকাশে আওমীলীগ নেতার হোটেলে গিয়ে গোপন বৈঠক করবেন বিষয়টি সন্দেহজনক।