নারায়ণগঞ্জ ১২:৫৭ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৩০ মে ২০২৪, ১৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
নাসিকের ময়লার গাড়ির ধাক্কায় গর্ভবতীর পোশাক শ্রমিক নিহত সোনারগাঁয়ের ১টি হত্যা মামলার প্রধান আসামিসহ দুজনকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-১১ নারায়ণগঞ্জে ৩টি উপজেলায় চেয়ারম্যান নির্বাচিত হলেন যারা গুণী জনদের পদচারণায়  উদযাপিত  দৈনিক আজকের নীর বাংলা পত্রিকা’র ১৫ তম  বর্ষপূর্তি সিদ্ধিরগঞ্জে রাজউকের অভিযানে ক্ষুব্ধ ভবন মালিকরা রেকমত আলী উচ্চ বিদ্যালয়ের মজিবুর রহমান সভাপতির দায়িত্ব নিয়েই শিক্ষার মান উন্নয়নের তাগিদ অস্ত্রের লাইসেন্সের আবেদন না করেও অপপ্রচারের শিকার মহিউদ্দিন মোল্লা ! সাংবাদিক শাওনের বাবা ফিরোজ আহমেদ আর নেই রিয়াদে জমকালো আয়োজনে মাই টিভির ১৫ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উদযাপন রিয়াদে প্রিমিয়াম ফুটবল লীগের ফাইনাল অনুষ্ঠিত

অস্ত্র ও ফেনসিডিলসহ গ্রেফতার পুলিশের এসআই কায়কোবাদসহ  দুই সহযোগির  চারদিনের রিমান্ড

  • প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ১০:৩০:৪১ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৩ মার্চ ২০২১
  • ২৯১ বার পড়া হয়েছে

শহর প্রতিনিধি  :  নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁও থেকে অস্ত্র ও ফেনসিডিলসহ গ্রেফতার আড়াইহাজার উপজেলার কালাপাহাড়িয়া পুলিশ ক্যাম্পের উপ-পরিদর্শক (এস আই) কায়কোবাদ পাঠান এবং তার দুই সহযোগি মাদক ব্যবসায়ীকে চারদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত। মঙ্গলবার দুপুরে পুলিশ আসামিদের নারায়ণগঞ্জের সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট মিল্টন হোসের আদলতে হাজির করে অস্ত্র ও মাদকের দুইটি মামলায় সাতদিন করে রিমান্ডের আবেদন করলে আদালত শুনানি শেষে দুইটি মামলায় প্রত্যেকের দুইদিন করে চারদিন রিমান্ড মঞ্জুর করেন। আদালত পুলিশের পরিদর্শক মো: আসাদুজ্জামান আসামিদের এই রিমান্ডের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। এর আগে সোমবার দুপুরে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে উপজেলার মেঘনা টোলপ্লাজা এলাকা থেকে ২৫ রাউন্ড গুলিসহ দুইটি বিদেশী পিস্তল ও ২শ’ ৪০ বোতল ফেনসিডিলসহ এস আই কায়কোবাদ পাঠান ও তার দুই সহযোগি মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার করে র‌্যাব-৩ ব্যাটালিয়ানের একটি দল।

পরে র‌্যাব বাদি হয়ে তাদের বিরুদ্ধে সোনারগাঁও থানায় অস্ত্র ও মাদক আইনে পৃথক দুইটি মামরা দায়ের করে। সেই মামলায় মঙ্গলবার সকালে এসআই কায়কোবাদসহ তিন আসামীকে আদালতে প্রেরণ করে থানা পুলিশ। র‌্যাব-৩ ব্যাটালিয়ানের সহকারি সুপার সুপার ও অপারেশন অফিসার ফারজানা হক গণমাধ্যম কর্মীদের জানান, চট্রগ্রাম থেকে মাদক নিয়ে এক ব্যবসায়ী ঢাকার দিকে আসছে এমন সংবাদ পেয়ে র‌্যাবের একটি টিম ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের মেঘনা টোলপ্লাজায় অবস্থান নেয়।

এসময় সন্দেহভাজন একটি সাদা প্রাইভটেকার টোল প্লাজা অতিক্রম করার সময় থামিয়ে তল্লাশি করা হয়। প্রাইভেট কারের পেছনের সিটে বসা ছিলেন কালাপাহাড়িয়া পুলিশ ফাড়ির এস আই কায়কোবাদ ও তার সহযোগী রবিন হোসেন। প্রাইভেটকারটির চালকের আসনে ছিলেন সোহেল মিয়া। এ সময় প্রাইভেট কারের ভেতরে তল্লাশি করে ২শ’ ৪০ বোতল ফেনসিডিল ও এস আই কায়কোবাদের কাছ থেকে ২৫ রাইন্ড গুলিসহ দুইটি বিদেশি পিস্তল জব্দ করা হয়।

র‌্যাবের একটি সুত্র জানায়, আড়াইহাজারের কালাপাহাড়িয়া পুলিশ ফাঁড়ির সাব-ইন্সপেক্টর (এস আই) কায়কোবাদ দীর্ঘদিন ধরে নদী পরিবেষ্টিত দূর্গম চরাঞ্চল কালাপাহাড়িয়া এলাকাসহ পাশ্ববর্তী ব্রাহ্মণবাড়িয়া, কুমিল্লার বাঞ্ছারামপুর, হোমনা ও মেঘনা থানাসহ বিভিন্ন এলাকায় নেটওয়ার্ক গড়ে তুলে মাদক ব্যবসা পরিচালনা করে আসছিলো।

এ ব্যাপারে র‌্যাবের টিআই মোকলেসুর রহমান বাদি হয়ে এস আই কায়কোবাদসহ তিনজনকে আসামি করে সোনারগাঁ থানায় মাদক ও অস্ত্র আইনে একটি মামলা দায়ের করেছেন। সকালে ওই মামলায় সোনারগাঁও থানা পুলিশ তিন আসামীকে আদালতে প্রেরণ করেছেন।

বিষয়টি স্বীকার করে সোনারগাঁও থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রফিকুল ইসলাম  বলেন, র‌্যাবের দায়ের করা মাদক ও অস্ত্র মামলায় পুলিশের এস আইসহ তিন আসামীকে আরো জিজ্ঞাসাবাদের জন্য প্রত্যেকের সাতদিন করে রিমান্ডের আবেদন করে আদলতে পাঠানো হয়েছে।

আদলত তাদের চারদিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন। এ ব্যাপারে আসামিদের আরো জিজ্ঞাসাবাদ করে তদন্ত সাপেক্ষে পরবর্তী ব্যবস্থা নেয়া হবে। (ছবিতে লাল টি শার্ট পড়া ব্যক্তি পুলিশের এস আই কায়কোবাদ পাঠান)

ট্যাগস :

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

নাসিকের ময়লার গাড়ির ধাক্কায় গর্ভবতীর পোশাক শ্রমিক নিহত

অস্ত্র ও ফেনসিডিলসহ গ্রেফতার পুলিশের এসআই কায়কোবাদসহ  দুই সহযোগির  চারদিনের রিমান্ড

আপডেট সময় : ১০:৩০:৪১ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৩ মার্চ ২০২১

শহর প্রতিনিধি  :  নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁও থেকে অস্ত্র ও ফেনসিডিলসহ গ্রেফতার আড়াইহাজার উপজেলার কালাপাহাড়িয়া পুলিশ ক্যাম্পের উপ-পরিদর্শক (এস আই) কায়কোবাদ পাঠান এবং তার দুই সহযোগি মাদক ব্যবসায়ীকে চারদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত। মঙ্গলবার দুপুরে পুলিশ আসামিদের নারায়ণগঞ্জের সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট মিল্টন হোসের আদলতে হাজির করে অস্ত্র ও মাদকের দুইটি মামলায় সাতদিন করে রিমান্ডের আবেদন করলে আদালত শুনানি শেষে দুইটি মামলায় প্রত্যেকের দুইদিন করে চারদিন রিমান্ড মঞ্জুর করেন। আদালত পুলিশের পরিদর্শক মো: আসাদুজ্জামান আসামিদের এই রিমান্ডের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। এর আগে সোমবার দুপুরে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে উপজেলার মেঘনা টোলপ্লাজা এলাকা থেকে ২৫ রাউন্ড গুলিসহ দুইটি বিদেশী পিস্তল ও ২শ’ ৪০ বোতল ফেনসিডিলসহ এস আই কায়কোবাদ পাঠান ও তার দুই সহযোগি মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার করে র‌্যাব-৩ ব্যাটালিয়ানের একটি দল।

পরে র‌্যাব বাদি হয়ে তাদের বিরুদ্ধে সোনারগাঁও থানায় অস্ত্র ও মাদক আইনে পৃথক দুইটি মামরা দায়ের করে। সেই মামলায় মঙ্গলবার সকালে এসআই কায়কোবাদসহ তিন আসামীকে আদালতে প্রেরণ করে থানা পুলিশ। র‌্যাব-৩ ব্যাটালিয়ানের সহকারি সুপার সুপার ও অপারেশন অফিসার ফারজানা হক গণমাধ্যম কর্মীদের জানান, চট্রগ্রাম থেকে মাদক নিয়ে এক ব্যবসায়ী ঢাকার দিকে আসছে এমন সংবাদ পেয়ে র‌্যাবের একটি টিম ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের মেঘনা টোলপ্লাজায় অবস্থান নেয়।

এসময় সন্দেহভাজন একটি সাদা প্রাইভটেকার টোল প্লাজা অতিক্রম করার সময় থামিয়ে তল্লাশি করা হয়। প্রাইভেট কারের পেছনের সিটে বসা ছিলেন কালাপাহাড়িয়া পুলিশ ফাড়ির এস আই কায়কোবাদ ও তার সহযোগী রবিন হোসেন। প্রাইভেটকারটির চালকের আসনে ছিলেন সোহেল মিয়া। এ সময় প্রাইভেট কারের ভেতরে তল্লাশি করে ২শ’ ৪০ বোতল ফেনসিডিল ও এস আই কায়কোবাদের কাছ থেকে ২৫ রাইন্ড গুলিসহ দুইটি বিদেশি পিস্তল জব্দ করা হয়।

র‌্যাবের একটি সুত্র জানায়, আড়াইহাজারের কালাপাহাড়িয়া পুলিশ ফাঁড়ির সাব-ইন্সপেক্টর (এস আই) কায়কোবাদ দীর্ঘদিন ধরে নদী পরিবেষ্টিত দূর্গম চরাঞ্চল কালাপাহাড়িয়া এলাকাসহ পাশ্ববর্তী ব্রাহ্মণবাড়িয়া, কুমিল্লার বাঞ্ছারামপুর, হোমনা ও মেঘনা থানাসহ বিভিন্ন এলাকায় নেটওয়ার্ক গড়ে তুলে মাদক ব্যবসা পরিচালনা করে আসছিলো।

এ ব্যাপারে র‌্যাবের টিআই মোকলেসুর রহমান বাদি হয়ে এস আই কায়কোবাদসহ তিনজনকে আসামি করে সোনারগাঁ থানায় মাদক ও অস্ত্র আইনে একটি মামলা দায়ের করেছেন। সকালে ওই মামলায় সোনারগাঁও থানা পুলিশ তিন আসামীকে আদালতে প্রেরণ করেছেন।

বিষয়টি স্বীকার করে সোনারগাঁও থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রফিকুল ইসলাম  বলেন, র‌্যাবের দায়ের করা মাদক ও অস্ত্র মামলায় পুলিশের এস আইসহ তিন আসামীকে আরো জিজ্ঞাসাবাদের জন্য প্রত্যেকের সাতদিন করে রিমান্ডের আবেদন করে আদলতে পাঠানো হয়েছে।

আদলত তাদের চারদিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন। এ ব্যাপারে আসামিদের আরো জিজ্ঞাসাবাদ করে তদন্ত সাপেক্ষে পরবর্তী ব্যবস্থা নেয়া হবে। (ছবিতে লাল টি শার্ট পড়া ব্যক্তি পুলিশের এস আই কায়কোবাদ পাঠান)