নারায়ণগঞ্জ ১২:৪৩ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ৩০ নভেম্বর ২০২২, ১৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
সোনারগাঁয়ে টেক্সটাইল মিলে ও মিষ্টি কারখানায় ভয়াবহ অগ্নিকান্ড ফতুল্লায় অপহরনকারী চক্রের নারী সদস্যসহ গ্রেপ্তার ৫, অপহৃত উদ্ধার ১৩৯ জন শহীদদের স্মরণে বক্তাবলী ইউনিয়ন ছাত্রদলের শ্রদ্ধাঞ্জলি আড়াইহাজারে ড্রেজার দিয়ে অবৈধভাবে মাটি বিক্রি, নির্বাহী অফিসারের নিকট লিখিত অভিযোগ আড়াইহাজারে পরীক্ষার হল থেকে ছাত্রীকে নিয়ে উধাও ছাত্রলীগ নেতা দুই মাসের মধ্যে হাইড্রোলিক হর্ন বন্ধের সিদ্ধান্ত জাপান, সৌদি আরবের পর এবার গ্যালারি পরিষ্কার করল মরক্কোর দর্শকরা শিমু হত্যায় স্বামীসহ দুই জনের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন ২৬ শর্তে বিএনপিকে ঢাকায় সমাবেশের অনুমতি সোনারগাঁয়ে মহাসড়ক বর্ধিতকরণকাজে জনদুর্ভোগ চরমে

জেএমবির দণিাঞ্চলের প্রধান তরিকুলকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-১১

  • প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৯:০৪:২৭ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ৩০ মার্চ ২০১৯
  • ৩৭ বার পড়া হয়েছে

সিদ্ধিরগঞ্জ প্রতিনিধি :নিষিদ্ধ ঘোষিত জঙ্গী সংগঠন জেএমবির দক্ষিণাঞ্চলের প্রধান মো: তরিকুল ওরফে নাজমুস সাকিবকে (৩০) গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-১১। নারায়ণগঞ্জ সদর মডেল থানার ১ নং লঞ্চঘাট এলাকায় ২৯ মার্চ রাতে অভিযান চালিয়ে র‌্যাব তাকে গ্রেফতার করে। উদ্ধার করা হয়েছে বিভিন্ন উগ্রবাদী বই, লিফলেট, প্রশিক্ষণ ম্যানুয়াল ও ১ টি চাপাতি। তার বিরুদ্ধে সন্ত্রাস বিরোধী ও বিস্ফোরক দ্রব্য আইনে বাগেরহাটে কচুয়া,ডিএমপি যাত্রাবাড়ী, নরসিংদী সদর ও নারায়ণগঞ্জ জেলার বিভিন্ন থানাসহ মোট ৮ টি মামলা রয়েছে।

সিদ্ধিরগঞ্জের আদমজীতে অবস্থিত র‌্যাব-১১ সদর দপ্তরে শনিবার দুপুরে সংবাদিক সম্মেলনে র‌্যাব অধিনায়ক জানায়, ইতিপূর্বে গ্রেফতারকৃত জেএমবি সদস্যদের কাছ থেকে প্রাপ্ত তর্থের ভিত্তিতে গোপন সূত্রে তরিকুল ইসলামের অবস্থান নিশ্চিত হয়ে র‌্যাবের একটি অভিযানিক দল তাকে গ্রেফতার করে। ধৃত তরিকুল ২ হাজার ৪ সালে বাগেরহাট জেলার কচুয়া থানার মাধবকাঠি আহমাদিয়া ফাজিল মাদ্রাসা হতে দাখিল, ২ হাজার ৬ সালে খুলনা সিদ্দিকীয়া কামিল মাদ্রাসা হতে আলিম, ২ হাজার ১০ সালে ঢাকার মদিনাতুল উলুম বালক কামিল মাদ্রাসা হতে ফাজিল এবং ২ হাজার ১৩ সালে কামিল পাশ করে। এরই পাশাপাশি ২ হাজার ১১ সালে আহসান উলাহ ইউনির্ভাসিটি সায়েন্স এন্ড টেকনোলজি থেকে বিবিএ পাশ করে এবং ২ হাজার ১৩ সালে এমবিএ তে অধ্যায়নরত থাকাকালীন সময়ে জসিম উদ্দিন রাহমানির বয়ান শোনে উগ্রবাদী চেতনা জাগ্রত হয়। ঐ সময় তৎকালিন জেএমবির দণিাঞ্চলের প্রধান জেএমবি নেতা আব্দুলাহ আল মামুনের সাথে তার পরিচয় হয়। আব্দুলাহ আল মামুন এর মাধ্যমে ২ হাজার ১৩ সালে সাকিব জেএমবিতে যোগদান করে।

র‌্যাব অধিনায়ক আরো জানান, ২ হাজার ১৬ সালে বাগেরহাট জেলা পুলিশের সাথে বন্দুক যুদ্ধে আব্দুলাহ আল মামুন নিহত জেএমবির দক্ষিণাঞ্চলীয় প্রধান হয় তরিকুল। দায়িত্ব পাওয়ার পর খুলনা, বাগেরহাট, বরগুনা, পিরোজপুর, যশোরসহ দেশের বিভিন্ন এলাকায় জেএমবির কর্মী সংখ্যা বাড়ানোর তৎপরতা শুরু করে। তার মাধ্যমে মাহবুবুর রহমান উকিল, কাইয়ুম হাওলাদার, কাউছার বিন হালিম, হামদান বিন ফিরোজ, মামদুদুর রহমান মিশু, কামরুল, ইউনুছসহ বিভিন্ন পর্যায়ের প্রায় ৫০ জন সদস্য জেএমবিতে যোগদেয়। এদের অধিকাংশ সদস্যকে বিভিন্ন সময়ে আইন শৃংখলা বাহিনী কর্তৃক গ্রেফতার করা হয়। তিনি আরো জানান, প্রথম পর্যায়ে সে জেএমবির সামরিক শাখার সদস্য ছিল এবং জামালপুরের যমুনা নদীর চর, আব্দুলাহ আল মামুনের বাসার ছাদসহ বিভিন্ন জায়গায় জেএমবির অস্ত্র প্রশিণ নিয়েছিল। ২ হাজার ১৭ সালে আইন শৃংখলা বাহিনীর ব্যাপক তৎপরতা শুরু হলে সাকিব ঢাকায় এসে আতœগোপন করে। তার দায়িত্বপূর্ণ এলাকা দণিাঞ্চলের পাশাপাশি ঢাকা ও আশেপাশের জেলা গুলোতে জেএমবির দাওয়াতি কাজে মনোনিবেশ করে সম্পূর্ণ নতুন ভাবে সদস্য সংগ্রহ করে সংগঠনকে পূর্ণগঠনের চেষ্টা করে। জেএমবিকে পূর্ণগঠিত করার জন্য অস্ত্র সংগ্রহের প্রচেষ্টা অব্যাহত রেখেছে এবং জামালপুর জেলার যমুনা নদীর চরে জেএমবির নতুন ১টি প্রশিণ শিবির খোলার কথা ছিল বলে তরিকুল রাবের কাছে স্বীকার করেছে। তার বিরুদ্ধে আইনানুগ কার্যক্রম প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।

ট্যাগস :

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

সোনারগাঁয়ে টেক্সটাইল মিলে ও মিষ্টি কারখানায় ভয়াবহ অগ্নিকান্ড

জেএমবির দণিাঞ্চলের প্রধান তরিকুলকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-১১

আপডেট সময় : ০৯:০৪:২৭ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ৩০ মার্চ ২০১৯

সিদ্ধিরগঞ্জ প্রতিনিধি :নিষিদ্ধ ঘোষিত জঙ্গী সংগঠন জেএমবির দক্ষিণাঞ্চলের প্রধান মো: তরিকুল ওরফে নাজমুস সাকিবকে (৩০) গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-১১। নারায়ণগঞ্জ সদর মডেল থানার ১ নং লঞ্চঘাট এলাকায় ২৯ মার্চ রাতে অভিযান চালিয়ে র‌্যাব তাকে গ্রেফতার করে। উদ্ধার করা হয়েছে বিভিন্ন উগ্রবাদী বই, লিফলেট, প্রশিক্ষণ ম্যানুয়াল ও ১ টি চাপাতি। তার বিরুদ্ধে সন্ত্রাস বিরোধী ও বিস্ফোরক দ্রব্য আইনে বাগেরহাটে কচুয়া,ডিএমপি যাত্রাবাড়ী, নরসিংদী সদর ও নারায়ণগঞ্জ জেলার বিভিন্ন থানাসহ মোট ৮ টি মামলা রয়েছে।

সিদ্ধিরগঞ্জের আদমজীতে অবস্থিত র‌্যাব-১১ সদর দপ্তরে শনিবার দুপুরে সংবাদিক সম্মেলনে র‌্যাব অধিনায়ক জানায়, ইতিপূর্বে গ্রেফতারকৃত জেএমবি সদস্যদের কাছ থেকে প্রাপ্ত তর্থের ভিত্তিতে গোপন সূত্রে তরিকুল ইসলামের অবস্থান নিশ্চিত হয়ে র‌্যাবের একটি অভিযানিক দল তাকে গ্রেফতার করে। ধৃত তরিকুল ২ হাজার ৪ সালে বাগেরহাট জেলার কচুয়া থানার মাধবকাঠি আহমাদিয়া ফাজিল মাদ্রাসা হতে দাখিল, ২ হাজার ৬ সালে খুলনা সিদ্দিকীয়া কামিল মাদ্রাসা হতে আলিম, ২ হাজার ১০ সালে ঢাকার মদিনাতুল উলুম বালক কামিল মাদ্রাসা হতে ফাজিল এবং ২ হাজার ১৩ সালে কামিল পাশ করে। এরই পাশাপাশি ২ হাজার ১১ সালে আহসান উলাহ ইউনির্ভাসিটি সায়েন্স এন্ড টেকনোলজি থেকে বিবিএ পাশ করে এবং ২ হাজার ১৩ সালে এমবিএ তে অধ্যায়নরত থাকাকালীন সময়ে জসিম উদ্দিন রাহমানির বয়ান শোনে উগ্রবাদী চেতনা জাগ্রত হয়। ঐ সময় তৎকালিন জেএমবির দণিাঞ্চলের প্রধান জেএমবি নেতা আব্দুলাহ আল মামুনের সাথে তার পরিচয় হয়। আব্দুলাহ আল মামুন এর মাধ্যমে ২ হাজার ১৩ সালে সাকিব জেএমবিতে যোগদান করে।

র‌্যাব অধিনায়ক আরো জানান, ২ হাজার ১৬ সালে বাগেরহাট জেলা পুলিশের সাথে বন্দুক যুদ্ধে আব্দুলাহ আল মামুন নিহত জেএমবির দক্ষিণাঞ্চলীয় প্রধান হয় তরিকুল। দায়িত্ব পাওয়ার পর খুলনা, বাগেরহাট, বরগুনা, পিরোজপুর, যশোরসহ দেশের বিভিন্ন এলাকায় জেএমবির কর্মী সংখ্যা বাড়ানোর তৎপরতা শুরু করে। তার মাধ্যমে মাহবুবুর রহমান উকিল, কাইয়ুম হাওলাদার, কাউছার বিন হালিম, হামদান বিন ফিরোজ, মামদুদুর রহমান মিশু, কামরুল, ইউনুছসহ বিভিন্ন পর্যায়ের প্রায় ৫০ জন সদস্য জেএমবিতে যোগদেয়। এদের অধিকাংশ সদস্যকে বিভিন্ন সময়ে আইন শৃংখলা বাহিনী কর্তৃক গ্রেফতার করা হয়। তিনি আরো জানান, প্রথম পর্যায়ে সে জেএমবির সামরিক শাখার সদস্য ছিল এবং জামালপুরের যমুনা নদীর চর, আব্দুলাহ আল মামুনের বাসার ছাদসহ বিভিন্ন জায়গায় জেএমবির অস্ত্র প্রশিণ নিয়েছিল। ২ হাজার ১৭ সালে আইন শৃংখলা বাহিনীর ব্যাপক তৎপরতা শুরু হলে সাকিব ঢাকায় এসে আতœগোপন করে। তার দায়িত্বপূর্ণ এলাকা দণিাঞ্চলের পাশাপাশি ঢাকা ও আশেপাশের জেলা গুলোতে জেএমবির দাওয়াতি কাজে মনোনিবেশ করে সম্পূর্ণ নতুন ভাবে সদস্য সংগ্রহ করে সংগঠনকে পূর্ণগঠনের চেষ্টা করে। জেএমবিকে পূর্ণগঠিত করার জন্য অস্ত্র সংগ্রহের প্রচেষ্টা অব্যাহত রেখেছে এবং জামালপুর জেলার যমুনা নদীর চরে জেএমবির নতুন ১টি প্রশিণ শিবির খোলার কথা ছিল বলে তরিকুল রাবের কাছে স্বীকার করেছে। তার বিরুদ্ধে আইনানুগ কার্যক্রম প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।