নারায়ণগঞ্জ ১১:০৯ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২০ জুন ২০২৪, ৬ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
সোনারগাঁওয়ে কৃতি শিক্ষার্থীদের সংবর্ধনা অনুষ্ঠিত সিদ্ধিরগঞ্জে ৪টি কারখানার অবৈধ গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্ন হারামের পয়সা ব্যারামে খায় ,আমি হারাম খাই না খেতেও দেই না-সেলিম ওসমান ভূমি সম্পর্কিত সমস্যা থাকলে গণশুনানিতে আসার আহবান- না.গঞ্জে জেলা  প্রশাসক সিদ্ধিরগঞ্জে গ্যাসের দাবিতে ঢাকা-চটগ্রাম মহাসড়ক অবরোধ সোনারগাঁওয়ে জাতীয় শিক্ষা সপ্তাহ ২০২৪ অনুষ্ঠিত র‌্যাব পরিচয়ে ৫২ লাখ টাকা ছিনতাইয়ের ঘটনায় গ্রেফতার-৪ সিদ্ধিরগঞ্জে কাতার প্রবাসীর বাড়িতে ডাকাতি চিকিৎসার নামে কোনো প্রকার হয়রানি মেনে নেওয়া হবে না ঃ স্বাস্থ্যমন্ত্রী নাসিকের ময়লার গাড়ির ধাক্কায় গর্ভবতীর পোশাক শ্রমিক নিহত

নারী পুরুষের ঐক্যবদ্ধ প্রচেষ্টায় দেশ এগিয়ে যাচ্ছে

  • প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৮:৪৩:০৮ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ৯ ডিসেম্বর ২০১৭
  • ১৬৮ বার পড়া হয়েছে

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, নারী পুরুষ সবাই মিলে একসঙ্গে কাজ করার ফলে দেশ অাজ এগিয়ে যাচ্ছে। দেশ পরিচালনায় বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ পদে অাজ নারীরা অধিষ্ঠিত। তিনি বলেন, নারীদের উন্নয়নে বেগম রোকেয়া যে স্বপ্ন দেখেছিলেন অামরা তার স্বপ্ন অনেকটা পূরণ করেছি। সবাই ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করে দেশকে অারও এগিয়ে নিতে হবে।

শনিবার ওসমানি স্মৃতি মিলনায়তনে বেগম রোকেয়া পদক প্রদান অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয় অায়োজিত এ অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী মেহের অাফরোজ চুমকি। অনুষ্ঠানের শুরুতে পবিত্র কোরঅান, গীতা, ত্রিপেটক ও বাইবেল থেকে পাঠ করা হয়। অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব নাসিমা বেগম এনডিসি।

এরপর শুরু হয় পদক প্রদান অনুষ্ঠান। বেগম মাজেদা শওকত অালী, মাহফুজা খাতুন বেবী মওদুদ (মরণোত্তর), সুরাইয়া রহমান, শোভা রানী ত্রিপুরা ও মাসুদা ফারুক রত্না এবার বেগম রোকেয়া পদক-২০১৭ গ্রহণ করেন।

অনুষ্ঠানে পদক পাওয়ার অনুভূতি প্রকাশ করে বক্তব্য রাখেন বেগম মাজেদা শওকত অালী।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, অামাদের সমাজে এখনও যে অবহেলিত জনগোষ্ঠী অাছে তাদের পাশে দাঁড়াতে হবে। তাহলেই সমাজ এগিয়ে যাবে। ক্ষুধা এবং দারিদ্রমুক্ত দেশ গড়ে তুলতে পারবো। তখন অামরা বিশ্ব দরবারে মাথা উঁচু করে দাঁড়াতে পারবো।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, বেগম রোকেয় স্বপ্ন দেখেছিলেন এ দেশের নারীরা জজ, ব্যরিস্টার হবে। তার সে স্বপ্ন অাজ পূরণ হয়েছে।অামাদের মেয়েরা জজ, ব্যারিস্টার ছাড়াও সচিব, পাইলট, বিমান, নৌবাহিনীর কর্মকর্তা হয়েছেন। মেয়েরা এখন অনেক দুঃসাহসিক কাজ করছেন। নিজের পায়ে দাঁড়ানোর কারণে অামাদের মেয়েদের অাত্মসম্মান ও অাত্মমর্যাদা বৃদ্ধি পেয়েছে।

তিনি বলেন, নারী ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমে নারীদের স্বালম্বী করতে অনেক কর্মসূচি ঘোষণা করা হয়েছে। বিভিন্ন ট্রেডে তাদের প্রশিক্ষণ দেয়া হচ্ছে। ফলে মেয়েরা প্রতিনিয়ত এগিয়ে যাচ্ছে।

ট্যাগস :

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

সোনারগাঁওয়ে কৃতি শিক্ষার্থীদের সংবর্ধনা অনুষ্ঠিত

নারী পুরুষের ঐক্যবদ্ধ প্রচেষ্টায় দেশ এগিয়ে যাচ্ছে

আপডেট সময় : ০৮:৪৩:০৮ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ৯ ডিসেম্বর ২০১৭

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, নারী পুরুষ সবাই মিলে একসঙ্গে কাজ করার ফলে দেশ অাজ এগিয়ে যাচ্ছে। দেশ পরিচালনায় বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ পদে অাজ নারীরা অধিষ্ঠিত। তিনি বলেন, নারীদের উন্নয়নে বেগম রোকেয়া যে স্বপ্ন দেখেছিলেন অামরা তার স্বপ্ন অনেকটা পূরণ করেছি। সবাই ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করে দেশকে অারও এগিয়ে নিতে হবে।

শনিবার ওসমানি স্মৃতি মিলনায়তনে বেগম রোকেয়া পদক প্রদান অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয় অায়োজিত এ অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী মেহের অাফরোজ চুমকি। অনুষ্ঠানের শুরুতে পবিত্র কোরঅান, গীতা, ত্রিপেটক ও বাইবেল থেকে পাঠ করা হয়। অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব নাসিমা বেগম এনডিসি।

এরপর শুরু হয় পদক প্রদান অনুষ্ঠান। বেগম মাজেদা শওকত অালী, মাহফুজা খাতুন বেবী মওদুদ (মরণোত্তর), সুরাইয়া রহমান, শোভা রানী ত্রিপুরা ও মাসুদা ফারুক রত্না এবার বেগম রোকেয়া পদক-২০১৭ গ্রহণ করেন।

অনুষ্ঠানে পদক পাওয়ার অনুভূতি প্রকাশ করে বক্তব্য রাখেন বেগম মাজেদা শওকত অালী।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, অামাদের সমাজে এখনও যে অবহেলিত জনগোষ্ঠী অাছে তাদের পাশে দাঁড়াতে হবে। তাহলেই সমাজ এগিয়ে যাবে। ক্ষুধা এবং দারিদ্রমুক্ত দেশ গড়ে তুলতে পারবো। তখন অামরা বিশ্ব দরবারে মাথা উঁচু করে দাঁড়াতে পারবো।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, বেগম রোকেয় স্বপ্ন দেখেছিলেন এ দেশের নারীরা জজ, ব্যরিস্টার হবে। তার সে স্বপ্ন অাজ পূরণ হয়েছে।অামাদের মেয়েরা জজ, ব্যারিস্টার ছাড়াও সচিব, পাইলট, বিমান, নৌবাহিনীর কর্মকর্তা হয়েছেন। মেয়েরা এখন অনেক দুঃসাহসিক কাজ করছেন। নিজের পায়ে দাঁড়ানোর কারণে অামাদের মেয়েদের অাত্মসম্মান ও অাত্মমর্যাদা বৃদ্ধি পেয়েছে।

তিনি বলেন, নারী ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমে নারীদের স্বালম্বী করতে অনেক কর্মসূচি ঘোষণা করা হয়েছে। বিভিন্ন ট্রেডে তাদের প্রশিক্ষণ দেয়া হচ্ছে। ফলে মেয়েরা প্রতিনিয়ত এগিয়ে যাচ্ছে।