নারায়ণগঞ্জ ১১:১২ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ০৫ ডিসেম্বর ২০২২, ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
সিদ্ধিরগঞ্জে নূর হাবিবের চাঁদাবাজিতে অতিষ্ট ব্যবসায়ীরা পোশাক রপ্তানিতে ভিয়েতনামকে ছাড়াল বাংলাদেশ ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ ট্রেন চলাচল বন্ধ ৪ ডিসেম্বর থেকে হিন্দি সিনেমায় জয়া আহসান, নায়ক পঙ্কজ ত্রিপাঠি গ্রুপ সেরা আর্জেন্টিনা, শেষ ষোলয় প্রতিপক্ষ অস্ট্রেলিয়া সিদ্ধিরগঞ্জে জয়নাল বাহিনীর ৪ জনের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ দায়ের সিদ্ধিরগঞ্জের সানারপাড় স্কুলে অনৈতিক আর্থিক সুবিধায় ক্ষমতার চেয়ারে শিক্ষিকা দিলরুবা রূপগঞ্জে ভুল চিকিৎসায় ৭ বছরের মাদ্রাসা পরুয়া শিশুর মৃত্যু ফতুল্লা ওসি’র কন্যা রাইসা জিপিএ ফাইভ পেয়েছেন সোনারগাঁয়ে টেক্সটাইল মিলে ও মিষ্টি কারখানায় ভয়াবহ অগ্নিকান্ড

বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি পরীক্ষায় কালাপাহাড়িয়ার সাফল্য

  • প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৭:৫৬:৫৯ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ২৮ নভেম্বর ২০২১
  • ২৬৬ বার পড়া হয়েছে

মোঃ জিয়াউর রহমান: বিগত বছরের ধারাবাহিকতায় বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি যুদ্ধে এবারও কালাপাহাড়িয়া ইউনিয়ন উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা প্রশংসনীয় সাফল্য অর্জন করেছে। নারায়ণগঞ্জ জেলার আড়াইহাজার উপজেলায় অবস্থিত ঐতিহ্যবাহী এই বিদ্যাপীঠ থেকে এবার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ৩ জনসহ জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় ও চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে মোট ১৪ জন চান্স পেয়েছে।
সরাসরি ভর্তি হওয়ার সুযোগ পাওয়া শিক্ষার্থীদের মধ্যে মোঃ আসিফ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়,রেজাউল করিম, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়,আহমেদ সজল, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়,শিউলি আক্তার, জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়,কাওসার আলম, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়,শামীম আহমেদ, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়, মোঃ মোজাহিদ, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় এবং সুমন মাহমুদ, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে চান্স পেয়েছে। ভর্তি যুদ্ধে সফলভাবে উত্তীর্ণ হওয়া শিক্ষার্থীরা পিতা-মাতা ও বিভিন্ন পর্যায়ের শিক্ষক এবং সহপাঠীদের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে। পাশাপাশি সবাইকে দোয়া করার অনুরোধ করেছে।

ছয়জন গুচ্ছ বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হওয়ার সুযোগ পেয়েছে।তারা হলো, রিয়াজ হাসনাইন,আব্দুর রহমান, সোনিয়া আক্তার,আফসার উদ্দিন,রাবেয়া আক্তার,মোঃ সোহাগ।তারাও পিতা-মাতা, শিক্ষক ও সহপাঠীদের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে তাদের জন্য দোয়া করার অনুরোধ জানিয়েছে। তাছাড়া শেষ সংবাদ পাওয়া পর্যন্ত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীন সাত কলেজে প্রায় ২০ জন শিক্ষার্থী ভর্তি হওয়ার সুযোগ পেয়েছে।

এই সাফল্যের অনুভূতি প্রকাশ করতে গিয়ে তারা বলে, আমাদের এই অর্জনের জন্য মহান আল্লাহর দরবারে শুকরিয়া আদায় করছি। আমাদের জন্য সবাই দোয়া করবেন যেন আমরা উচ্চ শিক্ষায় শিক্ষিত হয়ে এলাকার তথা দেশের মানুষের কল্যাণে কাজ করতে পারি।
এলাকার শিক্ষার্থীদের এমন অর্জনে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বিপুল সংখ্যক অভিনন্দন, শুভেচ্ছা ও শুভকামনা করে পোস্ট করেছেন।

প্রিয় শিক্ষার্থীদের সাফল্য অর্জনে তাদের শিক্ষক মোঃ জিয়াউর রহমান বলেন, পূর্বের ধারাবাহিকতায় এবারও তোমরা আমাদের মুখ উজ্জ্বল করেছো তাই তোমাদের জন্য রইলো দোয়া ও লাল গোলাপের শুভেচ্ছা। তোমরা দেশের সর্বোচ্চ বিদ্যাপীঠে অধ্যয়ন শেষে এলাকার ও দেশের মানুষের কল্যাণে কাজ করে অবদান রাখতে সক্ষম হবে এই কামনা করছি।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইংরেজি বিভাগের মেধাবী ছাত্র আরমান মোস্তাফিজ বলেন, আমার প্রিয় বিদ্যাপীঠ ‘কালাপাহাড়িয়া ইউনিয়ন উচ্চ বিদ্যালয়’ থেকে প্রতিবছর উল্লেখযোগ্য শিক্ষার্থী দেশের খ্যাতনামা পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে স্থান করে নিচ্ছে। আমার মতে, বিভিন্ন সময়ে নানা বিতর্কিত ঘটনায় আলোচনায় থাকা জনবিচ্ছিন্ন এই এলাকার জন্য এটা একটা বড়ো আশীর্বাদই বটে। পূর্বের ধারাবাহিকতায় এবারো ১৪ জন মেধাবী ছাত্র-ছাত্রী ঢাবি, জাবি, জবি, চবি, রাবিসহ বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির সুযোগ করে নিয়েছে যা কালাপাহাড়িয়া ইউনিয়ন উচ্চ বিদ্যালয় তথা সমগ্র কালাপাহাড়িয়ার জন্য অত্যন্ত গর্বের বিষয়। এসব শিক্ষার্থীরা শিক্ষার আলোয় উদ্ভাসিত হয়ে পরিবার, সমাজ, দেশ ও জাতির প্রভূত কল্যাণে আত্মনিয়োগ করবে – এই প্রত্যাশা ।’

ট্যাগস :

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

সিদ্ধিরগঞ্জে নূর হাবিবের চাঁদাবাজিতে অতিষ্ট ব্যবসায়ীরা

বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি পরীক্ষায় কালাপাহাড়িয়ার সাফল্য

আপডেট সময় : ০৭:৫৬:৫৯ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ২৮ নভেম্বর ২০২১

মোঃ জিয়াউর রহমান: বিগত বছরের ধারাবাহিকতায় বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি যুদ্ধে এবারও কালাপাহাড়িয়া ইউনিয়ন উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা প্রশংসনীয় সাফল্য অর্জন করেছে। নারায়ণগঞ্জ জেলার আড়াইহাজার উপজেলায় অবস্থিত ঐতিহ্যবাহী এই বিদ্যাপীঠ থেকে এবার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ৩ জনসহ জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় ও চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে মোট ১৪ জন চান্স পেয়েছে।
সরাসরি ভর্তি হওয়ার সুযোগ পাওয়া শিক্ষার্থীদের মধ্যে মোঃ আসিফ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়,রেজাউল করিম, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়,আহমেদ সজল, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়,শিউলি আক্তার, জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়,কাওসার আলম, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়,শামীম আহমেদ, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়, মোঃ মোজাহিদ, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় এবং সুমন মাহমুদ, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে চান্স পেয়েছে। ভর্তি যুদ্ধে সফলভাবে উত্তীর্ণ হওয়া শিক্ষার্থীরা পিতা-মাতা ও বিভিন্ন পর্যায়ের শিক্ষক এবং সহপাঠীদের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে। পাশাপাশি সবাইকে দোয়া করার অনুরোধ করেছে।

ছয়জন গুচ্ছ বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হওয়ার সুযোগ পেয়েছে।তারা হলো, রিয়াজ হাসনাইন,আব্দুর রহমান, সোনিয়া আক্তার,আফসার উদ্দিন,রাবেয়া আক্তার,মোঃ সোহাগ।তারাও পিতা-মাতা, শিক্ষক ও সহপাঠীদের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে তাদের জন্য দোয়া করার অনুরোধ জানিয়েছে। তাছাড়া শেষ সংবাদ পাওয়া পর্যন্ত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীন সাত কলেজে প্রায় ২০ জন শিক্ষার্থী ভর্তি হওয়ার সুযোগ পেয়েছে।

এই সাফল্যের অনুভূতি প্রকাশ করতে গিয়ে তারা বলে, আমাদের এই অর্জনের জন্য মহান আল্লাহর দরবারে শুকরিয়া আদায় করছি। আমাদের জন্য সবাই দোয়া করবেন যেন আমরা উচ্চ শিক্ষায় শিক্ষিত হয়ে এলাকার তথা দেশের মানুষের কল্যাণে কাজ করতে পারি।
এলাকার শিক্ষার্থীদের এমন অর্জনে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বিপুল সংখ্যক অভিনন্দন, শুভেচ্ছা ও শুভকামনা করে পোস্ট করেছেন।

প্রিয় শিক্ষার্থীদের সাফল্য অর্জনে তাদের শিক্ষক মোঃ জিয়াউর রহমান বলেন, পূর্বের ধারাবাহিকতায় এবারও তোমরা আমাদের মুখ উজ্জ্বল করেছো তাই তোমাদের জন্য রইলো দোয়া ও লাল গোলাপের শুভেচ্ছা। তোমরা দেশের সর্বোচ্চ বিদ্যাপীঠে অধ্যয়ন শেষে এলাকার ও দেশের মানুষের কল্যাণে কাজ করে অবদান রাখতে সক্ষম হবে এই কামনা করছি।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইংরেজি বিভাগের মেধাবী ছাত্র আরমান মোস্তাফিজ বলেন, আমার প্রিয় বিদ্যাপীঠ ‘কালাপাহাড়িয়া ইউনিয়ন উচ্চ বিদ্যালয়’ থেকে প্রতিবছর উল্লেখযোগ্য শিক্ষার্থী দেশের খ্যাতনামা পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে স্থান করে নিচ্ছে। আমার মতে, বিভিন্ন সময়ে নানা বিতর্কিত ঘটনায় আলোচনায় থাকা জনবিচ্ছিন্ন এই এলাকার জন্য এটা একটা বড়ো আশীর্বাদই বটে। পূর্বের ধারাবাহিকতায় এবারো ১৪ জন মেধাবী ছাত্র-ছাত্রী ঢাবি, জাবি, জবি, চবি, রাবিসহ বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির সুযোগ করে নিয়েছে যা কালাপাহাড়িয়া ইউনিয়ন উচ্চ বিদ্যালয় তথা সমগ্র কালাপাহাড়িয়ার জন্য অত্যন্ত গর্বের বিষয়। এসব শিক্ষার্থীরা শিক্ষার আলোয় উদ্ভাসিত হয়ে পরিবার, সমাজ, দেশ ও জাতির প্রভূত কল্যাণে আত্মনিয়োগ করবে – এই প্রত্যাশা ।’