নারায়ণগঞ্জ ০৭:৩১ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২১ মে ২০২৪, ৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
গুণী জনদের পদচারণায়  উদযাপিত  দৈনিক আজকের নীর বাংলা পত্রিকা’র ১৫ তম  বর্ষপূর্তি সিদ্ধিরগঞ্জে রাজউকের অভিযানে ক্ষুব্ধ ভবন মালিকরা রেকমত আলী উচ্চ বিদ্যালয়ের মজিবুর রহমান সভাপতির দায়িত্ব নিয়েই শিক্ষার মান উন্নয়নের তাগিদ অস্ত্রের লাইসেন্সের আবেদন না করেও অপপ্রচারের শিকার মহিউদ্দিন মোল্লা ! সাংবাদিক শাওনের বাবা ফিরোজ আহমেদ আর নেই রিয়াদে জমকালো আয়োজনে মাই টিভির ১৫ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উদযাপন রিয়াদে প্রিমিয়াম ফুটবল লীগের ফাইনাল অনুষ্ঠিত জুন মাসের ১৭ তারিখ কোরবানির ঈদ পালিত হওয়ার সম্ভবনা রিয়াদে নোভ আল আম্মার ইষ্টাবলিস্ট এর আয়োজনে দোয়া ও ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত রিয়াদে বেগম খালেদা জিয়ার রোগ মুক্তি কামনায় দোয়া ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত

প্রেমিকার সঙ্গে অভিমানে সৌদি প্রবাসী যুবকের আত্মহত্যা

কামরুজ্জামান (শাওন ): প্রেমিকার সঙ্গে অভিমান করে সৌদি প্রবাসী নূর হোসেন(২৫) নামের এক যুবক আত্মহত্যা করেছে।২ মে (রবিবার) সকাল ৮ টায় সৌদি আরবের রাজধানী রিয়াদের এসকান-১ এলাকায় গলাতে ফাঁস দিয়ে ওই যুবকের আত্মহত্যার ঘটনা ঘটেছে। পবিত্র রমজান মাসের সকালে নূর হোসেন নামের ওই যুবকের আকস্মিক আত্মহত্যায় শোক বিহ্বল হয়ে পড়েছে রিয়াদের পুরো এসকান এলাকা।

নিহতের সেজ ভাই, খোকনের সঙ্গে আলাপ করে জানা যায়, প্রতিদিনের মত স্বাভাবিকভাবেই দিনের শুরু করেন তারা। আত্মহত্যার কোন লক্ষণই ছোট ভাই নূর হোসেনের মধ্যে দেখা যায় নি। দুই ভাই একই রুমে পাশাপাশি থাকেন। কাজও করেন একই কোম্পানিতে। তার আচরণ ছিল স্বাভাবিক। তবে, একটি মেয়ের সঙ্গে প্রায়শই ফোনালাপ হতো বলে জানান তিনি। মেয়েটির সঙ্গে ঝগড়ার রেশ ধরে আকস্মিক এই আত্মহত্যার ঘটনা ঘটতে পারে বলে তিনি মন্তব্য করেন।

ঘটনার দিনের কথা উল্লেখ করে খোকন জানান, অন্য দিনের মতোই সেহরী খেয়ে ভোর চারটার দিকে বাসা থেকে বের হন তারা। রমজান মানে কোম্পানির শিডিউল অনুযায়ী সেহরীর পর, ভোর ৪ টা থেকে দুপুর পর্যন্ত কাজ করতে হয়। রোজার জন্য বিকেলে কোন কাজ থাকে না। ঘটনার দিনও দুই ভাই কোম্পানির গাড়িযোগে কাজে বের হন। খোকনের কাজের এরিয়া আগে হওয়ায় তিনি আগে নেমে যান। কাজের একপর্যায়ে তার ছোট ভাই নূর হোসেনের কর্মস্থল থেকে ফোন আসে। ফোনে তার ভাইর সহকর্মীরা জানান, তার ভাইর দূর্ঘটনা হয়েছে।

খোকন আরো জানান, শুরুতে তাকে বলা হয়নি তার ভাই আত্মহত্যা করেছে। তারা তাকে জিজ্ঞাসা করতে থাকে পারিবারিক কোন সমস্যা ছিল কিনা তার ভাইর। খোকন এ প্রশ্নে তখন জানান, তারা দুই ভাই একসাথেই থাকত, কোন সমস্যা ছিল না। পরবর্তীতে তাকে জানানো হয় তার ভাই গলায় ফাঁসি দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন।

খোকন জানতেন না তার ছোট ভাইর কোন মেয়ের সাথে প্রেমের সম্পর্ক ছিল। পরে বাড়ি থেকে নিহত নূর হোসেনের ভাবীদের থেকে জানা যায় এই প্রেমের কথা। এছাড়াও নিহতের মোবাইল থেকে ঐ প্রেমিকার একাধিক ছবি পাওয়া যায়। জানা যায়, ঐ প্রেমিকার নাম হালিমা। মেয়ের বাড়ি কুমিল্লা।

নূর হোসেনের বড় ভাই জানান, লাশ এখনো হাসপাতালে পড়ে রয়েছে। তিনি কি করবেন এখনো বুঝতে পারছেন না। লাশ আদৌ দেশে পাঠানো যাবে কিনা, তা নিয়েও রয়েছেন সংশয়ে।

ট্যাগস :

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

গুণী জনদের পদচারণায়  উদযাপিত  দৈনিক আজকের নীর বাংলা পত্রিকা’র ১৫ তম  বর্ষপূর্তি

প্রেমিকার সঙ্গে অভিমানে সৌদি প্রবাসী যুবকের আত্মহত্যা

আপডেট সময় : ০৬:৩৫:৩৪ অপরাহ্ন, সোমবার, ৩ মে ২০২১

কামরুজ্জামান (শাওন ): প্রেমিকার সঙ্গে অভিমান করে সৌদি প্রবাসী নূর হোসেন(২৫) নামের এক যুবক আত্মহত্যা করেছে।২ মে (রবিবার) সকাল ৮ টায় সৌদি আরবের রাজধানী রিয়াদের এসকান-১ এলাকায় গলাতে ফাঁস দিয়ে ওই যুবকের আত্মহত্যার ঘটনা ঘটেছে। পবিত্র রমজান মাসের সকালে নূর হোসেন নামের ওই যুবকের আকস্মিক আত্মহত্যায় শোক বিহ্বল হয়ে পড়েছে রিয়াদের পুরো এসকান এলাকা।

নিহতের সেজ ভাই, খোকনের সঙ্গে আলাপ করে জানা যায়, প্রতিদিনের মত স্বাভাবিকভাবেই দিনের শুরু করেন তারা। আত্মহত্যার কোন লক্ষণই ছোট ভাই নূর হোসেনের মধ্যে দেখা যায় নি। দুই ভাই একই রুমে পাশাপাশি থাকেন। কাজও করেন একই কোম্পানিতে। তার আচরণ ছিল স্বাভাবিক। তবে, একটি মেয়ের সঙ্গে প্রায়শই ফোনালাপ হতো বলে জানান তিনি। মেয়েটির সঙ্গে ঝগড়ার রেশ ধরে আকস্মিক এই আত্মহত্যার ঘটনা ঘটতে পারে বলে তিনি মন্তব্য করেন।

ঘটনার দিনের কথা উল্লেখ করে খোকন জানান, অন্য দিনের মতোই সেহরী খেয়ে ভোর চারটার দিকে বাসা থেকে বের হন তারা। রমজান মানে কোম্পানির শিডিউল অনুযায়ী সেহরীর পর, ভোর ৪ টা থেকে দুপুর পর্যন্ত কাজ করতে হয়। রোজার জন্য বিকেলে কোন কাজ থাকে না। ঘটনার দিনও দুই ভাই কোম্পানির গাড়িযোগে কাজে বের হন। খোকনের কাজের এরিয়া আগে হওয়ায় তিনি আগে নেমে যান। কাজের একপর্যায়ে তার ছোট ভাই নূর হোসেনের কর্মস্থল থেকে ফোন আসে। ফোনে তার ভাইর সহকর্মীরা জানান, তার ভাইর দূর্ঘটনা হয়েছে।

খোকন আরো জানান, শুরুতে তাকে বলা হয়নি তার ভাই আত্মহত্যা করেছে। তারা তাকে জিজ্ঞাসা করতে থাকে পারিবারিক কোন সমস্যা ছিল কিনা তার ভাইর। খোকন এ প্রশ্নে তখন জানান, তারা দুই ভাই একসাথেই থাকত, কোন সমস্যা ছিল না। পরবর্তীতে তাকে জানানো হয় তার ভাই গলায় ফাঁসি দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন।

খোকন জানতেন না তার ছোট ভাইর কোন মেয়ের সাথে প্রেমের সম্পর্ক ছিল। পরে বাড়ি থেকে নিহত নূর হোসেনের ভাবীদের থেকে জানা যায় এই প্রেমের কথা। এছাড়াও নিহতের মোবাইল থেকে ঐ প্রেমিকার একাধিক ছবি পাওয়া যায়। জানা যায়, ঐ প্রেমিকার নাম হালিমা। মেয়ের বাড়ি কুমিল্লা।

নূর হোসেনের বড় ভাই জানান, লাশ এখনো হাসপাতালে পড়ে রয়েছে। তিনি কি করবেন এখনো বুঝতে পারছেন না। লাশ আদৌ দেশে পাঠানো যাবে কিনা, তা নিয়েও রয়েছেন সংশয়ে।