চাঞ্চল্যকর সুমন হত্যা মামলার প্রধান আসামীকে  গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-২

ডেস্ক রিপোর্ট,

র‌্যাপিড এ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব) বাংলাদেশের মানুষের কাছে একটি আস্থা ও বিশ্বাসের প্রতীক। বিভিন্ন ধরণের চাঞ্চল্যকর অপরাধের স¦রূপ উদ্ঘাটন করে অপরাধীদের আইনের আওতায় নিয়ে আসার কারনেই এই প্রতিষ্ঠান মানুষের কাছে আস্থা ও নিরাপত্তার অনন্য নাম হিসাবে গ্রহণযোগ্যতা পেয়েছে। র‌্যাব খুন,অপহরণসহ বিভিন্ন চাঞ্চল্যকর মামলার প্রধান আসামীদের গ্রেফতার করে তাদের বিরুদ্ধে কার্যকরী ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য সক্রিয় ভূমিকা পালন করে আসছে।

এরই ধারাবাহিকতায় গত ২৮/০১/২০২১ তারিখ দিনাজপুর কোতয়ালী থানা এলাকায় সংঘঠিত সুমন (৩২) হত্যার সাথে জড়িত প্রধান আসামী ঢাকা মোহাম্মদপুর থানাধীন রায়ের বাজার এলাকায় অবস্থান করছে বলে জানতে পারে র‌্যাব-২।

পরবর্তীতে দিনাজপুর কোতোয়ালী থানার ইনচার্জ এর চাহিদাক্রমে র‌্যাব-২, সিপিসি-২ এর একটি আভিযানিক দল ২২/০২/২০২১ তারিখ রাত ২৩.০৫ ঘটিকায় ঢাকার মোহাম্মদপুর থানাধীন রায়ের বাজারে জনৈক লিটনের রিক্সার গ্যারেজে অভিযান পরিচালনা করে ঐ হত্যা মামলার প্রধান আসামী মোঃ শফিকুল ইসলাম (৪৯) কে গ্রেপ্তার করে। আটককৃত আসামী’কে ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায় যে, আসামি মোঃ শফিকুল ইসলাম ইতোপূর্বে  দুই বিবাহ করে (১ম স্ত্রী মোছাঃ সাজেদা খাতুন (৩৯) ও ২য় স্ত্রী মোছাঃ মিনা ইয়াছমিন বিথী (৪০))।  মোঃ শফিকুলের ২য় স্ত্রী মিনার সাথে মৃত সুমনের পরকীয়া প্রেমের সর্ম্পক ছিল, যার জেরে প্রতিহিংসার বশবর্তী হয়ে আসামী শফিকুল, সুমনকে গাঁজা ও চোলাইমদ খাইয়ে বেহুশ করে ফেলে এবং গত ২৮/০১/২০২১ তারিখে  দিনাজপুর কোতোয়ালী থানাধীন ৩নং ফাজিলপুর ইউনিয়নের পূর্বপারগাঁও গ্রামের আত্রাই নদীর পাশে সুমনের গলায় মাফলার পেচিঁয়ে  হত্যা করে।

গ্রেফতারকৃত আসামী মোঃ শফিকুল ইসলাম (৪৯) হত্যার সাথে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করেছে। আটককৃত আসামীকে জিজ্ঞাসাবাদে এই হত্যাকান্ডের সাথে জড়িত অন্যান্য আসামীদের সর্ম্পকে অনেক গুরুত্বপূর্ণ তথ্য পাওয়া গেছে। যার ভিত্তিতে পরবর্তী আভিযানিক তৎপরতা চলমান।