নারায়ণগঞ্জ ০৯:৪৯ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ২৭ জানুয়ারী ২০২৩, ১৪ মাঘ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
সিদ্ধিরগঞ্জে মসজিদের বিরোধ নিস্পত্তি করায় হাজী ইয়াসিন মিয়ার বিরুদ্ধে অপবাদ সিদ্ধিরগঞ্জে ব্যবসায়ীর উপর হামলার ঘটনায় সন্ত্রাসী পানি আক্তারের বিরুদ্ধে মামলা সিদ্ধিরগঞ্জে অটোরিকশার ধাক্কায় মোটরসাইকেল আরোহী নাঈম নিহত সিদ্ধিরগঞ্জে জমি দখল করতে সজু বাহিনীর হামলা আদমজী ইপিজেডের ব্যবসা ছিনিয়ে নিতে আক্তার বাহিনীর হামলায় আহত-২ কেন্দ্রীয় কমিটির যুগ্ন সম্পাদক হওয়ায় সিদ্ধিরগঞ্জে দেলোয়ারকে সংবর্ধনা ডিসিদের প্রতি ২৫ নির্দেশনা প্রধানমন্ত্রী আগামী ১৮ ফেব্রুয়ারি পবিত্র শবে মেরাজ সিদ্ধিরগঞ্জে ডিবি পরিচয়ে ডাকাতির প্রস্তুতিকালে গ্রেফতার ৬ সিদ্ধিরগঞ্জে অভিযানে  ৩ প্রতিষ্ঠানকে জরিমানা ভোক্তা অধিকার

ইলেক্ট্রিক বাইক তৈরি করলো সোনারগাঁয়ের মেধাবী তরুন- অনিক

  • প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৭:২৫:১৭ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২১
  • ২৯ বার পড়া হয়েছে

সোনারগাঁ প্রতিনিধি,

চেষ্টা করলেই যে কোনো অসম্ভবকেও সম্ভবে পরিণত তারই একটি উদাহরণ সোনারগাঁ উপজেলার সাদিপুর ইউনিয়নের বরগাঁও চৌরাপাড়ার ওমর ফারুক অনিক। শুরুতে অনেকেই উপহাস করতো। কটূক্তিও কম সহ্য করতে হয়নি। কিন্তু সেসবে ভ্রুক্ষেপ না করে নিজের কাজ করে যেতে থাকেন অনিক।

কোনো প্রাতিষ্ঠানিক শিক্ষা ছাড়াই সম্পূর্ণ নিজের প্রচেষ্টায় সে তৈরি করেছেন অত্যাধুনিক ইলেক্ট্রিক বাইক। যা দেশীয় প্রযুক্তিতে তৈরী বিদ্যুৎ সাশ্রয়ী ও পরিবেশ বান্ধব। এটি ফুল চার্জ হতে খরচ হবে মাত্র ৪ টাকার বিদ্যুৎ এবং ঘন্টায় ৫৫ কিলোমিটার গতিতে চলবে ৭৭ কিলোমিটার।

এ বিষয়ে ওমর ফারুক অনিক বলেন, “সংসারের টানা পড়ার কারণে অত বেশি পড়াশোনা করতে পারিনি তাই ছোটবেলা থেকেই হাতে তুলে নিতে হয়েছে কাজ। এর মধ্যেও ক্লাস এইট পর্যন্ত পড়াশোনা করেছি। আমি একটি আকর্ষনীয় ফিউচার ইস্টিক ডিজাইনে নিজের করা ড্রইংয়ে ইলেকট্রিক বাইকটি তৈরি করেছি।

এটি একবার চার্জ করলে চলবে ৭৫ কিলোমিটার এবং গতি ঘন্টায় ৫৫ হর্স। প্রতিবার সম্পূর্ণ চার্জে বিদ্যুৎ খরচ হয় ৪ টাকা, সময় নেয় ৪ ঘন্টা। যা তৈরীতে ব্যায় হয়েছে ৫৭ হাজার টাকা।

এই বাইকের রয়েছে নান্দনিক ডিজাইন। আশাকরি সারা দেশে এর চাহিদা হবে ব্যাপক। অল্প খরচে চাইলেই দেশে অনেক কিছুই করা সম্ভব এবং এটি সম্পূর্ণ আলাদা ডিজাইনে করা হয়েছে।

অনিক আরও বলেন, আমি আরো নান্দনিক কিছু ডিজাইনের প্যাটার্ন করেছি যদি আর্থিকভাবে সহযোগিতা পাই তবে ঐ সমস্ত ডিজাইনগুলো বাস্তবে রূপ দেয়ার আশা আছে।

প্রথমে কাজ করেছি ওয়াকসর্পে, তারপর কাজ করেছি ইলেক্ট্রিক্যাল। আবার ইলেকট্রনিক্সেও কাজ করেছি কিছু দিন। এখন ১৪ বছর ধরে আছি ‌’gordmans automation mechanical’ এ ।

এখন শুধু নিজের জন্যই নয়, দেশের মানুষের জন্য এমন আরও বাইক বানাতে চায় অনিক। দেশীয় প্রযুক্তি ও পরিবেশ বান্ধব হওয়ায় এরইমধ্যে আরও ৩৫টি গাড়ির অর্ডার পেয়েছেন তিনি।

মেধাবী তরুন ওমর ফারুক অনিক সরকারের কাছে সহযোগিতাসহ তার বাইকটি বাজারজাতকরণের অনুমতি চেয়ে অনুরোধ জানিয়েছেন।

ট্যাগস :

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

জনপ্রিয় সংবাদ

সিদ্ধিরগঞ্জে মসজিদের বিরোধ নিস্পত্তি করায় হাজী ইয়াসিন মিয়ার বিরুদ্ধে অপবাদ

ইলেক্ট্রিক বাইক তৈরি করলো সোনারগাঁয়ের মেধাবী তরুন- অনিক

আপডেট সময় : ০৭:২৫:১৭ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২১

সোনারগাঁ প্রতিনিধি,

চেষ্টা করলেই যে কোনো অসম্ভবকেও সম্ভবে পরিণত তারই একটি উদাহরণ সোনারগাঁ উপজেলার সাদিপুর ইউনিয়নের বরগাঁও চৌরাপাড়ার ওমর ফারুক অনিক। শুরুতে অনেকেই উপহাস করতো। কটূক্তিও কম সহ্য করতে হয়নি। কিন্তু সেসবে ভ্রুক্ষেপ না করে নিজের কাজ করে যেতে থাকেন অনিক।

কোনো প্রাতিষ্ঠানিক শিক্ষা ছাড়াই সম্পূর্ণ নিজের প্রচেষ্টায় সে তৈরি করেছেন অত্যাধুনিক ইলেক্ট্রিক বাইক। যা দেশীয় প্রযুক্তিতে তৈরী বিদ্যুৎ সাশ্রয়ী ও পরিবেশ বান্ধব। এটি ফুল চার্জ হতে খরচ হবে মাত্র ৪ টাকার বিদ্যুৎ এবং ঘন্টায় ৫৫ কিলোমিটার গতিতে চলবে ৭৭ কিলোমিটার।

এ বিষয়ে ওমর ফারুক অনিক বলেন, “সংসারের টানা পড়ার কারণে অত বেশি পড়াশোনা করতে পারিনি তাই ছোটবেলা থেকেই হাতে তুলে নিতে হয়েছে কাজ। এর মধ্যেও ক্লাস এইট পর্যন্ত পড়াশোনা করেছি। আমি একটি আকর্ষনীয় ফিউচার ইস্টিক ডিজাইনে নিজের করা ড্রইংয়ে ইলেকট্রিক বাইকটি তৈরি করেছি।

এটি একবার চার্জ করলে চলবে ৭৫ কিলোমিটার এবং গতি ঘন্টায় ৫৫ হর্স। প্রতিবার সম্পূর্ণ চার্জে বিদ্যুৎ খরচ হয় ৪ টাকা, সময় নেয় ৪ ঘন্টা। যা তৈরীতে ব্যায় হয়েছে ৫৭ হাজার টাকা।

এই বাইকের রয়েছে নান্দনিক ডিজাইন। আশাকরি সারা দেশে এর চাহিদা হবে ব্যাপক। অল্প খরচে চাইলেই দেশে অনেক কিছুই করা সম্ভব এবং এটি সম্পূর্ণ আলাদা ডিজাইনে করা হয়েছে।

অনিক আরও বলেন, আমি আরো নান্দনিক কিছু ডিজাইনের প্যাটার্ন করেছি যদি আর্থিকভাবে সহযোগিতা পাই তবে ঐ সমস্ত ডিজাইনগুলো বাস্তবে রূপ দেয়ার আশা আছে।

প্রথমে কাজ করেছি ওয়াকসর্পে, তারপর কাজ করেছি ইলেক্ট্রিক্যাল। আবার ইলেকট্রনিক্সেও কাজ করেছি কিছু দিন। এখন ১৪ বছর ধরে আছি ‌’gordmans automation mechanical’ এ ।

এখন শুধু নিজের জন্যই নয়, দেশের মানুষের জন্য এমন আরও বাইক বানাতে চায় অনিক। দেশীয় প্রযুক্তি ও পরিবেশ বান্ধব হওয়ায় এরইমধ্যে আরও ৩৫টি গাড়ির অর্ডার পেয়েছেন তিনি।

মেধাবী তরুন ওমর ফারুক অনিক সরকারের কাছে সহযোগিতাসহ তার বাইকটি বাজারজাতকরণের অনুমতি চেয়ে অনুরোধ জানিয়েছেন।