নারায়ণগঞ্জ ১২:৫১ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২০ জুন ২০২৪, ৬ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
সোনারগাঁওয়ে কৃতি শিক্ষার্থীদের সংবর্ধনা অনুষ্ঠিত সিদ্ধিরগঞ্জে ৪টি কারখানার অবৈধ গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্ন হারামের পয়সা ব্যারামে খায় ,আমি হারাম খাই না খেতেও দেই না-সেলিম ওসমান ভূমি সম্পর্কিত সমস্যা থাকলে গণশুনানিতে আসার আহবান- না.গঞ্জে জেলা  প্রশাসক সিদ্ধিরগঞ্জে গ্যাসের দাবিতে ঢাকা-চটগ্রাম মহাসড়ক অবরোধ সোনারগাঁওয়ে জাতীয় শিক্ষা সপ্তাহ ২০২৪ অনুষ্ঠিত র‌্যাব পরিচয়ে ৫২ লাখ টাকা ছিনতাইয়ের ঘটনায় গ্রেফতার-৪ সিদ্ধিরগঞ্জে কাতার প্রবাসীর বাড়িতে ডাকাতি চিকিৎসার নামে কোনো প্রকার হয়রানি মেনে নেওয়া হবে না ঃ স্বাস্থ্যমন্ত্রী নাসিকের ময়লার গাড়ির ধাক্কায় গর্ভবতীর পোশাক শ্রমিক নিহত

সোনারগাঁয়ের ১টি হত্যা মামলার প্রধান আসামিসহ দুজনকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-১১

  • প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৭:৪৬:০৮ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৩ মে ২০২৪
  • ৩৭ বার পড়া হয়েছে

সোনারগাও প্নারতিনিধি ঃ নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁওয়ে চাঞ্চল্যকর ক্লুলেস তাঁতশ্রমিক মিরাজ হত্যা মামলার প্রধান আসামিসহ দুজনকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-১১ সদস্যরা।বৃহস্পতিবার (২৩ মে) দুপুরে র‌্যাব-১১ মিডিয়া অফিসার এএসপি মো: হাম্মাদ হোসেনের স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়। এর আগে বুধবার রাতে উপজেলার বরগাঁও এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেফতার করে পুলিশ।
গ্রেফতাররা হলেন তাঁতশ্রমিক প্রধান আসামি মো: লোকমান হোসেন (৪৫) ও তার সহযোগী আসামি মো: লিটন মিয়া (২৪)। এর আগে গত ১৫ মে তাঁতশ্রমিক মিরাজ নিখোঁজ হয়। পরে ১৭ মে শুক্রবার সকালে বরগাঁও এলাকায় একটি ডোবা থেকে তার লাশ উদ্ধার করা হয়।

নিহত মিরাজ ভোলা জেলার শিবপুর গ্রামের মো: মাইন উদ্দিনের ছেলে। হত্যাকাণ্ডের রহস্য উদঘাটনে বৃহস্পতিবার গ্রেফতারদের সাত দিনের রিমান্ড চেয়ে আদালতে পাঠানো হয়েছে পুলিশ।

র‌্যাব-১১ প্রেস বিজ্ঞপ্তি থেকে জানা যায়, উপজেলা সাদিপুর ইউনিয়নের বরগাঁও এলাকার তাঁতমালিক লোকমান হোসেনের বাড়িতে বসবাস করে তাঁতশ্রমিক মিরাজ (১৬) শাড়ি বানানের কাজ করে। গত ১৫ মে বুধবার রাতের খাবার খাওয়া শেষে মিরাজ তার রুমের উদ্দেশে যায়। এরপর থেকে মিরাজ নিখোঁজ হয়। নিখোঁজের বিষয়টি তাঁতের মালিক লোকমান মিরাজের পরিবারের কাউকে জানাননি। পরে ১৭ মে বুধবার সকাল সাড়ে ৭টার দিকে লোকমান নিখোঁজ মিরাজের বাবাকে মোবাইল ফোনে জানান বরগাঁও এলাকায় করিমের বাড়ির পাশে ডোবার পানির মধ্যে মিরাজের লাশ পাওয়া যায়। পরে সোনারগাঁও থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য নারায়ণগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করে। এ ঘটনায় নিহত তাঁত শ্রমিক মিরাজের বাবা মো: মাঈন উদ্দিন সোনারগাঁও থানায় একটি হত্যা মামলা করেন।

মামলাটি র‌্যাব-১১ গোয়েন্দা টিম তদন্ত করে তথ্যের ভিত্তিতে গত বুধবার রাতে র‌্যাব ১১ সদস্যরা বরগাঁও এলাকায় অভিযান চালিয়ে চাঞ্চল্যকর হত্যাকাণ্ডের সাথে জড়িত তদন্তে প্রাপ্ত প্রধান আসামি লোকমান ও তার ছোট ভাই লিটনকে গ্রেফতার করে। গ্রেফতার লোকমান ও লিটন বরগাঁও গ্রামের আব্দুর রহমানের ছেলে। পরে বৃহস্পতিবার গ্রেফতারদের সোনারগাঁও থানায় হস্তান্তর করে র‌্যাব।

তালতলা ফাঁড়ি পুলিশের ইনচার্জ পরিদর্শক মো: সাইফুল ইসলাম বলেন, র‌্যাব সদস্যরা গ্রেফতারদের থানায় হস্তান্তর করেছে। হত্যাকাণ্ডের রহস্য উদঘাটনে গ্রেফতারদের সাত দিনের রিমান্ড চেয়ে আদালতে পাঠানো হয়েছে।

ট্যাগস :

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

সোনারগাঁওয়ে কৃতি শিক্ষার্থীদের সংবর্ধনা অনুষ্ঠিত

সোনারগাঁয়ের ১টি হত্যা মামলার প্রধান আসামিসহ দুজনকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-১১

আপডেট সময় : ০৭:৪৬:০৮ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৩ মে ২০২৪

সোনারগাও প্নারতিনিধি ঃ নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁওয়ে চাঞ্চল্যকর ক্লুলেস তাঁতশ্রমিক মিরাজ হত্যা মামলার প্রধান আসামিসহ দুজনকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-১১ সদস্যরা।বৃহস্পতিবার (২৩ মে) দুপুরে র‌্যাব-১১ মিডিয়া অফিসার এএসপি মো: হাম্মাদ হোসেনের স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়। এর আগে বুধবার রাতে উপজেলার বরগাঁও এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেফতার করে পুলিশ।
গ্রেফতাররা হলেন তাঁতশ্রমিক প্রধান আসামি মো: লোকমান হোসেন (৪৫) ও তার সহযোগী আসামি মো: লিটন মিয়া (২৪)। এর আগে গত ১৫ মে তাঁতশ্রমিক মিরাজ নিখোঁজ হয়। পরে ১৭ মে শুক্রবার সকালে বরগাঁও এলাকায় একটি ডোবা থেকে তার লাশ উদ্ধার করা হয়।

নিহত মিরাজ ভোলা জেলার শিবপুর গ্রামের মো: মাইন উদ্দিনের ছেলে। হত্যাকাণ্ডের রহস্য উদঘাটনে বৃহস্পতিবার গ্রেফতারদের সাত দিনের রিমান্ড চেয়ে আদালতে পাঠানো হয়েছে পুলিশ।

র‌্যাব-১১ প্রেস বিজ্ঞপ্তি থেকে জানা যায়, উপজেলা সাদিপুর ইউনিয়নের বরগাঁও এলাকার তাঁতমালিক লোকমান হোসেনের বাড়িতে বসবাস করে তাঁতশ্রমিক মিরাজ (১৬) শাড়ি বানানের কাজ করে। গত ১৫ মে বুধবার রাতের খাবার খাওয়া শেষে মিরাজ তার রুমের উদ্দেশে যায়। এরপর থেকে মিরাজ নিখোঁজ হয়। নিখোঁজের বিষয়টি তাঁতের মালিক লোকমান মিরাজের পরিবারের কাউকে জানাননি। পরে ১৭ মে বুধবার সকাল সাড়ে ৭টার দিকে লোকমান নিখোঁজ মিরাজের বাবাকে মোবাইল ফোনে জানান বরগাঁও এলাকায় করিমের বাড়ির পাশে ডোবার পানির মধ্যে মিরাজের লাশ পাওয়া যায়। পরে সোনারগাঁও থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য নারায়ণগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করে। এ ঘটনায় নিহত তাঁত শ্রমিক মিরাজের বাবা মো: মাঈন উদ্দিন সোনারগাঁও থানায় একটি হত্যা মামলা করেন।

মামলাটি র‌্যাব-১১ গোয়েন্দা টিম তদন্ত করে তথ্যের ভিত্তিতে গত বুধবার রাতে র‌্যাব ১১ সদস্যরা বরগাঁও এলাকায় অভিযান চালিয়ে চাঞ্চল্যকর হত্যাকাণ্ডের সাথে জড়িত তদন্তে প্রাপ্ত প্রধান আসামি লোকমান ও তার ছোট ভাই লিটনকে গ্রেফতার করে। গ্রেফতার লোকমান ও লিটন বরগাঁও গ্রামের আব্দুর রহমানের ছেলে। পরে বৃহস্পতিবার গ্রেফতারদের সোনারগাঁও থানায় হস্তান্তর করে র‌্যাব।

তালতলা ফাঁড়ি পুলিশের ইনচার্জ পরিদর্শক মো: সাইফুল ইসলাম বলেন, র‌্যাব সদস্যরা গ্রেফতারদের থানায় হস্তান্তর করেছে। হত্যাকাণ্ডের রহস্য উদঘাটনে গ্রেফতারদের সাত দিনের রিমান্ড চেয়ে আদালতে পাঠানো হয়েছে।