নারায়ণগঞ্জ ০৮:৪২ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ০২ ডিসেম্বর ২০২২, ১৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
পোশাক রপ্তানিতে ভিয়েতনামকে ছাড়াল বাংলাদেশ ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ ট্রেন চলাচল বন্ধ ৪ ডিসেম্বর থেকে হিন্দি সিনেমায় জয়া আহসান, নায়ক পঙ্কজ ত্রিপাঠি গ্রুপ সেরা আর্জেন্টিনা, শেষ ষোলয় প্রতিপক্ষ অস্ট্রেলিয়া সিদ্ধিরগঞ্জে জয়নাল বাহিনীর ৪ জনের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ দায়ের সিদ্ধিরগঞ্জের সানারপাড় স্কুলে অনৈতিক আর্থিক সুবিধায় ক্ষমতার চেয়ারে শিক্ষিকা দিলরুবা রূপগঞ্জে ভুল চিকিৎসায় ৭ বছরের মাদ্রাসা পরুয়া শিশুর মৃত্যু ফতুল্লা ওসি’র কন্যা রাইসা জিপিএ ফাইভ পেয়েছেন সোনারগাঁয়ে টেক্সটাইল মিলে ও মিষ্টি কারখানায় ভয়াবহ অগ্নিকান্ড ফতুল্লায় অপহরনকারী চক্রের নারী সদস্যসহ গ্রেপ্তার ৫, অপহৃত উদ্ধার

ফতুল্লা থানায় গ্রেপ্তারী পরোয়ানা আসামী চিহ্নিত করতে স্থানীয়দের সাথে মতবিনিময় সভা

  • প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৭:২২:৪৭ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ১৩ নভেম্বর ২০১৯
  • ৯৪ বার পড়া হয়েছে

নিজস্ব সংবাদদাতা : গত ১২ অক্টোবর সকালে ফতুল্লা মডেল থানার সভাকক্ষে ওয়ারেন্ট আসামীর চিহ্নিত করার সহায়তার লক্ষে স্থানীয় জনপ্রতিনিধি ও কমিউনিটি পুলিশিং সদস্যদের নিয়ে মতো বিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। এ সভায় সভাপতিত্ব করেছেন থানা অফিসার ইনচার্জ রমা.আসলাম হোসেন । প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন নারায়ণগঞ্জ জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (খ অঞ্চল) মো.মেহেদী ইমরান সিদ্দিকী । ইন্সপেক্টর (তদন্ত) মো. হাসানুজ্জামান হাসানের উপস্থাপনায় অন্যান্য দের মধ্যে কক্তব্য রাখেন কুতুবপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ¦ মো. মনিরুল আলম সেন্টু,ফতুল্লা ইউনিয়ন পরিষদের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান আলহাজ¦ খন্দকার লুৎফর রহমান স্বপন,ফতুল্লা থানা কমিউনিটি পুলিশিং কমিটির সভাপতি আলহাজ¦ মীর মোজাম্মেল আলী, সারধারন সম্পাদক মো. গোলাম মোস্তফা, ফতুল্লা রিপোর্টার্স ক্লাবের যুগ্ম সম্পাদক কবি শিক্ষক এ.আর.কুতুবে আলম। এসময় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, আতাউর রহমান মেম্বার, ইউসুফ মেম্বার, নাট্যব্যক্তিত্ব ফজলুল হক পলাশ, কাজী মোশাররফ হোসেন, ফতুল্লা পালইট উচ্চ বিদ্যালয়ের পরিচালক কমিটির অভিভাবক সদস্য তাজুল ইসলম, ফতুল্লার নিত্য প্রয়োজনীয় পন্য বহুমুখী সমবায় সমিতির সাধারন সম্পাদক মো. জুয়েল চৌধুরী, নাট্যাভিনেতা পরিচালক বদির উদ্দিন বদু ওরফে নায়ক রাজু, ফতুল্লা থানা ছাত্রলীগের সাধারন সম্পাদক এম.এ মান্নানসহ আরো অনেকে। এসময় প্রধান অতিথি এ.এসপি মেহেদী ইমরান সিদ্দিকী বলেন, নারায়ণগঞ্জ জেলার মধ্যে সবচেয়ে বেশি ওয়ারেন্ট রয়েছে ফতুল্লা মডেল থানায়। এই থানার ৫টি ইউনিয়নের মধ্যে প্রেপ্তারী পরোয়ানা জি.আর সি.আর ও সাজাসহ ১২ হাজারের মতো আসামীদের সন্ধান ও ঠিকানা সঠিক পাওয়া যাচ্ছে না। এর মধ্যে তিন হাজারের মধ্যে তামিল হয়েছে। আপনাদের সহায়তা পেলে বাকীদেরও আমরা ঠিকানা চিহ্নিত করে গ্রেপ্তার করতে পারবো। তিনি আরো বলেন, এই গ্রেপ্তারী পরোনা আসামীরা সবাই মাদক ব্যবসায়ী বা সন্ত্রাসী তা না কিন্তু এর মধ্যে অনেকে আছে ভাল মানুষ। তারা কোর্টে হাজিরা দিলেই ওয়ারেন্ট বা মামলা শেষ হবে। অনেকে আছে জানেই না যে তার বিরুদ্ধে মামলার ওয়ারেন্ট আছে।আমরা এই মামলার গ্রেপ্তারী পরোয়ানার সীট বিল বোট ফেষ্টুন তৈরী করে রাস্তার মোটে টানিয়ে দেবো। আপনারা াপনাদের আমে পাশের লোক চিহ্নিত করে আমাদের সহায়তা করবেন।
ওসি আসলাম হোসেন বলেন, আমাদের থানায় ৮ হাজারের উপরে সি আর জি আর ও সাজা ওয়ারেন্ট রয়েছে। এই ওয়ারেন্ট আমরা ধরতে বা আসামী চিহ্নিত করতে পারছি না । আমাদেরকে তথ্য দিয়ে আপনারা সহায়তা করুন আমরা আপনার পরিচয় গোপন রাখবো কথা দিলাম।
এসময় বক্তারা সোর্ষেদের সম্পর্কেও অনেকে অনেক খতা বলেছেন ফতুল্লা থানাধীন এলাকার সোর্স মানেই পুলিশের ফোর্স। অনেক সোর্স দেখা যায় পুলিশের মটোর সাইকেল ব্যবহার করছে। এ সম্পর্কে এ এসপি মেহেদী ইমরান সিদ্দিকী বলেন, আমরা সোর্সদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিবো। আপনারা আমাদেরকে সঠিক তথ্য দিন।
ফতুল্লা মডেল থানার গ্রেপ্তারী পরোয়ানা জি আর সি আর ও সাজা প্রাপ্ত নিন্মে দেয়া হলো ফতুল্লা ইউনিয়নে সি আর ৮৭১টি, জি আর ১১১৬টি,সাজা প্রাপÍ ২৫৮ মোট ২২৪৫টি।
কুতুবপুর ইউনিয়নে সি আর ৭৪৮টি, জি আর ১২০৭টি, সাজা প্রাপ্ত ২৪০ টি,মোট ২১৯৫টি। এনায়েত নগর ইউনিয়নে সি আর ৭৬২টি ,জি আর ৬২৩টি, সাজা প্রাপ্ত ২৫৫টি মোট ১৬৪০টি । কাশিপুর ইউনিয়নে সি আর ৫৪১টি ,জি আর ৭৭২টি সাজা প্রাপ্ত ১৬২টি মোট ১৪৭৫টি। বক্তাবলী ইউনিয়নে সি আর ২২৩টি, জি আর ৪০৭ টি, সাজা প্রাপ্ত ৩৫টি মোট ৬৬৫টি। মিসিং সি আর ৯০১টি ,জি আর ১১১৬টি এবং সাজা প্রাপ্ত ৯৫০টি মোট ২৯৬৭টি।

 

ট্যাগস :

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

পোশাক রপ্তানিতে ভিয়েতনামকে ছাড়াল বাংলাদেশ

ফতুল্লা থানায় গ্রেপ্তারী পরোয়ানা আসামী চিহ্নিত করতে স্থানীয়দের সাথে মতবিনিময় সভা

আপডেট সময় : ০৭:২২:৪৭ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ১৩ নভেম্বর ২০১৯

নিজস্ব সংবাদদাতা : গত ১২ অক্টোবর সকালে ফতুল্লা মডেল থানার সভাকক্ষে ওয়ারেন্ট আসামীর চিহ্নিত করার সহায়তার লক্ষে স্থানীয় জনপ্রতিনিধি ও কমিউনিটি পুলিশিং সদস্যদের নিয়ে মতো বিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। এ সভায় সভাপতিত্ব করেছেন থানা অফিসার ইনচার্জ রমা.আসলাম হোসেন । প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন নারায়ণগঞ্জ জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (খ অঞ্চল) মো.মেহেদী ইমরান সিদ্দিকী । ইন্সপেক্টর (তদন্ত) মো. হাসানুজ্জামান হাসানের উপস্থাপনায় অন্যান্য দের মধ্যে কক্তব্য রাখেন কুতুবপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ¦ মো. মনিরুল আলম সেন্টু,ফতুল্লা ইউনিয়ন পরিষদের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান আলহাজ¦ খন্দকার লুৎফর রহমান স্বপন,ফতুল্লা থানা কমিউনিটি পুলিশিং কমিটির সভাপতি আলহাজ¦ মীর মোজাম্মেল আলী, সারধারন সম্পাদক মো. গোলাম মোস্তফা, ফতুল্লা রিপোর্টার্স ক্লাবের যুগ্ম সম্পাদক কবি শিক্ষক এ.আর.কুতুবে আলম। এসময় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, আতাউর রহমান মেম্বার, ইউসুফ মেম্বার, নাট্যব্যক্তিত্ব ফজলুল হক পলাশ, কাজী মোশাররফ হোসেন, ফতুল্লা পালইট উচ্চ বিদ্যালয়ের পরিচালক কমিটির অভিভাবক সদস্য তাজুল ইসলম, ফতুল্লার নিত্য প্রয়োজনীয় পন্য বহুমুখী সমবায় সমিতির সাধারন সম্পাদক মো. জুয়েল চৌধুরী, নাট্যাভিনেতা পরিচালক বদির উদ্দিন বদু ওরফে নায়ক রাজু, ফতুল্লা থানা ছাত্রলীগের সাধারন সম্পাদক এম.এ মান্নানসহ আরো অনেকে। এসময় প্রধান অতিথি এ.এসপি মেহেদী ইমরান সিদ্দিকী বলেন, নারায়ণগঞ্জ জেলার মধ্যে সবচেয়ে বেশি ওয়ারেন্ট রয়েছে ফতুল্লা মডেল থানায়। এই থানার ৫টি ইউনিয়নের মধ্যে প্রেপ্তারী পরোয়ানা জি.আর সি.আর ও সাজাসহ ১২ হাজারের মতো আসামীদের সন্ধান ও ঠিকানা সঠিক পাওয়া যাচ্ছে না। এর মধ্যে তিন হাজারের মধ্যে তামিল হয়েছে। আপনাদের সহায়তা পেলে বাকীদেরও আমরা ঠিকানা চিহ্নিত করে গ্রেপ্তার করতে পারবো। তিনি আরো বলেন, এই গ্রেপ্তারী পরোনা আসামীরা সবাই মাদক ব্যবসায়ী বা সন্ত্রাসী তা না কিন্তু এর মধ্যে অনেকে আছে ভাল মানুষ। তারা কোর্টে হাজিরা দিলেই ওয়ারেন্ট বা মামলা শেষ হবে। অনেকে আছে জানেই না যে তার বিরুদ্ধে মামলার ওয়ারেন্ট আছে।আমরা এই মামলার গ্রেপ্তারী পরোয়ানার সীট বিল বোট ফেষ্টুন তৈরী করে রাস্তার মোটে টানিয়ে দেবো। আপনারা াপনাদের আমে পাশের লোক চিহ্নিত করে আমাদের সহায়তা করবেন।
ওসি আসলাম হোসেন বলেন, আমাদের থানায় ৮ হাজারের উপরে সি আর জি আর ও সাজা ওয়ারেন্ট রয়েছে। এই ওয়ারেন্ট আমরা ধরতে বা আসামী চিহ্নিত করতে পারছি না । আমাদেরকে তথ্য দিয়ে আপনারা সহায়তা করুন আমরা আপনার পরিচয় গোপন রাখবো কথা দিলাম।
এসময় বক্তারা সোর্ষেদের সম্পর্কেও অনেকে অনেক খতা বলেছেন ফতুল্লা থানাধীন এলাকার সোর্স মানেই পুলিশের ফোর্স। অনেক সোর্স দেখা যায় পুলিশের মটোর সাইকেল ব্যবহার করছে। এ সম্পর্কে এ এসপি মেহেদী ইমরান সিদ্দিকী বলেন, আমরা সোর্সদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিবো। আপনারা আমাদেরকে সঠিক তথ্য দিন।
ফতুল্লা মডেল থানার গ্রেপ্তারী পরোয়ানা জি আর সি আর ও সাজা প্রাপ্ত নিন্মে দেয়া হলো ফতুল্লা ইউনিয়নে সি আর ৮৭১টি, জি আর ১১১৬টি,সাজা প্রাপÍ ২৫৮ মোট ২২৪৫টি।
কুতুবপুর ইউনিয়নে সি আর ৭৪৮টি, জি আর ১২০৭টি, সাজা প্রাপ্ত ২৪০ টি,মোট ২১৯৫টি। এনায়েত নগর ইউনিয়নে সি আর ৭৬২টি ,জি আর ৬২৩টি, সাজা প্রাপ্ত ২৫৫টি মোট ১৬৪০টি । কাশিপুর ইউনিয়নে সি আর ৫৪১টি ,জি আর ৭৭২টি সাজা প্রাপ্ত ১৬২টি মোট ১৪৭৫টি। বক্তাবলী ইউনিয়নে সি আর ২২৩টি, জি আর ৪০৭ টি, সাজা প্রাপ্ত ৩৫টি মোট ৬৬৫টি। মিসিং সি আর ৯০১টি ,জি আর ১১১৬টি এবং সাজা প্রাপ্ত ৯৫০টি মোট ২৯৬৭টি।