নারায়ণগঞ্জ ১০:১৩ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৩০ মে ২০২৪, ১৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
নাসিকের ময়লার গাড়ির ধাক্কায় গর্ভবতীর পোশাক শ্রমিক নিহত সোনারগাঁয়ের ১টি হত্যা মামলার প্রধান আসামিসহ দুজনকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-১১ নারায়ণগঞ্জে ৩টি উপজেলায় চেয়ারম্যান নির্বাচিত হলেন যারা গুণী জনদের পদচারণায়  উদযাপিত  দৈনিক আজকের নীর বাংলা পত্রিকা’র ১৫ তম  বর্ষপূর্তি সিদ্ধিরগঞ্জে রাজউকের অভিযানে ক্ষুব্ধ ভবন মালিকরা রেকমত আলী উচ্চ বিদ্যালয়ের মজিবুর রহমান সভাপতির দায়িত্ব নিয়েই শিক্ষার মান উন্নয়নের তাগিদ অস্ত্রের লাইসেন্সের আবেদন না করেও অপপ্রচারের শিকার মহিউদ্দিন মোল্লা ! সাংবাদিক শাওনের বাবা ফিরোজ আহমেদ আর নেই রিয়াদে জমকালো আয়োজনে মাই টিভির ১৫ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উদযাপন রিয়াদে প্রিমিয়াম ফুটবল লীগের ফাইনাল অনুষ্ঠিত

রূপগঞ্জে আইনজীবীর বাড়ীতে অবৈধ গ্যাস বিস্ফোরণে নিহত-২ : দগ্ধ -৭

  • প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৬:৪০:৫৪ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২২ এপ্রিল ২০১৯
  • ১৪৯ বার পড়া হয়েছে

রূপগঞ্জ প্রতিনিধি : রূপগঞ্জে আইনজীবীর বাড়িতে গ্যাস বিস্ফোরণ। বাড়ীর দেয়াল ধসে ২ শ্রমিক নিহত। দগ্ধ হয়েছে সাতজন। সোমবার ভোর রাতে উপজেলার সাওঘাট এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলো, মেহেরপুর জেলার মুজিবনগর থানার কোমরপুর এলাকার দুদু মিয়ার ছেলে শামীম (৩০) ও ঝালকাঠি জেলার নলছিটি থানার কয়া এলাকার রহিম বিশ্বাসের ছেলে হেলাল বিশ্বাস ওরফে রাকিব (২৫)। নিহত দুজনই স্থানীয় নেক্সট এক্সোসরিস লিমিটেড পোশাক কারখানার শ্রমিক।
জানা গেছে, ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের পাশে তিতাস গ্যাসের হাইপ্রেসারের পাইপলাইন থেকে নিজের দোতলা বাড়ীতে অবৈধ ভাবে গ্যাস সংযোগ নেন আইনজীবী রাবেয়া আক্তার মিলি। হাইপ্রেসারের পাইপলাইন থেকে আবাসিক গ্যাস সংযোগ নেয়াটা পুরোটাই ঝুঁকিপূর্ণ। এ ছাড়া শবেবরাতের কারণে এলাকার সব মিল-কারখানা বন্ধ থাকায় গ্যাসের প্রেসার ছিল বেশি। ওই বাড়ীতে ভাড়া থাকতেন স্থানীয় নেক্সট এক্সোসরিস লিমিটেড পোশাক কারখানার কয়েকজন শ্রমিক।

রোববার দিবাগত রাত সোয়া ৩ টার দিকে হঠাৎ করে ওই বাসায় বিস্ফোরণ ঘটে। বিস্ফোরণে ভবনের পুরো দেয়াল ভেঙে যায়। পরে স্থানীয়রা ঘটনাস্থলে গিয়ে দগ্ধ অবস্থায় ৬ জনকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে ভর্তি করেন এবং ৩ জনকে স্থানীয় ক্লিনিকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়। গুরুতর আহতদের মধ্যে শামীম ও হেলাল বিশ্বাস ওরফে রাকিবকে মৃত ঘোষণা করেন কর্তব্যরত চিকিৎসকরা।

আহতরা হলেন, নেক্সট এক্সোসরিস লিমিটেড পোশাক কারখানার শ্রমিক তরিকুল ইসলাম, লিয়াকত আলী, হযরত আলী, আরিফ, আনোয়ার হোসেন, ফারুক মিয়া ও আরিফুর রহমান। তাদের মধ্যে লিয়াকত ও আরিফের অবস্থা আশঙ্কাজনক।

এ ব্যাপারে বাড়ির মালিক রাবেয়া আক্তার মিলি বলেন, অন্যরা যেভাবে অবৈধ গ্যাস সংযোগ নিয়েছে আমিও সেভাবেই নিয়েছি। তবে আমার বাড়িতে পরিকল্পিতভাবে এ ঘটনা ঘটানো হয়েছে।

তিতাস গ্যাসের সোনারগাঁও জোনের সুপারভাইজার ইসমাইল হোসেন বলেন, এর আগে এ ধরনের আরও বেশ কয়েকটি ঘটনা ঘটেছে। হাইপ্রেসার লাইন থেকে অবৈধভাবে গ্যাস সংযোগ নেয়া। আবার শবেবরাত উপলক্ষে সব মিল-কারখানা বন্ধ। সব মিলিয়ে গ্যাসের অধিক প্রেসার ছিল। হয়তো বিল্ডিংয়ের ভেতরে গ্যাস ছড়িয়ে ছিল। আগুনের সংস্পর্শে গ্যাস বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটতে পারে।

এ বিষয়ে ভুলতা পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ রফিকুল হক বলেন, গ্যাস বিস্ফোরণে দুজন মারা গেছেন। ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালেই তাদের ময়নাতদন্ত হবে। ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সঙ্গে কথা বলে পরবর্তী ব্যবস্থা নেয়া হবে।

ট্যাগস :

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

নাসিকের ময়লার গাড়ির ধাক্কায় গর্ভবতীর পোশাক শ্রমিক নিহত

রূপগঞ্জে আইনজীবীর বাড়ীতে অবৈধ গ্যাস বিস্ফোরণে নিহত-২ : দগ্ধ -৭

আপডেট সময় : ০৬:৪০:৫৪ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২২ এপ্রিল ২০১৯

রূপগঞ্জ প্রতিনিধি : রূপগঞ্জে আইনজীবীর বাড়িতে গ্যাস বিস্ফোরণ। বাড়ীর দেয়াল ধসে ২ শ্রমিক নিহত। দগ্ধ হয়েছে সাতজন। সোমবার ভোর রাতে উপজেলার সাওঘাট এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলো, মেহেরপুর জেলার মুজিবনগর থানার কোমরপুর এলাকার দুদু মিয়ার ছেলে শামীম (৩০) ও ঝালকাঠি জেলার নলছিটি থানার কয়া এলাকার রহিম বিশ্বাসের ছেলে হেলাল বিশ্বাস ওরফে রাকিব (২৫)। নিহত দুজনই স্থানীয় নেক্সট এক্সোসরিস লিমিটেড পোশাক কারখানার শ্রমিক।
জানা গেছে, ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের পাশে তিতাস গ্যাসের হাইপ্রেসারের পাইপলাইন থেকে নিজের দোতলা বাড়ীতে অবৈধ ভাবে গ্যাস সংযোগ নেন আইনজীবী রাবেয়া আক্তার মিলি। হাইপ্রেসারের পাইপলাইন থেকে আবাসিক গ্যাস সংযোগ নেয়াটা পুরোটাই ঝুঁকিপূর্ণ। এ ছাড়া শবেবরাতের কারণে এলাকার সব মিল-কারখানা বন্ধ থাকায় গ্যাসের প্রেসার ছিল বেশি। ওই বাড়ীতে ভাড়া থাকতেন স্থানীয় নেক্সট এক্সোসরিস লিমিটেড পোশাক কারখানার কয়েকজন শ্রমিক।

রোববার দিবাগত রাত সোয়া ৩ টার দিকে হঠাৎ করে ওই বাসায় বিস্ফোরণ ঘটে। বিস্ফোরণে ভবনের পুরো দেয়াল ভেঙে যায়। পরে স্থানীয়রা ঘটনাস্থলে গিয়ে দগ্ধ অবস্থায় ৬ জনকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে ভর্তি করেন এবং ৩ জনকে স্থানীয় ক্লিনিকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়। গুরুতর আহতদের মধ্যে শামীম ও হেলাল বিশ্বাস ওরফে রাকিবকে মৃত ঘোষণা করেন কর্তব্যরত চিকিৎসকরা।

আহতরা হলেন, নেক্সট এক্সোসরিস লিমিটেড পোশাক কারখানার শ্রমিক তরিকুল ইসলাম, লিয়াকত আলী, হযরত আলী, আরিফ, আনোয়ার হোসেন, ফারুক মিয়া ও আরিফুর রহমান। তাদের মধ্যে লিয়াকত ও আরিফের অবস্থা আশঙ্কাজনক।

এ ব্যাপারে বাড়ির মালিক রাবেয়া আক্তার মিলি বলেন, অন্যরা যেভাবে অবৈধ গ্যাস সংযোগ নিয়েছে আমিও সেভাবেই নিয়েছি। তবে আমার বাড়িতে পরিকল্পিতভাবে এ ঘটনা ঘটানো হয়েছে।

তিতাস গ্যাসের সোনারগাঁও জোনের সুপারভাইজার ইসমাইল হোসেন বলেন, এর আগে এ ধরনের আরও বেশ কয়েকটি ঘটনা ঘটেছে। হাইপ্রেসার লাইন থেকে অবৈধভাবে গ্যাস সংযোগ নেয়া। আবার শবেবরাত উপলক্ষে সব মিল-কারখানা বন্ধ। সব মিলিয়ে গ্যাসের অধিক প্রেসার ছিল। হয়তো বিল্ডিংয়ের ভেতরে গ্যাস ছড়িয়ে ছিল। আগুনের সংস্পর্শে গ্যাস বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটতে পারে।

এ বিষয়ে ভুলতা পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ রফিকুল হক বলেন, গ্যাস বিস্ফোরণে দুজন মারা গেছেন। ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালেই তাদের ময়নাতদন্ত হবে। ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সঙ্গে কথা বলে পরবর্তী ব্যবস্থা নেয়া হবে।