নারায়ণগঞ্জ ১০:৫৪ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ০৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ২১ মাঘ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
মাইক্রোসফট ইনোভেটিভ এডুকেটর এক্সপার্ট বাংলাদেশ কমিউনিটি মিটআপ ২০২৩ অনুষ্ঠিত আদমজী ইপিজেডকে অশান্ত করছে জনপ্রতিনিধিরা রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের আশঙ্কা সিদ্ধিরগঞ্জ রিপোর্টার্স ক্লাবের কর্মকর্তাদের সাথে মহিলা লীগ নেত্রীর শুভেচ্ছা বিনিময় না’গঞ্জ কারাগারে হাজতীর মৃত্যু ফতুল্লায় চোরাইকৃত ট্যাংকলড়ী উদ্ধার আড়াইহাজারের মিথিলা টেক্সটাইল ঘুরে গেলেন ৮ দেশের রাষ্ট্রদূতসহ ১৮ দেশের প্রতিনিধি সিদ্ধিরগঞ্জ রিপোর্টার্স ক্লাবের কর্মকর্তাদের সাথে কাউন্সিলর ইকবাল হোসেনের মতবিনিময় ফতুল্লা ব্লাড ডোনার্সের উদ্যোগে শীতার্তদের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ শিক্ষা সিলেবাস বাতিলের দাবিতে খেলাফত মজলিসের বিক্ষোভ মিছিল সমাজতান্ত্রিক মহিলা ফোরামের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে শহরে নারী সমাবেশ ও মিছিল

উপজেলা নির্বাচনী ছাত্রলীগের শরিফের নাম এখন সবার মুখে

  • প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০১:২৯:২২ অপরাহ্ন, সোমবার, ১১ মার্চ ২০১৯
  • ১০৯ বার পড়া হয়েছে

এ.আর.কুতুবে আলম : আসন্ন উপজেলা নির্বাচনে সারা দেশে বইছে নির্বাচনী হাওয়া । সারা দেশের ন্যায় নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলায়ও বইছে নির্বাচনী হাওয়া। এই নির্বাচনে বিভিন্ন রাজনৈতিক নেতাকর্মীরা নিজ নিজ দলের ছক আঁকছে কাকে তারা নির্বাচিত করবে। প্রার্থী বাচাই চলছে সবার মনে। এমন নির্বাচনী সরগম এখন ফতুল্লার পাড়া মহল্লায় চায়ের দোকান থেকে শুরু করে লঞ্চঘাট বাস স্ট্যান্ড বইছে নানা গুঞ্জন । সবার মুখে মুখে শুনা যায় নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলায় নির্বাচন হলে ভাইস চেয়ারম্যান পদে প্রার্থী হিসেবে আলহাজ¦ আবু মোহাম্মদ শরিফুলহকের নাম। তিনি ফতুল্লা থানা ছাত্রীলীগের সফল সভাপতি। তাকে নিয়ে চলছে আলোচনার ঝড় । ফতুল্লাসহ উপজেলার ৭ টি ইউনিয়নের নেতাকর্মী ও সাধারন মানুষের পছন্দের প্রার্থী হবেন আবু মো.শরিফুল হক। তিনি নিয়মিত নামাজ রোজাসহ ইসলাম কায়েমে এগিয়ে আছেন। মানুষটি যদিও উচ্চাতায় খাটো কিন্তু তার বুদ্ধি ও মেধা মনন যথেষ্ট প্রখর এমনটাই বলছেন সচেতন মহল। তিনি ফতুল্লাসহ বিভিন্ন এলাকায় সবার প্রিয় মানুষ। এমনকি নারায়ণগঞ্জ ৪ আসনের এম.পি উন্নয়নের রূপকার আলহাজ¦ এ.কেএম শামীম ওসমানের ¯েœহের পাত্র। তিনি ফতুল্লা থানা আওয়ামীলীগের সফল সভাপতি আলহাজ¦ এম. সাইফ উল্লাহ বাদল সাধারন সম্পাদক আলহাজ¦ এম শওকত আলীর ¯েœহ ভাজন। তিনি নারায়ণগঞ্জ জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সফল সভাপতি সবার প্রিয় মুখ এহসানুলহক নিপুর অত্যান্ত আদরের রাজনৈতিক ছোট ভাই। তিনি গত একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে এলাকার মুরুব্বীদের এক ছাতার তলে আনতে পেরেছেন এবং সবার মুখে নৌকার শ্লোগান ও শামীম ওসমানের পক্ষে ভোট চাইতে মাঠে নামাতে পেরেছেন। দলমত ভেদাভেদ দূর করে স্থানীয় সামাজিক গন্যমান্য ব্যক্তিদের কে বর্তমান সরকারের প্রধান মন্ত্রী দেশরতœ শেখ হাসিনার পক্ষ্যে নামাতে সক্ষম হয়েছেন। তিনি পারিবারিক সূত্রেও সবার প্রিয় মানুষ। আবু মোহাম্মদ শরিফুল হক আওয়ামীলীগ ও তার অঙ্গ সংগঠনের সকল নেতাকর্মীর প্রিয় মানুষ। আগামী সদর উপজেলা নির্বাচনে ভাইস চেয়ারম্যান পদে তাকে দেখতে চায় এমনটাই জানান ফতুল্লাবাসী। তিনি অন্যায়ের প্রতিবাদ ন্যায়ের পক্ষে লড়ে আসছে সেই ছাত্র জীবন থেকেই। তিনি কারো বিরুদ্ধে মিথ্যা প্রশংসা বা সমালোচনা পছন্দ করেন না। নিজে নিয়মিত জামাতের সহিত নামাজ আদায় করেন এবং তার সাথে যারাই চলে তাদেরকে নামাজ পড়ার তাগিদ করে আসছেন। তাকে নিয়ে নারায়ণগঞ্জ থেকে প্রকাশিত বেশ কয়েকটি স্থানীয় দৈনিক পত্রিকা এবং অনলাইন পোর্টকলে সংবাদ ছাপলে সবার মনে উৎসাহ উদ্দিপনা দেখা যায়। তিনি ভাইস চেয়ারম্যান পদে নির্বাচন করলে বিপুল ভোটে নির্বাচিত হবে এমনটাই বলছেন তৃনমূল নেতা কর্মী ও সাধারন মানুষেরা। তার রাজনীতি পরিপক্কতা যথেষ্ট প্রখর হয়েছে তা প্রমান এলাকার সবার মুখে। তিনি সামাজিক কাজে নিজ তহফিল থেকে বিভিন্ন সেবা মূলক কাজে দান করে আসছে। বক্তাবলী এলাকার তরকারী ব্যবসায়ী শাহজাহান । সে ফতুল্লা বাজারে দীর্ঘদিন ব্যবসা করে আসছে। তিনি জানান, শরীফ ভাই অত্যন্ত ভালো মানুষ ফতুল্লা বাজারে সে আসে কিন্তু কারো সাথে তিনি কোন প্রকার খারাপ আচারন করেনি। তিনি একটি মিসকি হাসি দিয়ে ছোট বড় সবাইকে প্রথমেই সালাম করেন। তার মতো লোক আমাদের সেবায় প্রয়োজন। আমি একজন সাধারন ভোটার হিসেবে বলবো তাকে বক্তাবলীর সবাই ভোট দিবেন। এনায়েত নগর এলাকার ব্যবসায়ী মো. নজরুল ইসলাম, শিক্ষক ইমরুল কায়েস , মুসলিম নগর এলাকার সাধারন ভোটার মিজান, ফারুক, আমেনা বিবি, লালপুর এলাকার বিশিষ্ট রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব নীল রতন বাবু জানান, আবু মোহম্মদ শরিফুল হক আমার আদরের ভাগিনা । তার দল যদি তাকে নমিনেশন দেয় তাহলে আমি অবশ্যই দলমত ভুলে এই ভালো ছেলেটিকে বিজয়ী করার ল²ে মাঠে থাকবো। ফতুল্লা রিপোর্টার্স ক্লাবের সফল সভাপতি কবি, প্রবীণ সাংবাদিক,অবসর প্রাপ্ত শিক্ষক রনজিৎ মোদক জানান, আমার পরম বন্ধু মরহুম ফজলুল হক সাহেব।তিনিও ভাল লোক ছিলেন। তার ছেলে শরিফ। তিনি অত্যান্ত মেধাবী এবং পরিপক্ক ছাত্রলীগ নেতা । সে যদি নমিণেশন পায় তাহলে বিপুল ভোটে জয় লাভ করবে। তার জন্য আমার ও আমার পরিবারের পক্ষ থেকে আর্শিবাদ রইল। তার মতো তরুণরাই দেশ জয় করতে পারবে। তারাই জাতির আগামীর ভবিষ্যত উন্নয়নের চাবী কাঠি হবেন। স্কুল শিক্ষিকা পূর্ন ল²ী রানী , এ্যাড. মাওলানা মোহাম্মদ আলমগীর হোসেন , মো. জসিম উদ্দিন খান, ব্যবসায়ী মহি উদ্দিন আহমেমদ রানা, পৌষার পুকুর পাড় এলাকার ব্যববসায়ী হাবিবুর রহমান, গাবতলী এলাকার আ.খালেক. দাপা ইদ্রাকপুর এলাকা মিরাজ হোসেন, আলী আশরাফ , কুতুবপুর এলাকার এ্যাড. শিল্পী আক্তার, রাবেয়া খাতুন, কাশীপুর এলাকার আ. রহিমসহ অনেকেই জানান, আবু মো. শরিফুল হক যদি নির্বাচন করেন সে ভাইস চেয়ারম্যান পদে বিপুল ভোটে নির্বাচিত হবে। তারা আরো জানান, আবু মো. শরিফুল হক একজন ভাল মানুষ। বিপদে পড়ে তার কাছে গেলে তিনি ঠান্ডা মাথায় সমাধান করেন এবং শান্তনা দিয়ে মানুষের মনকে জয় করতে পারেন।
ফতুল্লার পাড়া মহল্লায় সবার মুখে মুখে শরিফুল হকের নাম। তিনি নির্বাচন করলে অব্যশই বিপুল ভোটে নির্বাচিত হবে এমন মন্তব্য সবার।
এব্যাপারে তিনি জানান, আমি নারায়ণগঞ্জ ৪ আসনের এম.পি উন্নয়নের রূপকার, গন মানুষের নেতা, আমার শ্রদ্ধায় বড় ভাই, আমার রাজনীতি গুরু এ.কে এম. শামীম ওসামন ভাই‘র ক্ষুদ্র কর্মী হিসেবে বলবো তিনি আমাকে নির্দেশ করলে আমি নির্বাচন করবো। তিনি যাকে নমিনেশন দিবেন আমি তার সাথেই কাজ করবো। তিনি আমাদের দিকপাল তাঁর সিদ্ধান্তে আমি থাকবো।

ট্যাগস :

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

জনপ্রিয় সংবাদ

মাইক্রোসফট ইনোভেটিভ এডুকেটর এক্সপার্ট বাংলাদেশ কমিউনিটি মিটআপ ২০২৩ অনুষ্ঠিত

উপজেলা নির্বাচনী ছাত্রলীগের শরিফের নাম এখন সবার মুখে

আপডেট সময় : ০১:২৯:২২ অপরাহ্ন, সোমবার, ১১ মার্চ ২০১৯

এ.আর.কুতুবে আলম : আসন্ন উপজেলা নির্বাচনে সারা দেশে বইছে নির্বাচনী হাওয়া । সারা দেশের ন্যায় নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলায়ও বইছে নির্বাচনী হাওয়া। এই নির্বাচনে বিভিন্ন রাজনৈতিক নেতাকর্মীরা নিজ নিজ দলের ছক আঁকছে কাকে তারা নির্বাচিত করবে। প্রার্থী বাচাই চলছে সবার মনে। এমন নির্বাচনী সরগম এখন ফতুল্লার পাড়া মহল্লায় চায়ের দোকান থেকে শুরু করে লঞ্চঘাট বাস স্ট্যান্ড বইছে নানা গুঞ্জন । সবার মুখে মুখে শুনা যায় নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলায় নির্বাচন হলে ভাইস চেয়ারম্যান পদে প্রার্থী হিসেবে আলহাজ¦ আবু মোহাম্মদ শরিফুলহকের নাম। তিনি ফতুল্লা থানা ছাত্রীলীগের সফল সভাপতি। তাকে নিয়ে চলছে আলোচনার ঝড় । ফতুল্লাসহ উপজেলার ৭ টি ইউনিয়নের নেতাকর্মী ও সাধারন মানুষের পছন্দের প্রার্থী হবেন আবু মো.শরিফুল হক। তিনি নিয়মিত নামাজ রোজাসহ ইসলাম কায়েমে এগিয়ে আছেন। মানুষটি যদিও উচ্চাতায় খাটো কিন্তু তার বুদ্ধি ও মেধা মনন যথেষ্ট প্রখর এমনটাই বলছেন সচেতন মহল। তিনি ফতুল্লাসহ বিভিন্ন এলাকায় সবার প্রিয় মানুষ। এমনকি নারায়ণগঞ্জ ৪ আসনের এম.পি উন্নয়নের রূপকার আলহাজ¦ এ.কেএম শামীম ওসমানের ¯েœহের পাত্র। তিনি ফতুল্লা থানা আওয়ামীলীগের সফল সভাপতি আলহাজ¦ এম. সাইফ উল্লাহ বাদল সাধারন সম্পাদক আলহাজ¦ এম শওকত আলীর ¯েœহ ভাজন। তিনি নারায়ণগঞ্জ জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সফল সভাপতি সবার প্রিয় মুখ এহসানুলহক নিপুর অত্যান্ত আদরের রাজনৈতিক ছোট ভাই। তিনি গত একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে এলাকার মুরুব্বীদের এক ছাতার তলে আনতে পেরেছেন এবং সবার মুখে নৌকার শ্লোগান ও শামীম ওসমানের পক্ষে ভোট চাইতে মাঠে নামাতে পেরেছেন। দলমত ভেদাভেদ দূর করে স্থানীয় সামাজিক গন্যমান্য ব্যক্তিদের কে বর্তমান সরকারের প্রধান মন্ত্রী দেশরতœ শেখ হাসিনার পক্ষ্যে নামাতে সক্ষম হয়েছেন। তিনি পারিবারিক সূত্রেও সবার প্রিয় মানুষ। আবু মোহাম্মদ শরিফুল হক আওয়ামীলীগ ও তার অঙ্গ সংগঠনের সকল নেতাকর্মীর প্রিয় মানুষ। আগামী সদর উপজেলা নির্বাচনে ভাইস চেয়ারম্যান পদে তাকে দেখতে চায় এমনটাই জানান ফতুল্লাবাসী। তিনি অন্যায়ের প্রতিবাদ ন্যায়ের পক্ষে লড়ে আসছে সেই ছাত্র জীবন থেকেই। তিনি কারো বিরুদ্ধে মিথ্যা প্রশংসা বা সমালোচনা পছন্দ করেন না। নিজে নিয়মিত জামাতের সহিত নামাজ আদায় করেন এবং তার সাথে যারাই চলে তাদেরকে নামাজ পড়ার তাগিদ করে আসছেন। তাকে নিয়ে নারায়ণগঞ্জ থেকে প্রকাশিত বেশ কয়েকটি স্থানীয় দৈনিক পত্রিকা এবং অনলাইন পোর্টকলে সংবাদ ছাপলে সবার মনে উৎসাহ উদ্দিপনা দেখা যায়। তিনি ভাইস চেয়ারম্যান পদে নির্বাচন করলে বিপুল ভোটে নির্বাচিত হবে এমনটাই বলছেন তৃনমূল নেতা কর্মী ও সাধারন মানুষেরা। তার রাজনীতি পরিপক্কতা যথেষ্ট প্রখর হয়েছে তা প্রমান এলাকার সবার মুখে। তিনি সামাজিক কাজে নিজ তহফিল থেকে বিভিন্ন সেবা মূলক কাজে দান করে আসছে। বক্তাবলী এলাকার তরকারী ব্যবসায়ী শাহজাহান । সে ফতুল্লা বাজারে দীর্ঘদিন ব্যবসা করে আসছে। তিনি জানান, শরীফ ভাই অত্যন্ত ভালো মানুষ ফতুল্লা বাজারে সে আসে কিন্তু কারো সাথে তিনি কোন প্রকার খারাপ আচারন করেনি। তিনি একটি মিসকি হাসি দিয়ে ছোট বড় সবাইকে প্রথমেই সালাম করেন। তার মতো লোক আমাদের সেবায় প্রয়োজন। আমি একজন সাধারন ভোটার হিসেবে বলবো তাকে বক্তাবলীর সবাই ভোট দিবেন। এনায়েত নগর এলাকার ব্যবসায়ী মো. নজরুল ইসলাম, শিক্ষক ইমরুল কায়েস , মুসলিম নগর এলাকার সাধারন ভোটার মিজান, ফারুক, আমেনা বিবি, লালপুর এলাকার বিশিষ্ট রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব নীল রতন বাবু জানান, আবু মোহম্মদ শরিফুল হক আমার আদরের ভাগিনা । তার দল যদি তাকে নমিনেশন দেয় তাহলে আমি অবশ্যই দলমত ভুলে এই ভালো ছেলেটিকে বিজয়ী করার ল²ে মাঠে থাকবো। ফতুল্লা রিপোর্টার্স ক্লাবের সফল সভাপতি কবি, প্রবীণ সাংবাদিক,অবসর প্রাপ্ত শিক্ষক রনজিৎ মোদক জানান, আমার পরম বন্ধু মরহুম ফজলুল হক সাহেব।তিনিও ভাল লোক ছিলেন। তার ছেলে শরিফ। তিনি অত্যান্ত মেধাবী এবং পরিপক্ক ছাত্রলীগ নেতা । সে যদি নমিণেশন পায় তাহলে বিপুল ভোটে জয় লাভ করবে। তার জন্য আমার ও আমার পরিবারের পক্ষ থেকে আর্শিবাদ রইল। তার মতো তরুণরাই দেশ জয় করতে পারবে। তারাই জাতির আগামীর ভবিষ্যত উন্নয়নের চাবী কাঠি হবেন। স্কুল শিক্ষিকা পূর্ন ল²ী রানী , এ্যাড. মাওলানা মোহাম্মদ আলমগীর হোসেন , মো. জসিম উদ্দিন খান, ব্যবসায়ী মহি উদ্দিন আহমেমদ রানা, পৌষার পুকুর পাড় এলাকার ব্যববসায়ী হাবিবুর রহমান, গাবতলী এলাকার আ.খালেক. দাপা ইদ্রাকপুর এলাকা মিরাজ হোসেন, আলী আশরাফ , কুতুবপুর এলাকার এ্যাড. শিল্পী আক্তার, রাবেয়া খাতুন, কাশীপুর এলাকার আ. রহিমসহ অনেকেই জানান, আবু মো. শরিফুল হক যদি নির্বাচন করেন সে ভাইস চেয়ারম্যান পদে বিপুল ভোটে নির্বাচিত হবে। তারা আরো জানান, আবু মো. শরিফুল হক একজন ভাল মানুষ। বিপদে পড়ে তার কাছে গেলে তিনি ঠান্ডা মাথায় সমাধান করেন এবং শান্তনা দিয়ে মানুষের মনকে জয় করতে পারেন।
ফতুল্লার পাড়া মহল্লায় সবার মুখে মুখে শরিফুল হকের নাম। তিনি নির্বাচন করলে অব্যশই বিপুল ভোটে নির্বাচিত হবে এমন মন্তব্য সবার।
এব্যাপারে তিনি জানান, আমি নারায়ণগঞ্জ ৪ আসনের এম.পি উন্নয়নের রূপকার, গন মানুষের নেতা, আমার শ্রদ্ধায় বড় ভাই, আমার রাজনীতি গুরু এ.কে এম. শামীম ওসামন ভাই‘র ক্ষুদ্র কর্মী হিসেবে বলবো তিনি আমাকে নির্দেশ করলে আমি নির্বাচন করবো। তিনি যাকে নমিনেশন দিবেন আমি তার সাথেই কাজ করবো। তিনি আমাদের দিকপাল তাঁর সিদ্ধান্তে আমি থাকবো।