নারায়ণগঞ্জ ০৬:৫১ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১১ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
রিয়াদে Dxnএর আয়োজনে আন্তজার্তিক মাতৃভাষা দিবস পালন ও সেমিনার অনুষ্ঠিত ইসদাইরে অবৈধ ক্যাবল অপারেটর ব্যবসার বিরুদ্ধে অভিযান,অফিস সীলগালা চাষাড়ায় মাতৃভাষা দিবসে বইমেলার উদ্বোধন নারায়ণগঞ্জে কারাগারে সাংবাদিক হত্যাকারির আত্নহত্যা চৌধুরীগাঁও উচ্চ বিদ্যালয়ে ভাষা শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন অস্ত্র মামলায় মিশনপাড়ার নাজমুলকে ১০ বছরের কারাদণ্ড বন্দরে এক রোহিঙ্গা যুবককে ৪হাজার ইয়াবাসহ গ্রেপ্তার উপজেলা নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে জামানত ১ লাখ টাকা ফতুল্লার ক্লু-লেস হত্যার রহস্য উদঘাটনসহ প্রধান আসামিকে গ্রেফতার র‌্যাব-১১ বানিজ্য মেলায় দর্শনার্থীদের সেবা দিতে ডিকেএমসি হাসপাতালের অধ্যাপক ডাক্তার এম এ কাশেম

প্রতারণাপূর্ণ জালিয়াতির নির্বাচন সরকারিদলের জন্য কলঙ্ক ও লজ্জার– টিপু

  • প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৫:৩০:৩৩ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৩ জানুয়ারী ২০১৯
  • ১২৬ বার পড়া হয়েছে

 

প্রেস বিজ্ঞপ্তিঃ
বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টির কেন্দ্রীয় পলিট ব্যুরোর সদস্য ও বাম গণতান্ত্রিক জোট-এর শীর্ষ নেতা জননেতা কমরেড আবু হাসান টিপু বলেছেন, ৩০ ডিসেম্বরের প্রতারণাপূর্ণ জালিয়াতির নির্বাচন সরকারি দলের জন্য গৌরব ও মর্যাদার নয়, বরং কলঙ্ক ও লজ্জার। সরকারক মানুষের ভোটাধিকারের বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়ে যে নজিরবিহীন জালিয়াতি, কেন্দ্র দখল, প্রকাশ্যে সিল মারা, বিরোধী দলীয় প্রার্থীদেরকে লাঞ্চিত ও তাদের নির্বাচনী এজেন্টদেরকে ভোটকেন্দ্র থেকে বের করে দিয়ে যে নির্বাচন সম্পন্ন করলেন তা একদিকে দেশের গোটা নির্বাচনী ব্যবস্থার ন্যূনতম বিশ^াসযোগ্যতাকে ধ্বংস করে দিয়েছে। আর অন্যদিকে দেশের ন্যূনতম ও গণতান্ত্রিক কাঠামোকেও বিধ্বস্ত করে দিয়েছে।

তিনি বলেন, পুলিশসহ রাষ্ট্রীয় বাহিনীসমূহ ও সরকারীদলের নিরঙ্কুশ কর্তৃত্বে সরকারি দল ও জোটকে যেভাবে বিজয়ী দেখানো হয়েছে তা সরকারি দলের জন্য রাজনৈতিক ও নৈতিক পরাজয়।

আবু হাসান টিপু আরও বলেন, জনগণের ভোটাধিকার হরণ ও ব্যর্থ নির্বাচনের দায়-দায়িত্ব নিয়ে এই নির্বাচন কমিশনকে অবিলম্বে পদত্যাগ করতে হবে। প্রতারণাপূর্ণ তামাশার এই নির্বাচন ও নির্বাচনী ফলাফল বাতিল করে অনতিবিলম্বে নিরপেক্ষ তদারকি সরকারের অধীনে পুনঃনির্বাচনের আয়োজন করতে হবে। অন্যথায় সরকার পতনের লক্ষে জনগণ ভিন্ন পথে অগ্রসর হলে তার দায় দায়িত্ব সরকারকেই বহন হবে।

আজ সকালে বাংলাদেশের বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টির ফতুল্লা থানা কমিটির বর্ধিত সভায় ৩০ ডিসেম্বরের নির্বাচন পর্যালোচনা কালে আবু হাসান টিপু এসব কথা বলেন।

বৃহস্প্রতিবার (৩ জানুয়ারী) দলীয় কার্যালয়ে শহিদুল আলম নাননুর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এ বর্ধিত সভাতে অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন শ্রমিকনেতা হাবিবুর রহমান আঙ্গুর, মোক্তার হোসেন, খোকন রাজ, সামসুজ্জামান বাবর, আবুল হোসেন প্রমূখ।

ট্যাগস :

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

জনপ্রিয় সংবাদ

রিয়াদে Dxnএর আয়োজনে আন্তজার্তিক মাতৃভাষা দিবস পালন ও সেমিনার অনুষ্ঠিত

প্রতারণাপূর্ণ জালিয়াতির নির্বাচন সরকারিদলের জন্য কলঙ্ক ও লজ্জার– টিপু

আপডেট সময় : ০৫:৩০:৩৩ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৩ জানুয়ারী ২০১৯

 

প্রেস বিজ্ঞপ্তিঃ
বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টির কেন্দ্রীয় পলিট ব্যুরোর সদস্য ও বাম গণতান্ত্রিক জোট-এর শীর্ষ নেতা জননেতা কমরেড আবু হাসান টিপু বলেছেন, ৩০ ডিসেম্বরের প্রতারণাপূর্ণ জালিয়াতির নির্বাচন সরকারি দলের জন্য গৌরব ও মর্যাদার নয়, বরং কলঙ্ক ও লজ্জার। সরকারক মানুষের ভোটাধিকারের বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়ে যে নজিরবিহীন জালিয়াতি, কেন্দ্র দখল, প্রকাশ্যে সিল মারা, বিরোধী দলীয় প্রার্থীদেরকে লাঞ্চিত ও তাদের নির্বাচনী এজেন্টদেরকে ভোটকেন্দ্র থেকে বের করে দিয়ে যে নির্বাচন সম্পন্ন করলেন তা একদিকে দেশের গোটা নির্বাচনী ব্যবস্থার ন্যূনতম বিশ^াসযোগ্যতাকে ধ্বংস করে দিয়েছে। আর অন্যদিকে দেশের ন্যূনতম ও গণতান্ত্রিক কাঠামোকেও বিধ্বস্ত করে দিয়েছে।

তিনি বলেন, পুলিশসহ রাষ্ট্রীয় বাহিনীসমূহ ও সরকারীদলের নিরঙ্কুশ কর্তৃত্বে সরকারি দল ও জোটকে যেভাবে বিজয়ী দেখানো হয়েছে তা সরকারি দলের জন্য রাজনৈতিক ও নৈতিক পরাজয়।

আবু হাসান টিপু আরও বলেন, জনগণের ভোটাধিকার হরণ ও ব্যর্থ নির্বাচনের দায়-দায়িত্ব নিয়ে এই নির্বাচন কমিশনকে অবিলম্বে পদত্যাগ করতে হবে। প্রতারণাপূর্ণ তামাশার এই নির্বাচন ও নির্বাচনী ফলাফল বাতিল করে অনতিবিলম্বে নিরপেক্ষ তদারকি সরকারের অধীনে পুনঃনির্বাচনের আয়োজন করতে হবে। অন্যথায় সরকার পতনের লক্ষে জনগণ ভিন্ন পথে অগ্রসর হলে তার দায় দায়িত্ব সরকারকেই বহন হবে।

আজ সকালে বাংলাদেশের বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টির ফতুল্লা থানা কমিটির বর্ধিত সভায় ৩০ ডিসেম্বরের নির্বাচন পর্যালোচনা কালে আবু হাসান টিপু এসব কথা বলেন।

বৃহস্প্রতিবার (৩ জানুয়ারী) দলীয় কার্যালয়ে শহিদুল আলম নাননুর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এ বর্ধিত সভাতে অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন শ্রমিকনেতা হাবিবুর রহমান আঙ্গুর, মোক্তার হোসেন, খোকন রাজ, সামসুজ্জামান বাবর, আবুল হোসেন প্রমূখ।