নারায়ণগঞ্জ ১০:৪২ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২০ জুন ২০২৪, ৬ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
সোনারগাঁওয়ে কৃতি শিক্ষার্থীদের সংবর্ধনা অনুষ্ঠিত সিদ্ধিরগঞ্জে ৪টি কারখানার অবৈধ গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্ন হারামের পয়সা ব্যারামে খায় ,আমি হারাম খাই না খেতেও দেই না-সেলিম ওসমান ভূমি সম্পর্কিত সমস্যা থাকলে গণশুনানিতে আসার আহবান- না.গঞ্জে জেলা  প্রশাসক সিদ্ধিরগঞ্জে গ্যাসের দাবিতে ঢাকা-চটগ্রাম মহাসড়ক অবরোধ সোনারগাঁওয়ে জাতীয় শিক্ষা সপ্তাহ ২০২৪ অনুষ্ঠিত র‌্যাব পরিচয়ে ৫২ লাখ টাকা ছিনতাইয়ের ঘটনায় গ্রেফতার-৪ সিদ্ধিরগঞ্জে কাতার প্রবাসীর বাড়িতে ডাকাতি চিকিৎসার নামে কোনো প্রকার হয়রানি মেনে নেওয়া হবে না ঃ স্বাস্থ্যমন্ত্রী নাসিকের ময়লার গাড়ির ধাক্কায় গর্ভবতীর পোশাক শ্রমিক নিহত

সোনারগাঁয়ের কাঁচপুর কলাপট্টিতে প্রকাশ্যে জুয়ার আসর

  • প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৩:৪৮:২২ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২ অগাস্ট ২০১৮
  • ২৪২ বার পড়া হয়েছে

সোনারগাঁ প্রতিনিধি: সোনারগাঁয়ের কাঁচপুরের ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের পাশে কলাপট্টিতে সকাল থেকে গভীর রাত পর্যন্ত প্রশাসনের নাকের ডগায় চলছে প্রকাশ্যে জমজমাট জুয়ার আসর। কাঁচপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোশাররফ ওমর ও তার ছোট ভাই বাবুল ওমর এর শেল্টারে স্থানীয় পুলিশ প্রশাসনকে ম্যানেজ করে এই জুয়ার আসর চালাচ্ছে জনি, জিয়া,বাবুল ও রুবেল। এ আসরে জুয়া খেলে সর্বস্বান্ত হচ্ছে গার্মেন্টস শ্রমিক, রিক্সা চালক, পরিবহন শ্রমিক ও এলাকার উঠতি বয়সী যুবকরা।
স্থানীয়দের সাথে কথা বলে জানা গেছে, প্রত্যেক মাসের ০১ তারিখ থেকে ২৫ তারিখ পর্যন্ত প্রতিদিন সকাল থেকে গভীর রাত পর্যন্ত চলে জুয়া খেলা। কাঁচপুর সিনহা গার্মেন্টস এর সামনে এই জুয়ার আসর বসার ফলে মাসের বেতন পাওয়ার পর শ্রমিকরা ভির জমায় জুয়ার আসরে। তাই জুয়ারীরা গার্মেন্টস শ্রমিকদের টার্গেট করেই মাসের প্রথম থেকেই বসায় জুয়ার বসায় জুয়াড়ী চক্র। এছাড়া রিক্সা চালক ও পরিবহন শ্রমিকসহ এলাকার উঠতি বয়সী যুবকরাও সামিল হয় জুয়ার আসরে।
জুয়া পরিচালনাকারী জনি, রুবেল, জিয়া ও বাবুল জানায় স্থানীয় পুলিশ প্রশাসনকে নিয়মিত উৎকোচ মাসোহারা দিয়েই জুয়ার আসর বসানো হচ্ছে। এছাড়াও কাঁচপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোশাররফ ওমর ও তার ছোট ভাই বাবুল ওমর জুয়ার আসর থেকে ভাগ পাচ্ছে। স্থানীয় কিছু পাতি সন্ত্রাসী ও গণমাধ্যম কর্মীরাও প্রতিদিন এই জুয়ার আসর থেকে উৎকোচ নিচ্ছে বলে জানায় তারা।
এ বিষয়ে সোনারগাঁ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোরশেদ আলম জুয়ার আসর বসার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, পুলিশ জুয়ার আসর উঠিয়ে দিয়েছিল। তবে মাঝে মাঝে পুলিশের চোখ ফাঁকি দিয়ে আসর বসানো হয় বলে অবগত আছি। জুয়ার আসর বসার খবর পেলে অবশ্যই পুরিশ আইনগত ব্যাবস্থা গ্রহন করবে।
নারায়ণগঞ্জ জেলার অতিরিক্ত প্রলিশ পুপার বি সার্কেল এর সাথে মোবাইল ফোনে কথা হলে তিনি জানান, বিষয়টি আমি অবগত নই। তবে এ মূহুর্তে আমি ছুটিতে আছি। এসে অবশ্যই আইনগত ব্যাবস্থা নিব।

ট্যাগস :

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

সোনারগাঁওয়ে কৃতি শিক্ষার্থীদের সংবর্ধনা অনুষ্ঠিত

সোনারগাঁয়ের কাঁচপুর কলাপট্টিতে প্রকাশ্যে জুয়ার আসর

আপডেট সময় : ০৩:৪৮:২২ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২ অগাস্ট ২০১৮

সোনারগাঁ প্রতিনিধি: সোনারগাঁয়ের কাঁচপুরের ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের পাশে কলাপট্টিতে সকাল থেকে গভীর রাত পর্যন্ত প্রশাসনের নাকের ডগায় চলছে প্রকাশ্যে জমজমাট জুয়ার আসর। কাঁচপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোশাররফ ওমর ও তার ছোট ভাই বাবুল ওমর এর শেল্টারে স্থানীয় পুলিশ প্রশাসনকে ম্যানেজ করে এই জুয়ার আসর চালাচ্ছে জনি, জিয়া,বাবুল ও রুবেল। এ আসরে জুয়া খেলে সর্বস্বান্ত হচ্ছে গার্মেন্টস শ্রমিক, রিক্সা চালক, পরিবহন শ্রমিক ও এলাকার উঠতি বয়সী যুবকরা।
স্থানীয়দের সাথে কথা বলে জানা গেছে, প্রত্যেক মাসের ০১ তারিখ থেকে ২৫ তারিখ পর্যন্ত প্রতিদিন সকাল থেকে গভীর রাত পর্যন্ত চলে জুয়া খেলা। কাঁচপুর সিনহা গার্মেন্টস এর সামনে এই জুয়ার আসর বসার ফলে মাসের বেতন পাওয়ার পর শ্রমিকরা ভির জমায় জুয়ার আসরে। তাই জুয়ারীরা গার্মেন্টস শ্রমিকদের টার্গেট করেই মাসের প্রথম থেকেই বসায় জুয়ার বসায় জুয়াড়ী চক্র। এছাড়া রিক্সা চালক ও পরিবহন শ্রমিকসহ এলাকার উঠতি বয়সী যুবকরাও সামিল হয় জুয়ার আসরে।
জুয়া পরিচালনাকারী জনি, রুবেল, জিয়া ও বাবুল জানায় স্থানীয় পুলিশ প্রশাসনকে নিয়মিত উৎকোচ মাসোহারা দিয়েই জুয়ার আসর বসানো হচ্ছে। এছাড়াও কাঁচপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোশাররফ ওমর ও তার ছোট ভাই বাবুল ওমর জুয়ার আসর থেকে ভাগ পাচ্ছে। স্থানীয় কিছু পাতি সন্ত্রাসী ও গণমাধ্যম কর্মীরাও প্রতিদিন এই জুয়ার আসর থেকে উৎকোচ নিচ্ছে বলে জানায় তারা।
এ বিষয়ে সোনারগাঁ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোরশেদ আলম জুয়ার আসর বসার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, পুলিশ জুয়ার আসর উঠিয়ে দিয়েছিল। তবে মাঝে মাঝে পুলিশের চোখ ফাঁকি দিয়ে আসর বসানো হয় বলে অবগত আছি। জুয়ার আসর বসার খবর পেলে অবশ্যই পুরিশ আইনগত ব্যাবস্থা গ্রহন করবে।
নারায়ণগঞ্জ জেলার অতিরিক্ত প্রলিশ পুপার বি সার্কেল এর সাথে মোবাইল ফোনে কথা হলে তিনি জানান, বিষয়টি আমি অবগত নই। তবে এ মূহুর্তে আমি ছুটিতে আছি। এসে অবশ্যই আইনগত ব্যাবস্থা নিব।