নারায়ণগঞ্জ ০৯:০২ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৬ নভেম্বর ২০২২, ১২ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

ধর্মগঞ্জ চটলার মাঠে সম্পত্তি নিয়ে বিরোধের জেরে হামলা, আহত ১

  • প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৭:২০:৪৪ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ৯ ডিসেম্বর ২০১৭
  • ১১৩ বার পড়া হয়েছে

ফতুল্লার ধর্মগঞ্জ চটলার মাঠে সম্পত্তি নিয়ে বিরোধের জের ধরে মিজানুরকে কুপিয়ে যখম করেছে প্রতিপক্ষের লোকজন। এ ব্যাপারে মিজানুরের বড় ভাই হাজী আওলাদ হোসেন ফতুল্লা মডেল থানায় হাবিবুর রহমান (৭০), লুৎফর রহমান (৬৫), আদিল (২৬), বিল্লাল হোসেন (২৫) ও আল-আমিন (২২) এর বিরুদ্ধে একটি লিখিত অভিযোগ দিয়েছে।

পশ্চিম ধর্মগঞ্জ চটলার মাঠ এলাকার হাজী আব্দুল হক মল্লিকের ছেলে হাজী আওলাদ হোসেনের সাথে নিজ একই বংশের মৃত আব্দুল জব্বারের ছেলে হাবিবুর রহমানের সাথে সম্পত্তি নিয়ে বিরোধ দীর্ঘ দিনের ।

এ নিয়ে এলাকায় কয়েক দফা বিচার সালিশের মাধ্যমে আপোষ মিমাংসার চেষ্টা করা হয়েছিল। শেষ পর্যন্ত বিরোধ চলছিল উভয় পক্ষের মধ্যেই।

এরই সূত্র ধরে শুক্রবার সকালে মিজানুরের উপর ধারালো চাকু দিয়ে হামলা চালায় হাবিবুর রহমান,লুৎফর রহমান, আদিল, বিল্লাল হোসেন ও আল-আমিন। এসময় মিজানুরের চোখ আঘাত প্রাপ্ত হয়। মারাত্মক আহত মিজানুরকে খানপুর হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য ভর্তি করেছে তার স্বজনরা।

ট্যাগস :

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

জনপ্রিয় সংবাদ

ধর্মগঞ্জ চটলার মাঠে সম্পত্তি নিয়ে বিরোধের জেরে হামলা, আহত ১

আপডেট সময় : ০৭:২০:৪৪ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ৯ ডিসেম্বর ২০১৭

ফতুল্লার ধর্মগঞ্জ চটলার মাঠে সম্পত্তি নিয়ে বিরোধের জের ধরে মিজানুরকে কুপিয়ে যখম করেছে প্রতিপক্ষের লোকজন। এ ব্যাপারে মিজানুরের বড় ভাই হাজী আওলাদ হোসেন ফতুল্লা মডেল থানায় হাবিবুর রহমান (৭০), লুৎফর রহমান (৬৫), আদিল (২৬), বিল্লাল হোসেন (২৫) ও আল-আমিন (২২) এর বিরুদ্ধে একটি লিখিত অভিযোগ দিয়েছে।

পশ্চিম ধর্মগঞ্জ চটলার মাঠ এলাকার হাজী আব্দুল হক মল্লিকের ছেলে হাজী আওলাদ হোসেনের সাথে নিজ একই বংশের মৃত আব্দুল জব্বারের ছেলে হাবিবুর রহমানের সাথে সম্পত্তি নিয়ে বিরোধ দীর্ঘ দিনের ।

এ নিয়ে এলাকায় কয়েক দফা বিচার সালিশের মাধ্যমে আপোষ মিমাংসার চেষ্টা করা হয়েছিল। শেষ পর্যন্ত বিরোধ চলছিল উভয় পক্ষের মধ্যেই।

এরই সূত্র ধরে শুক্রবার সকালে মিজানুরের উপর ধারালো চাকু দিয়ে হামলা চালায় হাবিবুর রহমান,লুৎফর রহমান, আদিল, বিল্লাল হোসেন ও আল-আমিন। এসময় মিজানুরের চোখ আঘাত প্রাপ্ত হয়। মারাত্মক আহত মিজানুরকে খানপুর হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য ভর্তি করেছে তার স্বজনরা।