নারায়ণগঞ্জ ১২:৫২ অপরাহ্ন, বুধবার, ০১ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ১৯ মাঘ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
মাইক্রোসফট ইনোভেটিভ এডুকেটর এক্সপার্ট বাংলাদেশ কমিউনিটি মিটআপ ২০২৩ অনুষ্ঠিত আদমজী ইপিজেডকে অশান্ত করছে জনপ্রতিনিধিরা রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের আশঙ্কা সিদ্ধিরগঞ্জ রিপোর্টার্স ক্লাবের কর্মকর্তাদের সাথে মহিলা লীগ নেত্রীর শুভেচ্ছা বিনিময় না’গঞ্জ কারাগারে হাজতীর মৃত্যু ফতুল্লায় চোরাইকৃত ট্যাংকলড়ী উদ্ধার আড়াইহাজারের মিথিলা টেক্সটাইল ঘুরে গেলেন ৮ দেশের রাষ্ট্রদূতসহ ১৮ দেশের প্রতিনিধি সিদ্ধিরগঞ্জ রিপোর্টার্স ক্লাবের কর্মকর্তাদের সাথে কাউন্সিলর ইকবাল হোসেনের মতবিনিময় ফতুল্লা ব্লাড ডোনার্সের উদ্যোগে শীতার্তদের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ শিক্ষা সিলেবাস বাতিলের দাবিতে খেলাফত মজলিসের বিক্ষোভ মিছিল সমাজতান্ত্রিক মহিলা ফোরামের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে শহরে নারী সমাবেশ ও মিছিল

সিদ্ধিরগঞ্জ ভূমি পল্লীতে নিশিকন্যাদের ফাঁদ

  • প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৯:১০:০১ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ৬ সেপ্টেম্বর ২০২১
  • ১১৮ বার পড়া হয়েছে

নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি :নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জের আটি ভূমি পল্লীতে চলছে মাদক, জুয়া ও নিশিকন্যাদের রমরমা বাণিজ্য। চলছে ব্ল্যাকমেইলিং। রাজকীয় বেশভূষা এপল্লীর কদর বাড়িয়ে তুলছে নিশিকন্যারা। রাত হলেই চাঙ্গা হয়ে উঠে তাদের মধুকুঞ্জ। বদলে যায় পল্লীর রূপ।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক পল্লীবাসীর অভিযোগ,মাদক সেবী ও জুয়াড়িদের উপদ্রুপে পল্লীর পরিবেশ নোংরা হয়ে পড়েছে। নিশিকন্যা ও দালালদের ফাঁদে পড়ে ব্ল্যাকমেইলিংয়ের শিকার হচ্ছে অনেকই। প্রতিনিয়তই পল্লীতে হচ্ছে বিশৃঙ্খলা। আইনশৃঙ্খলা বাহিনী অভিযান চালিয়ে একাধিক মাদক ব্যবসায়ী ও নিশিকন্যাকে আটক করেছে। এক যুবতী উদ্ধারসহ নারী পাচারকারী চক্রের সদস্য শেফালী বেগম ও মামুনকে এপল্লী থেকেই গ্রেপ্তার করে র‌্যাব-১১। তবু থেমে নেই পল্লীর অপকর্ম। তারা জানায়,ভবন মালিকের অনুপস্থিতিতে কেয়ারটেকারদের ম্যানেজ করে ফ্যাট ভাড়া নিয়ে রঙলিলা চালাচ্ছে নিশিকন্যারা।

সরেজমিনে রাতে পল্লীর ভিতরে গিয়ে মাদক সেবি,জুয়াড়িদের উৎপাত,মধুকুঞ্জের অতিথি ও রানীদের আনাগোনা এপ্রতিবেদকের নজরে পড়ে। সমিতির যুগ্নসম্পাদক আলমগীর পাটুয়ারীর দোকানের সামনে মধুকুঞ্জের এক দালাল ফোনে কথা বলছে, আসতে এত দেরি কেন,আর কতক্ষণ লাগবে। দশটা ২৭ মিনিটে সাদা রঙ্গের প্রাইভেটকারে এক ভদ্রলোক দোকানের সামনে আসতেই তাকে নিয়ে যায়, চার নম্বর সড়কের মাঝামাঝি একটি বাড়ীতে। দশ মিনিট পর ফোনে কথা বলতে বলতে ওই দালাল ফিরে আসে দোকানের সামনে। কাকে যেন বলছে গেইট দিয়ে সোজা আসতে থাকেন। কিছুক্ষনের মধ্যে একটি সিএনজি দিয়ে আসে জিন্সের প্যান্ট ও টি-শার্ট পড়া ২০ থেকে ২২ বছরের এক সুন্দরী যুবতী। সিএনজি ভাড়া দিয়ে দালাল তাকে নিয়ে যায় উত্তর দিকে একটি নয়তলা ভবনে। পূর্ব পাশের উত্তর দিকে গিয়ে দেখা যায় বিভিন্ন ভবনের ভিতর থেকে বের হয়ে আসা ২৫ থেকে ৩৫ বছর বয়সী কয়েকজন যুবক রাস্তায় মাতলামী করছে। রাত ১১ টা পর্যন্ত অপেক্ষা করে দেখা যায় পল্লীর নানা কুকির্তী।

জানা গেছে, নিরাপত্তা বেষ্টনী অভিজাত এপল্লীতে সরকারি চাকরিজীবী, আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর কর্মকর্তা, বিভিন্ন ব্যবসায়ী ও ধনাঢ্য ব্যক্তিদের পাশাপাশি ভাড়াটিয়া হিসেবে আশ্রয় নিয়েছে বিভিন্ন অপরাধী, হত্যা ও ডাকাতি মামলার আসামি, মাদক ও নারী পাচারকারী চক্র। বহু ফ্যাটে চলে জুয়ার আসর। বিলাসবহুল ফ্যাট ভাড়া নিয়ে মধুকুঞ্জ বানিয়েছে নিশিকন্যারা। মাদক ও নারী ভোগে আসক্ত বিত্তবানদের আনাগোনা এসব মধুকুঞ্জে। রয়েছে একাধিক দালাল। খদ্দের বাড়াতে রাজধানী থেকে মডেলনামধারী সুন্দরী ভাড়া করে মধুকুঞ্জ জমিয়ে তুলছে দালালরা। মদ, জুয়া ও নারী ভোগের ব্যবস্থা থাকায় এপল্লীর কদর দিন দিন বাড়ছে।

অনুসন্ধ্যানে জানা গেছে, আটি এলাকায় প্রায় ২১ একর জমিতে ২০০১ সালে “ভূমি মন্ত্রনালয় কর্মকর্তা কর্মচারী সমবায় সমিতি” গড়ে তুলে ভূমি পল্লী আবাসন প্রকল্প। ২৪০ টি প্লট, একটি মসজিদ, একটি স্কুল, আটটি সড়ক ও দুইটি গেইট করা হয় পল্লীতে। মসজিদ হলেও স্কুলটি এখনো হয়নি। সমিতির সদস্যদের বাসস্থানের উদ্দেশ্যে আবাসনটি করা হলেও পরে বহিরাগত লোকজনের কাছে অনেক সদস্য তাদের প্লট বিক্রি করে দেয়। বহিরাগতরা রাতা রাতি নির্মাণ করে বহুতল ভবন। শতাধিক ভবনের নির্মাণ কাজ শেষ। কিছু চলমান আর কিছু প্লট খালি। পল্লীর প্রতিটি ভবনই রাজকীয়।

পল্লী পরিচালনা সমিতির সভাপতি নূরইসলাম তালুকদার বলেন, এসব আমার জানা নেই। পল্লীতে এধরনের কাজ হওয়া খুবই লজ্জাজনক। কারা এসব কাজ করে তাদের আসল রূপ গণমাধ্যমে প্রকাশ হওয়া উচিৎ বলে মতামত পেশ করেন তিনি। সাধারণ সম্পাদক মশিউর রহমান বলেন, এধরনের কাজ পল্লীতে কিছুতেই চলতে দেওয়া হবেনা। কারা একাজ করছে তা জানতে পারলে যথাযত ব্যাবস্থা গ্রহণ করা হবে।

সিদ্ধিরগঞ্জ থানার ওসি মশিউর রহমান বলেন, এবিষয়ে কেহ অভিযোগ করেননি। অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যাবস্থা নেয়া হবে।

ট্যাগস :

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

জনপ্রিয় সংবাদ

মাইক্রোসফট ইনোভেটিভ এডুকেটর এক্সপার্ট বাংলাদেশ কমিউনিটি মিটআপ ২০২৩ অনুষ্ঠিত

সিদ্ধিরগঞ্জ ভূমি পল্লীতে নিশিকন্যাদের ফাঁদ

আপডেট সময় : ০৯:১০:০১ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ৬ সেপ্টেম্বর ২০২১

নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি :নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জের আটি ভূমি পল্লীতে চলছে মাদক, জুয়া ও নিশিকন্যাদের রমরমা বাণিজ্য। চলছে ব্ল্যাকমেইলিং। রাজকীয় বেশভূষা এপল্লীর কদর বাড়িয়ে তুলছে নিশিকন্যারা। রাত হলেই চাঙ্গা হয়ে উঠে তাদের মধুকুঞ্জ। বদলে যায় পল্লীর রূপ।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক পল্লীবাসীর অভিযোগ,মাদক সেবী ও জুয়াড়িদের উপদ্রুপে পল্লীর পরিবেশ নোংরা হয়ে পড়েছে। নিশিকন্যা ও দালালদের ফাঁদে পড়ে ব্ল্যাকমেইলিংয়ের শিকার হচ্ছে অনেকই। প্রতিনিয়তই পল্লীতে হচ্ছে বিশৃঙ্খলা। আইনশৃঙ্খলা বাহিনী অভিযান চালিয়ে একাধিক মাদক ব্যবসায়ী ও নিশিকন্যাকে আটক করেছে। এক যুবতী উদ্ধারসহ নারী পাচারকারী চক্রের সদস্য শেফালী বেগম ও মামুনকে এপল্লী থেকেই গ্রেপ্তার করে র‌্যাব-১১। তবু থেমে নেই পল্লীর অপকর্ম। তারা জানায়,ভবন মালিকের অনুপস্থিতিতে কেয়ারটেকারদের ম্যানেজ করে ফ্যাট ভাড়া নিয়ে রঙলিলা চালাচ্ছে নিশিকন্যারা।

সরেজমিনে রাতে পল্লীর ভিতরে গিয়ে মাদক সেবি,জুয়াড়িদের উৎপাত,মধুকুঞ্জের অতিথি ও রানীদের আনাগোনা এপ্রতিবেদকের নজরে পড়ে। সমিতির যুগ্নসম্পাদক আলমগীর পাটুয়ারীর দোকানের সামনে মধুকুঞ্জের এক দালাল ফোনে কথা বলছে, আসতে এত দেরি কেন,আর কতক্ষণ লাগবে। দশটা ২৭ মিনিটে সাদা রঙ্গের প্রাইভেটকারে এক ভদ্রলোক দোকানের সামনে আসতেই তাকে নিয়ে যায়, চার নম্বর সড়কের মাঝামাঝি একটি বাড়ীতে। দশ মিনিট পর ফোনে কথা বলতে বলতে ওই দালাল ফিরে আসে দোকানের সামনে। কাকে যেন বলছে গেইট দিয়ে সোজা আসতে থাকেন। কিছুক্ষনের মধ্যে একটি সিএনজি দিয়ে আসে জিন্সের প্যান্ট ও টি-শার্ট পড়া ২০ থেকে ২২ বছরের এক সুন্দরী যুবতী। সিএনজি ভাড়া দিয়ে দালাল তাকে নিয়ে যায় উত্তর দিকে একটি নয়তলা ভবনে। পূর্ব পাশের উত্তর দিকে গিয়ে দেখা যায় বিভিন্ন ভবনের ভিতর থেকে বের হয়ে আসা ২৫ থেকে ৩৫ বছর বয়সী কয়েকজন যুবক রাস্তায় মাতলামী করছে। রাত ১১ টা পর্যন্ত অপেক্ষা করে দেখা যায় পল্লীর নানা কুকির্তী।

জানা গেছে, নিরাপত্তা বেষ্টনী অভিজাত এপল্লীতে সরকারি চাকরিজীবী, আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর কর্মকর্তা, বিভিন্ন ব্যবসায়ী ও ধনাঢ্য ব্যক্তিদের পাশাপাশি ভাড়াটিয়া হিসেবে আশ্রয় নিয়েছে বিভিন্ন অপরাধী, হত্যা ও ডাকাতি মামলার আসামি, মাদক ও নারী পাচারকারী চক্র। বহু ফ্যাটে চলে জুয়ার আসর। বিলাসবহুল ফ্যাট ভাড়া নিয়ে মধুকুঞ্জ বানিয়েছে নিশিকন্যারা। মাদক ও নারী ভোগে আসক্ত বিত্তবানদের আনাগোনা এসব মধুকুঞ্জে। রয়েছে একাধিক দালাল। খদ্দের বাড়াতে রাজধানী থেকে মডেলনামধারী সুন্দরী ভাড়া করে মধুকুঞ্জ জমিয়ে তুলছে দালালরা। মদ, জুয়া ও নারী ভোগের ব্যবস্থা থাকায় এপল্লীর কদর দিন দিন বাড়ছে।

অনুসন্ধ্যানে জানা গেছে, আটি এলাকায় প্রায় ২১ একর জমিতে ২০০১ সালে “ভূমি মন্ত্রনালয় কর্মকর্তা কর্মচারী সমবায় সমিতি” গড়ে তুলে ভূমি পল্লী আবাসন প্রকল্প। ২৪০ টি প্লট, একটি মসজিদ, একটি স্কুল, আটটি সড়ক ও দুইটি গেইট করা হয় পল্লীতে। মসজিদ হলেও স্কুলটি এখনো হয়নি। সমিতির সদস্যদের বাসস্থানের উদ্দেশ্যে আবাসনটি করা হলেও পরে বহিরাগত লোকজনের কাছে অনেক সদস্য তাদের প্লট বিক্রি করে দেয়। বহিরাগতরা রাতা রাতি নির্মাণ করে বহুতল ভবন। শতাধিক ভবনের নির্মাণ কাজ শেষ। কিছু চলমান আর কিছু প্লট খালি। পল্লীর প্রতিটি ভবনই রাজকীয়।

পল্লী পরিচালনা সমিতির সভাপতি নূরইসলাম তালুকদার বলেন, এসব আমার জানা নেই। পল্লীতে এধরনের কাজ হওয়া খুবই লজ্জাজনক। কারা এসব কাজ করে তাদের আসল রূপ গণমাধ্যমে প্রকাশ হওয়া উচিৎ বলে মতামত পেশ করেন তিনি। সাধারণ সম্পাদক মশিউর রহমান বলেন, এধরনের কাজ পল্লীতে কিছুতেই চলতে দেওয়া হবেনা। কারা একাজ করছে তা জানতে পারলে যথাযত ব্যাবস্থা গ্রহণ করা হবে।

সিদ্ধিরগঞ্জ থানার ওসি মশিউর রহমান বলেন, এবিষয়ে কেহ অভিযোগ করেননি। অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যাবস্থা নেয়া হবে।