নারায়ণগঞ্জ ১১:২৫ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ২৭ জানুয়ারী ২০২৩, ১৪ মাঘ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
সিদ্ধিরগঞ্জে মসজিদের বিরোধ নিস্পত্তি করায় হাজী ইয়াসিন মিয়ার বিরুদ্ধে অপবাদ সিদ্ধিরগঞ্জে ব্যবসায়ীর উপর হামলার ঘটনায় সন্ত্রাসী পানি আক্তারের বিরুদ্ধে মামলা সিদ্ধিরগঞ্জে অটোরিকশার ধাক্কায় মোটরসাইকেল আরোহী নাঈম নিহত সিদ্ধিরগঞ্জে জমি দখল করতে সজু বাহিনীর হামলা আদমজী ইপিজেডের ব্যবসা ছিনিয়ে নিতে আক্তার বাহিনীর হামলায় আহত-২ কেন্দ্রীয় কমিটির যুগ্ন সম্পাদক হওয়ায় সিদ্ধিরগঞ্জে দেলোয়ারকে সংবর্ধনা ডিসিদের প্রতি ২৫ নির্দেশনা প্রধানমন্ত্রী আগামী ১৮ ফেব্রুয়ারি পবিত্র শবে মেরাজ সিদ্ধিরগঞ্জে ডিবি পরিচয়ে ডাকাতির প্রস্তুতিকালে গ্রেফতার ৬ সিদ্ধিরগঞ্জে অভিযানে  ৩ প্রতিষ্ঠানকে জরিমানা ভোক্তা অধিকার

সিদ্ধিরগঞ্জের ভূমীপল্লীতে ১১ ভবন মালিককে দশ লাখ টাকা জরিমানা

  • প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ১০:৩৬:০৮ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৬ অগাস্ট ২০২১
  • ৩০ বার পড়া হয়েছে

সিদ্ধিরগঞ্জ প্রতিনিধি :সিদ্ধিরগঞ্জের আটি ভূমিপল্লী এলাকায় অভিযান চালিয়েছে রাজধানী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ (রাজউক) এর ভ্রাম্যমান আদালত। অভিযানে এগারোটি বহুতল ভবন মালিককে ১০ লাখ টাকা জরিমানা ও পাঁচটি ভবনের বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করা হয়েছে । বৃহস্পতিবার (২৬ আগস্ট) দুপুর একটা থেকে বিকেল তিনটা পর্যন্ত রাজউকের নিজস্ব নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আল মামুন এর নেতৃত্বে এঅভিযান চালানো হয়।

জানা গেছে, অটি এলাকায় পরিত্যাক্ত সরকারি প্রায় কয়েক একর জমি নিজেদের নামে কাগজপত্র করে নেয় ভূমিমন্ত্রনালয়ের কর্মকর্তারা। সেখানে প্লট করে গড়ে তুলা হয় ভূমীপল্লী। এখানে প্রায় দেড়শতাধিক বিলাসবহুল বহুতল ভবন নির্মাণ করা হয়েছে। নির্মাণাধিন রয়েছে আরো অনেক ভবন। অধিকাংশই ভবনের মালিক সরকারি উচ্চ পদস্থ কর্মকর্তা। রাজউক সূত্র জানায়, প্রতিটি ভবনই নির্মাণ করা হয়েছে ইমরত বিধিমালা অমান্য করে। নকশা অনুযায়ী যে পরিমাণ জায়গা ছাড়ার কথা তা ছাড়েনি জমির মালিকরা। তাছাড়া অনেকই ছয় তলার অনুমোদন নিয়ে করেছে নয় তলা।

এবিষয়ে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আল মামুন গণমাধ্যমে কোন বক্তব্য দিতে রাজি হননি। তবে রাজউকের অথরাইজড অফিসার শেখ মুহাম্মদ এহসানুল ইমাম বলেন, ইমারত বিধিমালা আইনে এগারোটি ভবন মালিককে জরিমানা করা হয়েছে। নগদ আদায় হয়েছে দশ লাখ টাকা। এছাড়া তিনি কিছু বলেননি।

তবে ইমারাত বিধিমালা অমান্য করে ভবন নির্মাণের কোন নোটিশ না দিয়ে আকস্মিক অভিযান করায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন ভবন মালিকরা। হঠাৎ এসে এক থেকে দুই লাখ টাকা করে জরিমানা করায় তাৎক্ষনিক পরিশোধ করা সম্ভব হয়নি অনেক মালিকের। বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করায় ভবনের ভাড়াটিয়ারা পড়েছে দুর্ভোগে। দুই ভবন মালিককে দুই লাখ করে ৪ লাখ আর ছয় ভবন মালিককে এক লাখ করে ৬ লাখ টাকা জরিমানা আদায় করা হয়। এক ভবন মালিক জরিমানার টাকা দিতে পারেননি বলে জানা গেছে।
অভিযানে রাজউক জোন আট নারায়ণগঞ্জ আঞ্চলিক অফিসের বর্মকর্তা ও বিপুল সংখ্যক পুলিশ উপস্থিত ছিলেন।

 

ট্যাগস :

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

জনপ্রিয় সংবাদ

সিদ্ধিরগঞ্জে মসজিদের বিরোধ নিস্পত্তি করায় হাজী ইয়াসিন মিয়ার বিরুদ্ধে অপবাদ

সিদ্ধিরগঞ্জের ভূমীপল্লীতে ১১ ভবন মালিককে দশ লাখ টাকা জরিমানা

আপডেট সময় : ১০:৩৬:০৮ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৬ অগাস্ট ২০২১

সিদ্ধিরগঞ্জ প্রতিনিধি :সিদ্ধিরগঞ্জের আটি ভূমিপল্লী এলাকায় অভিযান চালিয়েছে রাজধানী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ (রাজউক) এর ভ্রাম্যমান আদালত। অভিযানে এগারোটি বহুতল ভবন মালিককে ১০ লাখ টাকা জরিমানা ও পাঁচটি ভবনের বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করা হয়েছে । বৃহস্পতিবার (২৬ আগস্ট) দুপুর একটা থেকে বিকেল তিনটা পর্যন্ত রাজউকের নিজস্ব নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আল মামুন এর নেতৃত্বে এঅভিযান চালানো হয়।

জানা গেছে, অটি এলাকায় পরিত্যাক্ত সরকারি প্রায় কয়েক একর জমি নিজেদের নামে কাগজপত্র করে নেয় ভূমিমন্ত্রনালয়ের কর্মকর্তারা। সেখানে প্লট করে গড়ে তুলা হয় ভূমীপল্লী। এখানে প্রায় দেড়শতাধিক বিলাসবহুল বহুতল ভবন নির্মাণ করা হয়েছে। নির্মাণাধিন রয়েছে আরো অনেক ভবন। অধিকাংশই ভবনের মালিক সরকারি উচ্চ পদস্থ কর্মকর্তা। রাজউক সূত্র জানায়, প্রতিটি ভবনই নির্মাণ করা হয়েছে ইমরত বিধিমালা অমান্য করে। নকশা অনুযায়ী যে পরিমাণ জায়গা ছাড়ার কথা তা ছাড়েনি জমির মালিকরা। তাছাড়া অনেকই ছয় তলার অনুমোদন নিয়ে করেছে নয় তলা।

এবিষয়ে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আল মামুন গণমাধ্যমে কোন বক্তব্য দিতে রাজি হননি। তবে রাজউকের অথরাইজড অফিসার শেখ মুহাম্মদ এহসানুল ইমাম বলেন, ইমারত বিধিমালা আইনে এগারোটি ভবন মালিককে জরিমানা করা হয়েছে। নগদ আদায় হয়েছে দশ লাখ টাকা। এছাড়া তিনি কিছু বলেননি।

তবে ইমারাত বিধিমালা অমান্য করে ভবন নির্মাণের কোন নোটিশ না দিয়ে আকস্মিক অভিযান করায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন ভবন মালিকরা। হঠাৎ এসে এক থেকে দুই লাখ টাকা করে জরিমানা করায় তাৎক্ষনিক পরিশোধ করা সম্ভব হয়নি অনেক মালিকের। বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করায় ভবনের ভাড়াটিয়ারা পড়েছে দুর্ভোগে। দুই ভবন মালিককে দুই লাখ করে ৪ লাখ আর ছয় ভবন মালিককে এক লাখ করে ৬ লাখ টাকা জরিমানা আদায় করা হয়। এক ভবন মালিক জরিমানার টাকা দিতে পারেননি বলে জানা গেছে।
অভিযানে রাজউক জোন আট নারায়ণগঞ্জ আঞ্চলিক অফিসের বর্মকর্তা ও বিপুল সংখ্যক পুলিশ উপস্থিত ছিলেন।