নারায়ণগঞ্জ ০৫:৫৪ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৭ নভেম্বর ২০২২, ১৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

বন্দরে  অবৈধ ভাবে ড্রেজারের পাইপ স্থাপনে জনদুর্ভোগ

বন্দর প্রতিনিধি  ঃ    নারায়ণগঞ্জে বন্দরে যুবদল নেতার কারিশমায় সরকারি ভূমি অফিসের জায়গা ঘেঁষে ও বাংলাদেশ নৌবাহিনীর ডকইয়ার্ড (ছায়াবীথি) প্রকল্পের বাউন্ডারি ভেদ করে অবৈধভাবে ড্রেজার পাইপ স্থাপন করেছে একাধিক মামলার আসামি যুবদল নেতা খোকন সহ তার সহযোগী শিপলু গংরা৷

এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, এর আগেও একবার বন্দর মদনগঞ্জ ভূমি অফিসের জায়গার মধ্যে দিয়ে এই ড্রেজার সন্ত্রাসীরা পাইপ স্থাপন করে পরবর্তীতে প্রশাসনের চাপে পাইপ খুলে নিতে বাধ্য হয় ৷ কিন্তু এইবারও ড্রেজার সন্ত্রাসীরা প্রশাসনকে বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখিয়ে অবৈধভাবে বিআইডব্লিউটিএ’ ও ড্রেজারের স্থাপন সংক্রান্ত কোন প্রকার অনুমোদন না নিয়ে জোরপূর্বক ভাবে ফসলি জমি ভরাট এর লক্ষে সরকারি স্থাপনা ও রাস্তার মধ্য দিয়ে ড্রেজার এর পাইপ স্থাপন করে জনদুর্ভোগ সৃষ্টি করছে ড্রেজার সন্ত্রাসী খোকন গংরা। সোনাকান্দা হাট সংলগ্ন রাস্তা থেকে মদনগঞ্জ দিয়ে চলাচলরত মানুষের ভোগান্তি চরমে পৌঁছেছে এই ড্রেজার পাইপ এর জন্য। অটোচালক রাসেল জানান, এই ড্রেজার পাইপের কারনে গাড়ি অনেক সময় পল্টি খায় এবং এই অবৈধ পাইপের কারণে যে কোন সময় বড় ধরনের দুর্ঘটনা ঘটতে পারে।

এই বিষয়ে বন্দর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শুক্লা সরকার এর সাথে আলাপকালে তিনি জানান, বিষয়টি আমি আপনাদের মাধ্যমে জানলাম,তদন্তপূর্বক এই বিষয়ে আমি ব্যবস্থা গ্রহণ করবো৷

এই বিষয়ে নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশন ২০ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মুরাদের মুঠোফোনে একাধিকবার কল করলেও তাকে পাওয়া যায়নি।

মদনগঞ্জ ভূমি অফিসের কর্মকর্তা দুলাল বাবু জানান, একাধিক বার ড্রেজারের পাইপ স্থাপনকারী ব্যক্তিদের নিষেধ করলেও তারা কোনো কর্ণপাত করেনি। আমি এই বিষয়টি ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য মৌখিকভাবে উপজেলা ভূমি কর্মকর্তাকে জানিয়েছি৷

ট্যাগস :

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

জনপ্রিয় সংবাদ

বন্দরে  অবৈধ ভাবে ড্রেজারের পাইপ স্থাপনে জনদুর্ভোগ

আপডেট সময় : ০১:০৩:১৩ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৬ জুন ২০২১

বন্দর প্রতিনিধি  ঃ    নারায়ণগঞ্জে বন্দরে যুবদল নেতার কারিশমায় সরকারি ভূমি অফিসের জায়গা ঘেঁষে ও বাংলাদেশ নৌবাহিনীর ডকইয়ার্ড (ছায়াবীথি) প্রকল্পের বাউন্ডারি ভেদ করে অবৈধভাবে ড্রেজার পাইপ স্থাপন করেছে একাধিক মামলার আসামি যুবদল নেতা খোকন সহ তার সহযোগী শিপলু গংরা৷

এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, এর আগেও একবার বন্দর মদনগঞ্জ ভূমি অফিসের জায়গার মধ্যে দিয়ে এই ড্রেজার সন্ত্রাসীরা পাইপ স্থাপন করে পরবর্তীতে প্রশাসনের চাপে পাইপ খুলে নিতে বাধ্য হয় ৷ কিন্তু এইবারও ড্রেজার সন্ত্রাসীরা প্রশাসনকে বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখিয়ে অবৈধভাবে বিআইডব্লিউটিএ’ ও ড্রেজারের স্থাপন সংক্রান্ত কোন প্রকার অনুমোদন না নিয়ে জোরপূর্বক ভাবে ফসলি জমি ভরাট এর লক্ষে সরকারি স্থাপনা ও রাস্তার মধ্য দিয়ে ড্রেজার এর পাইপ স্থাপন করে জনদুর্ভোগ সৃষ্টি করছে ড্রেজার সন্ত্রাসী খোকন গংরা। সোনাকান্দা হাট সংলগ্ন রাস্তা থেকে মদনগঞ্জ দিয়ে চলাচলরত মানুষের ভোগান্তি চরমে পৌঁছেছে এই ড্রেজার পাইপ এর জন্য। অটোচালক রাসেল জানান, এই ড্রেজার পাইপের কারনে গাড়ি অনেক সময় পল্টি খায় এবং এই অবৈধ পাইপের কারণে যে কোন সময় বড় ধরনের দুর্ঘটনা ঘটতে পারে।

এই বিষয়ে বন্দর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শুক্লা সরকার এর সাথে আলাপকালে তিনি জানান, বিষয়টি আমি আপনাদের মাধ্যমে জানলাম,তদন্তপূর্বক এই বিষয়ে আমি ব্যবস্থা গ্রহণ করবো৷

এই বিষয়ে নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশন ২০ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মুরাদের মুঠোফোনে একাধিকবার কল করলেও তাকে পাওয়া যায়নি।

মদনগঞ্জ ভূমি অফিসের কর্মকর্তা দুলাল বাবু জানান, একাধিক বার ড্রেজারের পাইপ স্থাপনকারী ব্যক্তিদের নিষেধ করলেও তারা কোনো কর্ণপাত করেনি। আমি এই বিষয়টি ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য মৌখিকভাবে উপজেলা ভূমি কর্মকর্তাকে জানিয়েছি৷