নারায়ণগঞ্জ ০৯:৩৫ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৬ নভেম্বর ২০২২, ১২ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

রূপগগঞ্জে  চাইনিজ ইঞ্জিনিয়ারের লাশ উদ্ধার

  • প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০১:৩৭:৩৩ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৩ মার্চ ২০২১
  • ১৭ বার পড়া হয়েছে

রূপগঞ্জ  প্রতিনিধি  : রূপগঞ্জে লিয়াং (৪৫) নামে এক চাইনিজ ইলেকট্রিক ইঞ্জিনিয়ারের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। শুক্রবার (১২ মার্চ) বিকেলে উপজেলার তারাব পৌরসভার বরপা এলাকার জু-জো ইন্ডাস্ট্রিজ নামক একটি ব্যাটারি কারখানা থেকে তার লাশ উদ্ধার করা হয়।

লিয়াংয়ের সহকর্মী ইউ হোয়ার বরাত দিয়ে পুলিশ জানায়, বরপা এলাকার লিথুন ফেব্রিক্সের বন্ধ কারখানাটি গত ৪ বছর আগে ভাড়া নেয় জু-জো ইন্ডাস্ট্রিজ নামক একটি চাইনিজ কোম্পানি। কোম্পানিটি এখানে অটোর ব্যাটারি তৈরি করত। লিয়াং শুরু থেকে এই ফ্যাক্টরিতে ইলেকট্রিক্যাল ইঞ্জিনিয়ার হিসেবে কর্মরত ছিলেন। গত দেড় মাস চায়নাতে গিয়ে ছুটি কাটিয়ে গত ৩ দিন আগে লিয়াং ফ্যাক্টরিতে আসেন। বাংলাদেশে আসার পর তার মাঝে কিছুটা অস্থিরভাব লক্ষ্য করেছেন তার সহকর্মীরা। লিয়াং ও তার সহকর্মীরা এক একজন আলাদা আলাদা রুমে একা থাকতেন। শুক্রবার বিকেলে তার সহকর্মীরা তাকে নাস্তা খেতে ডাকাডাকি করলে কোন সাড়াশব্দ না পেলে দরজা ভেঙে দেখেন লিয়াং গলায় ফাঁস । তারা তাকে সেখান থেকে উদ্ধার করে স্থানীয় ইউ-বাংলা হাসপাতালে নিয়ে গেলে ডাক্তার তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

খবর পেয়ে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজের মর্গে পাঠায়। মৃত লিয়াংয়ের সহকর্মীরা ধারণা করছেন পারিবারিক কলহের কারণে হয়তো সে আত্মহত্যা করতে পারে। লিয়াংয়ের সহকর্মী ইউ হোয়া বাদী হয়ে রূপগঞ্জ থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।

এ ব্যাপারে রূপগঞ্জ থানার ওসি মহসিনুল কাদির বলেন , এ ঘটনায় একটি অপমৃত্য মামলা হয়েছে। লাশ বর্তমানে হিমায়িত করে মর্গে রাখা হয়েছে। লাশটি চায়না পাঠানোর জন্য বাংলাদেশে অবস্থিত চায়না দূতাবাসে যোগাযোগ করা হচ্ছে

ট্যাগস :

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

জনপ্রিয় সংবাদ

রূপগগঞ্জে  চাইনিজ ইঞ্জিনিয়ারের লাশ উদ্ধার

আপডেট সময় : ০১:৩৭:৩৩ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৩ মার্চ ২০২১

রূপগঞ্জ  প্রতিনিধি  : রূপগঞ্জে লিয়াং (৪৫) নামে এক চাইনিজ ইলেকট্রিক ইঞ্জিনিয়ারের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। শুক্রবার (১২ মার্চ) বিকেলে উপজেলার তারাব পৌরসভার বরপা এলাকার জু-জো ইন্ডাস্ট্রিজ নামক একটি ব্যাটারি কারখানা থেকে তার লাশ উদ্ধার করা হয়।

লিয়াংয়ের সহকর্মী ইউ হোয়ার বরাত দিয়ে পুলিশ জানায়, বরপা এলাকার লিথুন ফেব্রিক্সের বন্ধ কারখানাটি গত ৪ বছর আগে ভাড়া নেয় জু-জো ইন্ডাস্ট্রিজ নামক একটি চাইনিজ কোম্পানি। কোম্পানিটি এখানে অটোর ব্যাটারি তৈরি করত। লিয়াং শুরু থেকে এই ফ্যাক্টরিতে ইলেকট্রিক্যাল ইঞ্জিনিয়ার হিসেবে কর্মরত ছিলেন। গত দেড় মাস চায়নাতে গিয়ে ছুটি কাটিয়ে গত ৩ দিন আগে লিয়াং ফ্যাক্টরিতে আসেন। বাংলাদেশে আসার পর তার মাঝে কিছুটা অস্থিরভাব লক্ষ্য করেছেন তার সহকর্মীরা। লিয়াং ও তার সহকর্মীরা এক একজন আলাদা আলাদা রুমে একা থাকতেন। শুক্রবার বিকেলে তার সহকর্মীরা তাকে নাস্তা খেতে ডাকাডাকি করলে কোন সাড়াশব্দ না পেলে দরজা ভেঙে দেখেন লিয়াং গলায় ফাঁস । তারা তাকে সেখান থেকে উদ্ধার করে স্থানীয় ইউ-বাংলা হাসপাতালে নিয়ে গেলে ডাক্তার তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

খবর পেয়ে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজের মর্গে পাঠায়। মৃত লিয়াংয়ের সহকর্মীরা ধারণা করছেন পারিবারিক কলহের কারণে হয়তো সে আত্মহত্যা করতে পারে। লিয়াংয়ের সহকর্মী ইউ হোয়া বাদী হয়ে রূপগঞ্জ থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।

এ ব্যাপারে রূপগঞ্জ থানার ওসি মহসিনুল কাদির বলেন , এ ঘটনায় একটি অপমৃত্য মামলা হয়েছে। লাশ বর্তমানে হিমায়িত করে মর্গে রাখা হয়েছে। লাশটি চায়না পাঠানোর জন্য বাংলাদেশে অবস্থিত চায়না দূতাবাসে যোগাযোগ করা হচ্ছে