নারায়ণগঞ্জ ১০:৫৫ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ২৭ নভেম্বর ২০২২, ১৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

বন্দরে ইস্পাহানী এলাকায় কাজের উদ্দেশ্যে ঘর থেকে বের হয়ে শ্রমিক নিখোঁজ

  • প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৮:২৩:২৬ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ১০ মার্চ ২০২১
  • ১৪ বার পড়া হয়েছে

বন্দর প্রতিনিধি : কাজের উদ্দেশ্যে ঘর থেকে বের হয়ে শহিদুল ইসলাম (৩০) নামে এক হোসিয়ারী শ্রমিক ৫ দিন ধরে নিখোঁজ হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। গত ৪ মার্চ বৃহস্পতিবার রাতে বন্দর থানার একরামপুর ইস্পাহানী এলাকা থেকে কাজের উদ্দেশ্যে বের হয়ে নিখোঁজ হয় ওই হোসিয়ারী শ্রমিক।

আত্নীয়স্বজনসহ বিভিন্ন স্থানে খোঁজাখুজি করে হোসিয়ারী শ্রমিকের কোন সন্ধ্যান না পেয়ে এ ব্যাপারে নিখোঁজের স্ত্রী সিমা আক্তার বাদী হয়ে বন্দর থানায় নিখোঁজ জিডি এন্ট্রি করেন।

নিখোঁজ হোসিয়ারী শ্রমিক শহিদুল ইসলাম শরিয়তপুর জেলার পালং থানার কোয়ারপুর এলাকার আব্দুল ওয়াহেদ মিয়ার ছেলে।নিখোঁজ শহিদুল ইসলামসহ তার পরিবার দীর্ঘ দিন ধরে বন্দর একরামপুর ইস্পাহানী এলাকার বড় মিয়ার বাড়ী ভাড়াটিয়া বাড়ীতে বসবাস করে আসছে বলে এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে।

এ ব্যাপারে নিখোঁজের স্ত্রী ও ২ সন্তানের জননী সীমা বেগম গনমাধ্যমকে আরো জানান, আমার স্বামী শহিদুল ইসলাম দীর্ঘদিন ধরে নারায়ণগঞ্জ শহরে একটি হোশিয়ার কারখানা কাজ করে আসছে।

এ সুবাদে গত ৪ র্মাচ বৃহস্পতিবার রাতে হোশিয়ারী কারখানায় নাইট ডিউটি করার উদ্দেশ্যে ঘর থেকে বের হয়ে গত ৫ দিনেও বাড়ীতে ফিরেনি। অনেক স্থানে সন্ধান করে না পেয়ে এ ব্যাপারে বন্দর থানায় একটি নিখোঁজ জিডি এন্ট্রি করি

ট্যাগস :

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

জনপ্রিয় সংবাদ

বন্দরে ইস্পাহানী এলাকায় কাজের উদ্দেশ্যে ঘর থেকে বের হয়ে শ্রমিক নিখোঁজ

আপডেট সময় : ০৮:২৩:২৬ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ১০ মার্চ ২০২১

বন্দর প্রতিনিধি : কাজের উদ্দেশ্যে ঘর থেকে বের হয়ে শহিদুল ইসলাম (৩০) নামে এক হোসিয়ারী শ্রমিক ৫ দিন ধরে নিখোঁজ হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। গত ৪ মার্চ বৃহস্পতিবার রাতে বন্দর থানার একরামপুর ইস্পাহানী এলাকা থেকে কাজের উদ্দেশ্যে বের হয়ে নিখোঁজ হয় ওই হোসিয়ারী শ্রমিক।

আত্নীয়স্বজনসহ বিভিন্ন স্থানে খোঁজাখুজি করে হোসিয়ারী শ্রমিকের কোন সন্ধ্যান না পেয়ে এ ব্যাপারে নিখোঁজের স্ত্রী সিমা আক্তার বাদী হয়ে বন্দর থানায় নিখোঁজ জিডি এন্ট্রি করেন।

নিখোঁজ হোসিয়ারী শ্রমিক শহিদুল ইসলাম শরিয়তপুর জেলার পালং থানার কোয়ারপুর এলাকার আব্দুল ওয়াহেদ মিয়ার ছেলে।নিখোঁজ শহিদুল ইসলামসহ তার পরিবার দীর্ঘ দিন ধরে বন্দর একরামপুর ইস্পাহানী এলাকার বড় মিয়ার বাড়ী ভাড়াটিয়া বাড়ীতে বসবাস করে আসছে বলে এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে।

এ ব্যাপারে নিখোঁজের স্ত্রী ও ২ সন্তানের জননী সীমা বেগম গনমাধ্যমকে আরো জানান, আমার স্বামী শহিদুল ইসলাম দীর্ঘদিন ধরে নারায়ণগঞ্জ শহরে একটি হোশিয়ার কারখানা কাজ করে আসছে।

এ সুবাদে গত ৪ র্মাচ বৃহস্পতিবার রাতে হোশিয়ারী কারখানায় নাইট ডিউটি করার উদ্দেশ্যে ঘর থেকে বের হয়ে গত ৫ দিনেও বাড়ীতে ফিরেনি। অনেক স্থানে সন্ধান করে না পেয়ে এ ব্যাপারে বন্দর থানায় একটি নিখোঁজ জিডি এন্ট্রি করি