রূপগঞ্জে বালু ব্যবসাকে কেন্দ্র করে দুপক্ষের সংঘর্ষে আহত ৭

রূপগঞ্জ প্রতিনিধি ঃনারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জ উপজেলার কাঞ্চন পৌরসভার মায়ারবাড়ি এলাকায়  ২৯ জুন মঙ্গলবার আওয়ামীলীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষে উভয়পক্ষের ৭ জন আহত হয়েছে। বালু ব্যবসা, প‚র্ব শত্রুতা ও আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে কাঞ্চন পৌরসভা ও কাঞ্চন পৌর যুবলীগের সভাপতি আলহাজ্ব মোঃ রফিকুল ইসলাম এবং আলহাজ্ব গোলাম রসুল কলির সমর্থিতদের মধ্যে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। সংঘর্ষে আহত আওয়ামীলীগ নেতা আঃ রশিদের ছেলে স্বপন (৪০), রহমউল্লাহর ছেলে শরিফ (৩০), রহিমের ছেলে আলম (৩৫), আজাহারের ছেলে রায়হান (২২), রবিউল হাসান শান্তকে (৪০) ঢাকা ও নারায়ণগঞ্জে বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, কাঞ্চন পৌরসভার মেয়র ও যুবলীগ নেতা আলহাজ্ব রফিকুল ইসলামের ছোট ভাই শফিকুল ইসলাম মায়ারবাড়ি এলাকায় অন্যের জায়গায় জোড় করে বালু ভরাট করছিল। এ সময় কাঞ্চন পৌরসভার আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক গোলাম রসুল কলির সমর্থিত কাঞ্চন পৌরসভা যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক রবিউল ইসলাম শান্ত বাধা দেয়। এসময় তাদের মধ্যে বাক বিতন্ডা শুরু হয়। মুহ‚র্তেই মধ্যেই এ ঘটনা ছড়িয়ে পরে। পরে দু’পক্ষের সমর্থিতরা সংঘর্ষে লিপ্ত হয়। সংঘর্ষ চলাকালে শফিকুল ইসলাম ও তার সহযোগীরা মায়ারবাড়ি এলাকার ১০/১২ টি দোকান ভাংচুর করে। কাঞ্চন পৌর যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক নবিউল হাসান শান্ত ও ছাত্রলীগ নেতা রাব্বি হাসান শিহাবের বাড়িতে এবং কাঞ্চন পৌর ছাত্রলীগের কার্যালয়ে হামলা চালিয়ে ভাংচুর ও লুটপাট করে। গোলাম রসুল কলির সমর্থিতরা জোটবদ্ধ হয়ে ধাওয়া করলে শফিকুল ইসলাম ৩/৪ রাউন্ড গুলি করে সন্ত্রাসীরা বীরদর্পে চলে যায়।
নারায়ণগঞ্জ জেলার সহকারি পুলিশ সুপার গ সার্কেল আবির হোসেন জানান, ঘটনাস্থলে পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। পরিস্থিতি এখন নিয়ন্ত্রণে। সুষ্ঠু তদন্ত করে প্রয়োজনী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।###