মামুনুলপন্থিদের পাল্টা দাতভাংগা জবাব দেয়ার ঘোষনা হানিফের

সোনারগাঁও প্রতিনিধি : হেফাজত নেতা মামুনুল হক নারী নিয়ে সোনারগাঁ রিসোর্টে অবকাশ পালন করতে এসে ধরা পরার পর ব্যাপক তান্ডব এবং পরবর্তীতে সাংবাদিকের দাঁত ভেংগে ফেসবুকের লাইভ করে কঠিন জবাবের পর এবার আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফ হেফাজতের প্রতি হুসিয়ারীদিয়েছেন । তিনি বলেছেন, “যারা ধর্মের নামে তান্ডব চালায় তাদের আর বরদাশত করা হবে না।”

তিনি আরো বলেছেন, আঘাতের পাল্টা প্রতিঘাত করা হবে। এজন্য দলীয় নেতাকর্মীদের প্রস্তুত থাকতে বলেন হানিফ।

বুধবার বেলা ১২টার দিকে নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁয়ে ভাংচুর হওয়া আওয়ামী কার্যালয় পরিদর্শন শেষ এসব কথা বলেন হানিফ ।

গত শনিবার সোনারগাঁও রয়েল রিসোর্টে হেফাজতের যুগ্ম মহাসচিব মামুনুল হক ও তার সমর্থিত নেতাকর্মীদের দাবীকৃত স্ত্রী সহ লাঞ্ছিত ও অবরুদ্ধ থাকার খবরে হেফাজত কর্মীরা তাকে উদ্ধার করে এর পর আওয়ামীলীগ কার্যালয়, যুবলীগ নেতার ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ও বাসাবাড়ি এবং রয়েল রিসোর্টে ভাংচুর চালায় হেফাজতে কর্মীরা।

তারই প্রেক্ষিতে আওয়ামীলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির একটি প্রতিনিধি দল মাহবুব উল আলম হানিফের নেতৃত্বে সোনারগাঁও আসেন।

মাহবুব উল আলম হানিফ বলেন, মামুনুল হকের ঘটনাকে কেন্দ্র করে যারা আওয়ামীগের কার্যালয়সহ বিভিন্ন স্থানে হামলা ভাংচুর চালিয়েছে তাদের রেহাই নাই। হামলাকারীদের প্রত্যেকের তালিকা করে আইনের আওয়াত এনে উপযুক্ত শাস্তি দেয়া হবে।হামলাকারীদের তালিকা করার জন্য তিনি দলীয় নেতাকর্মীদের নির্দেশ দেন।

হানিফ বলেন, ধর্মের নামে কোন ধ্বংসযজ্ঞ আর মেনে নেয়া হবে না, প্রতিহত করা হবে প্রতিনিধি দলে আরো উপস্থিত ছিলেন আওয়ামীলীগের ঢাকা বিভাগীয় সাংগঠনিক সম্পাদক মির্জা আজম, সংসদ সদস্য শামীম ওসমান, নারায়ণগঞ্জ জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আবু শহীদ মো. বাদল, সহ-সভাপতি আব্দুল কাদির, যুগ্ম সম্পাদক ডা. আবু জাফর চৌধুরী বিরু, সোনারগাঁ উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সম্পাদক ও সাবেক সাংসদ আবদুল্লাহ আল কায়সার, ইঞ্জিনিয়ার মাসুদুর রহমান মাসুম, উপজেলা আওয়ামীলীগের সাবেক ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক মাহফুজুর রহমান কালামসহ আওয়ামী লীগ, যুবলীগ ও ছাত্রলীগের অনেক নেতাকর্মী উপস্থিত ছিলেন ।