নারায়ণগঞ্জ ০৬:৪১ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২১ মে ২০২৪, ৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
গুণী জনদের পদচারণায়  উদযাপিত  দৈনিক আজকের নীর বাংলা পত্রিকা’র ১৫ তম  বর্ষপূর্তি সিদ্ধিরগঞ্জে রাজউকের অভিযানে ক্ষুব্ধ ভবন মালিকরা রেকমত আলী উচ্চ বিদ্যালয়ের মজিবুর রহমান সভাপতির দায়িত্ব নিয়েই শিক্ষার মান উন্নয়নের তাগিদ অস্ত্রের লাইসেন্সের আবেদন না করেও অপপ্রচারের শিকার মহিউদ্দিন মোল্লা ! সাংবাদিক শাওনের বাবা ফিরোজ আহমেদ আর নেই রিয়াদে জমকালো আয়োজনে মাই টিভির ১৫ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উদযাপন রিয়াদে প্রিমিয়াম ফুটবল লীগের ফাইনাল অনুষ্ঠিত জুন মাসের ১৭ তারিখ কোরবানির ঈদ পালিত হওয়ার সম্ভবনা রিয়াদে নোভ আল আম্মার ইষ্টাবলিস্ট এর আয়োজনে দোয়া ও ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত রিয়াদে বেগম খালেদা জিয়ার রোগ মুক্তি কামনায় দোয়া ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত

সিদ্ধিরগঞ্জের যুবলীগ নেতা হুমায়ুন কবির ও ফারুককে চাঁদাবাজ বানানোর ষড়যন্ত্র

  • প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ১১:৩০:৩৫ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ৮ জুলাই ২০১৯
  • ১৫৭ বার পড়া হয়েছে

সিদ্ধিরগঞ্জ প্রতিনিধি : সিদ্ধিরগঞ্জের যুবলীগ নেতা হুমায়ুন কবির ও ফারুককে পরিবহন চাঁদাবাজ অখ্যায়িত করে ঘোলা পানিতে মাছ শিকার করার ষড়ন্ত্রে লিপ্ত হয়েছে একটি মহল। র‌্যাবে হাতে গ্রেফতারকৃত পরিবহন চাঁদাবাজ শ্রমিকলীগ নেতা আবদুস সামাদ বেপারীর সহযোগী বানিয়ে হুমায়ুন কবির ও ফারুককে প্রশাসনিক ভাবে হয়রানী করার জন্য ষড়ন্ত্রকারী মহল তাদের বিরুদ্ধে অপপ্রচার শুরু করেছে বলে অভিযোগ হুমায়ুন কবিরের।

আদমজী ইপিজেডের তালিকাভূক্ত ব্যবসায়ী হুমায়ুন কবির ও ফারুক হোসেন পরিবহন চাঁদাবাজির সাথে জড়িত বলে মিথ্যা অপপ্রচার চালানো হচ্ছে। দুইটি চাঁদাবাজির মামলায় র‌্যাবের হাতে গ্রেফতারকৃত সিদ্ধিরগঞ্জ আদমজী আঞ্চলিক শ্রমিকলীগ সভাপতি আবদুস ছামাদ বেপারী গ্রেফতার হওয়ার পর প্রতিপক্ষ মহল হুমায়ুন কবিরের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রে লিপ্ত হয়েছে। সামাদ বেপারীর সাথে একটি মিছিলের ছবিকে পুঁিজ করে ওই মহলটি হুমায়ুন কবির ও ফারুক হোসেনকে সামাদ বেপারীর সহযোগী চাঁদাবাজ বলে অপপ্রচার চালানো হচ্ছে। কবির ও ফারুক দুজনই যুবলীগের রাজনীতি করে আসছে। সে হিসেবে দলীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে সামাদ বেপারীর সাথে মিছিলে অংশ গ্রহন করে। রাজনৈতিক বিবেচনায় হুমায়ুন কবির ও ফারুক সামাদ বেপারীর সহযোগী ধরে নেওয়া হলেও চাঁদাবাজ হিসেবে নয়। কারণ, এই দুই যুবলীগ নেতা পরিবহন থেকে চাঁদা আদায় করার কোন অভিযোগ নেই। পরিবহন শ্রমিক কিংবা মালিক পক্ষ থেকে তাদের বিরুদ্ধে চাঁদাবাজির অভিযোগ উত্থাপিত হয়নি। তারা চাঁদাবাজি করছে এমন কোন প্রত্যক্ষদর্শীর সন্ধান পাওয়া যায়নি। তার পরও কিশের ভিত্তিতে তাদেরকে পরিবহন চাঁদাবাজ অখ্যায়িত করে মিথ্যা অপপ্রচার চালানো হচ্ছে তা নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করছেন স্থানীয় অওয়ামীলীগ, যুবলীগ ও অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীরা।

দলীয় একটি সূত্রে জানা গেছে, গত জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আওয়ামীলীগ প্রার্থী একে এম শামীম ওসমানের নৌকার পক্ষে নজরকারা মিছিল গণসংযোগ করেছে হুমায়ুন কবির ও ফারুকের নেতৃত্বে। তাদের এই জনপ্রিয়তা অনেকই ভাল চোখে দেখিনি। রাজনৈতিক ভাবে কবির এগিয়ে যাবে তা মেনে নিতে পারছে না প্রতিপক্ষ মহল। তাই মিথ্যা অপপ্রচার চালিয়ে সামাজিক ও রাজনৈতিক ভাবে তাদের গায়েল করার অপচেষ্টা করা হচ্ছে বলে মত প্রকাশ করেন সুত্রটি।

এ বিষয়ে যুবলীগ নেতা হুমায়ুন কবির জানায়, সিদ্ধিরগঞ্জে কে বা কারা পরিবহন সেক্টরে চাঁদাবাজি করে তা কারো অজানা নয়। প্রশাসন থেকে শুরু করে সাধারণ মানুষও জানে কারা চাঁদাবাজি করে। চাঁদাবাজির অভিযোগ মিথ্যা ও ষড়যন্ত্রমূলক বলে চ্যালেঞ্জ করেছেন কবির হোসেন।

 

ট্যাগস :

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

গুণী জনদের পদচারণায়  উদযাপিত  দৈনিক আজকের নীর বাংলা পত্রিকা’র ১৫ তম  বর্ষপূর্তি

সিদ্ধিরগঞ্জের যুবলীগ নেতা হুমায়ুন কবির ও ফারুককে চাঁদাবাজ বানানোর ষড়যন্ত্র

আপডেট সময় : ১১:৩০:৩৫ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ৮ জুলাই ২০১৯

সিদ্ধিরগঞ্জ প্রতিনিধি : সিদ্ধিরগঞ্জের যুবলীগ নেতা হুমায়ুন কবির ও ফারুককে পরিবহন চাঁদাবাজ অখ্যায়িত করে ঘোলা পানিতে মাছ শিকার করার ষড়ন্ত্রে লিপ্ত হয়েছে একটি মহল। র‌্যাবে হাতে গ্রেফতারকৃত পরিবহন চাঁদাবাজ শ্রমিকলীগ নেতা আবদুস সামাদ বেপারীর সহযোগী বানিয়ে হুমায়ুন কবির ও ফারুককে প্রশাসনিক ভাবে হয়রানী করার জন্য ষড়ন্ত্রকারী মহল তাদের বিরুদ্ধে অপপ্রচার শুরু করেছে বলে অভিযোগ হুমায়ুন কবিরের।

আদমজী ইপিজেডের তালিকাভূক্ত ব্যবসায়ী হুমায়ুন কবির ও ফারুক হোসেন পরিবহন চাঁদাবাজির সাথে জড়িত বলে মিথ্যা অপপ্রচার চালানো হচ্ছে। দুইটি চাঁদাবাজির মামলায় র‌্যাবের হাতে গ্রেফতারকৃত সিদ্ধিরগঞ্জ আদমজী আঞ্চলিক শ্রমিকলীগ সভাপতি আবদুস ছামাদ বেপারী গ্রেফতার হওয়ার পর প্রতিপক্ষ মহল হুমায়ুন কবিরের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রে লিপ্ত হয়েছে। সামাদ বেপারীর সাথে একটি মিছিলের ছবিকে পুঁিজ করে ওই মহলটি হুমায়ুন কবির ও ফারুক হোসেনকে সামাদ বেপারীর সহযোগী চাঁদাবাজ বলে অপপ্রচার চালানো হচ্ছে। কবির ও ফারুক দুজনই যুবলীগের রাজনীতি করে আসছে। সে হিসেবে দলীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে সামাদ বেপারীর সাথে মিছিলে অংশ গ্রহন করে। রাজনৈতিক বিবেচনায় হুমায়ুন কবির ও ফারুক সামাদ বেপারীর সহযোগী ধরে নেওয়া হলেও চাঁদাবাজ হিসেবে নয়। কারণ, এই দুই যুবলীগ নেতা পরিবহন থেকে চাঁদা আদায় করার কোন অভিযোগ নেই। পরিবহন শ্রমিক কিংবা মালিক পক্ষ থেকে তাদের বিরুদ্ধে চাঁদাবাজির অভিযোগ উত্থাপিত হয়নি। তারা চাঁদাবাজি করছে এমন কোন প্রত্যক্ষদর্শীর সন্ধান পাওয়া যায়নি। তার পরও কিশের ভিত্তিতে তাদেরকে পরিবহন চাঁদাবাজ অখ্যায়িত করে মিথ্যা অপপ্রচার চালানো হচ্ছে তা নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করছেন স্থানীয় অওয়ামীলীগ, যুবলীগ ও অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীরা।

দলীয় একটি সূত্রে জানা গেছে, গত জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আওয়ামীলীগ প্রার্থী একে এম শামীম ওসমানের নৌকার পক্ষে নজরকারা মিছিল গণসংযোগ করেছে হুমায়ুন কবির ও ফারুকের নেতৃত্বে। তাদের এই জনপ্রিয়তা অনেকই ভাল চোখে দেখিনি। রাজনৈতিক ভাবে কবির এগিয়ে যাবে তা মেনে নিতে পারছে না প্রতিপক্ষ মহল। তাই মিথ্যা অপপ্রচার চালিয়ে সামাজিক ও রাজনৈতিক ভাবে তাদের গায়েল করার অপচেষ্টা করা হচ্ছে বলে মত প্রকাশ করেন সুত্রটি।

এ বিষয়ে যুবলীগ নেতা হুমায়ুন কবির জানায়, সিদ্ধিরগঞ্জে কে বা কারা পরিবহন সেক্টরে চাঁদাবাজি করে তা কারো অজানা নয়। প্রশাসন থেকে শুরু করে সাধারণ মানুষও জানে কারা চাঁদাবাজি করে। চাঁদাবাজির অভিযোগ মিথ্যা ও ষড়যন্ত্রমূলক বলে চ্যালেঞ্জ করেছেন কবির হোসেন।