নারায়ণগঞ্জ ০১:৪৬ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৯ নভেম্বর ২০২২, ১৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

আড়াইহাজারে পূর্ব বিরোধের জেরে এক মাদ্রাসার ছাত্রকে ব্লেডে ক্ষতবিক্ষত

  • প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৩:১১:৪৪ অপরাহ্ন, বুধবার, ২০ মার্চ ২০১৯
  • ৫৪ বার পড়া হয়েছে

আড়াইহাজার প্রতিনিধি :পূর্ব বিরোধের জেরে নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজারে হাত-পা বেঁধে আল-আমিন (১২) নামে এক মাদ্রাসার ছাত্রকে ব্লেড দিয়ে উপর্যুপরি আঘাত করে ক্ষতবিক্ষত করা হয়েছে। বুধবার সকাল ৬টায় স্থানীয় দয়াকান্দা এলাকায় হাফিজিয়া মাদ্রাসা নামক একটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে এ ঘটনা ঘটে। পরে তাকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। সে স্থানীয় চৈতনকান্দা এলাকার মানিক মিয়ার ছেলে এবং হাফিজিয়া মাদ্রাসার হেফজ্ বিভাগের ছাত্র।
আহত ছাত্রের বাবা মানিক মিয়া জানান, আল-আমিন স্থানীয় দয়াকান্দা হাফিজিয়া মাদ্রাসার হেফজ্ বিভাগের ছাত্র। সে ফজরের আযান শেষে মাদ্রাসায় নামাজের প্রস্তুতি নিচ্ছিল। ভোরে তাকে একা পেয়ে চৈতনকান্দা এলাকার রহমানের ছেলে এনামুল ও রাজ্জাকের ছেলে ছালামসহ আরো কয়েক মিলে তুলে নেয়। তাকে মাদ্রাসার দ্বিতীয় তলার সিঁড়িতে হাত-পা বেঁেধ ব্লেড দিয়ে শীরিরের বিভিন্ন স্থানে উপযুপরি আঘাত করে ক্ষতবিক্ষত করে মৃত ভেবে তারা পালিয়ে যায়। পরে তাকে আশঙ্কা জনক অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। তিনি আরো জানান, জমি সংক্রান্ত বিরোধের জেরে প্রতিপক্ষের লোকজন পরিকল্পিতভাবে এ ঘটনাটি ঘটিয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে জমিজমা সংক্রান্ত একটি মামলা নারায়ণগঞ্জের আদালতে বিচারাধীন।
আড়াইহাজার থানার ওসি আক্তার হোসেন বলেন, এ ঘটনায় অভিযোগ পাওয়ার পর ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। অপরাধীদের গ্রেপ্তারে পুলিশের অভিযান চলছে।

ট্যাগস :

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

আড়াইহাজারে পূর্ব বিরোধের জেরে এক মাদ্রাসার ছাত্রকে ব্লেডে ক্ষতবিক্ষত

আপডেট সময় : ০৩:১১:৪৪ অপরাহ্ন, বুধবার, ২০ মার্চ ২০১৯

আড়াইহাজার প্রতিনিধি :পূর্ব বিরোধের জেরে নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজারে হাত-পা বেঁধে আল-আমিন (১২) নামে এক মাদ্রাসার ছাত্রকে ব্লেড দিয়ে উপর্যুপরি আঘাত করে ক্ষতবিক্ষত করা হয়েছে। বুধবার সকাল ৬টায় স্থানীয় দয়াকান্দা এলাকায় হাফিজিয়া মাদ্রাসা নামক একটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে এ ঘটনা ঘটে। পরে তাকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। সে স্থানীয় চৈতনকান্দা এলাকার মানিক মিয়ার ছেলে এবং হাফিজিয়া মাদ্রাসার হেফজ্ বিভাগের ছাত্র।
আহত ছাত্রের বাবা মানিক মিয়া জানান, আল-আমিন স্থানীয় দয়াকান্দা হাফিজিয়া মাদ্রাসার হেফজ্ বিভাগের ছাত্র। সে ফজরের আযান শেষে মাদ্রাসায় নামাজের প্রস্তুতি নিচ্ছিল। ভোরে তাকে একা পেয়ে চৈতনকান্দা এলাকার রহমানের ছেলে এনামুল ও রাজ্জাকের ছেলে ছালামসহ আরো কয়েক মিলে তুলে নেয়। তাকে মাদ্রাসার দ্বিতীয় তলার সিঁড়িতে হাত-পা বেঁেধ ব্লেড দিয়ে শীরিরের বিভিন্ন স্থানে উপযুপরি আঘাত করে ক্ষতবিক্ষত করে মৃত ভেবে তারা পালিয়ে যায়। পরে তাকে আশঙ্কা জনক অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। তিনি আরো জানান, জমি সংক্রান্ত বিরোধের জেরে প্রতিপক্ষের লোকজন পরিকল্পিতভাবে এ ঘটনাটি ঘটিয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে জমিজমা সংক্রান্ত একটি মামলা নারায়ণগঞ্জের আদালতে বিচারাধীন।
আড়াইহাজার থানার ওসি আক্তার হোসেন বলেন, এ ঘটনায় অভিযোগ পাওয়ার পর ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। অপরাধীদের গ্রেপ্তারে পুলিশের অভিযান চলছে।