নারায়ণগঞ্জ ০৮:১৯ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১১ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
রিয়াদে Dxnএর আয়োজনে আন্তজার্তিক মাতৃভাষা দিবস পালন ও সেমিনার অনুষ্ঠিত ইসদাইরে অবৈধ ক্যাবল অপারেটর ব্যবসার বিরুদ্ধে অভিযান,অফিস সীলগালা চাষাড়ায় মাতৃভাষা দিবসে বইমেলার উদ্বোধন নারায়ণগঞ্জে কারাগারে সাংবাদিক হত্যাকারির আত্নহত্যা চৌধুরীগাঁও উচ্চ বিদ্যালয়ে ভাষা শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন অস্ত্র মামলায় মিশনপাড়ার নাজমুলকে ১০ বছরের কারাদণ্ড বন্দরে এক রোহিঙ্গা যুবককে ৪হাজার ইয়াবাসহ গ্রেপ্তার উপজেলা নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে জামানত ১ লাখ টাকা ফতুল্লার ক্লু-লেস হত্যার রহস্য উদঘাটনসহ প্রধান আসামিকে গ্রেফতার র‌্যাব-১১ বানিজ্য মেলায় দর্শনার্থীদের সেবা দিতে ডিকেএমসি হাসপাতালের অধ্যাপক ডাক্তার এম এ কাশেম

কালাপাহাড়িয়ায় সরকারি খাল থেকে বালু উত্তোলন, ফসলি জমি রক্ষায় জেলা প্রশাসকের নিকট লিখিত অভিযোগ

নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজার উপজেলায় কালাপাহাড়িয়া ইউনিয়নের খালিয়াচর এলাকায় সরকারি খাল থেকে ড্রেজার বসিয়ে অবৈধভাবে বালু উত্তোলনের ফলে ফসলী বিলীন হওয়া আশঙ্কা দেখা দিয়েছে। বালু উত্তোলনকারীরা স্থানীয় ও রাজনৈতিকভাবে প্রভাবশালী হওয়ায় গ্রামবাসী বালু উত্তোলনে বাঁধা দিলেও বালু উত্তোলন থামছেনা। কোন উপয়ান্ত না পেয়ে গ্রামবাসী বালু উত্তোলন বন্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণে জন্য নারায়ণগঞ্জ জেলা প্রশাসকের নিকট লিখিত আবেদন করেছেন।

স্থানীয়রা জানায়, খালিয়াচর গ্রামের পাশ দিয়ে বয়ে গেছে একটি সরকারি খাল। এ সরকারি খাল থেকে অবৈধভাবে বালু উত্তোলনের জন্য ৯ নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য খোকন মিয়া ও তার সহযোগিদের নিয়ে ২টি ড্রেজার বসিয়ে গত কয়েক দিন ৭ দিন ধরে বালু উত্তোলন করছেন। ফলে ওই এলাকার ফসলি জমি ও বাড়ীঘর বিলীন শঙ্কা দেখা দিয়ে। এতে করে গ্রামবাসীদের মধ্যে উত্তেজনা বিরাজ করছে।
অবৈধ এ বালু উত্তোলন বন্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়ার জন্য গত ১৪ ফ্রেবুয়ারী খালিয়ারচর গ্রামের মনির হোসেন, ইউসুফ গ্রাম বাসীর পক্ষে জেলা প্রশাসকের নিকট লিখিত আবেদন করেছেন।

এ ব্যপারে ৯নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য খোকন মিয়া জানান, কয়েকদিন ড্রেজার বসিয়ে বালু উত্তোলন করলেও এখন আর করছেনা। কালাপাহাড়িয়া নায়েব সাব এসে বালু উত্তোলন বন্ধ করে দিয়ে গেছেন। তবে ভূক্তভোগী মনির হোসেন, ইউসুফসহ অন্যরা গণমাধ্যমকে জানান, ড্রেজার দুইটি এখনও খালে রয়েছে। সরকারি লোক যাওয়ার পর ফের বালু উত্তোলনের জন্য প্রস্তুতি নিয়েছে।

এ ব্যপারে উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) ইশতিয়াক আহমেদ বৃহস্পতিবার জানান, স্থানীয়দের দেয়া অভিযোগের বিষয়টি খোঁজখবর নেয়া হচ্ছে। যদি কেউ সরকারি খাল থেকে অবৈধভাবে বালু উত্তোলনের চেষ্টা করে তাহলে তাদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হচ্ছে।

ট্যাগস :

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

জনপ্রিয় সংবাদ

রিয়াদে Dxnএর আয়োজনে আন্তজার্তিক মাতৃভাষা দিবস পালন ও সেমিনার অনুষ্ঠিত

কালাপাহাড়িয়ায় সরকারি খাল থেকে বালু উত্তোলন, ফসলি জমি রক্ষায় জেলা প্রশাসকের নিকট লিখিত অভিযোগ

আপডেট সময় : ০৬:৫৩:৪৫ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৩

নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজার উপজেলায় কালাপাহাড়িয়া ইউনিয়নের খালিয়াচর এলাকায় সরকারি খাল থেকে ড্রেজার বসিয়ে অবৈধভাবে বালু উত্তোলনের ফলে ফসলী বিলীন হওয়া আশঙ্কা দেখা দিয়েছে। বালু উত্তোলনকারীরা স্থানীয় ও রাজনৈতিকভাবে প্রভাবশালী হওয়ায় গ্রামবাসী বালু উত্তোলনে বাঁধা দিলেও বালু উত্তোলন থামছেনা। কোন উপয়ান্ত না পেয়ে গ্রামবাসী বালু উত্তোলন বন্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণে জন্য নারায়ণগঞ্জ জেলা প্রশাসকের নিকট লিখিত আবেদন করেছেন।

স্থানীয়রা জানায়, খালিয়াচর গ্রামের পাশ দিয়ে বয়ে গেছে একটি সরকারি খাল। এ সরকারি খাল থেকে অবৈধভাবে বালু উত্তোলনের জন্য ৯ নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য খোকন মিয়া ও তার সহযোগিদের নিয়ে ২টি ড্রেজার বসিয়ে গত কয়েক দিন ৭ দিন ধরে বালু উত্তোলন করছেন। ফলে ওই এলাকার ফসলি জমি ও বাড়ীঘর বিলীন শঙ্কা দেখা দিয়ে। এতে করে গ্রামবাসীদের মধ্যে উত্তেজনা বিরাজ করছে।
অবৈধ এ বালু উত্তোলন বন্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়ার জন্য গত ১৪ ফ্রেবুয়ারী খালিয়ারচর গ্রামের মনির হোসেন, ইউসুফ গ্রাম বাসীর পক্ষে জেলা প্রশাসকের নিকট লিখিত আবেদন করেছেন।

এ ব্যপারে ৯নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য খোকন মিয়া জানান, কয়েকদিন ড্রেজার বসিয়ে বালু উত্তোলন করলেও এখন আর করছেনা। কালাপাহাড়িয়া নায়েব সাব এসে বালু উত্তোলন বন্ধ করে দিয়ে গেছেন। তবে ভূক্তভোগী মনির হোসেন, ইউসুফসহ অন্যরা গণমাধ্যমকে জানান, ড্রেজার দুইটি এখনও খালে রয়েছে। সরকারি লোক যাওয়ার পর ফের বালু উত্তোলনের জন্য প্রস্তুতি নিয়েছে।

এ ব্যপারে উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) ইশতিয়াক আহমেদ বৃহস্পতিবার জানান, স্থানীয়দের দেয়া অভিযোগের বিষয়টি খোঁজখবর নেয়া হচ্ছে। যদি কেউ সরকারি খাল থেকে অবৈধভাবে বালু উত্তোলনের চেষ্টা করে তাহলে তাদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হচ্ছে।