নারায়ণগঞ্জ ০২:১৮ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ১৭ জুলাই ২০২৪, ১ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
সোনারগাঁয়ের শিক্ষার্থীদের প্রতিবাদ মিছিলে মহাসড়ক অবরোধ পাইনাদী নতুন মহল্লা সমাজকল্যাণ সংস্থার কার্যালয় উদ্বোধন সিদ্ধিরগঞ্জে ছাত্র বলাৎকারের অভিযোগে মাদ্রাসার শিক্ষক গ্রেপ্তার সিদ্ধিরগঞ্জের মহাসড়ক যেন ময়লার ভাগাড়,দূষিত পরিবেশে বাড়ছে স্বাস্থ্যঝুঁকি আড়াইহাজারে ছাত্রলীগ নেতার বাড়িতে ডাকাতির ঘটনায় ৮ জন গ্রেপ্তার সিদ্ধিরগঞ্জে মিতালী মার্কেটের অর্থ আত্নসাত করেও অপপ্রচারে লিপ্ত জামান সোনারগাঁ জামপুরে খোকার সন্ত্রাসী হামলায় দলিল লেখক রতন আহত র্যাবের হাতে চাদাঁবাজির টাকাসহ ৬ চাদাঁবাজ গ্রেফতার হাজিরা মিস হওয়ায় মামুনুল হকের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা রূপগঞ্জের কাঞ্চন পৌরসভায় নির্বাচন কাল

আড়াইহাজারে বিষাক্ত ট্যাবলেট খেয়ে যুবকের মৃত্যু

  • নিজস্ব প্রতিবেদক
  • আপডেট সময় : ০৮:৫৯:০১ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৯ নভেম্বর ২০২২
  • ১৪৬ বার পড়া হয়েছে

নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজারে বিষাক্ত ট্যাবলেট ( স্থানীয় ভাষায় কেড়ির বড়ি) খেয়ে এক হিন্দু যুবকের মৃত্যু হয়েছে। সোমবার রাতে উপজেলার সদর পৌরসভার গাজীপুরা গ্রামে এ ঘটনা ঘটেছে। নিহত যুবকের নাম পলাশ চন্দ্র (২০)। সে ওই গ্রামের কাঞ্চন চন্দ্র ও বেবী রানী দম্পতির ছেলে।

জানা গেছে, সোমবার রাতে পলাশ তার পিতা-মাতার সাথে অভিমান করে বিষাক্ত ট্যাবলেট খেয়ে অসুস্থ হয়ে পড়লে প্রথমে তাকে আড়াইহাজার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়া হয়। সেখানে তার অবস্থা গুরুতর বিধায় বিধায় কর্তব্যরত ডাক্তার তাকে ঢামেক হাসপাতালে রেফার করেন।

ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়ার পর জরুরী ভিাগের চিকিৎসক পলাশকে মৃত ঘোষণা করেন। পরে তার লাশ ওই হাসপাতালে ময়নাতদন্ত শেষে বাড়ীতে এনে দাহ করা হয়।

বিশ্বস্ত সূত্র জানায়, পলাশের স্থানীয় এক মেয়ের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক ছিল। প্রেমিকার সঙ্গে বিয়ের বিষয়ে পিতা- মাতা রাজী না হওয়ার কারণে পলাশ বিষাক্ত ট্যাবলেট খেয়েছে।

আড়াইহাজার থানার ওসি (তদন্ত) সাইফুল ইসলাম জানান, বিষয়টি সম্পর্কে আমরা অবগত নই।

ট্যাগস :

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

সোনারগাঁয়ের শিক্ষার্থীদের প্রতিবাদ মিছিলে মহাসড়ক অবরোধ

আড়াইহাজারে বিষাক্ত ট্যাবলেট খেয়ে যুবকের মৃত্যু

আপডেট সময় : ০৮:৫৯:০১ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৯ নভেম্বর ২০২২

নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজারে বিষাক্ত ট্যাবলেট ( স্থানীয় ভাষায় কেড়ির বড়ি) খেয়ে এক হিন্দু যুবকের মৃত্যু হয়েছে। সোমবার রাতে উপজেলার সদর পৌরসভার গাজীপুরা গ্রামে এ ঘটনা ঘটেছে। নিহত যুবকের নাম পলাশ চন্দ্র (২০)। সে ওই গ্রামের কাঞ্চন চন্দ্র ও বেবী রানী দম্পতির ছেলে।

জানা গেছে, সোমবার রাতে পলাশ তার পিতা-মাতার সাথে অভিমান করে বিষাক্ত ট্যাবলেট খেয়ে অসুস্থ হয়ে পড়লে প্রথমে তাকে আড়াইহাজার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়া হয়। সেখানে তার অবস্থা গুরুতর বিধায় বিধায় কর্তব্যরত ডাক্তার তাকে ঢামেক হাসপাতালে রেফার করেন।

ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়ার পর জরুরী ভিাগের চিকিৎসক পলাশকে মৃত ঘোষণা করেন। পরে তার লাশ ওই হাসপাতালে ময়নাতদন্ত শেষে বাড়ীতে এনে দাহ করা হয়।

বিশ্বস্ত সূত্র জানায়, পলাশের স্থানীয় এক মেয়ের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক ছিল। প্রেমিকার সঙ্গে বিয়ের বিষয়ে পিতা- মাতা রাজী না হওয়ার কারণে পলাশ বিষাক্ত ট্যাবলেট খেয়েছে।

আড়াইহাজার থানার ওসি (তদন্ত) সাইফুল ইসলাম জানান, বিষয়টি সম্পর্কে আমরা অবগত নই।