নারায়ণগঞ্জ ০৭:০৭ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ০৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ২৬ মাঘ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
অপরাধি যেই হোক ছাড় পাবেনা : ওসি গোলাম মোস্তফা মাইক্রোসফট ইনোভেটিভ এডুকেটর এক্সপার্ট বাংলাদেশ কমিউনিটি মিটআপ ২০২৩ অনুষ্ঠিত আদমজী ইপিজেডকে অশান্ত করছে জনপ্রতিনিধিরা রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের আশঙ্কা সিদ্ধিরগঞ্জ রিপোর্টার্স ক্লাবের কর্মকর্তাদের সাথে মহিলা লীগ নেত্রীর শুভেচ্ছা বিনিময় না’গঞ্জ কারাগারে হাজতীর মৃত্যু ফতুল্লায় চোরাইকৃত ট্যাংকলড়ী উদ্ধার আড়াইহাজারের মিথিলা টেক্সটাইল ঘুরে গেলেন ৮ দেশের রাষ্ট্রদূতসহ ১৮ দেশের প্রতিনিধি সিদ্ধিরগঞ্জ রিপোর্টার্স ক্লাবের কর্মকর্তাদের সাথে কাউন্সিলর ইকবাল হোসেনের মতবিনিময় ফতুল্লা ব্লাড ডোনার্সের উদ্যোগে শীতার্তদের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ শিক্ষা সিলেবাস বাতিলের দাবিতে খেলাফত মজলিসের বিক্ষোভ মিছিল

আড়াইহাজারে বিষাক্ত ট্যাবলেট খেয়ে যুবকের মৃত্যু

নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজারে বিষাক্ত ট্যাবলেট ( স্থানীয় ভাষায় কেড়ির বড়ি) খেয়ে এক হিন্দু যুবকের মৃত্যু হয়েছে। সোমবার রাতে উপজেলার সদর পৌরসভার গাজীপুরা গ্রামে এ ঘটনা ঘটেছে। নিহত যুবকের নাম পলাশ চন্দ্র (২০)। সে ওই গ্রামের কাঞ্চন চন্দ্র ও বেবী রানী দম্পতির ছেলে।

জানা গেছে, সোমবার রাতে পলাশ তার পিতা-মাতার সাথে অভিমান করে বিষাক্ত ট্যাবলেট খেয়ে অসুস্থ হয়ে পড়লে প্রথমে তাকে আড়াইহাজার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়া হয়। সেখানে তার অবস্থা গুরুতর বিধায় বিধায় কর্তব্যরত ডাক্তার তাকে ঢামেক হাসপাতালে রেফার করেন।

ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়ার পর জরুরী ভিাগের চিকিৎসক পলাশকে মৃত ঘোষণা করেন। পরে তার লাশ ওই হাসপাতালে ময়নাতদন্ত শেষে বাড়ীতে এনে দাহ করা হয়।

বিশ্বস্ত সূত্র জানায়, পলাশের স্থানীয় এক মেয়ের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক ছিল। প্রেমিকার সঙ্গে বিয়ের বিষয়ে পিতা- মাতা রাজী না হওয়ার কারণে পলাশ বিষাক্ত ট্যাবলেট খেয়েছে।

আড়াইহাজার থানার ওসি (তদন্ত) সাইফুল ইসলাম জানান, বিষয়টি সম্পর্কে আমরা অবগত নই।

ট্যাগস :

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

অপরাধি যেই হোক ছাড় পাবেনা : ওসি গোলাম মোস্তফা

আড়াইহাজারে বিষাক্ত ট্যাবলেট খেয়ে যুবকের মৃত্যু

আপডেট সময় : ০৮:৫৯:০১ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৯ নভেম্বর ২০২২

নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজারে বিষাক্ত ট্যাবলেট ( স্থানীয় ভাষায় কেড়ির বড়ি) খেয়ে এক হিন্দু যুবকের মৃত্যু হয়েছে। সোমবার রাতে উপজেলার সদর পৌরসভার গাজীপুরা গ্রামে এ ঘটনা ঘটেছে। নিহত যুবকের নাম পলাশ চন্দ্র (২০)। সে ওই গ্রামের কাঞ্চন চন্দ্র ও বেবী রানী দম্পতির ছেলে।

জানা গেছে, সোমবার রাতে পলাশ তার পিতা-মাতার সাথে অভিমান করে বিষাক্ত ট্যাবলেট খেয়ে অসুস্থ হয়ে পড়লে প্রথমে তাকে আড়াইহাজার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়া হয়। সেখানে তার অবস্থা গুরুতর বিধায় বিধায় কর্তব্যরত ডাক্তার তাকে ঢামেক হাসপাতালে রেফার করেন।

ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়ার পর জরুরী ভিাগের চিকিৎসক পলাশকে মৃত ঘোষণা করেন। পরে তার লাশ ওই হাসপাতালে ময়নাতদন্ত শেষে বাড়ীতে এনে দাহ করা হয়।

বিশ্বস্ত সূত্র জানায়, পলাশের স্থানীয় এক মেয়ের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক ছিল। প্রেমিকার সঙ্গে বিয়ের বিষয়ে পিতা- মাতা রাজী না হওয়ার কারণে পলাশ বিষাক্ত ট্যাবলেট খেয়েছে।

আড়াইহাজার থানার ওসি (তদন্ত) সাইফুল ইসলাম জানান, বিষয়টি সম্পর্কে আমরা অবগত নই।