নারায়ণগঞ্জ ১১:৩৮ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৯ নভেম্বর ২০২২, ১৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
সোনারগাঁয়ে টেক্সটাইল মিলে ও মিষ্টি কারখানায় ভয়াবহ অগ্নিকান্ড ফতুল্লায় অপহরনকারী চক্রের নারী সদস্যসহ গ্রেপ্তার ৫, অপহৃত উদ্ধার ১৩৯ জন শহীদদের স্মরণে বক্তাবলী ইউনিয়ন ছাত্রদলের শ্রদ্ধাঞ্জলি আড়াইহাজারে ড্রেজার দিয়ে অবৈধভাবে মাটি বিক্রি, নির্বাহী অফিসারের নিকট লিখিত অভিযোগ আড়াইহাজারে পরীক্ষার হল থেকে ছাত্রীকে নিয়ে উধাও ছাত্রলীগ নেতা দুই মাসের মধ্যে হাইড্রোলিক হর্ন বন্ধের সিদ্ধান্ত জাপান, সৌদি আরবের পর এবার গ্যালারি পরিষ্কার করল মরক্কোর দর্শকরা শিমু হত্যায় স্বামীসহ দুই জনের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন ২৬ শর্তে বিএনপিকে ঢাকায় সমাবেশের অনুমতি সোনারগাঁয়ে মহাসড়ক বর্ধিতকরণকাজে জনদুর্ভোগ চরমে

‘রাজনীতি থেকে বিদায় নেয়ার সময় এসেছে বিএনপির’

  • প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৯:৩২:৪৮ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ১০ অগাস্ট ২০২২
  • ৯ বার পড়া হয়েছে

‘রাজনীতি থেকে বিদায় নেয়ার সময় এসেছে বিএনপির’

অনলাইন ডেস্ক : আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন সরকার নয়, নেতিবাচক রাজনীতি ও নির্বাচন বিমুখতার জন্য বিএনপির-ই রাজনীতি থেকে বিদায় নেওয়ার সময় এসেছে। আওয়ামী লীগ সরকারের নাকি বিদায় নেওয়ার সময় এসেছে, বিএনপি মহাসচিবের এমন বক্তব্যের জবাবে ওবায়দুল কাদের আজ বুধবার এক বিবৃতিতে একথা বলেন।

নির্বাচন ছাড়া ক্ষমতা পরিবর্তনের কোন সুযোগ নেই উল্লেখ করে ওবায়দুল কাদের বলেন আওয়ামী লীগের ক্ষমতার উৎস এদেশের জনগণ এবং ক্ষমতা দেওয়ার মালিক মহান আল্লাহ।

বিবৃতিতে তিনি আরও বলেন বিএনপির মত জনবিচ্ছিন্ন রাজনৈতিক দলের মুখের কথায় জনগণের এখন আর কোন আস্থা নেই। বিএনপি সরকার পরিচালনায় যেমন ব্যর্থতার পরিচয় দিয়েছে, বিরোধীদল হিসেবেও চরম দায়িত্বহীনতার নজির স্থাপন করেছে বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

বিএনপি প্রায় প্রতিদিনই মিটিং – মিছিল করছে, সমাবেশ করছে, অথচ তারা অভিযোগ করছে তাদের নাকি সভা সমাবেশ করতে দেওয়া হচ্ছে না, তাদেরকে অধিকার থেকে বঞ্চিত করা হচ্ছে – এতসব মিথ্যা অভিযোগের জবাবে ওবায়দুল কাদের তার বিবৃতিতে বলেন, নিজেদের ব্যর্থতা ও নানান অপকর্মের দায় সরকারের ওপর চাপানোর অপচেষ্টা বিএনপির পুরনো স্বভাব। মিথ্যার মোড়কে বিএনপির অগণতান্ত্রিক রাজনৈতিক আচরণ জনগণের কাছে এখন স্পষ্ট, এমন দাবি করে ওবায়দুল কাদের বলেন, তাদের শাসন আমলেইতো দেশ মগের মুল্লুকে রূপান্তরিত হয়েছিলো। ধর্মীয় উগ্রবাদ আর সাম্প্রদায়িকতার ডাল-পালার বিস্তার ঘটেছিলো, সার চাইতে গিয়ে কৃষকেরা প্রাণ দিয়েছিলো। বিবৃতিতে তিনি আরও বলেন বিএনপির শাসনামলে দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বমুখী প্রবণতায় জনগণের নাভিশ্বাস উঠেছিলো, সংখ্যালঘু নির্যাতনের রেকর্ড করেছিলো। বিএনপি আবারও দেশকে সেই অরাজকতায় ডুবিয়ে দিতে চায়, কিন্তু জনগণ বর্ণচোরা বিএনপিকে চিনে। জনগণ সেই সুযোগ তাদের আর দেবে না।

ট্যাগস :

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

সোনারগাঁয়ে টেক্সটাইল মিলে ও মিষ্টি কারখানায় ভয়াবহ অগ্নিকান্ড

‘রাজনীতি থেকে বিদায় নেয়ার সময় এসেছে বিএনপির’

আপডেট সময় : ০৯:৩২:৪৮ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ১০ অগাস্ট ২০২২

অনলাইন ডেস্ক : আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন সরকার নয়, নেতিবাচক রাজনীতি ও নির্বাচন বিমুখতার জন্য বিএনপির-ই রাজনীতি থেকে বিদায় নেওয়ার সময় এসেছে। আওয়ামী লীগ সরকারের নাকি বিদায় নেওয়ার সময় এসেছে, বিএনপি মহাসচিবের এমন বক্তব্যের জবাবে ওবায়দুল কাদের আজ বুধবার এক বিবৃতিতে একথা বলেন।

নির্বাচন ছাড়া ক্ষমতা পরিবর্তনের কোন সুযোগ নেই উল্লেখ করে ওবায়দুল কাদের বলেন আওয়ামী লীগের ক্ষমতার উৎস এদেশের জনগণ এবং ক্ষমতা দেওয়ার মালিক মহান আল্লাহ।

বিবৃতিতে তিনি আরও বলেন বিএনপির মত জনবিচ্ছিন্ন রাজনৈতিক দলের মুখের কথায় জনগণের এখন আর কোন আস্থা নেই। বিএনপি সরকার পরিচালনায় যেমন ব্যর্থতার পরিচয় দিয়েছে, বিরোধীদল হিসেবেও চরম দায়িত্বহীনতার নজির স্থাপন করেছে বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

বিএনপি প্রায় প্রতিদিনই মিটিং – মিছিল করছে, সমাবেশ করছে, অথচ তারা অভিযোগ করছে তাদের নাকি সভা সমাবেশ করতে দেওয়া হচ্ছে না, তাদেরকে অধিকার থেকে বঞ্চিত করা হচ্ছে – এতসব মিথ্যা অভিযোগের জবাবে ওবায়দুল কাদের তার বিবৃতিতে বলেন, নিজেদের ব্যর্থতা ও নানান অপকর্মের দায় সরকারের ওপর চাপানোর অপচেষ্টা বিএনপির পুরনো স্বভাব। মিথ্যার মোড়কে বিএনপির অগণতান্ত্রিক রাজনৈতিক আচরণ জনগণের কাছে এখন স্পষ্ট, এমন দাবি করে ওবায়দুল কাদের বলেন, তাদের শাসন আমলেইতো দেশ মগের মুল্লুকে রূপান্তরিত হয়েছিলো। ধর্মীয় উগ্রবাদ আর সাম্প্রদায়িকতার ডাল-পালার বিস্তার ঘটেছিলো, সার চাইতে গিয়ে কৃষকেরা প্রাণ দিয়েছিলো। বিবৃতিতে তিনি আরও বলেন বিএনপির শাসনামলে দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বমুখী প্রবণতায় জনগণের নাভিশ্বাস উঠেছিলো, সংখ্যালঘু নির্যাতনের রেকর্ড করেছিলো। বিএনপি আবারও দেশকে সেই অরাজকতায় ডুবিয়ে দিতে চায়, কিন্তু জনগণ বর্ণচোরা বিএনপিকে চিনে। জনগণ সেই সুযোগ তাদের আর দেবে না।