নারায়ণগঞ্জ ১২:০৯ অপরাহ্ন, বুধবার, ০১ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ১৯ মাঘ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
মাইক্রোসফট ইনোভেটিভ এডুকেটর এক্সপার্ট বাংলাদেশ কমিউনিটি মিটআপ ২০২৩ অনুষ্ঠিত আদমজী ইপিজেডকে অশান্ত করছে জনপ্রতিনিধিরা রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের আশঙ্কা সিদ্ধিরগঞ্জ রিপোর্টার্স ক্লাবের কর্মকর্তাদের সাথে মহিলা লীগ নেত্রীর শুভেচ্ছা বিনিময় না’গঞ্জ কারাগারে হাজতীর মৃত্যু ফতুল্লায় চোরাইকৃত ট্যাংকলড়ী উদ্ধার আড়াইহাজারের মিথিলা টেক্সটাইল ঘুরে গেলেন ৮ দেশের রাষ্ট্রদূতসহ ১৮ দেশের প্রতিনিধি সিদ্ধিরগঞ্জ রিপোর্টার্স ক্লাবের কর্মকর্তাদের সাথে কাউন্সিলর ইকবাল হোসেনের মতবিনিময় ফতুল্লা ব্লাড ডোনার্সের উদ্যোগে শীতার্তদের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ শিক্ষা সিলেবাস বাতিলের দাবিতে খেলাফত মজলিসের বিক্ষোভ মিছিল সমাজতান্ত্রিক মহিলা ফোরামের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে শহরে নারী সমাবেশ ও মিছিল

সিদ্ধিরগঞ্জে পুলিশ অফিসারের সহযোগীতায় জমি দখলের পাঁয়তারা

  • প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ১২:১৬:২৪ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৩ জুলাই ২০২২
  • ১৬৪ বার পড়া হয়েছে

সিদ্ধিরগঞ্জ প্রতিনিধি :আদালতে মামলায় হেরেও একজন পুলিশ অফিসারের শেল্টারে সিদ্ধিরগঞ্জে জমি দখল করার পাঁয়তারা করছে আক্কাসগং। দখল ছেড়ে দিতে জমির মালিক মাজহাব উদ্দিন আদেলকে দিচ্ছে হুমকি ধমকি। প্রতিকার পেতে জেলা পুলিশ সুপার বরাবর অভিযোগ করেছেন ভোক্তভূগী আদেল।
অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, সিদ্ধিরগঞ্জের সাহেবপাড়া এলাকায় খোর্দ্দঘোষপাড়া মৌজায় আর এস ৩৪ খতিয়ানে ৩১৯ নং দাগে ক্রয়সূত্রে সাড়ে ১২ শতাংশ জমির মালিক হয়ে নিজের নামে নামজারি করে টিনসেট মার্কেট নির্মাণ করে ভোগ দখল করে আসছেন আবু দাইদ এর ছেলে মো: মাজহাব উদ্দিন আদেল। সরকারি নির্ধারিত খাজনাও পরিশোধ করে আসছেন নিয়মিত। কিন্তু জমির মালিক দাবি করে ক্ষমতার প্রভাবখাটিয়ে ঢাকার মোহাম্মদপুর থানার ৬/৫ মাদরাসা রোড, আজিজ মহল্লা ব্লক-এফ-১ এর বাসিন্দা মো: শফিউল্লাহর ছেলে মো: আক্কাস ও মিরপুর থানার ৭৭০/১ মধ্য মনিপুরি এলাকার মৃত আমির হোসেনের ছেলে মো: ইমরান হোসেন বর্ণিত সম্পত্তি অবৈধ পন্থায় জবর দখল করতে মরিয়া হয়ে উঠেছে। সিদ্ধিরগঞ্জ থানার একজন পুলিশ অফিসার তাদের পক্ষ নিয়ে জমির মালিক ও তার পরিবারের নামে মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানী করাসহ নানা ভয় দেখাচ্ছেন বলে অভিযোগে উল্লেখ করা হয়। জমির মালিকানা ঠিকিয়ে রাখতে আদেলের পূর্ববর্তী মালিক মো: মফিজুর রহমান বিজ্ঞ অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট আদালত, নারায়ণগঞ্জ পিঃ মামলা নং-৯১/১৯ দারে করলে আদালত বাদী পক্ষে রায় দেন। পরে বিবাদী আক্কাস পক্ষ আদেশে সংক্ষন্দ হয়ে বিজ্ঞ জেলা ও দায়রা জজ আদালতে ফৌঃ বিঃ ১৮১/১৯ দায়ের করলে আদালত আগের রায় বহাল রেখে রিভিশন নামঞ্জুর করেন। আরেকটি মামলা (৮২/১৯) জেলা জজ ১ম আদালতে চলমান রয়েছে। তবু জবর দখলকারী চক্র থেমে নেই। জমিটি দখল করতে বাদী ও তার পরিবারকে প্রতিনিয়তই হুমকি দিয়ে যাচ্ছেন। ফলে জীবনের নিরাপত্তা ও জমি রক্ষার্থে গত ১৭ জুলাই জেলা পুলিশ সুপার কার্যালয়ে লিখিত অভিযোগ করেন ভোক্তভূগী আদেল।
জমির মালিক আদেল জানান, গত ২০১১ সালের ৪ মার্চ রেজিষ্ট্রিকৃত ১৮৩৯ নং সাব কবলা দলি মূলে সাড়ে ৩ শতাংশ, একই বছর ৩ অক্টোবর ৬৬৩২ নং সাব কবলা দলিলমূলে ৯ শতাংশ জমি ক্রয় করি। নিজ নামে নামজারী জমাভাগ করত সরকার নির্ধারীত খাজনাদী পরিশোধ করে টিনসেট মার্কেট নির্মাণ করি। দোকান ভাড়াদিয়ে শান্তিপূর্ণ ভাবে ভোগ দখল অবস্থায় আক্কাসগং আমার জমি দখল করার চেষ্টা করছে। তাদের শেল্টার দিচ্ছে সিদ্ধিরগঞ্জ থানার একজন পুলিশ অফিসার।
এবিষয়ে আক্কাস ও ইমরান হোসেনের সাথে যোগাযোগ করার চেষ্টা করেও সম্ভব হয়নি।

ট্যাগস :

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

জনপ্রিয় সংবাদ

মাইক্রোসফট ইনোভেটিভ এডুকেটর এক্সপার্ট বাংলাদেশ কমিউনিটি মিটআপ ২০২৩ অনুষ্ঠিত

সিদ্ধিরগঞ্জে পুলিশ অফিসারের সহযোগীতায় জমি দখলের পাঁয়তারা

আপডেট সময় : ১২:১৬:২৪ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৩ জুলাই ২০২২

সিদ্ধিরগঞ্জ প্রতিনিধি :আদালতে মামলায় হেরেও একজন পুলিশ অফিসারের শেল্টারে সিদ্ধিরগঞ্জে জমি দখল করার পাঁয়তারা করছে আক্কাসগং। দখল ছেড়ে দিতে জমির মালিক মাজহাব উদ্দিন আদেলকে দিচ্ছে হুমকি ধমকি। প্রতিকার পেতে জেলা পুলিশ সুপার বরাবর অভিযোগ করেছেন ভোক্তভূগী আদেল।
অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, সিদ্ধিরগঞ্জের সাহেবপাড়া এলাকায় খোর্দ্দঘোষপাড়া মৌজায় আর এস ৩৪ খতিয়ানে ৩১৯ নং দাগে ক্রয়সূত্রে সাড়ে ১২ শতাংশ জমির মালিক হয়ে নিজের নামে নামজারি করে টিনসেট মার্কেট নির্মাণ করে ভোগ দখল করে আসছেন আবু দাইদ এর ছেলে মো: মাজহাব উদ্দিন আদেল। সরকারি নির্ধারিত খাজনাও পরিশোধ করে আসছেন নিয়মিত। কিন্তু জমির মালিক দাবি করে ক্ষমতার প্রভাবখাটিয়ে ঢাকার মোহাম্মদপুর থানার ৬/৫ মাদরাসা রোড, আজিজ মহল্লা ব্লক-এফ-১ এর বাসিন্দা মো: শফিউল্লাহর ছেলে মো: আক্কাস ও মিরপুর থানার ৭৭০/১ মধ্য মনিপুরি এলাকার মৃত আমির হোসেনের ছেলে মো: ইমরান হোসেন বর্ণিত সম্পত্তি অবৈধ পন্থায় জবর দখল করতে মরিয়া হয়ে উঠেছে। সিদ্ধিরগঞ্জ থানার একজন পুলিশ অফিসার তাদের পক্ষ নিয়ে জমির মালিক ও তার পরিবারের নামে মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানী করাসহ নানা ভয় দেখাচ্ছেন বলে অভিযোগে উল্লেখ করা হয়। জমির মালিকানা ঠিকিয়ে রাখতে আদেলের পূর্ববর্তী মালিক মো: মফিজুর রহমান বিজ্ঞ অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট আদালত, নারায়ণগঞ্জ পিঃ মামলা নং-৯১/১৯ দারে করলে আদালত বাদী পক্ষে রায় দেন। পরে বিবাদী আক্কাস পক্ষ আদেশে সংক্ষন্দ হয়ে বিজ্ঞ জেলা ও দায়রা জজ আদালতে ফৌঃ বিঃ ১৮১/১৯ দায়ের করলে আদালত আগের রায় বহাল রেখে রিভিশন নামঞ্জুর করেন। আরেকটি মামলা (৮২/১৯) জেলা জজ ১ম আদালতে চলমান রয়েছে। তবু জবর দখলকারী চক্র থেমে নেই। জমিটি দখল করতে বাদী ও তার পরিবারকে প্রতিনিয়তই হুমকি দিয়ে যাচ্ছেন। ফলে জীবনের নিরাপত্তা ও জমি রক্ষার্থে গত ১৭ জুলাই জেলা পুলিশ সুপার কার্যালয়ে লিখিত অভিযোগ করেন ভোক্তভূগী আদেল।
জমির মালিক আদেল জানান, গত ২০১১ সালের ৪ মার্চ রেজিষ্ট্রিকৃত ১৮৩৯ নং সাব কবলা দলি মূলে সাড়ে ৩ শতাংশ, একই বছর ৩ অক্টোবর ৬৬৩২ নং সাব কবলা দলিলমূলে ৯ শতাংশ জমি ক্রয় করি। নিজ নামে নামজারী জমাভাগ করত সরকার নির্ধারীত খাজনাদী পরিশোধ করে টিনসেট মার্কেট নির্মাণ করি। দোকান ভাড়াদিয়ে শান্তিপূর্ণ ভাবে ভোগ দখল অবস্থায় আক্কাসগং আমার জমি দখল করার চেষ্টা করছে। তাদের শেল্টার দিচ্ছে সিদ্ধিরগঞ্জ থানার একজন পুলিশ অফিসার।
এবিষয়ে আক্কাস ও ইমরান হোসেনের সাথে যোগাযোগ করার চেষ্টা করেও সম্ভব হয়নি।