নারায়ণগঞ্জ ১০:৪৮ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ০৫ ডিসেম্বর ২০২২, ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
সিদ্ধিরগঞ্জে নূর হাবিবের চাঁদাবাজিতে অতিষ্ট ব্যবসায়ীরা পোশাক রপ্তানিতে ভিয়েতনামকে ছাড়াল বাংলাদেশ ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ ট্রেন চলাচল বন্ধ ৪ ডিসেম্বর থেকে হিন্দি সিনেমায় জয়া আহসান, নায়ক পঙ্কজ ত্রিপাঠি গ্রুপ সেরা আর্জেন্টিনা, শেষ ষোলয় প্রতিপক্ষ অস্ট্রেলিয়া সিদ্ধিরগঞ্জে জয়নাল বাহিনীর ৪ জনের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ দায়ের সিদ্ধিরগঞ্জের সানারপাড় স্কুলে অনৈতিক আর্থিক সুবিধায় ক্ষমতার চেয়ারে শিক্ষিকা দিলরুবা রূপগঞ্জে ভুল চিকিৎসায় ৭ বছরের মাদ্রাসা পরুয়া শিশুর মৃত্যু ফতুল্লা ওসি’র কন্যা রাইসা জিপিএ ফাইভ পেয়েছেন সোনারগাঁয়ে টেক্সটাইল মিলে ও মিষ্টি কারখানায় ভয়াবহ অগ্নিকান্ড

দেশসেরা অনলাইন পারফর্মার নির্বাচিত হলেন আব্দুস সালাম

  • প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৭:০৭:৪১ অপরাহ্ন, বুধবার, ২০ জুলাই ২০২২
  • ৩৩ বার পড়া হয়েছে

মোঃ জিয়াউর রহমান: শিক্ষক বাতায়ন পোর্টালে দেশ সেরা অনলাইন পারফর্মার জুলাই (দ্বিতীয় পাক্ষিক) মনোনীত হলেন মো. আব্দুস সালাম। তিনি ইটাউরী মহিলা আলিম মাদরাসার সহকারী শিক্ষক।

বৃহত্তর মৌলভীবাজার জেলার বড়লেখা উপজেলায় অবস্থিত মহিলাদের জন্য দ্বীনি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ঐতিহ্যবাহী ইটাউরী মহিলা আলিম মাদরাসা। ঐঐতিহ্যবাহী এ মাদরাসা গত ২০১৯ সালের জাতীয় শিক্ষা সপ্তাহে সিলেট বিভাগের শ্রেষ্ঠ প্রতিষ্ঠান এবং একজন ছাত্রী শ্রেষ্ঠ শিক্ষার্থী নির্বাচিত হন।

মাদরাসার অধ্যক্ষ জাতীয় পর্যায়ে শ্রেষ্ঠ প্রতিষ্ঠান প্রধান নির্বাচিত হন। ঐতিহ্যবাহী এ মাদরাসার সহকারী শিক্ষক মো.আব্দুস সালাম বাংলাদেশের শিক্ষকদের সর্ববৃহৎ প্লাটফর্ম শিক্ষক বাতায়নে এ পাক্ষিকে (১৫ জুলাই ২০২২ ইং) সেরা অনলাইন পারফর্মার মনোনীত হয়েছেন।

২০২০ সালে করোনাকালীন সময়ে অনলাইনে পাঠদানে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছেন। প্রতিষ্ঠানটি প্রত্যন্ত অঞ্চলে হওয়ায় শিক্ষার্থীদের পড়াশোনায় মনোযোগী রাখতে অধ্যক্ষ মহোদয়ের সাথে পরামর্শক্রমে মাদরাসায় “ইটাউরী মহিলা আলিম মাদরাসা অনলাইন পাঠদান” ফেসবুক পেইজে অনলাইনে পাঠদান শুরু করেন। এছাড়াও তিনি বড়লেখা উপজেলা অনলাইন স্কুলে অনলাইন পাঠদানে সক্রিয় ভূমিকা পালন করেন এবং তার নেতৃত্বে উক্ত অনলাইন স্কুল করোনাকালীন সময়ে উপজেলায় অনলাইন পাঠদান কার্যক্রম পরিচালনা করেন। এছাড়াও তিনি মৌলভীবাজার জেলার “অনলাইন স্কুল মৌলভীবাজার” পেইজে করোনাকালীন সময়ে অনলাইনে পাঠদান করেছেন এবং “বাংলাদেশ অনলাইন মাদরাসায়” নিয়মিত অনলাইনে পাঠদান করছেন। মাল্টিমিডিয়া ক্লাসরুমের মাধ্যমে তিন শিক্ষার্থীদের নিয়মত পাঠদান করে যাচ্ছেন।

তিনি শিক্ষক বাতায়নে ২০১৫ সাল থেকে যুক্ত আছেন। ২০২০ সালে তিনি মৌলভীবাজার জেলা ICT4E District Ambassador নির্বাচিত হন। জেলায় তিনিই একমাত্র মাদরাসার শিক্ষক যিনি অ্যাম্বাসেডর হিসেবে কাজ করছেন।
২১ শতকের চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের প্রযুক্তিগত দক্ষতা বৃদ্ধিতে ভার্চুয়াল ক্লাসরুম মাধ্যমে বিশ্বের বিভিন্ন দেশের শিক্ষক শিক্ষার্থীদের সাথে যুক্ত রয়েছেন এবং নিয়মিত ক্লাস নিয়ে যাচ্ছেন। এছাড়াও তিনি মাইক্রোসফট ইনোভেটিভ এডুকেটর এক্সপার্ট এবং মাস্টার ট্রেইনার হিসেবে মাইক্রোসফট এডুকেশনে যুক্ত রয়েছেন।

তিনি বাংলাদেশ সব বিশ্বের বিভিন্ন দেশের শিক্ষকবৃন্দের সমন্বয়ে “ওয়ার্ল্ড এডুকেটরস’ কমিউনিটি” নামক একটি ফেইসবুক পেইজে এডমিন হিসেবে যুক্ত থেকে বিভিন্ন ধরনের ট্রেনিং সেশন, সেমিনার, সিম্পোজিয়াম আয়োজন করছেন যা শিক্ষকদের প্রযুক্তিগত দক্ষতা বৃদ্ধিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখছে।

তিনি বড়লেখা উপজেলা প্রশাসন কর্তৃক আয়োজিত ও উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিস কর্তৃক বাস্তবায়িত মাধ্যমিক পর্যায়ের শিক্ষকদের আইসিটি বিষয়ক ট্রেনিং সেশনে মাস্টার ট্রেইনার হিসেবে কাজ করছেন এবং করোনাকালীন সময়ে অনলাইনে পাঠদান কার্যক্রমের স্বীকৃতি স্বরূপ উপজেলা প্রশসনের পক্ষ থেকে সনদ গ্রহন করেন।

একজন আদর্শ শিক্ষক হিসেবে একবিংশ শতাব্দীর চালেঞ্জ মোকাবিলায় তিনি নিজেকে যেমন দক্ষ করে গড়ে তুলছেন একইভাবে অন্যান্য শিক্ষকবৃন্দকেও সহযোগিতা করে যাচ্ছেন। ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ে তুলতে শিক্ষকদের প্রযুক্তিগত দক্ষতা বৃদ্ধির কোনো বিকল্প নেই।

ট্যাগস :

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

সিদ্ধিরগঞ্জে নূর হাবিবের চাঁদাবাজিতে অতিষ্ট ব্যবসায়ীরা

দেশসেরা অনলাইন পারফর্মার নির্বাচিত হলেন আব্দুস সালাম

আপডেট সময় : ০৭:০৭:৪১ অপরাহ্ন, বুধবার, ২০ জুলাই ২০২২

মোঃ জিয়াউর রহমান: শিক্ষক বাতায়ন পোর্টালে দেশ সেরা অনলাইন পারফর্মার জুলাই (দ্বিতীয় পাক্ষিক) মনোনীত হলেন মো. আব্দুস সালাম। তিনি ইটাউরী মহিলা আলিম মাদরাসার সহকারী শিক্ষক।

বৃহত্তর মৌলভীবাজার জেলার বড়লেখা উপজেলায় অবস্থিত মহিলাদের জন্য দ্বীনি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ঐতিহ্যবাহী ইটাউরী মহিলা আলিম মাদরাসা। ঐঐতিহ্যবাহী এ মাদরাসা গত ২০১৯ সালের জাতীয় শিক্ষা সপ্তাহে সিলেট বিভাগের শ্রেষ্ঠ প্রতিষ্ঠান এবং একজন ছাত্রী শ্রেষ্ঠ শিক্ষার্থী নির্বাচিত হন।

মাদরাসার অধ্যক্ষ জাতীয় পর্যায়ে শ্রেষ্ঠ প্রতিষ্ঠান প্রধান নির্বাচিত হন। ঐতিহ্যবাহী এ মাদরাসার সহকারী শিক্ষক মো.আব্দুস সালাম বাংলাদেশের শিক্ষকদের সর্ববৃহৎ প্লাটফর্ম শিক্ষক বাতায়নে এ পাক্ষিকে (১৫ জুলাই ২০২২ ইং) সেরা অনলাইন পারফর্মার মনোনীত হয়েছেন।

২০২০ সালে করোনাকালীন সময়ে অনলাইনে পাঠদানে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছেন। প্রতিষ্ঠানটি প্রত্যন্ত অঞ্চলে হওয়ায় শিক্ষার্থীদের পড়াশোনায় মনোযোগী রাখতে অধ্যক্ষ মহোদয়ের সাথে পরামর্শক্রমে মাদরাসায় “ইটাউরী মহিলা আলিম মাদরাসা অনলাইন পাঠদান” ফেসবুক পেইজে অনলাইনে পাঠদান শুরু করেন। এছাড়াও তিনি বড়লেখা উপজেলা অনলাইন স্কুলে অনলাইন পাঠদানে সক্রিয় ভূমিকা পালন করেন এবং তার নেতৃত্বে উক্ত অনলাইন স্কুল করোনাকালীন সময়ে উপজেলায় অনলাইন পাঠদান কার্যক্রম পরিচালনা করেন। এছাড়াও তিনি মৌলভীবাজার জেলার “অনলাইন স্কুল মৌলভীবাজার” পেইজে করোনাকালীন সময়ে অনলাইনে পাঠদান করেছেন এবং “বাংলাদেশ অনলাইন মাদরাসায়” নিয়মিত অনলাইনে পাঠদান করছেন। মাল্টিমিডিয়া ক্লাসরুমের মাধ্যমে তিন শিক্ষার্থীদের নিয়মত পাঠদান করে যাচ্ছেন।

তিনি শিক্ষক বাতায়নে ২০১৫ সাল থেকে যুক্ত আছেন। ২০২০ সালে তিনি মৌলভীবাজার জেলা ICT4E District Ambassador নির্বাচিত হন। জেলায় তিনিই একমাত্র মাদরাসার শিক্ষক যিনি অ্যাম্বাসেডর হিসেবে কাজ করছেন।
২১ শতকের চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের প্রযুক্তিগত দক্ষতা বৃদ্ধিতে ভার্চুয়াল ক্লাসরুম মাধ্যমে বিশ্বের বিভিন্ন দেশের শিক্ষক শিক্ষার্থীদের সাথে যুক্ত রয়েছেন এবং নিয়মিত ক্লাস নিয়ে যাচ্ছেন। এছাড়াও তিনি মাইক্রোসফট ইনোভেটিভ এডুকেটর এক্সপার্ট এবং মাস্টার ট্রেইনার হিসেবে মাইক্রোসফট এডুকেশনে যুক্ত রয়েছেন।

তিনি বাংলাদেশ সব বিশ্বের বিভিন্ন দেশের শিক্ষকবৃন্দের সমন্বয়ে “ওয়ার্ল্ড এডুকেটরস’ কমিউনিটি” নামক একটি ফেইসবুক পেইজে এডমিন হিসেবে যুক্ত থেকে বিভিন্ন ধরনের ট্রেনিং সেশন, সেমিনার, সিম্পোজিয়াম আয়োজন করছেন যা শিক্ষকদের প্রযুক্তিগত দক্ষতা বৃদ্ধিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখছে।

তিনি বড়লেখা উপজেলা প্রশাসন কর্তৃক আয়োজিত ও উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিস কর্তৃক বাস্তবায়িত মাধ্যমিক পর্যায়ের শিক্ষকদের আইসিটি বিষয়ক ট্রেনিং সেশনে মাস্টার ট্রেইনার হিসেবে কাজ করছেন এবং করোনাকালীন সময়ে অনলাইনে পাঠদান কার্যক্রমের স্বীকৃতি স্বরূপ উপজেলা প্রশসনের পক্ষ থেকে সনদ গ্রহন করেন।

একজন আদর্শ শিক্ষক হিসেবে একবিংশ শতাব্দীর চালেঞ্জ মোকাবিলায় তিনি নিজেকে যেমন দক্ষ করে গড়ে তুলছেন একইভাবে অন্যান্য শিক্ষকবৃন্দকেও সহযোগিতা করে যাচ্ছেন। ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ে তুলতে শিক্ষকদের প্রযুক্তিগত দক্ষতা বৃদ্ধির কোনো বিকল্প নেই।