নারায়ণগঞ্জ ০৬:০৮ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৭ নভেম্বর ২০২২, ১৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

আসন্ন বন্দর ইউপি নির্বাচনকে কেন্দ্র করে ধামগড় ইউনিয়নে কদর বেড়েছে চিহ্নিত সন্ত্রাসী ও মাদক ব্যবসায়ীদের

  • প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৪:৩১:২৩ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ৫ নভেম্বর ২০২১
  • ২৭ বার পড়া হয়েছে

আসন্ন বন্দর ইউপি নির্বাচনকে কেন্দ্র করে ধামগড় ইউনিয়নে কদর বেড়েছে চিহ্নিত সন্ত্রাসী ও মাদক ব্যবসায়ীদের। চেয়ারম্যান প্রার্থীর গনসংযোগ, উঠান বৈঠক ও প্রচারণায় প্রকাশ্যেই তাদের দেখা যায়।

এ নিয়ে চরম ক্ষোভ ও মিশ্র প্রতিক্রিয়া দেখা দিয়েছে সাধারণ মানুষের মধ্যে। মজার বিষয় হলো চেয়ারম্যান প্রার্থী মাসুম আহম্মেদ মাদক, সন্ত্রাস, ইভটিজিংসহ নানা অপরাধ রোধ করার কথা বলে ভোটারদের মন কাড়ার চেষ্টা করছেন। আবার নিজেই মাদক ব্যবসায়ী, সন্ত্রাসী, ভুমিদস্যু ও বখাটেদের সাথে নিয়ে নির্বাচনী প্রচারণায় মাঠে রয়েছেন। এমনকি চেয়ারম্যান প্রার্থী মাসুম আহম্মেদের সাথে ভাড়াটে সন্ত্রাসীদের দেখা যাচ্ছে। বিশেষ করে ধামগড় ইউনিয়নের প্রতিটি ওয়ার্ডে অপরাধীদের তৎপরতায় আতঙ্কিত সাধারণ মানুষ। স্থানীয় প্রশাসনের নিস্ক্রীয়তায় দিন দিন বেপরোয়া হয়ে উঠছে চিহ্নিত সন্ত্রাসী ও মাদক ব্যবসায়ীরা। নির্বাচন ঘিরে এই সকল সন্ত্রাসীরা প্রকাশ্যে বিচরণ করলেও রহস্যজনকভাবে নিশ্চুপ স্থানীয় প্রশাসন।

এলাকাবাসীর সূত্রমতে, বিভিন্ন অপরাধমূলক মামলার আসামী, চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ী ও সন্ত্রাসীদের রীতিমত এখন বেপরোয়া। চিহ্নিত সন্ত্রাসী, ভূমিদস্যু, চাঁদাবাজ ও মাদক ব্যবসায়ীরা হলো, দশদোনা এলাকার, মৃত আফাজউদ্দিনের ছেলে রাসেল আহম্মেদ (৪০), কামরুল ইসলাম (৩২), মৃত আলী আকবরের ছেলে, মোহাম্মদ মামুন (৩৫), হালুয়াপাড়া(খালপাড়) এলাকার মৃত ইসলামের ছেলে শান্ত(২৫), নাসিক ২৭’নং ওয়ার্ড চাপাতলী এলাকার মৃত নান্নু মিয়ার ছেলে তালিকাভুক্ত চিহ্নিত সন্ত্রাসী ও মাদক ব্যবসায়ী বিল্লাল হোসেন(৫০), নাসিক ২৭ নাং ওয়ার্ড কুড়িপাড়া এলাকার সালামতের ছেলে তালিকাভুক্ত চিহ্নিত সন্ত্রাসী ও মাদক ব্যবসায়ী ইসহাক (৫২), নাসিক২৭ নং ওয়ার্ড চাপাতলী এলাকার মৃত কাশেমের ছেলে সালাহউদ্দিন(৫৫), দশদোনা এলাকার মৃত আব্দুর রাজ্জাকের ছেলে সন্ত্রাসী ও মাদক ব্যাবসায়ী মনির (৪৫), দশদোনা এলাকার আঃ সামাদের ছেলে বাদশা(৪৭), জাংগাল এলাকার আব্দুর রাজ্জাক মোল্লার ছেলে সন্ত্রাসী চাঁদাবাজ ও মাদক ব্যাবসায়ী মোশারফ মোল্লা (৪৫), মৃত আজিজ মোল্লার ছেলে আকরামুল্লা (৪৭), মৃত ফজলুল হকের ছেলে দেলোয়ার (৫২) ও একই এলাকার মৃত কুদ্দুস মোল্লার ছেলে সন্ত্রাসী ও মাদক ব্যবসায়ী জাহাঙ্গীর মোল্লা (৪২)। এসব সন্ত্রাসী ও মাদক ব্যবসায়ীদের র‌্যাব-১১’র হস্থাক্ষেপ কামনা করছে এলাকার সচেতন মহল।

ট্যাগস :

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

জনপ্রিয় সংবাদ

আসন্ন বন্দর ইউপি নির্বাচনকে কেন্দ্র করে ধামগড় ইউনিয়নে কদর বেড়েছে চিহ্নিত সন্ত্রাসী ও মাদক ব্যবসায়ীদের

আপডেট সময় : ০৪:৩১:২৩ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ৫ নভেম্বর ২০২১

আসন্ন বন্দর ইউপি নির্বাচনকে কেন্দ্র করে ধামগড় ইউনিয়নে কদর বেড়েছে চিহ্নিত সন্ত্রাসী ও মাদক ব্যবসায়ীদের। চেয়ারম্যান প্রার্থীর গনসংযোগ, উঠান বৈঠক ও প্রচারণায় প্রকাশ্যেই তাদের দেখা যায়।

এ নিয়ে চরম ক্ষোভ ও মিশ্র প্রতিক্রিয়া দেখা দিয়েছে সাধারণ মানুষের মধ্যে। মজার বিষয় হলো চেয়ারম্যান প্রার্থী মাসুম আহম্মেদ মাদক, সন্ত্রাস, ইভটিজিংসহ নানা অপরাধ রোধ করার কথা বলে ভোটারদের মন কাড়ার চেষ্টা করছেন। আবার নিজেই মাদক ব্যবসায়ী, সন্ত্রাসী, ভুমিদস্যু ও বখাটেদের সাথে নিয়ে নির্বাচনী প্রচারণায় মাঠে রয়েছেন। এমনকি চেয়ারম্যান প্রার্থী মাসুম আহম্মেদের সাথে ভাড়াটে সন্ত্রাসীদের দেখা যাচ্ছে। বিশেষ করে ধামগড় ইউনিয়নের প্রতিটি ওয়ার্ডে অপরাধীদের তৎপরতায় আতঙ্কিত সাধারণ মানুষ। স্থানীয় প্রশাসনের নিস্ক্রীয়তায় দিন দিন বেপরোয়া হয়ে উঠছে চিহ্নিত সন্ত্রাসী ও মাদক ব্যবসায়ীরা। নির্বাচন ঘিরে এই সকল সন্ত্রাসীরা প্রকাশ্যে বিচরণ করলেও রহস্যজনকভাবে নিশ্চুপ স্থানীয় প্রশাসন।

এলাকাবাসীর সূত্রমতে, বিভিন্ন অপরাধমূলক মামলার আসামী, চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ী ও সন্ত্রাসীদের রীতিমত এখন বেপরোয়া। চিহ্নিত সন্ত্রাসী, ভূমিদস্যু, চাঁদাবাজ ও মাদক ব্যবসায়ীরা হলো, দশদোনা এলাকার, মৃত আফাজউদ্দিনের ছেলে রাসেল আহম্মেদ (৪০), কামরুল ইসলাম (৩২), মৃত আলী আকবরের ছেলে, মোহাম্মদ মামুন (৩৫), হালুয়াপাড়া(খালপাড়) এলাকার মৃত ইসলামের ছেলে শান্ত(২৫), নাসিক ২৭’নং ওয়ার্ড চাপাতলী এলাকার মৃত নান্নু মিয়ার ছেলে তালিকাভুক্ত চিহ্নিত সন্ত্রাসী ও মাদক ব্যবসায়ী বিল্লাল হোসেন(৫০), নাসিক ২৭ নাং ওয়ার্ড কুড়িপাড়া এলাকার সালামতের ছেলে তালিকাভুক্ত চিহ্নিত সন্ত্রাসী ও মাদক ব্যবসায়ী ইসহাক (৫২), নাসিক২৭ নং ওয়ার্ড চাপাতলী এলাকার মৃত কাশেমের ছেলে সালাহউদ্দিন(৫৫), দশদোনা এলাকার মৃত আব্দুর রাজ্জাকের ছেলে সন্ত্রাসী ও মাদক ব্যাবসায়ী মনির (৪৫), দশদোনা এলাকার আঃ সামাদের ছেলে বাদশা(৪৭), জাংগাল এলাকার আব্দুর রাজ্জাক মোল্লার ছেলে সন্ত্রাসী চাঁদাবাজ ও মাদক ব্যাবসায়ী মোশারফ মোল্লা (৪৫), মৃত আজিজ মোল্লার ছেলে আকরামুল্লা (৪৭), মৃত ফজলুল হকের ছেলে দেলোয়ার (৫২) ও একই এলাকার মৃত কুদ্দুস মোল্লার ছেলে সন্ত্রাসী ও মাদক ব্যবসায়ী জাহাঙ্গীর মোল্লা (৪২)। এসব সন্ত্রাসী ও মাদক ব্যবসায়ীদের র‌্যাব-১১’র হস্থাক্ষেপ কামনা করছে এলাকার সচেতন মহল।