নারায়ণগঞ্জ ১২:১৪ অপরাহ্ন, বুধবার, ০১ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ১৯ মাঘ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
মাইক্রোসফট ইনোভেটিভ এডুকেটর এক্সপার্ট বাংলাদেশ কমিউনিটি মিটআপ ২০২৩ অনুষ্ঠিত আদমজী ইপিজেডকে অশান্ত করছে জনপ্রতিনিধিরা রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের আশঙ্কা সিদ্ধিরগঞ্জ রিপোর্টার্স ক্লাবের কর্মকর্তাদের সাথে মহিলা লীগ নেত্রীর শুভেচ্ছা বিনিময় না’গঞ্জ কারাগারে হাজতীর মৃত্যু ফতুল্লায় চোরাইকৃত ট্যাংকলড়ী উদ্ধার আড়াইহাজারের মিথিলা টেক্সটাইল ঘুরে গেলেন ৮ দেশের রাষ্ট্রদূতসহ ১৮ দেশের প্রতিনিধি সিদ্ধিরগঞ্জ রিপোর্টার্স ক্লাবের কর্মকর্তাদের সাথে কাউন্সিলর ইকবাল হোসেনের মতবিনিময় ফতুল্লা ব্লাড ডোনার্সের উদ্যোগে শীতার্তদের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ শিক্ষা সিলেবাস বাতিলের দাবিতে খেলাফত মজলিসের বিক্ষোভ মিছিল সমাজতান্ত্রিক মহিলা ফোরামের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে শহরে নারী সমাবেশ ও মিছিল

আড়াইহাজারে একটি পরিবারের সবাই মাদক ব্যবসার সাথে জড়িত

  • প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০১:১২:৪১ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৬ অক্টোবর ২০২১
  • ৩৫ বার পড়া হয়েছে

আড়াইহাজার (নারায়ণগঞ্জ)সংবাদদাতা
আড়াইহাজার উপজেলার ব্রাক্ষন্দী ইউনিয়নের বালিয়াপাড়া গ্রামের একটি পরিবার সকলেই মাদক ব্যবসার সাথে জড়িত। কোন সদস্য গ্রেফতার হলে অন্য সদস্যরা এই ব্যবসার হাল ধরেন। যার কারণে বন্ধ হচ্ছেনা মাদক বিক্রি।
জানা গেছে, ওরা সবাই মাদক বিক্রেতা। গ্রেফতার হয় আবার ছাড়া পায়। ওদের পেছনে স্থানীয় প্রভাবশালী কারো হাত রয়েছে। এমন অভিযোগ ঘুরছে বালিয়াপাড়া গ্রামের প্রতিটি মানুষের মুখে মুখে। ব্রাহ্মন্দী ইউনিয়নের একটি সুপরিচিত গ্রাম বালিয়াপাড়া। এই গ্রামের নামটি কলঙ্কিত করে ফেলেছে ওই একটি মাদক পরিবার।

তরুণ মাদক বিক্রেতা সোহেল (৩০)। সোহেলের বিরুদ্ধে রয়েছে ৮টি মামলা। এই এলাকায় আবার শোনাযায় ধরা পড়ে ঢুকেছে জেলখানায়। সোহেল জেলে ঢুকলে বের হয়ে আসে তার পিতা হিরোইঞ্চি মকবুল মিয়া (৫২)। ছেলের ঢেরার হাল ধরে। তাকে সাহায্য করে স্ত্রী সোনাবিবি অথাৎ সোহেলের মা (৪০)। সোনাবিবি ও গাঁজা, হেরোইন ও ফেন্সিডিল বিক্রির কায়দা কানুন বেশ ভাল জানে। সোনাবিবির বিরুদ্ধে ১০টি মামলা ঝুলছে। পিতা মকবুল ভুল করে ছদ্মবেশধারী পুলিশের কাছে মাদক বিক্রি করতে গিয়ে ধরা পড়লেও অসুবিধা নেই। এলাকার নেপথ্যের প্রভাবশালীর ইশারায় মাদক ব্যবসার হাল ধরে মকবুল মিয়ার দুই ছেলে সাইফুল (২৩) ও হাফিজ (২৫)। আবার ওরা ধরা পড়লেও মাদক বিক্রি থামে না। প্রভাবশালীর ইশারা ও প্রশ্রয়ে মাঠে নামে মকবুল মিয়ার মেয়ে জামাতা হাবিবুর রহমান হাবু (৩৫)। ওই পরিবারের সবার বিরুদ্ধেই ২/৩ টি করে মামলা রয়েছে। বর্তমানে তাদের মাদক ব্যবসা চলছে পুরো দমে।

আড়াইহাজার থানার ওসি আনিচুর রহমান মোল্লা জানান, আমরা এই বাড়িতে প্রতিনিয়ত অভিযান করি। যার কারণে প্রত্যেতের বিরুদ্ধেই মামলা রয়েছে।

ট্যাগস :

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

জনপ্রিয় সংবাদ

মাইক্রোসফট ইনোভেটিভ এডুকেটর এক্সপার্ট বাংলাদেশ কমিউনিটি মিটআপ ২০২৩ অনুষ্ঠিত

আড়াইহাজারে একটি পরিবারের সবাই মাদক ব্যবসার সাথে জড়িত

আপডেট সময় : ০১:১২:৪১ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৬ অক্টোবর ২০২১

আড়াইহাজার (নারায়ণগঞ্জ)সংবাদদাতা
আড়াইহাজার উপজেলার ব্রাক্ষন্দী ইউনিয়নের বালিয়াপাড়া গ্রামের একটি পরিবার সকলেই মাদক ব্যবসার সাথে জড়িত। কোন সদস্য গ্রেফতার হলে অন্য সদস্যরা এই ব্যবসার হাল ধরেন। যার কারণে বন্ধ হচ্ছেনা মাদক বিক্রি।
জানা গেছে, ওরা সবাই মাদক বিক্রেতা। গ্রেফতার হয় আবার ছাড়া পায়। ওদের পেছনে স্থানীয় প্রভাবশালী কারো হাত রয়েছে। এমন অভিযোগ ঘুরছে বালিয়াপাড়া গ্রামের প্রতিটি মানুষের মুখে মুখে। ব্রাহ্মন্দী ইউনিয়নের একটি সুপরিচিত গ্রাম বালিয়াপাড়া। এই গ্রামের নামটি কলঙ্কিত করে ফেলেছে ওই একটি মাদক পরিবার।

তরুণ মাদক বিক্রেতা সোহেল (৩০)। সোহেলের বিরুদ্ধে রয়েছে ৮টি মামলা। এই এলাকায় আবার শোনাযায় ধরা পড়ে ঢুকেছে জেলখানায়। সোহেল জেলে ঢুকলে বের হয়ে আসে তার পিতা হিরোইঞ্চি মকবুল মিয়া (৫২)। ছেলের ঢেরার হাল ধরে। তাকে সাহায্য করে স্ত্রী সোনাবিবি অথাৎ সোহেলের মা (৪০)। সোনাবিবি ও গাঁজা, হেরোইন ও ফেন্সিডিল বিক্রির কায়দা কানুন বেশ ভাল জানে। সোনাবিবির বিরুদ্ধে ১০টি মামলা ঝুলছে। পিতা মকবুল ভুল করে ছদ্মবেশধারী পুলিশের কাছে মাদক বিক্রি করতে গিয়ে ধরা পড়লেও অসুবিধা নেই। এলাকার নেপথ্যের প্রভাবশালীর ইশারায় মাদক ব্যবসার হাল ধরে মকবুল মিয়ার দুই ছেলে সাইফুল (২৩) ও হাফিজ (২৫)। আবার ওরা ধরা পড়লেও মাদক বিক্রি থামে না। প্রভাবশালীর ইশারা ও প্রশ্রয়ে মাঠে নামে মকবুল মিয়ার মেয়ে জামাতা হাবিবুর রহমান হাবু (৩৫)। ওই পরিবারের সবার বিরুদ্ধেই ২/৩ টি করে মামলা রয়েছে। বর্তমানে তাদের মাদক ব্যবসা চলছে পুরো দমে।

আড়াইহাজার থানার ওসি আনিচুর রহমান মোল্লা জানান, আমরা এই বাড়িতে প্রতিনিয়ত অভিযান করি। যার কারণে প্রত্যেতের বিরুদ্ধেই মামলা রয়েছে।