নারায়ণগঞ্জ ০২:৫৪ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৯ নভেম্বর ২০২২, ১৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

আ’লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী সাবেক শিবিরের সভাপতি, যার কারণে বিক্ষুব্ধ নেতাকর্মীরা!

  • প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৭:৪৫:১০ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১১ মার্চ ২০২১
  • ১৫৫ বার পড়া হয়েছে

বিশেষ প্রতিনিধি :  আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন উপলক্ষে আওয়ামী লীগের প্রার্থী হয়ে মনোনয়ন পত্র জমা দিলেন সাবেক শিবির ক্যাডার আব্দুল কাদের।

ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে বাগেরহাটের মোড়লগঞ্জ উপজেলার পুটিখালী ইউনিয়ন পরিষদে আওয়ামী লীগের চেয়ারম্যান পদে মনোনয়ন চান তিনি।

তথ্য মতে জানা যায়, সাবেক এ শিবির ক্যাডার জেলা শিবিরের দায়িত্বে ছিলেন। বাংলাদেশে জামায়াতের এ নেতা আধিপত্য বিস্তার করে অনেকেই টাকা পয়সা দিয়ে ম্যানেজ করে হতে চান অত্র এলাকার চেয়ারম্যান।

আই শৃঙ্খলা বাহিনী তথ্য মতে জানা যায়, জেলা ছাত্র শিবিরের সাবেক এ নেতা বায়তুল মাল সম্পাদক আব্দুল কাদেরের বিরুদ্ধে জ্বালা পোড়ার ঘটনার বেশ কয়েকটি অভিযোগ রয়েছে। প্রকাশ্যে শিবির ক্যাডারকে আওয়ামী লীগের চেয়ারম্যান হিসেবে মনোনয়ন দেয়া বা চাওয়ার ঘটনাকে কেন্দ্র করে বিক্ষুব্ধ এ এলাকার আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা।

প্রকাশ্যেই শিবির ক্যাডারকে যদি , আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে মনোনয়ন দেওয়া হয় তাহলে আমরা মূল দল থেকে পদত্যাগ করবো। এলাকাবাসীর দাবি, তাকে যেন মনোনয়ন থেকে বিচ্ছিন্ন করা হয়।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে পুটিখালী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল্লাহ আল মাসুদ শাকিল বলেন, আব্দুল কাদের প্রকাশ্যে দুর্ধর্ষ শিবির ক্যাডার ছিল তৎকালীন এমপি মহোদয়কে ধরেছে শিবিরের থেকে আওয়ামী লীগে যোগদান করেন। তিনি আমাদের ইউনিয়নের শিবিরের সভাপতি ছিলেন এক সময়। এরা আওয়ামী লীগের কেউ না সরিষার ভিতর ভূত।

পুটিখালী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আব্দুল আজিজ শেখ বলেন, আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশী আব্দুল কাদের ১৯৯৬ সালে বাগেরহাট জেলা ছাত্র শিবিরের বায়তুল মাল সম্পাদক ছিলেন। এছাড়াও বিভিন্ন সময় তিনি শিবিরের বিভিন্ন দায়িত্ব পালন করেছেন। কিন্তু ২০১৪ সালে হঠাৎ করে আওয়ামী লীগের নেতা হয়ে যান।

তিনি বলেন, এরপর থেকে বিভিন্নভাবে আওয়ামী লীগের ত্যাগী নেতাকর্মীদের দলের মধ্যে কোনঠাসা করে রাখার কাজ শুরু করেন। বিভিন্ন নেতাদের ম্যানেজ করে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের কমিটিতে সভাপতি হন। এখন চেয়ারম্যান পদে দলীয় মনোনয়ন পাওয়ার জন্য আবেদন করেছেন। তাকে দলীয় মনোনয়ন দিলে পুটিখালী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের রাজনীতি শেষ হয়ে যাবে। তাকে মনোনয়ন না দেওয়ার জন্য প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের নেতাদের কাছে দাবি জানান তিনি।

জানতে চাইলে এলাকার স্থানীয় যুবলীগ নেতা আবুল হাসান তালুকদার বলেন, আব্দুল কাদের কখনও আওয়ামী লীগ করেননি। হঠাৎ করে দলে এসে দলীয় মনোনয়ন চাচ্ছেন। এভাবে অন্য দল থেকে এসে মনোনয়ন পেলে দলের ত্যাগী নেতাকর্মীরা বঞ্চিত হবে। তাকে দলীয় মনোনয়ন দিলে পুটিখালী ইউনিয়নের আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীদের নিয়ে কঠোর আন্দোলনের হুশিয়ারী দেন তিনি।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে মনোনয়ন প্রত্যাশী আব্দুল কাদের বলেন, আমি কখনও শিবির করিনি। ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে দলীয় মনোনয়ন চাওয়ায় রাজনৈতিক প্রতিপক্ষরা আমাকে হেয় প্রতিপন্ন করার জন্য এসব অপপ্রচার চালাচ্ছে।

আপনি আগে কখনো আওয়ামী লীগের পদে ছিলেন কি না এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, আমি আওয়ামী লীগের রাজনীতি করি। তবে আমি আগে কোন দলের পদ পদবীতে ছিলাম না।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে মোরেলগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও বাগেরহাট-৪ এমপি এ্যাড. আমিরুল আলম মিলন বলেন, বিষয় আমার নজরে আছে। শুনেছি আব্দুল কাদের একজন শিবিরের কর্মী ছিলেন। তিনি না কি শিবিরের কোষাধ্যক্ষ ছিলেন। সে কিভাবে মনোনয়ন চেয়েছেন এটা আমার বোধগম্য নয়।

এমপি বলেন, বিষয়টি খতিয়ে দেখা হবে। যদি এমন অভিযোগ পাওয়া যায় তাহলে তার বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা কখনও শিবিরের সঙ্গে আপোস করেনি এবং করবেও না।

ট্যাগস :

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

আ’লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী সাবেক শিবিরের সভাপতি, যার কারণে বিক্ষুব্ধ নেতাকর্মীরা!

আপডেট সময় : ০৭:৪৫:১০ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১১ মার্চ ২০২১

বিশেষ প্রতিনিধি :  আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন উপলক্ষে আওয়ামী লীগের প্রার্থী হয়ে মনোনয়ন পত্র জমা দিলেন সাবেক শিবির ক্যাডার আব্দুল কাদের।

ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে বাগেরহাটের মোড়লগঞ্জ উপজেলার পুটিখালী ইউনিয়ন পরিষদে আওয়ামী লীগের চেয়ারম্যান পদে মনোনয়ন চান তিনি।

তথ্য মতে জানা যায়, সাবেক এ শিবির ক্যাডার জেলা শিবিরের দায়িত্বে ছিলেন। বাংলাদেশে জামায়াতের এ নেতা আধিপত্য বিস্তার করে অনেকেই টাকা পয়সা দিয়ে ম্যানেজ করে হতে চান অত্র এলাকার চেয়ারম্যান।

আই শৃঙ্খলা বাহিনী তথ্য মতে জানা যায়, জেলা ছাত্র শিবিরের সাবেক এ নেতা বায়তুল মাল সম্পাদক আব্দুল কাদেরের বিরুদ্ধে জ্বালা পোড়ার ঘটনার বেশ কয়েকটি অভিযোগ রয়েছে। প্রকাশ্যে শিবির ক্যাডারকে আওয়ামী লীগের চেয়ারম্যান হিসেবে মনোনয়ন দেয়া বা চাওয়ার ঘটনাকে কেন্দ্র করে বিক্ষুব্ধ এ এলাকার আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা।

প্রকাশ্যেই শিবির ক্যাডারকে যদি , আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে মনোনয়ন দেওয়া হয় তাহলে আমরা মূল দল থেকে পদত্যাগ করবো। এলাকাবাসীর দাবি, তাকে যেন মনোনয়ন থেকে বিচ্ছিন্ন করা হয়।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে পুটিখালী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল্লাহ আল মাসুদ শাকিল বলেন, আব্দুল কাদের প্রকাশ্যে দুর্ধর্ষ শিবির ক্যাডার ছিল তৎকালীন এমপি মহোদয়কে ধরেছে শিবিরের থেকে আওয়ামী লীগে যোগদান করেন। তিনি আমাদের ইউনিয়নের শিবিরের সভাপতি ছিলেন এক সময়। এরা আওয়ামী লীগের কেউ না সরিষার ভিতর ভূত।

পুটিখালী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আব্দুল আজিজ শেখ বলেন, আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশী আব্দুল কাদের ১৯৯৬ সালে বাগেরহাট জেলা ছাত্র শিবিরের বায়তুল মাল সম্পাদক ছিলেন। এছাড়াও বিভিন্ন সময় তিনি শিবিরের বিভিন্ন দায়িত্ব পালন করেছেন। কিন্তু ২০১৪ সালে হঠাৎ করে আওয়ামী লীগের নেতা হয়ে যান।

তিনি বলেন, এরপর থেকে বিভিন্নভাবে আওয়ামী লীগের ত্যাগী নেতাকর্মীদের দলের মধ্যে কোনঠাসা করে রাখার কাজ শুরু করেন। বিভিন্ন নেতাদের ম্যানেজ করে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের কমিটিতে সভাপতি হন। এখন চেয়ারম্যান পদে দলীয় মনোনয়ন পাওয়ার জন্য আবেদন করেছেন। তাকে দলীয় মনোনয়ন দিলে পুটিখালী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের রাজনীতি শেষ হয়ে যাবে। তাকে মনোনয়ন না দেওয়ার জন্য প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের নেতাদের কাছে দাবি জানান তিনি।

জানতে চাইলে এলাকার স্থানীয় যুবলীগ নেতা আবুল হাসান তালুকদার বলেন, আব্দুল কাদের কখনও আওয়ামী লীগ করেননি। হঠাৎ করে দলে এসে দলীয় মনোনয়ন চাচ্ছেন। এভাবে অন্য দল থেকে এসে মনোনয়ন পেলে দলের ত্যাগী নেতাকর্মীরা বঞ্চিত হবে। তাকে দলীয় মনোনয়ন দিলে পুটিখালী ইউনিয়নের আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীদের নিয়ে কঠোর আন্দোলনের হুশিয়ারী দেন তিনি।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে মনোনয়ন প্রত্যাশী আব্দুল কাদের বলেন, আমি কখনও শিবির করিনি। ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে দলীয় মনোনয়ন চাওয়ায় রাজনৈতিক প্রতিপক্ষরা আমাকে হেয় প্রতিপন্ন করার জন্য এসব অপপ্রচার চালাচ্ছে।

আপনি আগে কখনো আওয়ামী লীগের পদে ছিলেন কি না এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, আমি আওয়ামী লীগের রাজনীতি করি। তবে আমি আগে কোন দলের পদ পদবীতে ছিলাম না।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে মোরেলগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও বাগেরহাট-৪ এমপি এ্যাড. আমিরুল আলম মিলন বলেন, বিষয় আমার নজরে আছে। শুনেছি আব্দুল কাদের একজন শিবিরের কর্মী ছিলেন। তিনি না কি শিবিরের কোষাধ্যক্ষ ছিলেন। সে কিভাবে মনোনয়ন চেয়েছেন এটা আমার বোধগম্য নয়।

এমপি বলেন, বিষয়টি খতিয়ে দেখা হবে। যদি এমন অভিযোগ পাওয়া যায় তাহলে তার বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা কখনও শিবিরের সঙ্গে আপোস করেনি এবং করবেও না।