সিদ্ধিরগঞ্জে করিম বাহিনীর হামলায় আহত ৪, এলাকাবাসীর মানববন্ধন

নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জে কিশোর গ্যাং লিডার, চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ী ও ছিনতাইকারী করিম বাহিনীর অতর্কিত হামলায় ৪ জন গুরুতর আহত হয়েছে। হামলাকারীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণের দাবীতে মানববন্ধন করেছে এলাকাবাসী। বৃহস্পতিবার (১০ ফেব্রুয়ারী) বিকাল ৪টায় সিদ্ধিরগঞ্জের নাসিক ১নং ওয়ার্ডের পাইনাদী নতুন মহল্লা সুলতানের মোড় এলাকায় এ মানববন্ধনটি অনুষ্ঠিত হয়। মানববন্ধনে হামলায় আহত ফয়সালের চার বছর বয়সী ছেলে প্লেকার্ড হাতে তার বাবাকে মারধরের বিচার চান। এসময় হামলাকারীদের বিরুদ্ধে দ্রুত ব্যবস্থা গ্রহন করতে প্রশাসনের জরুরী হস্তক্ষেপ কামনা করেছে ভুক্তভোগী পরিবার ও স্থানীয় এলাকাবাসী।

পাইনাদী নতুন মহল্লা বাড়িওয়ালা কল্যান সমিতির সভাপতি একেএম হারুনুর রশিদের নেতৃত্বে উক্ত মানববন্ধনে উপস্থিত ছিলেন, সিনিয়র সহ-সভাপতি আমিনুল এহসান বাবু, সাধারণ সম্পাদক আবুল জব্বার, দপ্তর সম্পাদক বদিউল আলম, প্রচার সম্পাদক রফিকুল ইসলাম, সদস্য সোয়েব আহমেদ ও হামলায় আহতের ছোট বোন অনন্যাসহ এলাকার গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ প্রমূখ।

মানববন্ধনে বক্তারা অভিযোগ করে বলে, গতকাল বুধবার (৯ই ফেব্রুয়ারী) রাত সাড়ে ৮ টায় কিশোরগ্যাংয়ের অন্যতম হোতা করিম বাদশাহ (৩১), দুলাল (৩৫), আশিক (১৮), জুনায়েদ (২৫), মন্টু (১৮), শুভ (১৮), আসিফ ইকবাল (৩২), সাগর ড্রাইভার (২৪), গাফফার, সালাউদ্দিন সাল্লু (৩৩), লিটন (৩৮), রুহুল আমিন (৩৬), শাহরিয়ার (২৫), সোহাগ (২৭), মেহেদী (২৮) সহ অজ্ঞাত ২৫ জন পূর্ব শত্রুতার জের ধরিয়া দেশীয় অস্ত্রে সুসজ্জিত হইয়া ফাহিম হোসেন শুভ (২২) এর বাসায় হামালা চালিয়ে তার পিতা শওকত উসমান (৬৫), বড়ভাই ফয়সাল হোসেন (৩১), ভাড়াটিয়া জিসান (৩৮) ও ফাহিমকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে গুরুতর আহত করে।

এসময় হামলাকারীরা ভুক্তভোগীদের বাসায় থাকা নগদ ৫ লক্ষ টাকা, ৩ ভরি স্বর্নালংকার লুট করে নিয়ে যায়। আহতদেরকে উদ্ধার করে নারায়ণগঞ্জ (ভিক্টরিয়া) জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসা করা হয়। এ ঘটনায় রাতেই ফাহিম আহমেদ শুভ বাদী হয়ে সিদ্ধিরগঞ্জ থানায় থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছে।