নারায়ণগঞ্জ ১০:০৮ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৬ নভেম্বর ২০২২, ১২ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

কদমতলীতে ডিশ ব্যবসা নিয়ে দু‘গ্রুপে সংঘর্ষ আহত ৯ আটক – ৩

  • প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০২:২৮:৩০ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ৭ জুলাই ২০২০
  • ২১ বার পড়া হয়েছে

সিদ্ধিরগঞ্জ প্রতিনিধি :সিদ্ধিরগঞ্জে ডিশ ব্যবসা দখলকে কেন্দ্র করে সাবেক ও বর্তমান দুই কাউন্সিলর গ্রুপের সংঘর্ষে ৯ জন আহত হয়েছে। মঙ্গলবার (৭ জুলাই) দুপুর ১ টায় কদমতলী সরকারী এমডব্লিউ কলেজের সামনে এঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় ৩ জনকে আটক করেছে পুলিশ।
পুলিশ ও এলাকাবাসী জানায়, নাসিক ৭ নম্বর ওয়ার্ডের কদমতলী এলাকায় জাহাঙ্গীর খান, শাহাবুদ্দিন প্রধান, নুরুল ইসলাম প্রধান, মমতাজ ও ওয়ার্য কাউন্সিলর আলী হোসেন আলার ছেলে আলামিন ডিস ব্যবসা পরিচালনা করে আসছিলো। ব্যবসার দখল নিতে সোমবার (৬ জুলাই) রাতে নাসিক ৬ নম্বর ওয়ার্ডের সাবেক কাউন্সিলর সিরাজুল ইসলাম মন্ডলের শেল্টারে আমির হোসেন কুট্টি ও রাসেলের নেতৃত্বে একটি দল ডিশ লাইনের তার কেটে নিয়ে যায়। এতে জাহাঙ্গীর খান বাদী হয়ে মঙ্গলবার সকালে সিদ্ধিরগঞ্জ থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। পরে দুপুর ১টার দিকে সিদ্ধিরগঞ্জ থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মোঃ মজিবুর রহমান অভিযোগের তদন্ত করতে গেলে পুলিশের উপস্থিতিতে আমির হোসেন কুট্টি ও রাসেলের নেতৃত্বে শতাধিক লোক লাঠিসোঁটা নিয়ে প্রতিপক্ষের উপর হামলা করে। এসময় উভয় পরে সংঘর্ষে এলাকা রণক্ষেকেত্রে পরিণত হয়। সংঘর্ষে নুরুল ইসলাম প্রধান, জাহাঙ্গীর খান, রনি, সুমন, হাসান ও ইসলামসহ উভয় পরে কমপে ৯ জন আহত হয়। আহতদেরকে স্থানীয়রা উদ্ধার করে নারায়ণগঞ্জ ভিক্টোরিয়া ( জেনারেল) হাসপাতালে পাঠায়। এসময় ঘটনাস্থল থেকে ইছহাক, তুষার, আকাশ নামে ৩ জনকে আটক করেছে পুলিশ।
এ বিষয়ে সিদ্ধিরগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোঃ কামরুল ফারুক জানান, সংঘর্ষের ঘটনায় ৩ জনকে আটক করা হয়েছে। ঘটনার তদন্ত করে ব্যাবস্থা নেওয়া হবে। আইনশৃঙ্খলা অবনতি হয় এমন কাজ করলে কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না।

ট্যাগস :

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

জনপ্রিয় সংবাদ

কদমতলীতে ডিশ ব্যবসা নিয়ে দু‘গ্রুপে সংঘর্ষ আহত ৯ আটক – ৩

আপডেট সময় : ০২:২৮:৩০ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ৭ জুলাই ২০২০

সিদ্ধিরগঞ্জ প্রতিনিধি :সিদ্ধিরগঞ্জে ডিশ ব্যবসা দখলকে কেন্দ্র করে সাবেক ও বর্তমান দুই কাউন্সিলর গ্রুপের সংঘর্ষে ৯ জন আহত হয়েছে। মঙ্গলবার (৭ জুলাই) দুপুর ১ টায় কদমতলী সরকারী এমডব্লিউ কলেজের সামনে এঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় ৩ জনকে আটক করেছে পুলিশ।
পুলিশ ও এলাকাবাসী জানায়, নাসিক ৭ নম্বর ওয়ার্ডের কদমতলী এলাকায় জাহাঙ্গীর খান, শাহাবুদ্দিন প্রধান, নুরুল ইসলাম প্রধান, মমতাজ ও ওয়ার্য কাউন্সিলর আলী হোসেন আলার ছেলে আলামিন ডিস ব্যবসা পরিচালনা করে আসছিলো। ব্যবসার দখল নিতে সোমবার (৬ জুলাই) রাতে নাসিক ৬ নম্বর ওয়ার্ডের সাবেক কাউন্সিলর সিরাজুল ইসলাম মন্ডলের শেল্টারে আমির হোসেন কুট্টি ও রাসেলের নেতৃত্বে একটি দল ডিশ লাইনের তার কেটে নিয়ে যায়। এতে জাহাঙ্গীর খান বাদী হয়ে মঙ্গলবার সকালে সিদ্ধিরগঞ্জ থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। পরে দুপুর ১টার দিকে সিদ্ধিরগঞ্জ থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মোঃ মজিবুর রহমান অভিযোগের তদন্ত করতে গেলে পুলিশের উপস্থিতিতে আমির হোসেন কুট্টি ও রাসেলের নেতৃত্বে শতাধিক লোক লাঠিসোঁটা নিয়ে প্রতিপক্ষের উপর হামলা করে। এসময় উভয় পরে সংঘর্ষে এলাকা রণক্ষেকেত্রে পরিণত হয়। সংঘর্ষে নুরুল ইসলাম প্রধান, জাহাঙ্গীর খান, রনি, সুমন, হাসান ও ইসলামসহ উভয় পরে কমপে ৯ জন আহত হয়। আহতদেরকে স্থানীয়রা উদ্ধার করে নারায়ণগঞ্জ ভিক্টোরিয়া ( জেনারেল) হাসপাতালে পাঠায়। এসময় ঘটনাস্থল থেকে ইছহাক, তুষার, আকাশ নামে ৩ জনকে আটক করেছে পুলিশ।
এ বিষয়ে সিদ্ধিরগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোঃ কামরুল ফারুক জানান, সংঘর্ষের ঘটনায় ৩ জনকে আটক করা হয়েছে। ঘটনার তদন্ত করে ব্যাবস্থা নেওয়া হবে। আইনশৃঙ্খলা অবনতি হয় এমন কাজ করলে কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না।