নারায়ণগঞ্জ ০২:১৮ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ১৭ জুলাই ২০২৪, ১ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
সোনারগাঁয়ের শিক্ষার্থীদের প্রতিবাদ মিছিলে মহাসড়ক অবরোধ পাইনাদী নতুন মহল্লা সমাজকল্যাণ সংস্থার কার্যালয় উদ্বোধন সিদ্ধিরগঞ্জে ছাত্র বলাৎকারের অভিযোগে মাদ্রাসার শিক্ষক গ্রেপ্তার সিদ্ধিরগঞ্জের মহাসড়ক যেন ময়লার ভাগাড়,দূষিত পরিবেশে বাড়ছে স্বাস্থ্যঝুঁকি আড়াইহাজারে ছাত্রলীগ নেতার বাড়িতে ডাকাতির ঘটনায় ৮ জন গ্রেপ্তার সিদ্ধিরগঞ্জে মিতালী মার্কেটের অর্থ আত্নসাত করেও অপপ্রচারে লিপ্ত জামান সোনারগাঁ জামপুরে খোকার সন্ত্রাসী হামলায় দলিল লেখক রতন আহত র্যাবের হাতে চাদাঁবাজির টাকাসহ ৬ চাদাঁবাজ গ্রেফতার হাজিরা মিস হওয়ায় মামুনুল হকের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা রূপগঞ্জের কাঞ্চন পৌরসভায় নির্বাচন কাল

সিদ্ধিরগঞ্জ মাদানীনগরে বসত বাড়ি বেঙ্গে দেয়াল নির্মাণ থানায় অভিযোগ

  • প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ১২:৫৩:১৮ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২ জুলাই ২০২০
  • ১২১ বার পড়া হয়েছে

সিদ্ধিরগঞ্জ প্রতিনিধি : সিদ্ধিরগঞ্জের মাদানীনগর এলাকায় বৃহস্পতিবার (২ জুলাই) বিকেলে এক ব্যক্তির বসতবাড়ি বেঙ্গে দেয়াল নির্মাণ করাকে কেন্দ্র উত্তেজনা দেখা দেয়। প্রতিপক্ষের হুমকি ধমকির ভয়ে ভোক্তভূগী আব্দুল জলিলের লিখিত অভিযোগের ভিত্তিতে থানা পুলিশের হস্তক্ষে পরিস্থিতি শান্ত হয়। জমির সীমানা নির্দারণ নিশ্চিত না করে মো: রবিউল আউয়ালগংদেরকে নির্মাণ কাজ বন্ধ রাখার নির্দেশ দিয়েছে পুলিশ।
নাসিক ৩ নং ওয়র্ডের মৃত নোয়াব আলির ছেলে আবদুল জলিল জানান, বিগত ১৯৯৭ সালে মাদানীরগর তিন নম্বর সড়ক এলাকায় সিদ্ধিরগঞ্জ মৌজায় সিএস ১৩৩ ও আর এস ১৫৫ নং দাগে ২৪ শতাংশ জমি কিনে। যার মধ্যে ১২ শতাংশ আব্দুল জলিল ও ১২ শাতাংশ তার শ্যালিকা শাহানার নামে সাব কবলা দলিল করা হয়। ক্রয়সূত্রে জমির মালিক হয়ে তারা টিনসেট বসত বাড়ি নির্মাণ করে শান্তিপূর্ণ ভাবে বসবাস করে আসছে। হঠাৎ করে বৃহস্পতিবার দুই জুলাই বিকেল সাড়ে ৩ টার দিকে প্রতিবেশি মো: রবিউল আউয়াল আবদুল জলিলের বসত বাড়ির আংশিক ভেঙ্গে ইটের দেয়াল নির্মাণ শুরু করে। এতে বাঁধা দিলে নানা ধরনের হুমকি প্রদান করে। এনিয়ে দেখা দেয় উত্তেজনা। নিরুপায় হয়ে আবদুল জলিল সিদ্ধিরগঞ্জ থানায় গিয়ে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। এ অভিযোগের ভিত্তিতে বিকেল সাড়ে ৪ টার দিকে এসআই গৌতুমের নেতৃত্বে পুলিশের একটি দল এসে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। পাশাপাশি জমির সীমানা নির্ধারণ না হওয়া পর্যন্ত রবিউল আউয়ালকে নির্মাণ কাজ বন্ধ রাখার নির্দেশ দেয় পুলিশ। অন্যতায় কোন ধরনের সংঘর্ষের ঘটনা ঘটলে প্রয়োজনীয় আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে বলে সতর্ক করেন।
এ বিষয়ে মো: রবিউল আউয়াল দাবি করেন তিনি তার জায়গাতেই দেয়াল নির্মাণ কাজ করছেন। আবদুল জলিলের বসত বাড়ি অংশিক ভাঙচুর করেছেন কেন এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, জলিল তার বাড়ির চাল বাড়িয়ে আমার সীমানায় নির্মাণ করেছে।
ঘটনাস্থল পরিদর্শণ করা সিদ্ধিরগঞ্জ থানার এসআই গৌতুম জানান, জমি সংক্রান্ত বিরোধ নিস্পত্তি আদলতের বিষয়। আবদুল জলিলের অভিযোগ পেয়ে ঘটনা স্থলে গিয়ে দু‘পক্ষকে প্রয়োজনীয় কাগজপত্র নিয়ে থানা হাজির হতে বলা হয়েছে। সীমানা বিরোধ নিস্পতি না হওয়া পর্যন্ত যাতে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রন রাখতে নির্মাণ কাজ বন্ধ রাখার নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

ট্যাগস :

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

সোনারগাঁয়ের শিক্ষার্থীদের প্রতিবাদ মিছিলে মহাসড়ক অবরোধ

সিদ্ধিরগঞ্জ মাদানীনগরে বসত বাড়ি বেঙ্গে দেয়াল নির্মাণ থানায় অভিযোগ

আপডেট সময় : ১২:৫৩:১৮ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২ জুলাই ২০২০

সিদ্ধিরগঞ্জ প্রতিনিধি : সিদ্ধিরগঞ্জের মাদানীনগর এলাকায় বৃহস্পতিবার (২ জুলাই) বিকেলে এক ব্যক্তির বসতবাড়ি বেঙ্গে দেয়াল নির্মাণ করাকে কেন্দ্র উত্তেজনা দেখা দেয়। প্রতিপক্ষের হুমকি ধমকির ভয়ে ভোক্তভূগী আব্দুল জলিলের লিখিত অভিযোগের ভিত্তিতে থানা পুলিশের হস্তক্ষে পরিস্থিতি শান্ত হয়। জমির সীমানা নির্দারণ নিশ্চিত না করে মো: রবিউল আউয়ালগংদেরকে নির্মাণ কাজ বন্ধ রাখার নির্দেশ দিয়েছে পুলিশ।
নাসিক ৩ নং ওয়র্ডের মৃত নোয়াব আলির ছেলে আবদুল জলিল জানান, বিগত ১৯৯৭ সালে মাদানীরগর তিন নম্বর সড়ক এলাকায় সিদ্ধিরগঞ্জ মৌজায় সিএস ১৩৩ ও আর এস ১৫৫ নং দাগে ২৪ শতাংশ জমি কিনে। যার মধ্যে ১২ শতাংশ আব্দুল জলিল ও ১২ শাতাংশ তার শ্যালিকা শাহানার নামে সাব কবলা দলিল করা হয়। ক্রয়সূত্রে জমির মালিক হয়ে তারা টিনসেট বসত বাড়ি নির্মাণ করে শান্তিপূর্ণ ভাবে বসবাস করে আসছে। হঠাৎ করে বৃহস্পতিবার দুই জুলাই বিকেল সাড়ে ৩ টার দিকে প্রতিবেশি মো: রবিউল আউয়াল আবদুল জলিলের বসত বাড়ির আংশিক ভেঙ্গে ইটের দেয়াল নির্মাণ শুরু করে। এতে বাঁধা দিলে নানা ধরনের হুমকি প্রদান করে। এনিয়ে দেখা দেয় উত্তেজনা। নিরুপায় হয়ে আবদুল জলিল সিদ্ধিরগঞ্জ থানায় গিয়ে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। এ অভিযোগের ভিত্তিতে বিকেল সাড়ে ৪ টার দিকে এসআই গৌতুমের নেতৃত্বে পুলিশের একটি দল এসে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। পাশাপাশি জমির সীমানা নির্ধারণ না হওয়া পর্যন্ত রবিউল আউয়ালকে নির্মাণ কাজ বন্ধ রাখার নির্দেশ দেয় পুলিশ। অন্যতায় কোন ধরনের সংঘর্ষের ঘটনা ঘটলে প্রয়োজনীয় আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে বলে সতর্ক করেন।
এ বিষয়ে মো: রবিউল আউয়াল দাবি করেন তিনি তার জায়গাতেই দেয়াল নির্মাণ কাজ করছেন। আবদুল জলিলের বসত বাড়ি অংশিক ভাঙচুর করেছেন কেন এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, জলিল তার বাড়ির চাল বাড়িয়ে আমার সীমানায় নির্মাণ করেছে।
ঘটনাস্থল পরিদর্শণ করা সিদ্ধিরগঞ্জ থানার এসআই গৌতুম জানান, জমি সংক্রান্ত বিরোধ নিস্পত্তি আদলতের বিষয়। আবদুল জলিলের অভিযোগ পেয়ে ঘটনা স্থলে গিয়ে দু‘পক্ষকে প্রয়োজনীয় কাগজপত্র নিয়ে থানা হাজির হতে বলা হয়েছে। সীমানা বিরোধ নিস্পতি না হওয়া পর্যন্ত যাতে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রন রাখতে নির্মাণ কাজ বন্ধ রাখার নির্দেশ দেয়া হয়েছে।