নারায়ণগঞ্জ ১০:২৪ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ২৭ নভেম্বর ২০২২, ১৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

সিদ্ধিরগঞ্জে ৩২০ জন খেটে খাওয়া কর্মহীন মানুষের মাঝে ইফতার বিতরণ করলেন ওসি কামরুল ফারুক

সিদ্ধিরগঞ্জ প্রতিনিধি :নারায়ণগঞ্জ মহানগরের সিদ্ধিরগঞ্জে করোনা ভাইরাসের প্রাদূর্ভাবে নাকাল ৩২০ জন খেটে খাওয়া কর্মহীন রোজাদার মানুষের মাঝে রান্না করা ইফতার বিতরণ করলেন ওসি কামরুল ফারুক। শুক্রবার (৮ মে) বিকালে সিদ্ধিরগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো: কামরুল ফারুকের ব্যক্তিগত উদ্যোগে থানা গেটের সামনে শিমরাইল-আদমজী-চাষাড়া সড়কে পথচারী রোজাদার মানুষের মাঝে এ ইফতার বিতরণ করা হয়।
এছাড়াও করোনা ভাইরাসের প্রাদূর্ভাব শুরু হওয়ার সময় থেকে প্রতিদিন অসহায় মানুষের জন্য খাদ্য সামগ্রী প্রদান সহ নানাবিধ মানবিক উদ্যোগ গ্রহণ করে জেলা পুলিশের ভাবমূর্তি উজ্জল করেছেন এবং তিনি নিজেও সর্বমহলে ব্যাপক প্রশংসা কুড়িয়েছেন। প্রতিদিন সকাল থেকে গভীর রাত পর্যন্ত সিদ্ধিরগঞ্জের বিভিন্ন পাড়া মহল্লা থেকে বিভিন্ন শ্রেণী পেশার নারী-পুরুষরা থানা গেটের সামনে বসে অপেক্ষায় থাকেন কখন ওসি কামরুল ফারুক খাদ্য সামগ্রীর প্যাকেট নিয়ে এসে তাদেরকে উপহার দিবেন। সিদ্ধিরগঞ্জের প্রভাবশালী ধনাঢ্য শিল্পপতি, রাজনীতিবিদ এবং জনপ্রতিনিধিরা যখন অসহায় খেটে খাওয়া মানুষের পাশে সহযোগিতার হাত বাড়ানো থেকে বিমুখ রয়েছেন সেখানে মানবিকতার হাত বাড়িয়েছেন ওসি কামরুল ফারুক। তারা নির্বাচন করে জনপ্রতিনিধি হওয়ার অভিপ্রায়ে নয় নিতান্তই যারা অসহায় তাদের পাশে মানবতার হাত বাড়াচ্ছেন তারা। কারণ জনপ্রতিনিধিরা তাদের অবস্থান টিকিয়ে রাখার জন্য নিজেদের পছন্দের লোকজন দিয়ে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ করছে। জনপ্রতিনিধিদের কাছ থেকে বঞ্চিত হয়েই অসায় মানুষগুলো গভীর রাতে ছুটে যাচ্ছে থানা ও র‌্যাব-১১’র ক্যাম্পের গেটে। সাধারন মানুষের মাঝে বিশ্বাস সেখানে গেলে তারা বিমূখ হচ্ছে না।
এসময় সিদ্ধিরগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো: কামরুল ফারুক জানায়, আল্লাহর অশেষ মেহেরবানীতে আজ সিদ্ধিরগঞ্জ থানার উদ্যোগে প্রতিদিনের ন্যায় থানা এলাকার ৩২০ জন গরীব, অসহায় ও দুস্থ্য নারী পুরুষের মাঝে ইফতার সামগ্রী (গরুর মাংসের তেহারী ২০০ প্যাকেট, সবজি খিচুড়ি ও ডিম ১২০ প্যাকেট এবং পানির বোতল) প্রদান করা হয়েছে। যতদিন করোনা পরিস্থিতি স্বাভাবিক না হবে ততদিন এই অসহায় মানুষের সমস্যা লাগবের জন্য আমাদের মানবিক কর্মকান্ড অব্যাহত থাকবে। সবাই সচেতন হয়ে চলার জন্য আহŸান জানাচ্ছি।

ট্যাগস :

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

জনপ্রিয় সংবাদ

সিদ্ধিরগঞ্জে ৩২০ জন খেটে খাওয়া কর্মহীন মানুষের মাঝে ইফতার বিতরণ করলেন ওসি কামরুল ফারুক

আপডেট সময় : ০৫:৩১:৪৫ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ৮ মে ২০২০

সিদ্ধিরগঞ্জ প্রতিনিধি :নারায়ণগঞ্জ মহানগরের সিদ্ধিরগঞ্জে করোনা ভাইরাসের প্রাদূর্ভাবে নাকাল ৩২০ জন খেটে খাওয়া কর্মহীন রোজাদার মানুষের মাঝে রান্না করা ইফতার বিতরণ করলেন ওসি কামরুল ফারুক। শুক্রবার (৮ মে) বিকালে সিদ্ধিরগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো: কামরুল ফারুকের ব্যক্তিগত উদ্যোগে থানা গেটের সামনে শিমরাইল-আদমজী-চাষাড়া সড়কে পথচারী রোজাদার মানুষের মাঝে এ ইফতার বিতরণ করা হয়।
এছাড়াও করোনা ভাইরাসের প্রাদূর্ভাব শুরু হওয়ার সময় থেকে প্রতিদিন অসহায় মানুষের জন্য খাদ্য সামগ্রী প্রদান সহ নানাবিধ মানবিক উদ্যোগ গ্রহণ করে জেলা পুলিশের ভাবমূর্তি উজ্জল করেছেন এবং তিনি নিজেও সর্বমহলে ব্যাপক প্রশংসা কুড়িয়েছেন। প্রতিদিন সকাল থেকে গভীর রাত পর্যন্ত সিদ্ধিরগঞ্জের বিভিন্ন পাড়া মহল্লা থেকে বিভিন্ন শ্রেণী পেশার নারী-পুরুষরা থানা গেটের সামনে বসে অপেক্ষায় থাকেন কখন ওসি কামরুল ফারুক খাদ্য সামগ্রীর প্যাকেট নিয়ে এসে তাদেরকে উপহার দিবেন। সিদ্ধিরগঞ্জের প্রভাবশালী ধনাঢ্য শিল্পপতি, রাজনীতিবিদ এবং জনপ্রতিনিধিরা যখন অসহায় খেটে খাওয়া মানুষের পাশে সহযোগিতার হাত বাড়ানো থেকে বিমুখ রয়েছেন সেখানে মানবিকতার হাত বাড়িয়েছেন ওসি কামরুল ফারুক। তারা নির্বাচন করে জনপ্রতিনিধি হওয়ার অভিপ্রায়ে নয় নিতান্তই যারা অসহায় তাদের পাশে মানবতার হাত বাড়াচ্ছেন তারা। কারণ জনপ্রতিনিধিরা তাদের অবস্থান টিকিয়ে রাখার জন্য নিজেদের পছন্দের লোকজন দিয়ে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ করছে। জনপ্রতিনিধিদের কাছ থেকে বঞ্চিত হয়েই অসায় মানুষগুলো গভীর রাতে ছুটে যাচ্ছে থানা ও র‌্যাব-১১’র ক্যাম্পের গেটে। সাধারন মানুষের মাঝে বিশ্বাস সেখানে গেলে তারা বিমূখ হচ্ছে না।
এসময় সিদ্ধিরগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো: কামরুল ফারুক জানায়, আল্লাহর অশেষ মেহেরবানীতে আজ সিদ্ধিরগঞ্জ থানার উদ্যোগে প্রতিদিনের ন্যায় থানা এলাকার ৩২০ জন গরীব, অসহায় ও দুস্থ্য নারী পুরুষের মাঝে ইফতার সামগ্রী (গরুর মাংসের তেহারী ২০০ প্যাকেট, সবজি খিচুড়ি ও ডিম ১২০ প্যাকেট এবং পানির বোতল) প্রদান করা হয়েছে। যতদিন করোনা পরিস্থিতি স্বাভাবিক না হবে ততদিন এই অসহায় মানুষের সমস্যা লাগবের জন্য আমাদের মানবিক কর্মকান্ড অব্যাহত থাকবে। সবাই সচেতন হয়ে চলার জন্য আহŸান জানাচ্ছি।