নারায়ণগঞ্জ ১১:৪২ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ০১ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ১৯ মাঘ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
মাইক্রোসফট ইনোভেটিভ এডুকেটর এক্সপার্ট বাংলাদেশ কমিউনিটি মিটআপ ২০২৩ অনুষ্ঠিত আদমজী ইপিজেডকে অশান্ত করছে জনপ্রতিনিধিরা রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের আশঙ্কা সিদ্ধিরগঞ্জ রিপোর্টার্স ক্লাবের কর্মকর্তাদের সাথে মহিলা লীগ নেত্রীর শুভেচ্ছা বিনিময় না’গঞ্জ কারাগারে হাজতীর মৃত্যু ফতুল্লায় চোরাইকৃত ট্যাংকলড়ী উদ্ধার আড়াইহাজারের মিথিলা টেক্সটাইল ঘুরে গেলেন ৮ দেশের রাষ্ট্রদূতসহ ১৮ দেশের প্রতিনিধি সিদ্ধিরগঞ্জ রিপোর্টার্স ক্লাবের কর্মকর্তাদের সাথে কাউন্সিলর ইকবাল হোসেনের মতবিনিময় ফতুল্লা ব্লাড ডোনার্সের উদ্যোগে শীতার্তদের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ শিক্ষা সিলেবাস বাতিলের দাবিতে খেলাফত মজলিসের বিক্ষোভ মিছিল সমাজতান্ত্রিক মহিলা ফোরামের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে শহরে নারী সমাবেশ ও মিছিল

আটি এলাকায় ভেজাল ফার্নিশ তেলের ব্যবসা

  • প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ১০:২৮:৩৬ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ১১ অক্টোবর ২০১৯
  • ৯২ বার পড়া হয়েছে

সিদ্ধিরগঞ্জ প্রতিনিধি : সিদ্ধিরগঞ্জের আটি এলাকায় প্রকাশ্যে চলছে ভেজাল ফার্নিশ তেলের ব্যবসা। গোদনাইল এলাকার আলাল ওরফে ডিব্বেয়া আলাল সঙ্গবদ্ধ চক্র গড়ে তুলে নিশ্চিন্তে ব্যবসা চালাচ্ছে। পরিবেশ নীতিমালা অমান্য করে ঘনবসতি আবাসিক এলাকায় আস্তানা বানিয়ে বড় হাউজ তৈরি করে ফার্নিস ভেজাল করছে।

জানা গেছে, সিদ্ধিরগঞ্জ থানা পুলিশকে ম্যানেজ করে নাসিক ৪ নং ওয়ার্ড আটি ছাপাখানা এলাকায় ফার্নিশ তেল ভেজাল করার আস্তানা বানিয়েছে গোদনাইলের আলাল। প্রতিদিন রাতের আঁধারে তেলবাহী ট্যাংকলরী লোড-আনলোড করা হয় এ আস্তানয়।
নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের সংসদ সদস্য এ.একে.এম শামীম ওসমানের নাম ভাঙ্গিয়ে আলাল ও তার সহযোগীরা দাপটের সাথে ভেজাল ফার্নিশ তেলের ব্যবসা করছে। আলালের বৈধ কাগজ পত্র না থাকায় গোদনাইল এলাকা ছেড়ে আটির নির্জন স্থানে এই আস্তানা গড়ে তুলেছে বলে বিভিন্ন তেল ব্যবসায়ী সূত্রে জানা গেছে।
স্থানীয়রা জানায়, আলাল এক সময় আতিকুর রহমান নান্নু মুন্সির কর্মচারি ছিল। কমপক্ষে ১০ বছর সে নান্নু মুন্সির কর্মচারি হিসাবে তেলের দোকানে কাজ করেছে। সেখান থেকেই তেল ব্যবসার কৌশল শিখেছে আলাল।
এ বিষয়ে আলালের সাথে কথা হলে তিনি ফার্নিশ ভেজাল করার কথা স্বীকার করে বলেন, সিদ্ধিরগঞ্জ থানার ওসিকে মাসোহারা ও প্রত্যেক পুলিশ অফিসারকে নিয়মিত টাকা দিয়ে ব্যবসা করছি। আমি এমপি শামীম ওসমানের কর্মী।
এ বিষয়ে জানতে সিদ্ধিরগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) কামরুল ফারুকের মুঠো ফোনে ফোন করেও যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি।

ট্যাগস :

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

জনপ্রিয় সংবাদ

মাইক্রোসফট ইনোভেটিভ এডুকেটর এক্সপার্ট বাংলাদেশ কমিউনিটি মিটআপ ২০২৩ অনুষ্ঠিত

আটি এলাকায় ভেজাল ফার্নিশ তেলের ব্যবসা

আপডেট সময় : ১০:২৮:৩৬ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ১১ অক্টোবর ২০১৯

সিদ্ধিরগঞ্জ প্রতিনিধি : সিদ্ধিরগঞ্জের আটি এলাকায় প্রকাশ্যে চলছে ভেজাল ফার্নিশ তেলের ব্যবসা। গোদনাইল এলাকার আলাল ওরফে ডিব্বেয়া আলাল সঙ্গবদ্ধ চক্র গড়ে তুলে নিশ্চিন্তে ব্যবসা চালাচ্ছে। পরিবেশ নীতিমালা অমান্য করে ঘনবসতি আবাসিক এলাকায় আস্তানা বানিয়ে বড় হাউজ তৈরি করে ফার্নিস ভেজাল করছে।

জানা গেছে, সিদ্ধিরগঞ্জ থানা পুলিশকে ম্যানেজ করে নাসিক ৪ নং ওয়ার্ড আটি ছাপাখানা এলাকায় ফার্নিশ তেল ভেজাল করার আস্তানা বানিয়েছে গোদনাইলের আলাল। প্রতিদিন রাতের আঁধারে তেলবাহী ট্যাংকলরী লোড-আনলোড করা হয় এ আস্তানয়।
নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের সংসদ সদস্য এ.একে.এম শামীম ওসমানের নাম ভাঙ্গিয়ে আলাল ও তার সহযোগীরা দাপটের সাথে ভেজাল ফার্নিশ তেলের ব্যবসা করছে। আলালের বৈধ কাগজ পত্র না থাকায় গোদনাইল এলাকা ছেড়ে আটির নির্জন স্থানে এই আস্তানা গড়ে তুলেছে বলে বিভিন্ন তেল ব্যবসায়ী সূত্রে জানা গেছে।
স্থানীয়রা জানায়, আলাল এক সময় আতিকুর রহমান নান্নু মুন্সির কর্মচারি ছিল। কমপক্ষে ১০ বছর সে নান্নু মুন্সির কর্মচারি হিসাবে তেলের দোকানে কাজ করেছে। সেখান থেকেই তেল ব্যবসার কৌশল শিখেছে আলাল।
এ বিষয়ে আলালের সাথে কথা হলে তিনি ফার্নিশ ভেজাল করার কথা স্বীকার করে বলেন, সিদ্ধিরগঞ্জ থানার ওসিকে মাসোহারা ও প্রত্যেক পুলিশ অফিসারকে নিয়মিত টাকা দিয়ে ব্যবসা করছি। আমি এমপি শামীম ওসমানের কর্মী।
এ বিষয়ে জানতে সিদ্ধিরগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) কামরুল ফারুকের মুঠো ফোনে ফোন করেও যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি।