নারায়ণগঞ্জ ০৪:১৪ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ০৯ ডিসেম্বর ২০২২, ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

শেষ রক্ষা হলনা ওসি শাহীন পারভেজের

  • প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৫:১৪:৩২ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১ অগাস্ট ২০১৯
  • ২৪০ বার পড়া হয়েছে

সিদ্ধিরগঞ্জ প্রতিনিধি : অপকর্ম আড়াল করতে নিজের পালিত বিশেষ পেশার দালালদের দিয়ে সাফাই করেও শেষ রক্ষা হলোনা সিদ্ধিরগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ(ওসি) মীর শাহীন শাহ পারভেজের।

দালাল নির্ভরশীল এই বিতর্কিত ওসিকে বৃহস্পতিবার বিকেলে সিদ্ধিরগঞ্জ থানা থেকে প্রত্যাহার করে পুলিশ লাইনে সংযুক্ত করা হয়। একই সাথে সাময়ীক ভাবে ওসির দায়িত্ব দেয়া হয়েছে থানার ওসি (তদন্ত) সেলিম মিয়াকে।

নারায়ণগঞ্জ জেলা পুলিশের মিডিয়া উইং ও বিশেষ শাখার পরিদর্শক (ডিআইও-২) সাজ্জাদ রুমন এর সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, জেলা পুলিশ সুপার বরাবর ওসি শাহীন পারভেজের বিরুদ্ধে মাসোহারা আদায়সহ নানা ভাবে হয়রানির একাধিক অভিযোগ করেন সিদ্ধিরগঞ্জ থানা এলাকার ভূক্তভোগীরা। বহু ভূক্তভোগী স্বশরীরে হাজির হয়ে শাহীন শাহ পারভেজের বিরুদ্ধ নানা তথ্য উপাত্যসহ পুলিশ সুপারের কাছে অভিযোগ তুলে ধরেন। এ ছাড়াও উর্ধ্বতন কর্মকর্তার সাথে ঔদ্ধাত্যপূর্ণ আচরণের অভিযোগও রয়েছে এই গুণধরের বিরুদ্ধে। একই অভিযোগে এর আগেও তাকে প্রত্যাহার করা হয়েছিলো।

অভিযোগ জানা গেছে, ওসি শাহীন পারভেজের সাথে সখ্যতা গড়ে তুলে বিশেষ পেশার কথিপয় দালাল মাদক ব্যবসা, ঝুট ব্যবসা, ডিস ব্যবসা, শিমরাইল মোড়ে ফুটপাত ও পরিবহন টিকিট কাউন্টার নিয়ন্ত্রন করছে দাপটের সাথে। ওসি শাহীন পারভেজের সাথে সখ্যতা করে ওইসব তদ্ববীরবাজ দালালরা থানাকে প্রহসন মূলক বিচারলয়ে পরিণত করে। দালালদের তদ্ববীরে থানার সকল পুলিশ অফিসার পর্যন্ত অতিষ্ঠ হয়ে উঠেছিল বলে ক্ষোভের সাথে জানায় কয়েকজন পুলিশ অফিসার। বিতর্কিত এই ওসি প্রত্যাহার হওয়ায় থানার পুলিশ অফিসার, রাজনৈতিক দলের নেতাকর্মী ও সাধারণ নিরীহ মানুষ সন্তোষ প্রকাশ করেন।

ট্যাগস :

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

জনপ্রিয় সংবাদ

শেষ রক্ষা হলনা ওসি শাহীন পারভেজের

আপডেট সময় : ০৫:১৪:৩২ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১ অগাস্ট ২০১৯

সিদ্ধিরগঞ্জ প্রতিনিধি : অপকর্ম আড়াল করতে নিজের পালিত বিশেষ পেশার দালালদের দিয়ে সাফাই করেও শেষ রক্ষা হলোনা সিদ্ধিরগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ(ওসি) মীর শাহীন শাহ পারভেজের।

দালাল নির্ভরশীল এই বিতর্কিত ওসিকে বৃহস্পতিবার বিকেলে সিদ্ধিরগঞ্জ থানা থেকে প্রত্যাহার করে পুলিশ লাইনে সংযুক্ত করা হয়। একই সাথে সাময়ীক ভাবে ওসির দায়িত্ব দেয়া হয়েছে থানার ওসি (তদন্ত) সেলিম মিয়াকে।

নারায়ণগঞ্জ জেলা পুলিশের মিডিয়া উইং ও বিশেষ শাখার পরিদর্শক (ডিআইও-২) সাজ্জাদ রুমন এর সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, জেলা পুলিশ সুপার বরাবর ওসি শাহীন পারভেজের বিরুদ্ধে মাসোহারা আদায়সহ নানা ভাবে হয়রানির একাধিক অভিযোগ করেন সিদ্ধিরগঞ্জ থানা এলাকার ভূক্তভোগীরা। বহু ভূক্তভোগী স্বশরীরে হাজির হয়ে শাহীন শাহ পারভেজের বিরুদ্ধ নানা তথ্য উপাত্যসহ পুলিশ সুপারের কাছে অভিযোগ তুলে ধরেন। এ ছাড়াও উর্ধ্বতন কর্মকর্তার সাথে ঔদ্ধাত্যপূর্ণ আচরণের অভিযোগও রয়েছে এই গুণধরের বিরুদ্ধে। একই অভিযোগে এর আগেও তাকে প্রত্যাহার করা হয়েছিলো।

অভিযোগ জানা গেছে, ওসি শাহীন পারভেজের সাথে সখ্যতা গড়ে তুলে বিশেষ পেশার কথিপয় দালাল মাদক ব্যবসা, ঝুট ব্যবসা, ডিস ব্যবসা, শিমরাইল মোড়ে ফুটপাত ও পরিবহন টিকিট কাউন্টার নিয়ন্ত্রন করছে দাপটের সাথে। ওসি শাহীন পারভেজের সাথে সখ্যতা করে ওইসব তদ্ববীরবাজ দালালরা থানাকে প্রহসন মূলক বিচারলয়ে পরিণত করে। দালালদের তদ্ববীরে থানার সকল পুলিশ অফিসার পর্যন্ত অতিষ্ঠ হয়ে উঠেছিল বলে ক্ষোভের সাথে জানায় কয়েকজন পুলিশ অফিসার। বিতর্কিত এই ওসি প্রত্যাহার হওয়ায় থানার পুলিশ অফিসার, রাজনৈতিক দলের নেতাকর্মী ও সাধারণ নিরীহ মানুষ সন্তোষ প্রকাশ করেন।