নারায়ণগঞ্জ ০৬:২৮ অপরাহ্ন, শনিবার, ০৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ২২ মাঘ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
মাইক্রোসফট ইনোভেটিভ এডুকেটর এক্সপার্ট বাংলাদেশ কমিউনিটি মিটআপ ২০২৩ অনুষ্ঠিত আদমজী ইপিজেডকে অশান্ত করছে জনপ্রতিনিধিরা রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের আশঙ্কা সিদ্ধিরগঞ্জ রিপোর্টার্স ক্লাবের কর্মকর্তাদের সাথে মহিলা লীগ নেত্রীর শুভেচ্ছা বিনিময় না’গঞ্জ কারাগারে হাজতীর মৃত্যু ফতুল্লায় চোরাইকৃত ট্যাংকলড়ী উদ্ধার আড়াইহাজারের মিথিলা টেক্সটাইল ঘুরে গেলেন ৮ দেশের রাষ্ট্রদূতসহ ১৮ দেশের প্রতিনিধি সিদ্ধিরগঞ্জ রিপোর্টার্স ক্লাবের কর্মকর্তাদের সাথে কাউন্সিলর ইকবাল হোসেনের মতবিনিময় ফতুল্লা ব্লাড ডোনার্সের উদ্যোগে শীতার্তদের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ শিক্ষা সিলেবাস বাতিলের দাবিতে খেলাফত মজলিসের বিক্ষোভ মিছিল সমাজতান্ত্রিক মহিলা ফোরামের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে শহরে নারী সমাবেশ ও মিছিল

সিদ্ধিরগঞ্জে অপহরণের পর ধর্ষণের অভিযোগে ২ জন গ্রেফতার

  • প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ১১:৫৬:০৭ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২২ জুন ২০১৯
  • ৪৬ বার পড়া হয়েছে

সিদ্ধিরগঞ্জ প্রতিনিধি : সিদ্ধিরগঞ্জ থেকে দুই কিশোরীকে অপহরণ করে পালাক্রমে ধর্ষণ করার অভিযোগে আল-আমিন(১৬) ও রিয়াদ(২৫) নামে দুই যুবককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গতকাল শনিবার ভোর রাতে ফতুল্লা থানার গিরিধারা এলাকার জনৈক সেলিনা আক্তারের বাড়ীতে অভিযান চালিয়ে পুলিশ তাদের গ্রেফতার করে। এসময় উদ্ধার করা হয় অপহৃত দুই কিশোরীকে।
এ ঘটনায় অপহৃত এক কিশোরীর পিতা বাদী হয়ে শনিবার সকালে আল-আমিন ও রিয়াদকে আসামি করে ৭/৯(১)২০০০ নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন সংশোধনী ২০০৩ অপহরণ পূর্বক ইচ্ছার বিরুদ্ধে ধর্ষণ করার অপরাধে সিদ্ধিরগঞ্জ থানায় মামলা দায়ের করেছে।
তবে কিশোরীরা জানায়, প্রেমের টানে তারা স্বেচ্ছায় প্রেমিকের সাথে পালিয়ে যায়। বিয়ে করার জন্য তারা আদালতেও গিয়েছিল। কিন্তু বয়স কম হওয়ায় তাদের বিয়ে হয়নি। তাই বিয়ে ছাড়াই বাসা ভাড়া নিয়ে একই রুমে তারা স্বামী-স্ত্রী হিসেবে বসবাস করছিল। কিশোরী দুজন একে অন্যের আপন চাচাতো বোন। তাদের একজনের বয়স ১৭ আরেকজন বয়স ১২ বছর।

ধৃত আল-আমিন সিদ্ধিরগঞ্জ থানার আইয়ুবনগর এলাকার মো: বাদল মিয়ার ছেলে। আর রিয়াদ ভোলা জেলার চরফ্যাশন থানার কুলসুমবাগ এলাকার মো: আজিজ হোসেনের ছেলে।

মামলায় উল্লেখ করা হয়েছে, চলতিমাসের গত ২ তারিখ বিকালে আসামিরা ওই দুই কিশোরীকে ফুসলাইয়া বাড়ী থেকে অপহরণ করে অজ্ঞাত স্থানে নিয়ে যায়। এ বিষয়ে সিদ্ধিরগঞ্জ থানায় একটি সাধারণ ডায়েরী করা হয়। পরে জিডি সূত্রে সিদ্ধিরগঞ্জ থানার ওসি(তদন্ত) মো: সেলিম মিয়া ও এসআই হাফিজুর রহমান সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে গত ২১ জুন রাতে অভিযান চালিয়ে দুই কিশোরীকে উদ্ধার ও অপহরণকারীদের গ্রেফতার করা হয়। কিশোরীদের উদ্ধার করার পর জানা যায়, ফতুল্লার গিরিধারা এলাকার সেলিনা আক্তারের বাড়ীর একটি কক্ষে তাদের রাখা হয়। ওই বাসায় তাদের ইচ্ছার বিরুদ্ধে গত ৩ জুন থেকে ২১ জুন পর্যন্ত একাধিকবার ধর্ষণ করা হয়।

এ বিষয়ে সিদ্ধিরগঞ্জ থানার ওসি (তদন্ত) মো: সেলিম মিয়া জানান, এক কিশোরীর বাবা বাদী হয়ে অপহরণ ও ধর্ষণের অভিযোগে মামলা দায়ের করেছে। একই বাসা থেকে আসামিদের গ্রেফতার ও দুই কিশোরীকে উদ্ধার করা হয়েছে।

ট্যাগস :

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

জনপ্রিয় সংবাদ

মাইক্রোসফট ইনোভেটিভ এডুকেটর এক্সপার্ট বাংলাদেশ কমিউনিটি মিটআপ ২০২৩ অনুষ্ঠিত

সিদ্ধিরগঞ্জে অপহরণের পর ধর্ষণের অভিযোগে ২ জন গ্রেফতার

আপডেট সময় : ১১:৫৬:০৭ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২২ জুন ২০১৯

সিদ্ধিরগঞ্জ প্রতিনিধি : সিদ্ধিরগঞ্জ থেকে দুই কিশোরীকে অপহরণ করে পালাক্রমে ধর্ষণ করার অভিযোগে আল-আমিন(১৬) ও রিয়াদ(২৫) নামে দুই যুবককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গতকাল শনিবার ভোর রাতে ফতুল্লা থানার গিরিধারা এলাকার জনৈক সেলিনা আক্তারের বাড়ীতে অভিযান চালিয়ে পুলিশ তাদের গ্রেফতার করে। এসময় উদ্ধার করা হয় অপহৃত দুই কিশোরীকে।
এ ঘটনায় অপহৃত এক কিশোরীর পিতা বাদী হয়ে শনিবার সকালে আল-আমিন ও রিয়াদকে আসামি করে ৭/৯(১)২০০০ নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন সংশোধনী ২০০৩ অপহরণ পূর্বক ইচ্ছার বিরুদ্ধে ধর্ষণ করার অপরাধে সিদ্ধিরগঞ্জ থানায় মামলা দায়ের করেছে।
তবে কিশোরীরা জানায়, প্রেমের টানে তারা স্বেচ্ছায় প্রেমিকের সাথে পালিয়ে যায়। বিয়ে করার জন্য তারা আদালতেও গিয়েছিল। কিন্তু বয়স কম হওয়ায় তাদের বিয়ে হয়নি। তাই বিয়ে ছাড়াই বাসা ভাড়া নিয়ে একই রুমে তারা স্বামী-স্ত্রী হিসেবে বসবাস করছিল। কিশোরী দুজন একে অন্যের আপন চাচাতো বোন। তাদের একজনের বয়স ১৭ আরেকজন বয়স ১২ বছর।

ধৃত আল-আমিন সিদ্ধিরগঞ্জ থানার আইয়ুবনগর এলাকার মো: বাদল মিয়ার ছেলে। আর রিয়াদ ভোলা জেলার চরফ্যাশন থানার কুলসুমবাগ এলাকার মো: আজিজ হোসেনের ছেলে।

মামলায় উল্লেখ করা হয়েছে, চলতিমাসের গত ২ তারিখ বিকালে আসামিরা ওই দুই কিশোরীকে ফুসলাইয়া বাড়ী থেকে অপহরণ করে অজ্ঞাত স্থানে নিয়ে যায়। এ বিষয়ে সিদ্ধিরগঞ্জ থানায় একটি সাধারণ ডায়েরী করা হয়। পরে জিডি সূত্রে সিদ্ধিরগঞ্জ থানার ওসি(তদন্ত) মো: সেলিম মিয়া ও এসআই হাফিজুর রহমান সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে গত ২১ জুন রাতে অভিযান চালিয়ে দুই কিশোরীকে উদ্ধার ও অপহরণকারীদের গ্রেফতার করা হয়। কিশোরীদের উদ্ধার করার পর জানা যায়, ফতুল্লার গিরিধারা এলাকার সেলিনা আক্তারের বাড়ীর একটি কক্ষে তাদের রাখা হয়। ওই বাসায় তাদের ইচ্ছার বিরুদ্ধে গত ৩ জুন থেকে ২১ জুন পর্যন্ত একাধিকবার ধর্ষণ করা হয়।

এ বিষয়ে সিদ্ধিরগঞ্জ থানার ওসি (তদন্ত) মো: সেলিম মিয়া জানান, এক কিশোরীর বাবা বাদী হয়ে অপহরণ ও ধর্ষণের অভিযোগে মামলা দায়ের করেছে। একই বাসা থেকে আসামিদের গ্রেফতার ও দুই কিশোরীকে উদ্ধার করা হয়েছে।