নারায়ণগঞ্জ ০৩:৫৭ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২২, ১৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
হিন্দি সিনেমায় জয়া আহসান, নায়ক পঙ্কজ ত্রিপাঠি গ্রুপ সেরা আর্জেন্টিনা, শেষ ষোলয় প্রতিপক্ষ অস্ট্রেলিয়া সিদ্ধিরগঞ্জে জয়নাল বাহিনীর ৪ জনের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ দায়ের সিদ্ধিরগঞ্জের সানারপাড় স্কুলে অনৈতিক আর্থিক সুবিধায় ক্ষমতার চেয়ারে শিক্ষিকা দিলরুবা রূপগঞ্জে ভুল চিকিৎসায় ৭ বছরের মাদ্রাসা পরুয়া শিশুর মৃত্যু ফতুল্লা ওসি’র কন্যা রাইসা জিপিএ ফাইভ পেয়েছেন সোনারগাঁয়ে টেক্সটাইল মিলে ও মিষ্টি কারখানায় ভয়াবহ অগ্নিকান্ড ফতুল্লায় অপহরনকারী চক্রের নারী সদস্যসহ গ্রেপ্তার ৫, অপহৃত উদ্ধার ১৩৯ জন শহীদদের স্মরণে বক্তাবলী ইউনিয়ন ছাত্রদলের শ্রদ্ধাঞ্জলি আড়াইহাজারে ড্রেজার দিয়ে অবৈধভাবে মাটি বিক্রি, নির্বাহী অফিসারের নিকট লিখিত অভিযোগ

সিদ্ধিরগঞ্জের সাজাপ্রাপ্ত খালিদকে ১ বছরেও গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ

  • প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ১২:২৭:১৮ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২২ মে ২০১৮
  • ৮২ বার পড়া হয়েছে

সিদ্ধিরগঞ্জ প্রতিনিধি : সিদ্ধিরগঞ্জে মাল্টিপারপাস ব্যবসার নামে কোটি কোটি টাকা আত্নসাতকারী জামায়াত নেতার ছেলে চেক প্রতারনা মামলার সাজাপ্রাপ্ত পলাতক আসামি খালিদ বিন ফিরোজ ওরফে আল-আমিনকে ১ বছরেও গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ। একাধিক মামলার আসামী সাজাপ্রাপ্ত খালিদ প্রতারনা করে বহু মানুষের কোটি কোটি টাকা আত্নসাত করে আত্বগোপন করেছে। আদালত কর্তৃক গ্রেফতারি পরোয়ানা জারির ১ বছর গত হলেও থানা পুলিশ তাকে গ্রেফতার করতে না পারায় পাওনাদারদের মাঝে দেখা দিয়েছে হতাশা।
অভিযোগ জানা গেছে, বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামের সিদ্ধিরগঞ্জ থানা শাখার প্রচার ও দপ্তর বিষয়ক সম্পাদক প্রকৌশলী ফিরোজ আহমেদ ও তার বড় ছেলে খালিদ বিন ফিরোজ ওরফে আল-আমিন একটি সিন্ডিকেট করে শিমরাইল মোড় মেরিডিয়ান কো-অপারেটিভ এম,সি,এস (প্রাঃ) লিমিটেড নামে একটি মাল্টিপারপাস প্রতিষ্ঠান গড়ে তুলে। প্রথমে সমবায় অধিদপ্তর পরে জয়েনষ্টক থেকে নিবন্ধন করে হাজী ইব্রাহীম খলিল শপিং টাওয়ারে কার্যলয় গড়ে তুলে অধিক মূনাফা প্রদানের ফাঁদে ফেলে মেরিডিয়ান মাল্টিডারপাসের নামে পিতা-পুত্রের সিন্ডিকেট বিভিন্ন লোকজনের কাজ থেকে কোটি কোটি টাকা হাতিয়ে নেয়। একপর্যায়ে প্রতিষ্ঠানটির বিরুদ্ধে অনিয়ম দুর্নীতির অভিযোগ উত্থাপন হলে সংশ্লিষ্ট অধিদপ্তর কর্তৃক লিকুইট বসে। তখন চারদিকে প্রতিষ্ঠানটির দুর্নীতির খবর ছড়িয়ে পড়লে আমানতকারি গ্রাহকরা তাদের টাকা ফেরত দেয়ার জন্য চাপ গ্রয়োগ করে। তখন প্রতিষ্ঠন মালিকপক্ষ গ্রাহকদের টাকা ফেরত না দিয়ে গা ঢাকা দেয়।
জানা গেছে, আমানত রাখা টাকা ফেরত না পেয়ে একাধিক গ্রাহক নারায়ণগঞ্জ আদালতে মামলা দায়ের করে। মামলার আসামিরা আদালত থেকে জামিন নিয়েও পাওনাদারদের ভয়ে আত্বগোপন করে। সিদ্ধিরগঞ্জ পাওয়ার স্টেশনের বাসিন্দা জামায়াত নেতা প্রকৌশলী ফিরোজ আহমেদ ও তার ছেলে আল-আমিনও স্বপরিবারে আতœগোপন করে। আসামি খালিদ ওরফে আল-আমিনের অনুপস্থিতিতে চেক প্রতারনা (যার সিআর ৩১৫/১৫) ১২৯৯/১৫ নং মামলায় আদালত তাকে ১ মাসের কারাদন্ড ও চেকে বর্ণিত টাকা বাদীকে ফেরত প্রদানের রায় ঘোষনা করেন। এই রায়ের বিরুদ্ধে আসামি খালিদ জজকোর্টে আপিল করলেও নিন্ম আদালতের রায় বহাল রাখে জজকোর্টের বিচারক। আপিলেও নিন্ম আদালতের রায় বহাল রাখার পর থেকেই খালিদ পালিয়ে বেড়াচ্ছে। সাজাপ্রাপ্ত আসামি খালিদ বিন ফিরোজ ওরফে আল-আমিনের বিরুদ্ধে আদালত গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেন। কিন্তু পুলিশ তাকে গ্রেফতার করতে পারছেনা। তবে তাকে গ্রেফতার করার জন্য একাধিকবার অভিযান চালানো হয়েছে পাশাপাশি গ্রেফতার করার চেষ্টা চলছে বলে পুলিশ জানায়।

ট্যাগস :

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

হিন্দি সিনেমায় জয়া আহসান, নায়ক পঙ্কজ ত্রিপাঠি

সিদ্ধিরগঞ্জের সাজাপ্রাপ্ত খালিদকে ১ বছরেও গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ

আপডেট সময় : ১২:২৭:১৮ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২২ মে ২০১৮

সিদ্ধিরগঞ্জ প্রতিনিধি : সিদ্ধিরগঞ্জে মাল্টিপারপাস ব্যবসার নামে কোটি কোটি টাকা আত্নসাতকারী জামায়াত নেতার ছেলে চেক প্রতারনা মামলার সাজাপ্রাপ্ত পলাতক আসামি খালিদ বিন ফিরোজ ওরফে আল-আমিনকে ১ বছরেও গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ। একাধিক মামলার আসামী সাজাপ্রাপ্ত খালিদ প্রতারনা করে বহু মানুষের কোটি কোটি টাকা আত্নসাত করে আত্বগোপন করেছে। আদালত কর্তৃক গ্রেফতারি পরোয়ানা জারির ১ বছর গত হলেও থানা পুলিশ তাকে গ্রেফতার করতে না পারায় পাওনাদারদের মাঝে দেখা দিয়েছে হতাশা।
অভিযোগ জানা গেছে, বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামের সিদ্ধিরগঞ্জ থানা শাখার প্রচার ও দপ্তর বিষয়ক সম্পাদক প্রকৌশলী ফিরোজ আহমেদ ও তার বড় ছেলে খালিদ বিন ফিরোজ ওরফে আল-আমিন একটি সিন্ডিকেট করে শিমরাইল মোড় মেরিডিয়ান কো-অপারেটিভ এম,সি,এস (প্রাঃ) লিমিটেড নামে একটি মাল্টিপারপাস প্রতিষ্ঠান গড়ে তুলে। প্রথমে সমবায় অধিদপ্তর পরে জয়েনষ্টক থেকে নিবন্ধন করে হাজী ইব্রাহীম খলিল শপিং টাওয়ারে কার্যলয় গড়ে তুলে অধিক মূনাফা প্রদানের ফাঁদে ফেলে মেরিডিয়ান মাল্টিডারপাসের নামে পিতা-পুত্রের সিন্ডিকেট বিভিন্ন লোকজনের কাজ থেকে কোটি কোটি টাকা হাতিয়ে নেয়। একপর্যায়ে প্রতিষ্ঠানটির বিরুদ্ধে অনিয়ম দুর্নীতির অভিযোগ উত্থাপন হলে সংশ্লিষ্ট অধিদপ্তর কর্তৃক লিকুইট বসে। তখন চারদিকে প্রতিষ্ঠানটির দুর্নীতির খবর ছড়িয়ে পড়লে আমানতকারি গ্রাহকরা তাদের টাকা ফেরত দেয়ার জন্য চাপ গ্রয়োগ করে। তখন প্রতিষ্ঠন মালিকপক্ষ গ্রাহকদের টাকা ফেরত না দিয়ে গা ঢাকা দেয়।
জানা গেছে, আমানত রাখা টাকা ফেরত না পেয়ে একাধিক গ্রাহক নারায়ণগঞ্জ আদালতে মামলা দায়ের করে। মামলার আসামিরা আদালত থেকে জামিন নিয়েও পাওনাদারদের ভয়ে আত্বগোপন করে। সিদ্ধিরগঞ্জ পাওয়ার স্টেশনের বাসিন্দা জামায়াত নেতা প্রকৌশলী ফিরোজ আহমেদ ও তার ছেলে আল-আমিনও স্বপরিবারে আতœগোপন করে। আসামি খালিদ ওরফে আল-আমিনের অনুপস্থিতিতে চেক প্রতারনা (যার সিআর ৩১৫/১৫) ১২৯৯/১৫ নং মামলায় আদালত তাকে ১ মাসের কারাদন্ড ও চেকে বর্ণিত টাকা বাদীকে ফেরত প্রদানের রায় ঘোষনা করেন। এই রায়ের বিরুদ্ধে আসামি খালিদ জজকোর্টে আপিল করলেও নিন্ম আদালতের রায় বহাল রাখে জজকোর্টের বিচারক। আপিলেও নিন্ম আদালতের রায় বহাল রাখার পর থেকেই খালিদ পালিয়ে বেড়াচ্ছে। সাজাপ্রাপ্ত আসামি খালিদ বিন ফিরোজ ওরফে আল-আমিনের বিরুদ্ধে আদালত গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেন। কিন্তু পুলিশ তাকে গ্রেফতার করতে পারছেনা। তবে তাকে গ্রেফতার করার জন্য একাধিকবার অভিযান চালানো হয়েছে পাশাপাশি গ্রেফতার করার চেষ্টা চলছে বলে পুলিশ জানায়।