নারায়ণগঞ্জ ১২:১০ অপরাহ্ন, বুধবার, ২১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ৯ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
অস্ত্র মামলায় মিশনপাড়ার নাজমুলকে ১০ বছরের কারাদণ্ড বন্দরে এক রোহিঙ্গা যুবককে ৪হাজার ইয়াবাসহ গ্রেপ্তার উপজেলা নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে জামানত ১ লাখ টাকা ফতুল্লার ক্লু-লেস হত্যার রহস্য উদঘাটনসহ প্রধান আসামিকে গ্রেফতার র‌্যাব-১১ বানিজ্য মেলায় দর্শনার্থীদের সেবা দিতে ডিকেএমসি হাসপাতালের অধ্যাপক ডাক্তার এম এ কাশেম কাঁচপুর হাইওয়ে থানা পুলিশের উদ্যোগে সেবা সপ্তাহ পালন শিমরাইলে অলিতে-গলিতে মাদক, নেই প্রশাসনের নজরদারী সিদ্ধিরগঞ্জে ভাসুরের বটির কুপে কব্জি হারালেন সাবিনা, গ্রেফতার-২ সরকারি টেকনিক্যাল স্কুল ও কলেজ এর  শিক্ষার্থীদের নবীন বরন অনুষ্টান রূপগঞ্জে স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতার উপর হামলাকারীদের গ্রেফতারের দাবিতে মানববন্ধন বিক্ষোভ

র্স্বণ ব্যবসায়ীকে অপহরণ চক্রের দুই নারী সদস্য গ্রেফতার

  • প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৬:২৬:৪১ অপরাহ্ন, শনিবার, ৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪
  • ৩২ বার পড়া হয়েছে

সিদ্ধিরগঞ্জ প্রতিনিধি: নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জের এক স্বর্ণব্যবসায়ীকে অপহরণ করে মারধর ও পাঁচ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবির অভিযোগে অপহরণকারী ও অজ্ঞান পার্টি চক্রের দুই নারী সদস্যকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-১১। সোনারগাঁ উপজেলার কাঁচপুর ইউনিয়নের সোনাপুর বটতলা এলাকা থেকে তাদের গ্রেফতার ও ভিকটিমকে উদ্ধার করা হয়।

শনিবার (৩ ফেব্রæয়ারি) বিকেল ৩ টায় র‌্যাবের মিডিয়া অফিসার সহকারী পুলিশ সুপার সনদ বড়–য়া স্বাক্ষরিত সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।
গ্রেফতারকৃতরা হলো, সিদ্ধিরগঞ্জের আজিবপুর এলাকার ছিফা আক্তার ও বরিশাল জেলার বিমান বন্দর থানার বারইখালী গ্রামের রাহিমা জান্নাতুল ওরফে খালেদা।

সংবাদ র‌্যাব জানায়, দীর্ঘদিন সৌদি আরব থেকে দেশে ফিরে এসে সিদ্ধিরগঞ্জ পুল এলাকায় স্বর্ণের দোকান দিয়ে ব্যবসা শুরু করেন মৃত মজিবুর রহমানের ছেলে মীর হোসেন (৪২)। কিছুদিন আগে তার দোকানে এসে একটি রুপার ব্রেসলেট কিনেন ছিফা আক্তার। গত পহেলা ফেব্রæয়ারি দুপুর দেড়টার দিকে তিনি আবার মীর হোসেনের দোকানে এসে তার এক আত্মীয়ের স্বর্ণের গহনা বানানোর অর্ডার নেওয়ার জন্য মীর হোসেনকে ওই আত্মীয়ের বাসায় যেতে বলেন। মীর হোসেন যেতে রাজি না হলে ছিফা আক্তার চলে যায়। পরে দুপুরের খাবার খাওয়ার জন্য মীর হোসেন তার দোকান থেকে বেড় হলে ছিফা আক্তারসহ ২-৩ জন মিলে একটি সিএনজি নিয়ে মীর হোসেনের সামনে দাঁড় করিয়ে তার নাকে রুমাল ধরে অচেতন করে ফেলে। পরে সিএনজিতে উঠিয়ে তাকে অপহরণ করে কাঁচপুরের সোনাপুর বটতলা এলাকায় নিয়ে আটকে রাখে। এসময় চক্রের সদস্যরা মোবাইলে মীর হোসেন ও ছিফা আক্তারের অশ্লীল ছবি ধারণ করে তাকে বø্যাকমেইল করে। তাকে ভয়ভীতি দেখিয়ে মুক্তিপণ হিসাবে ৫ লাখ টাকা দাবি করে। মীর হোসেন টাকা দিতে অস্বীকার করলে তাকে মারধর করা হয়। তখন তিনি আটক অবস্থায় তার ব্যবহৃত মোবাইল ফোন দিয়ে বড় ভাই মোকলেস মিয়াকে মুক্তিপণের ৫ টাকা দিয়ে তাকে উদ্ধার করতে বলেন। মুক্তিপণের টাকা দিতে দেরি হওয়ায় পুনরায় মারধর ও হত্যার হুমকি দেয়। বিষয়টি জানতে পেরে র‌্যাব-১১ এর সিপিএসসি কোম্পানির একটি গোয়েন্দা দল যথাযথ গুরুত্বের সাথে তার অবস্থান সনাক্ত করে সুনির্দিষ্ট তথ্যের ভিত্তিতে অপরহণকারী চক্রের সক্রিয় ২ সদস্যকে গ্রেপ্তার করতে সক্ষম হয়। জড়িত অন্যদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে। গ্রেফতারকৃতদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য র‌্যাব তাদেরকে সিদ্ধিরগঞ্জ থানায় হস্তান্তর করেছেন।

ট্যাগস :

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

জনপ্রিয় সংবাদ

অস্ত্র মামলায় মিশনপাড়ার নাজমুলকে ১০ বছরের কারাদণ্ড

র্স্বণ ব্যবসায়ীকে অপহরণ চক্রের দুই নারী সদস্য গ্রেফতার

আপডেট সময় : ০৬:২৬:৪১ অপরাহ্ন, শনিবার, ৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

সিদ্ধিরগঞ্জ প্রতিনিধি: নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জের এক স্বর্ণব্যবসায়ীকে অপহরণ করে মারধর ও পাঁচ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবির অভিযোগে অপহরণকারী ও অজ্ঞান পার্টি চক্রের দুই নারী সদস্যকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-১১। সোনারগাঁ উপজেলার কাঁচপুর ইউনিয়নের সোনাপুর বটতলা এলাকা থেকে তাদের গ্রেফতার ও ভিকটিমকে উদ্ধার করা হয়।

শনিবার (৩ ফেব্রæয়ারি) বিকেল ৩ টায় র‌্যাবের মিডিয়া অফিসার সহকারী পুলিশ সুপার সনদ বড়–য়া স্বাক্ষরিত সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।
গ্রেফতারকৃতরা হলো, সিদ্ধিরগঞ্জের আজিবপুর এলাকার ছিফা আক্তার ও বরিশাল জেলার বিমান বন্দর থানার বারইখালী গ্রামের রাহিমা জান্নাতুল ওরফে খালেদা।

সংবাদ র‌্যাব জানায়, দীর্ঘদিন সৌদি আরব থেকে দেশে ফিরে এসে সিদ্ধিরগঞ্জ পুল এলাকায় স্বর্ণের দোকান দিয়ে ব্যবসা শুরু করেন মৃত মজিবুর রহমানের ছেলে মীর হোসেন (৪২)। কিছুদিন আগে তার দোকানে এসে একটি রুপার ব্রেসলেট কিনেন ছিফা আক্তার। গত পহেলা ফেব্রæয়ারি দুপুর দেড়টার দিকে তিনি আবার মীর হোসেনের দোকানে এসে তার এক আত্মীয়ের স্বর্ণের গহনা বানানোর অর্ডার নেওয়ার জন্য মীর হোসেনকে ওই আত্মীয়ের বাসায় যেতে বলেন। মীর হোসেন যেতে রাজি না হলে ছিফা আক্তার চলে যায়। পরে দুপুরের খাবার খাওয়ার জন্য মীর হোসেন তার দোকান থেকে বেড় হলে ছিফা আক্তারসহ ২-৩ জন মিলে একটি সিএনজি নিয়ে মীর হোসেনের সামনে দাঁড় করিয়ে তার নাকে রুমাল ধরে অচেতন করে ফেলে। পরে সিএনজিতে উঠিয়ে তাকে অপহরণ করে কাঁচপুরের সোনাপুর বটতলা এলাকায় নিয়ে আটকে রাখে। এসময় চক্রের সদস্যরা মোবাইলে মীর হোসেন ও ছিফা আক্তারের অশ্লীল ছবি ধারণ করে তাকে বø্যাকমেইল করে। তাকে ভয়ভীতি দেখিয়ে মুক্তিপণ হিসাবে ৫ লাখ টাকা দাবি করে। মীর হোসেন টাকা দিতে অস্বীকার করলে তাকে মারধর করা হয়। তখন তিনি আটক অবস্থায় তার ব্যবহৃত মোবাইল ফোন দিয়ে বড় ভাই মোকলেস মিয়াকে মুক্তিপণের ৫ টাকা দিয়ে তাকে উদ্ধার করতে বলেন। মুক্তিপণের টাকা দিতে দেরি হওয়ায় পুনরায় মারধর ও হত্যার হুমকি দেয়। বিষয়টি জানতে পেরে র‌্যাব-১১ এর সিপিএসসি কোম্পানির একটি গোয়েন্দা দল যথাযথ গুরুত্বের সাথে তার অবস্থান সনাক্ত করে সুনির্দিষ্ট তথ্যের ভিত্তিতে অপরহণকারী চক্রের সক্রিয় ২ সদস্যকে গ্রেপ্তার করতে সক্ষম হয়। জড়িত অন্যদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে। গ্রেফতারকৃতদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য র‌্যাব তাদেরকে সিদ্ধিরগঞ্জ থানায় হস্তান্তর করেছেন।