নারায়ণগঞ্জ ০৭:০৮ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২১ মে ২০২৪, ৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
গুণী জনদের পদচারণায়  উদযাপিত  দৈনিক আজকের নীর বাংলা পত্রিকা’র ১৫ তম  বর্ষপূর্তি সিদ্ধিরগঞ্জে রাজউকের অভিযানে ক্ষুব্ধ ভবন মালিকরা রেকমত আলী উচ্চ বিদ্যালয়ের মজিবুর রহমান সভাপতির দায়িত্ব নিয়েই শিক্ষার মান উন্নয়নের তাগিদ অস্ত্রের লাইসেন্সের আবেদন না করেও অপপ্রচারের শিকার মহিউদ্দিন মোল্লা ! সাংবাদিক শাওনের বাবা ফিরোজ আহমেদ আর নেই রিয়াদে জমকালো আয়োজনে মাই টিভির ১৫ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উদযাপন রিয়াদে প্রিমিয়াম ফুটবল লীগের ফাইনাল অনুষ্ঠিত জুন মাসের ১৭ তারিখ কোরবানির ঈদ পালিত হওয়ার সম্ভবনা রিয়াদে নোভ আল আম্মার ইষ্টাবলিস্ট এর আয়োজনে দোয়া ও ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত রিয়াদে বেগম খালেদা জিয়ার রোগ মুক্তি কামনায় দোয়া ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত

নাসিক ২ নং ওয়ার্ডে ভয়াবহ জলাবদ্ধতা রোগ ব্যধিতে আক্রান্ত হচ্ছে মানুষ

  • প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৩:০৭:৫৬ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৩ জুন ২০২১
  • ১০৬ বার পড়া হয়েছে

সিদ্ধিরগঞ্জ প্রতিনিধি : নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের ২ নং ওয়ার্ড মিজমিজি দক্ষিণপাড়া, কালুহাজী ও ধনুহাজী রোড এলাকায় দেখা দিয়েছে কৃত্রিম বন্যা। গত কয়েকদিনের বৃষ্টিতে তলিয়ে গেছে এলাকার বিভিন্ন সড়ক। পানি ঢুকে পড়েছে বাসা বাড়িতে। ফলে জলাবদ্ধতার কবলে পড়ে মানবেতর জীবনযাপন করছে ওই এলাকার মানুষ। আক্রান্ত হচ্ছে নানান পানিবাহিত রোগে। বেড়ে গেছে ডেঙ্গু মশার উপদ্রুপ।

নাসিক ২ নং ওয়ার্ডের ব্যক্তিমালিকানা শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সাধারণ সম্পাদক মো: আবু বকর সিদ্দিক বলেন, জলাবদ্ধতা সৃষ্টি হওয়ায় মানুষের চরম ভোগান্তি ও কাজের ব্যঘাত ঘটছে। নষ্ট হচ্ছে বাড়ি ঘরের মূল্যবান আসবাবপত্র। জলাবদ্ধতার কারণ হিসেবে তিনি জানান, অপরিকল্পিত ড্রেনেজ ব্যবস্থা, পানি চলাচলের খাল দখল, পানি চলাচলে বিঘœ সৃষ্টি করে মাছের খামার গড়ে তুলায় জলাবদ্ধতা ভয়াবহ আকার ধারণ করেছে। আটকে থাকা পানি ডিএনডির নিস্কাশন খালে যেতে না পাড়ায় পানি বন্দি হয়ে পড়েছে মানুষ। এলাকাবাসীকে জলাবদ্ধতা দুর্ভোগ থেকে মুক্ত করতে বেদখলকৃত খাল উদ্ধার, মাছের খামার উচ্ছেদ করার জন্য ডিএনডি প্রকল্প পরিচালকের প্রতি অনুরোধ জানান আবু বকর সিদ্দিক। জমে থাকা পানি নিস্কাশন খালে যেতে পারলে জলাবদ্ধতা থেকে এলাকাবাসীর মুক্তিমিলবে বলে তিনি মনে করেন। তাছাড়া জলাবদ্ধতার জন্য ওই ওয়ার্ডের জনপ্রতিনিধির উদাসীনতাকেও দায়ি করছেন তিনি। কারণ, অপরিকল্পিত ড্রেন নির্মাণ ও ড্রেন পরিস্কার না করায় পানি চলাচলে বিঘœ ঘটছে। তাই পরিকল্পিত ড্রেনেজ ব্যবস্থা ও ড্রেন পরিস্কার রাখার প্রতি স্থানীয় জনপ্রতিনিধির দৃষ্টি রাখা প্রয়োজন বলে মত প্রকাশ করেন আবু বকর সিদ্দিক।

আবু বকর সিদ্দিক বলেন, জলাবদ্ধতার কারণে বিভিন্ন পানি বাহিত রোগে আক্রান্ত হচ্ছে মানুষ। দেখা দিয়েছে ডেঙ্গু মশার উপদ্রুপ। একদিকে মহামারি করোনা অপর দিকে ডেঙ্গু ও পানি বাহিত রোগে দিশেহারা হয়ে পড়েছে মানুষ। অনেকই অর্থের অভাবে চিকিৎসা পর্যন্ত করতে পারছেনা। পানি বন্দি থেকে মানুষকে মুক্ত না করলে পরিস্থিতি অনেক ভয়াবহ আকার ধারণ করবে বলে মনে করছেন তিনি।

ট্যাগস :

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

গুণী জনদের পদচারণায়  উদযাপিত  দৈনিক আজকের নীর বাংলা পত্রিকা’র ১৫ তম  বর্ষপূর্তি

নাসিক ২ নং ওয়ার্ডে ভয়াবহ জলাবদ্ধতা রোগ ব্যধিতে আক্রান্ত হচ্ছে মানুষ

আপডেট সময় : ০৩:০৭:৫৬ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৩ জুন ২০২১

সিদ্ধিরগঞ্জ প্রতিনিধি : নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের ২ নং ওয়ার্ড মিজমিজি দক্ষিণপাড়া, কালুহাজী ও ধনুহাজী রোড এলাকায় দেখা দিয়েছে কৃত্রিম বন্যা। গত কয়েকদিনের বৃষ্টিতে তলিয়ে গেছে এলাকার বিভিন্ন সড়ক। পানি ঢুকে পড়েছে বাসা বাড়িতে। ফলে জলাবদ্ধতার কবলে পড়ে মানবেতর জীবনযাপন করছে ওই এলাকার মানুষ। আক্রান্ত হচ্ছে নানান পানিবাহিত রোগে। বেড়ে গেছে ডেঙ্গু মশার উপদ্রুপ।

নাসিক ২ নং ওয়ার্ডের ব্যক্তিমালিকানা শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সাধারণ সম্পাদক মো: আবু বকর সিদ্দিক বলেন, জলাবদ্ধতা সৃষ্টি হওয়ায় মানুষের চরম ভোগান্তি ও কাজের ব্যঘাত ঘটছে। নষ্ট হচ্ছে বাড়ি ঘরের মূল্যবান আসবাবপত্র। জলাবদ্ধতার কারণ হিসেবে তিনি জানান, অপরিকল্পিত ড্রেনেজ ব্যবস্থা, পানি চলাচলের খাল দখল, পানি চলাচলে বিঘœ সৃষ্টি করে মাছের খামার গড়ে তুলায় জলাবদ্ধতা ভয়াবহ আকার ধারণ করেছে। আটকে থাকা পানি ডিএনডির নিস্কাশন খালে যেতে না পাড়ায় পানি বন্দি হয়ে পড়েছে মানুষ। এলাকাবাসীকে জলাবদ্ধতা দুর্ভোগ থেকে মুক্ত করতে বেদখলকৃত খাল উদ্ধার, মাছের খামার উচ্ছেদ করার জন্য ডিএনডি প্রকল্প পরিচালকের প্রতি অনুরোধ জানান আবু বকর সিদ্দিক। জমে থাকা পানি নিস্কাশন খালে যেতে পারলে জলাবদ্ধতা থেকে এলাকাবাসীর মুক্তিমিলবে বলে তিনি মনে করেন। তাছাড়া জলাবদ্ধতার জন্য ওই ওয়ার্ডের জনপ্রতিনিধির উদাসীনতাকেও দায়ি করছেন তিনি। কারণ, অপরিকল্পিত ড্রেন নির্মাণ ও ড্রেন পরিস্কার না করায় পানি চলাচলে বিঘœ ঘটছে। তাই পরিকল্পিত ড্রেনেজ ব্যবস্থা ও ড্রেন পরিস্কার রাখার প্রতি স্থানীয় জনপ্রতিনিধির দৃষ্টি রাখা প্রয়োজন বলে মত প্রকাশ করেন আবু বকর সিদ্দিক।

আবু বকর সিদ্দিক বলেন, জলাবদ্ধতার কারণে বিভিন্ন পানি বাহিত রোগে আক্রান্ত হচ্ছে মানুষ। দেখা দিয়েছে ডেঙ্গু মশার উপদ্রুপ। একদিকে মহামারি করোনা অপর দিকে ডেঙ্গু ও পানি বাহিত রোগে দিশেহারা হয়ে পড়েছে মানুষ। অনেকই অর্থের অভাবে চিকিৎসা পর্যন্ত করতে পারছেনা। পানি বন্দি থেকে মানুষকে মুক্ত না করলে পরিস্থিতি অনেক ভয়াবহ আকার ধারণ করবে বলে মনে করছেন তিনি।