নারায়ণগঞ্জ ১০:৪৪ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ২৭ নভেম্বর ২০২২, ১৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

ডিএনডি প্রজেক্ট অর্থ সংকটে উন্নয়ন প্রকল্প

  • প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ১০:২৪:২২ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ৮ জুন ২০২১
  • ১৪৮ বার পড়া হয়েছে

সিদ্ধিরগঞ্জ প্রতিনিধিঃ ডিএনডি প্রজেক্ট অর্থ সংকটে উন্নয়ন প্রকল্প। সেনাবাহিনীর ১৯ ইসিবি ডিএনডি প্রজেক্ট ক্যাম্পের ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ-ডেমরা এলাকার নিষ্কাশন উন্নয়ন প্রকল্পের প্রায় ৯৪ কিলোমিটার কাজের বর্তমান ভৌত অগ্রগতি ৫০.৬৫% হয়েছে।কিন্তু আর্থিক অগ্রগতি মাত্র ৪১.৫৫% আরোও ১০% কাজের বিল ১১৮কোটি ২৯ লক্ষ টাকা পরিশোধ করা সম্ভবপর হচ্ছে না । কেননা করোনা কালীন মহামারীর কারণে অত্র প্রকল্পের বিভিন্ন কাজে নিয়োজিত ঠিকাদারগণের পক্ষে বিল প্রাপ্তি ব্যতিরেকে আর আর্থিক বিনিয়োগ করা সম্ভবপর না হওয়ায় অধিকাংশ চলমান কাজ স্থবির হয়ে পড়েছে।যার কারণে আসন্ন বর্ষা মৌসুমে অত্র এলাকার জলাবদ্ধতা নিরসনে ভয়াবহ অর্থ সংকট হবে।প্রয়োজনীয় অর্থ প্রাপ্তি ব্যতিরেকে অত্র দপ্তরের পক্ষে তা মোকাবেলা করা অসম্ভব হয়ে পড়বে। এছাড়া প্রকল্পের অর্থ বরাদ্ধ না পাওয়ায় প্রকল্পের বিদ্যমান উপযোগসমূহ স্থানান্তর করা সম্ভব হচ্ছে না। এর ধারাবাহিকতায় প্রকল্পের খাল পুনঃ খননসহ আরসিসি ব্রীজ,কালভার্ট ও ক্রস ড্রেন এর নিমার্ণ কাজ ব্যহত হচ্ছে।এমতবস্থায় বর্তমান বর্ষা মৌসুমে দূভোর্গ মোকাবেলার লক্ষ্যে কমপক্ষে ১২৫কোটি টাকা অর্থ হলে ডিএনডি প্রকল্পের কাজ অব্যাহত থাকবে।আরো জানা যায়, এ অর্থ বছরে সাড়ে ৩ শত কোটি টাকা প্রযোজন তা থেকে এ প্রকল্পের জন্য ৬০ কোটি টাকা পেয়েছি। যদি অন্যান্য প্রকল্প থেকে কিছু অর্থ বরাদ্ধ আমাদেরকে দেয় তাহলে এ প্রকল্পের কাজ আরো দ্রæত গতিতে সম্পূর্ন করতে সক্ষম করতে পারবে। এ প্রকল্পের কাজ করতে গিয়ে এখনও স্কুল , কলেজ , মাদ্রাসা,মসজিদ ও মন্দির ,পেট্্েরাল পাম্প, আওয়ামীলীগ অফিস এবং পুলিশ পাড়িসহ ৩৮ টি স্থাপনা উচ্ছেদ করতে সম্ভবপর হচ্ছে না।এ প্রকল্পের আওতাধীন্ প্রায় ২হাজার ৩শত ৩৬ কোটি ৪৯ লক্ষ ৪৫ হাজার ১ শত আশি টাকা অবৈধ সম্পদ উদ্ধার করা হয়েছে।এ প্রকল্পের আওতাধীন ৩৪ টি খাল খনন এর কাজ হাতে নেওয়া হয়েছে । বাকী কিছু খাল নারায়ণগঞ্জ সিটি করোপরেশনের ও পানি উন্নয়নের বোর্ড আওতাধীন রয়েছে।ডি এনডি প্রকল্পের ৪৪ কিলোমিটার রাস্তা ওয়ার্ক ওয়ে এর জন্য করা হবে।এমতবস্থায় প্রকল্পের কাজ গৃহীত কর্মপরিকল্পনা অনুযায়ী সুষ্ঠ, সন্দরভাবে এবং দ্রæতগতিতে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার লক্ষে চলিত ২০২০-২০২১ অর্থবছরের অবশিষ্ট ২৯০৬১.৬০লক্ষ টাকা প্রয়োজন।

ট্যাগস :

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

জনপ্রিয় সংবাদ

ডিএনডি প্রজেক্ট অর্থ সংকটে উন্নয়ন প্রকল্প

আপডেট সময় : ১০:২৪:২২ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ৮ জুন ২০২১

সিদ্ধিরগঞ্জ প্রতিনিধিঃ ডিএনডি প্রজেক্ট অর্থ সংকটে উন্নয়ন প্রকল্প। সেনাবাহিনীর ১৯ ইসিবি ডিএনডি প্রজেক্ট ক্যাম্পের ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ-ডেমরা এলাকার নিষ্কাশন উন্নয়ন প্রকল্পের প্রায় ৯৪ কিলোমিটার কাজের বর্তমান ভৌত অগ্রগতি ৫০.৬৫% হয়েছে।কিন্তু আর্থিক অগ্রগতি মাত্র ৪১.৫৫% আরোও ১০% কাজের বিল ১১৮কোটি ২৯ লক্ষ টাকা পরিশোধ করা সম্ভবপর হচ্ছে না । কেননা করোনা কালীন মহামারীর কারণে অত্র প্রকল্পের বিভিন্ন কাজে নিয়োজিত ঠিকাদারগণের পক্ষে বিল প্রাপ্তি ব্যতিরেকে আর আর্থিক বিনিয়োগ করা সম্ভবপর না হওয়ায় অধিকাংশ চলমান কাজ স্থবির হয়ে পড়েছে।যার কারণে আসন্ন বর্ষা মৌসুমে অত্র এলাকার জলাবদ্ধতা নিরসনে ভয়াবহ অর্থ সংকট হবে।প্রয়োজনীয় অর্থ প্রাপ্তি ব্যতিরেকে অত্র দপ্তরের পক্ষে তা মোকাবেলা করা অসম্ভব হয়ে পড়বে। এছাড়া প্রকল্পের অর্থ বরাদ্ধ না পাওয়ায় প্রকল্পের বিদ্যমান উপযোগসমূহ স্থানান্তর করা সম্ভব হচ্ছে না। এর ধারাবাহিকতায় প্রকল্পের খাল পুনঃ খননসহ আরসিসি ব্রীজ,কালভার্ট ও ক্রস ড্রেন এর নিমার্ণ কাজ ব্যহত হচ্ছে।এমতবস্থায় বর্তমান বর্ষা মৌসুমে দূভোর্গ মোকাবেলার লক্ষ্যে কমপক্ষে ১২৫কোটি টাকা অর্থ হলে ডিএনডি প্রকল্পের কাজ অব্যাহত থাকবে।আরো জানা যায়, এ অর্থ বছরে সাড়ে ৩ শত কোটি টাকা প্রযোজন তা থেকে এ প্রকল্পের জন্য ৬০ কোটি টাকা পেয়েছি। যদি অন্যান্য প্রকল্প থেকে কিছু অর্থ বরাদ্ধ আমাদেরকে দেয় তাহলে এ প্রকল্পের কাজ আরো দ্রæত গতিতে সম্পূর্ন করতে সক্ষম করতে পারবে। এ প্রকল্পের কাজ করতে গিয়ে এখনও স্কুল , কলেজ , মাদ্রাসা,মসজিদ ও মন্দির ,পেট্্েরাল পাম্প, আওয়ামীলীগ অফিস এবং পুলিশ পাড়িসহ ৩৮ টি স্থাপনা উচ্ছেদ করতে সম্ভবপর হচ্ছে না।এ প্রকল্পের আওতাধীন্ প্রায় ২হাজার ৩শত ৩৬ কোটি ৪৯ লক্ষ ৪৫ হাজার ১ শত আশি টাকা অবৈধ সম্পদ উদ্ধার করা হয়েছে।এ প্রকল্পের আওতাধীন ৩৪ টি খাল খনন এর কাজ হাতে নেওয়া হয়েছে । বাকী কিছু খাল নারায়ণগঞ্জ সিটি করোপরেশনের ও পানি উন্নয়নের বোর্ড আওতাধীন রয়েছে।ডি এনডি প্রকল্পের ৪৪ কিলোমিটার রাস্তা ওয়ার্ক ওয়ে এর জন্য করা হবে।এমতবস্থায় প্রকল্পের কাজ গৃহীত কর্মপরিকল্পনা অনুযায়ী সুষ্ঠ, সন্দরভাবে এবং দ্রæতগতিতে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার লক্ষে চলিত ২০২০-২০২১ অর্থবছরের অবশিষ্ট ২৯০৬১.৬০লক্ষ টাকা প্রয়োজন।