নারায়ণগঞ্জ ০৬:২২ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১১ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
রিয়াদে Dxnএর আয়োজনে আন্তজার্তিক মাতৃভাষা দিবস পালন ও সেমিনার অনুষ্ঠিত ইসদাইরে অবৈধ ক্যাবল অপারেটর ব্যবসার বিরুদ্ধে অভিযান,অফিস সীলগালা চাষাড়ায় মাতৃভাষা দিবসে বইমেলার উদ্বোধন নারায়ণগঞ্জে কারাগারে সাংবাদিক হত্যাকারির আত্নহত্যা চৌধুরীগাঁও উচ্চ বিদ্যালয়ে ভাষা শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন অস্ত্র মামলায় মিশনপাড়ার নাজমুলকে ১০ বছরের কারাদণ্ড বন্দরে এক রোহিঙ্গা যুবককে ৪হাজার ইয়াবাসহ গ্রেপ্তার উপজেলা নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে জামানত ১ লাখ টাকা ফতুল্লার ক্লু-লেস হত্যার রহস্য উদঘাটনসহ প্রধান আসামিকে গ্রেফতার র‌্যাব-১১ বানিজ্য মেলায় দর্শনার্থীদের সেবা দিতে ডিকেএমসি হাসপাতালের অধ্যাপক ডাক্তার এম এ কাশেম

নগরবাসী ট্যাক্স দিয়ে নাগরিক সুবিধা থেকে বঞ্চিত হয়,এটা সহ্য করা যায় না : খোকন সাহা

  • প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ১২:৩১:৪৬ অপরাহ্ন, রবিবার, ২১ মার্চ ২০২১
  • ৮৫ বার পড়া হয়েছে

সিদ্বিরগঞ্জ প্রতিনিধি :  নারায়ণগঞ্জ মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট খোকন সাহা বলেছেন, আমাদের চাওয়া পাওয়ার কিছু নাই। আমরা চাই সুন্দর নগরী। কিন্তু আসার পথে দেখলাম গন্ধযুক্ত সড়ক বিশ্রী অবস্থা। নগরবাসী ট্যাক্স দিয়ে নাগরিক সুবিধা থেকে বঞ্চিত হয়। এটা সঠিক নয়। নগরবাসী ট্যাক্স নাগরিক সুবিধা থেকে বঞ্চিত হবে এটা সহ্য করা যায় না,সহ্য হয় না।

জাতির পিতার জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষ্যে মহানগর স্বেচ্ছাসেবক লীগের উদ্যোগে আয়োজিত আলোচনা সভা, দোয়া ও কেক কাটা অনুষ্ঠানে প্রধান আলোচক হিসেবে বক্তব্য রাখতে গিয়ে তিনি এসব কথা বলেন।

নারায়ণগঞ্জ মহানগর স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি মো. জুয়েল হোসেনের সভাপতিত্বে ২০ মার্চ শনিবার সন্ধ্যায় সিদ্দিরগঞ্জ গোদনাইল এলাকায় এই কর্মসূচির আয়োজন করা হয়।

অ্যাডভোকেট খোকন সাহা বলেন, গতকাল তাঁতী লীগের অনুষ্ঠান হওয়ার কথা ছিল শহীদ মিনারে। তিনি অনুমতি দিলেন না। তিনি অনুমতি দিলেন গণসংহতি নামে একটি সংগঠনকে। যারা জাতির জনককে বঙ্গবন্ধুর সরকারকে গালিগালাজ করছিল। তাঁতী লীগের কর্মীরা আমার অফিসে এসে বলেছিলেন মেয়র আমাদের পারমিশন দেয় না। বঙ্গবন্ধুর জন্মবার্ষিকী পালন করতে দিলেন না। ফুটপাতে দাঁড়িয়ে আমরা বঙ্গবন্ধুর কেক কেটেছি।
তিনি আরও বলেন, কি আজব নারায়ণগঞ্জে আমরা বসবাস করি। জীবনের মধ্যগগনে এ আমাদের দেখতে হচ্ছে। মাঝে মাঝে রক্ত টগবগ করে উঠে। অনেক কষ্ট করে সংবরণ করি। নিজের দলের লোক বলে দাবী করি। মাঝে মাঝে পত্রিকায় লেখে আমরা সংগঠন বিরোধী কাজ করি। কার টাকায় লিখেন? ওইযে বঙ্গবন্ধু রোডের একটি কার্যালয়ের টাকা।

খোকন সাহা বলেন, মেয়র এমপি হওয়ার ইচ্ছা নাই। আমি জনগণের কাছে মাফ চাই আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের কাছে মাফ চাই। আত্মসমালোচনা করেন। এটা দলবিরোধী না। আজকে ঢাকায় বক্তব্য রাখছেন। কালকে পত্রিকায় দেখবেন কি বলছে। আজকে যে বক্তব্য তিনি ঢাকায় রাখছে এটার জবাব আমি আর বাদল আগামীকাল থেকে দিবো। দাঁতভাঙ্গা জবাব দিবো। এই প্রজন্মকে বলতে চাই বঙ্গবন্ধু ইন্ধারা গান্ধীকে নিয়ে বার একাডেমীর মাঠে নামলেম। আমরা তখন বার একাডেমীর ছাত্র। সামসুজ্জোহা বঙ্গবন্ধুকে রিসিভ করলেন। নাগিনা জোহা আসলেন। তাদের সাথে একজন শিশুকে দেখার সৌভাগ্য হয়েছিল মনে হয় সে শিশু শামীম ওসমান ছিলেন। আমি শামীম ওসমানকে জিজ্ঞাসা করলাম তিনি বললেন সম্ভবত আমি। সে সময় অনেককেই দেখলাম দূরে দাঁড়িয়েছে। তারা কাছে আসলেন না।

ট্যাগস :

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

জনপ্রিয় সংবাদ

রিয়াদে Dxnএর আয়োজনে আন্তজার্তিক মাতৃভাষা দিবস পালন ও সেমিনার অনুষ্ঠিত

নগরবাসী ট্যাক্স দিয়ে নাগরিক সুবিধা থেকে বঞ্চিত হয়,এটা সহ্য করা যায় না : খোকন সাহা

আপডেট সময় : ১২:৩১:৪৬ অপরাহ্ন, রবিবার, ২১ মার্চ ২০২১

সিদ্বিরগঞ্জ প্রতিনিধি :  নারায়ণগঞ্জ মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট খোকন সাহা বলেছেন, আমাদের চাওয়া পাওয়ার কিছু নাই। আমরা চাই সুন্দর নগরী। কিন্তু আসার পথে দেখলাম গন্ধযুক্ত সড়ক বিশ্রী অবস্থা। নগরবাসী ট্যাক্স দিয়ে নাগরিক সুবিধা থেকে বঞ্চিত হয়। এটা সঠিক নয়। নগরবাসী ট্যাক্স নাগরিক সুবিধা থেকে বঞ্চিত হবে এটা সহ্য করা যায় না,সহ্য হয় না।

জাতির পিতার জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষ্যে মহানগর স্বেচ্ছাসেবক লীগের উদ্যোগে আয়োজিত আলোচনা সভা, দোয়া ও কেক কাটা অনুষ্ঠানে প্রধান আলোচক হিসেবে বক্তব্য রাখতে গিয়ে তিনি এসব কথা বলেন।

নারায়ণগঞ্জ মহানগর স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি মো. জুয়েল হোসেনের সভাপতিত্বে ২০ মার্চ শনিবার সন্ধ্যায় সিদ্দিরগঞ্জ গোদনাইল এলাকায় এই কর্মসূচির আয়োজন করা হয়।

অ্যাডভোকেট খোকন সাহা বলেন, গতকাল তাঁতী লীগের অনুষ্ঠান হওয়ার কথা ছিল শহীদ মিনারে। তিনি অনুমতি দিলেন না। তিনি অনুমতি দিলেন গণসংহতি নামে একটি সংগঠনকে। যারা জাতির জনককে বঙ্গবন্ধুর সরকারকে গালিগালাজ করছিল। তাঁতী লীগের কর্মীরা আমার অফিসে এসে বলেছিলেন মেয়র আমাদের পারমিশন দেয় না। বঙ্গবন্ধুর জন্মবার্ষিকী পালন করতে দিলেন না। ফুটপাতে দাঁড়িয়ে আমরা বঙ্গবন্ধুর কেক কেটেছি।
তিনি আরও বলেন, কি আজব নারায়ণগঞ্জে আমরা বসবাস করি। জীবনের মধ্যগগনে এ আমাদের দেখতে হচ্ছে। মাঝে মাঝে রক্ত টগবগ করে উঠে। অনেক কষ্ট করে সংবরণ করি। নিজের দলের লোক বলে দাবী করি। মাঝে মাঝে পত্রিকায় লেখে আমরা সংগঠন বিরোধী কাজ করি। কার টাকায় লিখেন? ওইযে বঙ্গবন্ধু রোডের একটি কার্যালয়ের টাকা।

খোকন সাহা বলেন, মেয়র এমপি হওয়ার ইচ্ছা নাই। আমি জনগণের কাছে মাফ চাই আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের কাছে মাফ চাই। আত্মসমালোচনা করেন। এটা দলবিরোধী না। আজকে ঢাকায় বক্তব্য রাখছেন। কালকে পত্রিকায় দেখবেন কি বলছে। আজকে যে বক্তব্য তিনি ঢাকায় রাখছে এটার জবাব আমি আর বাদল আগামীকাল থেকে দিবো। দাঁতভাঙ্গা জবাব দিবো। এই প্রজন্মকে বলতে চাই বঙ্গবন্ধু ইন্ধারা গান্ধীকে নিয়ে বার একাডেমীর মাঠে নামলেম। আমরা তখন বার একাডেমীর ছাত্র। সামসুজ্জোহা বঙ্গবন্ধুকে রিসিভ করলেন। নাগিনা জোহা আসলেন। তাদের সাথে একজন শিশুকে দেখার সৌভাগ্য হয়েছিল মনে হয় সে শিশু শামীম ওসমান ছিলেন। আমি শামীম ওসমানকে জিজ্ঞাসা করলাম তিনি বললেন সম্ভবত আমি। সে সময় অনেককেই দেখলাম দূরে দাঁড়িয়েছে। তারা কাছে আসলেন না।