নারায়ণগঞ্জ ০৮:২৭ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ০২ ডিসেম্বর ২০২২, ১৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
পোশাক রপ্তানিতে ভিয়েতনামকে ছাড়াল বাংলাদেশ ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ ট্রেন চলাচল বন্ধ ৪ ডিসেম্বর থেকে হিন্দি সিনেমায় জয়া আহসান, নায়ক পঙ্কজ ত্রিপাঠি গ্রুপ সেরা আর্জেন্টিনা, শেষ ষোলয় প্রতিপক্ষ অস্ট্রেলিয়া সিদ্ধিরগঞ্জে জয়নাল বাহিনীর ৪ জনের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ দায়ের সিদ্ধিরগঞ্জের সানারপাড় স্কুলে অনৈতিক আর্থিক সুবিধায় ক্ষমতার চেয়ারে শিক্ষিকা দিলরুবা রূপগঞ্জে ভুল চিকিৎসায় ৭ বছরের মাদ্রাসা পরুয়া শিশুর মৃত্যু ফতুল্লা ওসি’র কন্যা রাইসা জিপিএ ফাইভ পেয়েছেন সোনারগাঁয়ে টেক্সটাইল মিলে ও মিষ্টি কারখানায় ভয়াবহ অগ্নিকান্ড ফতুল্লায় অপহরনকারী চক্রের নারী সদস্যসহ গ্রেপ্তার ৫, অপহৃত উদ্ধার

সিদ্ধিরগঞ্জে কাউন্সিলার হাসানের ভাইয়ের হাতে মারধরের শিকার মসজিদের মুয়াজ্জিন

  • প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৫:৫৭:০৬ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১১ মার্চ ২০২১
  • ৫৪ বার পড়া হয়েছে

সিদ্বিরগঞ্জ প্রতিনিধি :   নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের এক কাউন্সিলরের ভাইয়ের হাতে মসজিদের মোয়াজ্জিনকে মারধরের ঘটনা ঘটেছে।

গত বুধবার রাতে সিদ্ধিরগঞ্জে শিমরাইল এলাকায় ঘটনাটি ঘটে। নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের ৪নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর আরিফুল হক হাসান এর ছোট ভাই আতিকুল হক হাসিব স্থানীয় এক মসজিদের মুয়াজ্জিন কে মারধর করে।

এলাকাবাসী ও প্রত্যক্ষদর্শীদের কাছ থেকে জানা যায়, এক সময়ের কেন্দ্রীয় শ্রমিক লীগের সভাপতি আব্দুল মতিন মাস্টারকে ‘সাহেব’ না বলায় তার ছেলে হাসিব মসজিদের মুয়াজ্জিন কে বেধড়ক মারধর করে।

এ ঘটনায় এলাকায় সৃষ্টি হয়েছে ব্যাপক উত্তেজনা, সমালোচনা ।

বুধবার (১০ মার্চ) রাত ৭ টার দিকে শিমরাইল উত্তর পাড়া জামে মসজিদের সামনে এঘটনা ঘটে।

মারধরের বিষয়ে জানতে চাইলে গণমাধ্যম কর্মীদের সাথেও অসদাচরণ করেন আব্দুল মতিন মাষ্টার।

জানা গেছে, দীর্ঘদিন ধরে শিমরাইল উত্তরপাড়া জামে মসজিদে মুয়াজ্জিন হিসেবে দায়িত্বপালন করে আসছেন দিন ইসলাম। তার বাড়ি নেত্রকোনা জেলায়। সাবেক কেন্দ্রীয় শ্রমিকলীগ সভাপতি আব্দুল মতিন মাষ্টারের ছেলে আতিকুল হক হাসিব সাঙ্গপাঙ্গ নিয়ে ৭ টার দিকে মসজিদের সামনে গিয়ে মুয়াজ্জিন দিন ইসলামকে বেধরক মারধর করেন। ঘটনার পর বিষয়টি ধামাচাপা দিতে মসজিদ কমিটির লোকজনকে নিয়ে রাতেই বৈঠকে বসেন মতিন মাষ্টার।

বাবা প্রভাবশালী ও ভাই ওয়ার্ড কাউন্সিলর হওয়ায় ভোক্তভূগী মুয়াজ্জিন এ বিষয়ে থানায় অভিযোগ করতে ভয় পাচ্ছেন বলে জানান।

মসজিদ কমিটির সাধারণ সম্পাদক মো: মনিরুল ইসলাম বলেন, আমি ঘটনার সময় এলাকায় ছিলাম না। মুয়াজ্জিন মোবাইল ফোনে আমাকে জানায় আব্দুল মতিন মাষ্টারকে ‘সাহেব’ না বলায় তার ছেলে মারধর করেছে। প্রকাশ্যে রাস্তায় একজন মুয়াজ্জিনকে এভাবে মারধর করা কোন ভাল মানুষের কাজ নয়। সাবেহ না বলার কারণেই মারধর করা হয়েছে বলে জানতে পারি।

মারধরের কারণ জানতে আতিকুল হক হাসিবের সাথে যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি।

মারধরের শিকার ভুক্তভোগী মসজিদের মোয়াজ্জিন দিন ইসলাম নারায়ণগঞ্জ কে কান্নারত অবস্থায় বলেন, সব চাইতে বড় বিচারক তো আল্লাহ । তিনিই ভালো জানেন । আমি কারো কাছে অভিযোগ দেবো না । তবে কাউন্সিলরের বাবা তার ছেলেকে ধমক দিয়ে বিচার করে দিয়েছেন এশার নামাজের আগেই । এ বিষয়ে আর কিছু বলার নাই । যা হবার তো হয়েছেই । বাদ দেন এই বিষয়টি ।

তবে তার বাবা আব্দুল মতিন মাষ্টারের কাছে জানতে চাইলে তিনি প্রথমে গণমাধ্যমকর্মীদের সাথে অসধাচরণ করেন। পরে মুয়াজ্জিনের আচারআচরণ নিয়ে নানা অভিযোগ করে স্বীকার করেন তাঁকে সামাজিক ভাবে হেয়প্রতিপন্নমূলক কথা বলায় তার ছেলে কয়েকটি চড়থাপ্পড় দিয়েছে।

উল্লেখ্য নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের ৪নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর আরিফুল হক হাসান সাত খুনের ঘটনায় মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত আসামি নূর হোসেনের ক্যাশিয়ার ছিলেন

ট্যাগস :

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

পোশাক রপ্তানিতে ভিয়েতনামকে ছাড়াল বাংলাদেশ

সিদ্ধিরগঞ্জে কাউন্সিলার হাসানের ভাইয়ের হাতে মারধরের শিকার মসজিদের মুয়াজ্জিন

আপডেট সময় : ০৫:৫৭:০৬ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১১ মার্চ ২০২১

সিদ্বিরগঞ্জ প্রতিনিধি :   নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের এক কাউন্সিলরের ভাইয়ের হাতে মসজিদের মোয়াজ্জিনকে মারধরের ঘটনা ঘটেছে।

গত বুধবার রাতে সিদ্ধিরগঞ্জে শিমরাইল এলাকায় ঘটনাটি ঘটে। নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের ৪নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর আরিফুল হক হাসান এর ছোট ভাই আতিকুল হক হাসিব স্থানীয় এক মসজিদের মুয়াজ্জিন কে মারধর করে।

এলাকাবাসী ও প্রত্যক্ষদর্শীদের কাছ থেকে জানা যায়, এক সময়ের কেন্দ্রীয় শ্রমিক লীগের সভাপতি আব্দুল মতিন মাস্টারকে ‘সাহেব’ না বলায় তার ছেলে হাসিব মসজিদের মুয়াজ্জিন কে বেধড়ক মারধর করে।

এ ঘটনায় এলাকায় সৃষ্টি হয়েছে ব্যাপক উত্তেজনা, সমালোচনা ।

বুধবার (১০ মার্চ) রাত ৭ টার দিকে শিমরাইল উত্তর পাড়া জামে মসজিদের সামনে এঘটনা ঘটে।

মারধরের বিষয়ে জানতে চাইলে গণমাধ্যম কর্মীদের সাথেও অসদাচরণ করেন আব্দুল মতিন মাষ্টার।

জানা গেছে, দীর্ঘদিন ধরে শিমরাইল উত্তরপাড়া জামে মসজিদে মুয়াজ্জিন হিসেবে দায়িত্বপালন করে আসছেন দিন ইসলাম। তার বাড়ি নেত্রকোনা জেলায়। সাবেক কেন্দ্রীয় শ্রমিকলীগ সভাপতি আব্দুল মতিন মাষ্টারের ছেলে আতিকুল হক হাসিব সাঙ্গপাঙ্গ নিয়ে ৭ টার দিকে মসজিদের সামনে গিয়ে মুয়াজ্জিন দিন ইসলামকে বেধরক মারধর করেন। ঘটনার পর বিষয়টি ধামাচাপা দিতে মসজিদ কমিটির লোকজনকে নিয়ে রাতেই বৈঠকে বসেন মতিন মাষ্টার।

বাবা প্রভাবশালী ও ভাই ওয়ার্ড কাউন্সিলর হওয়ায় ভোক্তভূগী মুয়াজ্জিন এ বিষয়ে থানায় অভিযোগ করতে ভয় পাচ্ছেন বলে জানান।

মসজিদ কমিটির সাধারণ সম্পাদক মো: মনিরুল ইসলাম বলেন, আমি ঘটনার সময় এলাকায় ছিলাম না। মুয়াজ্জিন মোবাইল ফোনে আমাকে জানায় আব্দুল মতিন মাষ্টারকে ‘সাহেব’ না বলায় তার ছেলে মারধর করেছে। প্রকাশ্যে রাস্তায় একজন মুয়াজ্জিনকে এভাবে মারধর করা কোন ভাল মানুষের কাজ নয়। সাবেহ না বলার কারণেই মারধর করা হয়েছে বলে জানতে পারি।

মারধরের কারণ জানতে আতিকুল হক হাসিবের সাথে যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি।

মারধরের শিকার ভুক্তভোগী মসজিদের মোয়াজ্জিন দিন ইসলাম নারায়ণগঞ্জ কে কান্নারত অবস্থায় বলেন, সব চাইতে বড় বিচারক তো আল্লাহ । তিনিই ভালো জানেন । আমি কারো কাছে অভিযোগ দেবো না । তবে কাউন্সিলরের বাবা তার ছেলেকে ধমক দিয়ে বিচার করে দিয়েছেন এশার নামাজের আগেই । এ বিষয়ে আর কিছু বলার নাই । যা হবার তো হয়েছেই । বাদ দেন এই বিষয়টি ।

তবে তার বাবা আব্দুল মতিন মাষ্টারের কাছে জানতে চাইলে তিনি প্রথমে গণমাধ্যমকর্মীদের সাথে অসধাচরণ করেন। পরে মুয়াজ্জিনের আচারআচরণ নিয়ে নানা অভিযোগ করে স্বীকার করেন তাঁকে সামাজিক ভাবে হেয়প্রতিপন্নমূলক কথা বলায় তার ছেলে কয়েকটি চড়থাপ্পড় দিয়েছে।

উল্লেখ্য নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের ৪নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর আরিফুল হক হাসান সাত খুনের ঘটনায় মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত আসামি নূর হোসেনের ক্যাশিয়ার ছিলেন