নারায়ণগঞ্জ ০৬:৩৭ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ০৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ২৬ মাঘ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
অপরাধি যেই হোক ছাড় পাবেনা : ওসি গোলাম মোস্তফা মাইক্রোসফট ইনোভেটিভ এডুকেটর এক্সপার্ট বাংলাদেশ কমিউনিটি মিটআপ ২০২৩ অনুষ্ঠিত আদমজী ইপিজেডকে অশান্ত করছে জনপ্রতিনিধিরা রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের আশঙ্কা সিদ্ধিরগঞ্জ রিপোর্টার্স ক্লাবের কর্মকর্তাদের সাথে মহিলা লীগ নেত্রীর শুভেচ্ছা বিনিময় না’গঞ্জ কারাগারে হাজতীর মৃত্যু ফতুল্লায় চোরাইকৃত ট্যাংকলড়ী উদ্ধার আড়াইহাজারের মিথিলা টেক্সটাইল ঘুরে গেলেন ৮ দেশের রাষ্ট্রদূতসহ ১৮ দেশের প্রতিনিধি সিদ্ধিরগঞ্জ রিপোর্টার্স ক্লাবের কর্মকর্তাদের সাথে কাউন্সিলর ইকবাল হোসেনের মতবিনিময় ফতুল্লা ব্লাড ডোনার্সের উদ্যোগে শীতার্তদের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ শিক্ষা সিলেবাস বাতিলের দাবিতে খেলাফত মজলিসের বিক্ষোভ মিছিল

বন্দরে আগুনে পুড়ে ৩ দিনমজুরের বসতঘর ছাই

  • প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৫:৫৮:২৬ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৬ নভেম্বর ২০২২
  • ৫০ বার পড়া হয়েছে

নিজস্ব প্রতিবেদক : বন্দরে নিরিহ ৩ দিন মজুরের বসতবাড়িতে অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটেছে। এতে ওই ৩টি পরিবারের প্রায় সব কিছু পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। শুক্রবার (২৫ নভেম্বর) রাত সাড়ে ১১টার দিকে কলাগাছিয়া ইউনিয়নের ঘারমোরা কোনাপাড়া এলাকায় ৩টি বসতঘরে এ অগ্নিকান্ডের ঘটনাটি ঘটে।

এ অগ্নিকান্ডের ঘটনায় দিনমজুর সুজন, পিয়ার হোসেন ও পির মোহাম্মদ পাগলের ৩টি বসত ঘর পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। ঘরের ভিতরে থাকা টিভি, ফ্রিজ, আলমারীসহ আরো গুরুত্বপূর্ণ জিনিসপত্র পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। শুধু ঘরের সিমেন্টের খামগুলো ঠায় দাড়িয়ে আছে।

জানাগছে,কলাগাছিয়া ইউনিয়নের ঘারমোরা কোনাপাড়া এলাকায় গত শুক্রবার দিবাগত রাত সাড়ে ১১টার দিকে হঠাৎ করেই দুচালা ৩টি বসতঘরে আগুন লেগে পুড়ে ছাই হয়ে যায়। আগুনের ফুলকি দেখতে পেয়ে দ্রুত স্থানীয় এলাকাবাসী বালুর বস্তা ও বাল্টি দিয়ে আগুন নিভানোর চেষ্টা করে।

পরে জরুরী সেবা ৯৯৯ এ ফোন করলে বন্দর ফায়ার সার্ভিসের দুটি ইউনিট এসে ৪৫ মিনিট আপ্রান প্রচেষ্ঠায় আগুন নিয়ন্ত্রনে আসে। খবর পেয়ে কলাগাছিয়া ইউনিয়ন আ’লীগ নেতা হাজী আহমেদ তুষার মাঈনউদ্দিন ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারকে সমবেদনা জানা ও আর্থিক সহায়তা প্রদান করেন।

এদিকে এলাকাবাসী বলছেন গত শুক্রবার (২৫নভেম্বর) বিকেলে রান্না করার পর আর চুলা আর জ্বলেনি। এছাড়া বিদ্যুৎ থেকেও আগুন লাগেনি। কিভাবে আগুন লাগলো তা কেউ বলতে পারছেনা। দুচালা ৩টি টিনের বসত ঘরে থাকা স্বনার্লংকারসহ প্রায় সব আসবাবপত্রসহ রান্না ঘর পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। ৩টি পরিবারের ১১জন সদস্যরা একবারে নিস্ব হয়ে গেল।

বন্দর ফায়ার সার্ভিস কতর্ৃপক্ষ জানান, প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে হয়তো রান্না ঘর থেকে আগুনের সূত্রপাত হতে পারে। ওই ৩টি বসতঘরের প্রায় সব কিছুই পুড়ে গেছে। ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ তাৎক্ষণিক বলতে পারছিনা।

ট্যাগস :

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

অপরাধি যেই হোক ছাড় পাবেনা : ওসি গোলাম মোস্তফা

বন্দরে আগুনে পুড়ে ৩ দিনমজুরের বসতঘর ছাই

আপডেট সময় : ০৫:৫৮:২৬ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৬ নভেম্বর ২০২২

নিজস্ব প্রতিবেদক : বন্দরে নিরিহ ৩ দিন মজুরের বসতবাড়িতে অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটেছে। এতে ওই ৩টি পরিবারের প্রায় সব কিছু পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। শুক্রবার (২৫ নভেম্বর) রাত সাড়ে ১১টার দিকে কলাগাছিয়া ইউনিয়নের ঘারমোরা কোনাপাড়া এলাকায় ৩টি বসতঘরে এ অগ্নিকান্ডের ঘটনাটি ঘটে।

এ অগ্নিকান্ডের ঘটনায় দিনমজুর সুজন, পিয়ার হোসেন ও পির মোহাম্মদ পাগলের ৩টি বসত ঘর পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। ঘরের ভিতরে থাকা টিভি, ফ্রিজ, আলমারীসহ আরো গুরুত্বপূর্ণ জিনিসপত্র পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। শুধু ঘরের সিমেন্টের খামগুলো ঠায় দাড়িয়ে আছে।

জানাগছে,কলাগাছিয়া ইউনিয়নের ঘারমোরা কোনাপাড়া এলাকায় গত শুক্রবার দিবাগত রাত সাড়ে ১১টার দিকে হঠাৎ করেই দুচালা ৩টি বসতঘরে আগুন লেগে পুড়ে ছাই হয়ে যায়। আগুনের ফুলকি দেখতে পেয়ে দ্রুত স্থানীয় এলাকাবাসী বালুর বস্তা ও বাল্টি দিয়ে আগুন নিভানোর চেষ্টা করে।

পরে জরুরী সেবা ৯৯৯ এ ফোন করলে বন্দর ফায়ার সার্ভিসের দুটি ইউনিট এসে ৪৫ মিনিট আপ্রান প্রচেষ্ঠায় আগুন নিয়ন্ত্রনে আসে। খবর পেয়ে কলাগাছিয়া ইউনিয়ন আ’লীগ নেতা হাজী আহমেদ তুষার মাঈনউদ্দিন ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারকে সমবেদনা জানা ও আর্থিক সহায়তা প্রদান করেন।

এদিকে এলাকাবাসী বলছেন গত শুক্রবার (২৫নভেম্বর) বিকেলে রান্না করার পর আর চুলা আর জ্বলেনি। এছাড়া বিদ্যুৎ থেকেও আগুন লাগেনি। কিভাবে আগুন লাগলো তা কেউ বলতে পারছেনা। দুচালা ৩টি টিনের বসত ঘরে থাকা স্বনার্লংকারসহ প্রায় সব আসবাবপত্রসহ রান্না ঘর পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। ৩টি পরিবারের ১১জন সদস্যরা একবারে নিস্ব হয়ে গেল।

বন্দর ফায়ার সার্ভিস কতর্ৃপক্ষ জানান, প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে হয়তো রান্না ঘর থেকে আগুনের সূত্রপাত হতে পারে। ওই ৩টি বসতঘরের প্রায় সব কিছুই পুড়ে গেছে। ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ তাৎক্ষণিক বলতে পারছিনা।