নারায়ণগঞ্জ ০৫:২৯ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৭ নভেম্বর ২০২২, ১৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

বন্দর অবৈধ গ্যাসলাইন সংযোগ দিয়ে হাতিয়ে নিল সোহেল গং ৫ লক্ষ টাকা

  • প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০১:১১:৪২ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৯ অগাস্ট ২০২১
  • ২৪ বার পড়া হয়েছে

বন্দর প্রতিনিধি ঃ নারায়ণগঞ্জে বন্দর উপজেলা মুছাপুর ইউনিয়ন এর ১ নং ওয়ার্ডের দাসেরগাও পাতাকাটা স্ট্যান্ড সংলগ্ন এলাকায় গত ১৬ জুন বন্দর এসিল্যান্ডের নেতৃত্বে উক্ত গ্রামে প্রায় এক হাজার অবৈধ লাইন সংযোগ বিচ্ছিন্ন করা হয়।

পরবর্তীতে গত ৫/৬ দিন আগে বন্দর থানা যুব সংহতির মুছাপুর ইউনিয়ন ১নং ওয়ার্ডের সদস্য সচিব মোঃ সোহেল এর নেতৃত্বে বিশেষ পেশার পরিচয়দানকারী উক্ত এলাকার একজন সহ আমির,সুজন, আলী, রাজিব সহ আরও ৫/৬ জনের একটি সিন্ডিকেট প্রায় ১২০/১৫০টি বাড়ি থেকে লাইন প্রতি ৩ থেকে ৫ হাজার টাকা করে প্রায় ৫ লক্ষ পর্যন্ত টাকা উঠিয়ে পুনরায় কর্তনকৃত গ্যাস লাইনটি রাতের আঁধারে সংযোগ প্রদান করে।

উক্ত এলাকার নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক কয়েকজন জানান, গ্যাস চোর সোহেল সিন্ডিকেট এর সদস্যরা গ্যাস সংযোগের নাম করে এলাকা থেকে গ্রাহকদের কাছ থেকে প্রায় ৫ লক্ষ টাকা উঠিয়ে নেয়, এবং লাইন সংযোগ প্রদানের পরে আবারো গ্রামবাসীকে প্রশাসনকে ম্যানেজ করার নাম করে মোটা অংকের চাঁদা দাবী করছে।
এতে করে গ্যাসের বৈধ গ্যাস ব্যবহারকারীরা ক্ষোভ প্রকাশ করে জানান, অবৈধভাবে গ্যাস সংযোগের কারণে আমাদের ব্যবহৃত গ্যাসের চাপ কম হয়। আমরা প্রশাসনের কাছে এই গ্যাস সিন্ডিকেটের বিচার দাবী করি।

এ বিষয়ে বন্দর এসিল্যান্ড আসমা সুলতানা নাসরিন জানান,আপনার মাধ্যমে বিষয়টি জানলাম এখন তদন্ত স্বাপেক্ষে অপরাধীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া সহ গ্যাস সংযোগটি আবারও কর্তন করা হবে।

বন্দর থানা অফিসার ইনচার্জ দীপক চন্দ্র সাহা জানান, ঘটনার সত্যতা পেলে সোহেল এর বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

বন্দর উপজেলা যুব সংহতির আহবায়ক আশরাফুল ইসলাম রোমান জানান, সোহেলের বিরুদ্ধে এরকম ঘটনার সত্যতা পেলে আমরা তার বিরুদ্ধে যথাযথ ব্যবস্থা নিব প্রয়োজনে তাকে উক্ত পদ থেকে অব্যাহতি দেওয়া হবে।

ট্যাগস :

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

জনপ্রিয় সংবাদ

বন্দর অবৈধ গ্যাসলাইন সংযোগ দিয়ে হাতিয়ে নিল সোহেল গং ৫ লক্ষ টাকা

আপডেট সময় : ০১:১১:৪২ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৯ অগাস্ট ২০২১

বন্দর প্রতিনিধি ঃ নারায়ণগঞ্জে বন্দর উপজেলা মুছাপুর ইউনিয়ন এর ১ নং ওয়ার্ডের দাসেরগাও পাতাকাটা স্ট্যান্ড সংলগ্ন এলাকায় গত ১৬ জুন বন্দর এসিল্যান্ডের নেতৃত্বে উক্ত গ্রামে প্রায় এক হাজার অবৈধ লাইন সংযোগ বিচ্ছিন্ন করা হয়।

পরবর্তীতে গত ৫/৬ দিন আগে বন্দর থানা যুব সংহতির মুছাপুর ইউনিয়ন ১নং ওয়ার্ডের সদস্য সচিব মোঃ সোহেল এর নেতৃত্বে বিশেষ পেশার পরিচয়দানকারী উক্ত এলাকার একজন সহ আমির,সুজন, আলী, রাজিব সহ আরও ৫/৬ জনের একটি সিন্ডিকেট প্রায় ১২০/১৫০টি বাড়ি থেকে লাইন প্রতি ৩ থেকে ৫ হাজার টাকা করে প্রায় ৫ লক্ষ পর্যন্ত টাকা উঠিয়ে পুনরায় কর্তনকৃত গ্যাস লাইনটি রাতের আঁধারে সংযোগ প্রদান করে।

উক্ত এলাকার নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক কয়েকজন জানান, গ্যাস চোর সোহেল সিন্ডিকেট এর সদস্যরা গ্যাস সংযোগের নাম করে এলাকা থেকে গ্রাহকদের কাছ থেকে প্রায় ৫ লক্ষ টাকা উঠিয়ে নেয়, এবং লাইন সংযোগ প্রদানের পরে আবারো গ্রামবাসীকে প্রশাসনকে ম্যানেজ করার নাম করে মোটা অংকের চাঁদা দাবী করছে।
এতে করে গ্যাসের বৈধ গ্যাস ব্যবহারকারীরা ক্ষোভ প্রকাশ করে জানান, অবৈধভাবে গ্যাস সংযোগের কারণে আমাদের ব্যবহৃত গ্যাসের চাপ কম হয়। আমরা প্রশাসনের কাছে এই গ্যাস সিন্ডিকেটের বিচার দাবী করি।

এ বিষয়ে বন্দর এসিল্যান্ড আসমা সুলতানা নাসরিন জানান,আপনার মাধ্যমে বিষয়টি জানলাম এখন তদন্ত স্বাপেক্ষে অপরাধীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া সহ গ্যাস সংযোগটি আবারও কর্তন করা হবে।

বন্দর থানা অফিসার ইনচার্জ দীপক চন্দ্র সাহা জানান, ঘটনার সত্যতা পেলে সোহেল এর বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

বন্দর উপজেলা যুব সংহতির আহবায়ক আশরাফুল ইসলাম রোমান জানান, সোহেলের বিরুদ্ধে এরকম ঘটনার সত্যতা পেলে আমরা তার বিরুদ্ধে যথাযথ ব্যবস্থা নিব প্রয়োজনে তাকে উক্ত পদ থেকে অব্যাহতি দেওয়া হবে।